হিন্দু সমাজে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির অভিযোগ

শাহীন আনাম-অ্যাঞ্জেলা গোমেজের বিরুদ্ধে মামলা, তদন্তে পিবিআই

নিজস্ব প্রতিবেদক

শাহীন আনাম-অ্যাঞ্জেলা গোমেজের বিরুদ্ধে মামলা, তদন্তে পিবিআই

‘মানুষের জন্য ফাউন্ডেশনের’নির্বাহী পরিচালক শাহীন আনাম এবং ‘বাঁচতে শেখার’নির্বাহী পরিচালক এঞ্জেলা গোমেজের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। হিন্দু সম্প্রদায়ের মধ্যে বিভেদ, ঘৃণা ও বিশৃঙ্খলা ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগে তাদের বিরুদ্ধে এই মামলা হয়।

গত মঙ্গলবার নারায়ণগঞ্জ চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে আকাশ ঘোষ নামে এক ব্যক্তি মামলাটি দায়ের করেন। পিবিআইকে তদন্তের দায়িত্ব দিয়ে আগামী ২১ ডিসেম্বরের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিলের জন্য সময় বেঁধে দিয়েছেন আদালত।

বাদিপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট রনজিত চন্দ্র দে নিউজ টোয়েন্টিফোরকে জানান, হিন্দু আইন পরিবর্তনের কথা বলে শাহীন আনাম এবং এঞ্জেলা গোমেজ বিগত কয়েক বছর ধরে দেশের বিভিন্ন এলাকায় সভা-সেমিনার করে আসছেন। এতে সরলমনা হিন্দু সম্প্রদায়ের মধ্যে দ্বন্দ্ব, বিভেদ ও বিশৃঙ্খলা তৈরি হচ্ছে।

একইসঙ্গে হিন্দু সমাজকে বিভ্রান্ত করার মধ্য দিয়ে সরকারের মুখোমুখি অবস্থানে দাঁড় করানোর পাঁয়তারাও করা হচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি। এসব অভিযোগে তাদের বিরুদ্ধে মামলাটি দায়ের করা হয়ে বলে জানান অ্যাডভোকেট রনজিত চন্দ্র দে। 

রও পড়ুন:


জন্মদিনে সৃজিতের কাছে কী চাইলেন মিথিলা?

বায়ু দূষণের তালিকায় বাংলাদেশ প্রথম, ঢাকা তৃতীয়

৪৫ মিনিট পর হাসপাতালে অলৌকিকভাবে বেঁচে উঠলেন নারী!

গাড়ি সাইড দেয়ায় ব্যবসায়ীকে মারধর করলেন এমপি রিমন!


তিনি আরও জানান, সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মাহমুদুল মহসিন অভিযোগটি আমলে নিয়ে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন-পিবিআইকে তদন্তের নির্দেশ দেন। আগামী ২১ ডিসেম্বরের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করতে বলা হয়েছে। 

এর আগে গত শুক্রবার রাজধানীর সূত্রাপুরে শাহীন আনামদের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ করে হিন্দু সম্প্রদায়। তাঁরা শাহীন আনাম, তাঁর স্বামী মাহফুজ আনামসহ এর সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের দ্রুত গ্রেপ্তার করে বিচারের আওতায় আনার দাবিতে অভিযুক্তদের কুশপুত্তলিকা দাহ করেন। এ ছাড়া এ ইস্যুতে বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু মহাজোটের নেতারা দীর্ঘদিন ধরে প্রতিবাদ জানিয়ে সংবাদ সম্মেলন, সভা-সেমিনার করে আসছেন। 

হিন্দু মহাজোটের নেতারা দাবি করেছেন, আইন পরিবর্তনের নামে কৌশলে হিন্দু সম্প্রদায়ের ঘরে ঘরে বিভেদ ও বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির পাঁয়তারা করছে মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন। এনজিওটির নির্বাহী পরিচালক শাহীন আনাম ও তাঁর স্বামী ডেইলি স্টার সম্পাদক মাহফুজ আনাম দীর্ঘদিন ধরে হিন্দু সম্প্রদায়ের ঐক্য ও ঐতিহ্য বিলীন করার অপচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছেন বলে অভিযোগ করেছেন হিন্দু মহাজোটের নেতারা।

এর মাধ্যমে হিন্দুদের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দেওয়ার পাশাপাশি সরকার ও হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের মুখোমুখি অবস্থানে দাঁড় করানোর পাঁয়তারা চলছে বলেও অভিযোগ তাঁদের।

মামলায় অভিযোগ করা হয়েছে, শাহীন আনাম ও এঞ্জেলা গোমেজ পরিকল্পিতভাবে দেশের বিভিন্ন স্থানে সেমিনার ও অনলাইন ওয়েবিনার মাধ্যমে হিন্দু ধর্মীয় বিধিবিধান নিয়ে নানা কল্পিত উস্কানীমূলক বক্তব্য প্রচার করে ঘৃণা ও বিদ্বেষ সৃষ্টি করছেন। উদ্দেশ্যমূলকভাবে বিভেদের বীজ বপন করে বিভিন্ন সম্প্রদায়  ও বিভিন্ন ধর্মাবলম্বীদের উত্তেজিত করে বিশৃঙ্খলার পরিবেশ তৈরি করেছেন।

গত ৪ মার্চ তারা ওয়েবিনারের মাধ্যমে “খসড়া হিন্দু উত্তরাধিকার আইন ২০২০” নামে উদ্দেশ্যমূলক একটি হিন্দু ধর্মীয় উত্তরাধিকার আইন তৈরি করে প্রচার করে। এতে সারা দেশের হিন্দু সম্প্রদায় ক্ষুব্ধ হয়ে উঠে। দেশের বিভিন্ন সংগঠন মানববন্ধন, সংবাদ সম্মেলন, বিক্ষোভ সমাবেশসহ ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন।

অভিযোগে আরও বলা হয়, শাহীন আনাম শুধু সমাজবিরোধী কর্মকাণ্ড করেই ক্ষান্ত নন, তিনি নিজ সংগঠনের রীনা রায় নামে একজন কর্মীকে দিয়ে কিছু এনজিওর সুবিধাভোগী ব্যাক্তিদের দিয়ে হিন্দু আইন সংস্কার করার জন্য একটি কমিটি করিয়েছেন। এছাড়া তিনি তাঁর স্বামী মাহফুজ আনাম সম্পাদিত ডেইলি স্টারে বিভিন্ন সময় কল্পকাহিনি ছাপিয়ে প্রচার করে হিন্দু ধর্মীয় বিধি বিধানের বিরুদ্ধে বিভ্রান্তি ছড়িয়ে হিন্দু জনসাধারণকে বিক্ষুব্ধ করে তুলেছেন। উদ্ভট তথ্য দিয়ে কল্পকাহিনি ছাপিয়ে তার মাধ্যমে দেশে-বিদেশে হিন্দু সমাজে উত্তেজনা সৃষ্টির পাঁয়তারা চলানো হচ্ছে।

মামলায় বলা হয়, শাহীন আনাম গং উদ্দেশ্যমূলকভাবে হিন্দু সম্প্রদায়কে আওয়ামী লীগ সরকারের মুখোমুখি দাঁড় করিয়ে নিজেদের ফায়দা লুটতে তৎপর রয়েছে। তারা এমন একটি পরিবেশ তৈরির অপচেষ্টায় লিপ্ত, যাতে হিন্দু সম্প্রদায় আওয়ামী লীগের প্রতি নাখোশ হয়ে মুখ ফিরিয়ে নেয়।

তারা বিভিন্ন ধর্ম সম্প্রদায়ের মধ্যে সংঘাত সৃষ্টি করে এবং অস্থিতিশীল পরিবেশ তৈরি করে এক-এগারোর মত অগণতান্ত্রিক সরকার তৈরির অসৎ উদ্দেশ্য নিয়ে মাঠে নেমেছেন বলেও মামলায় অভিযোগ করা হয়।

news24bd.tv/এমি-জান্নাত   

পরবর্তী খবর

ঘাটে ভেড়ার সময় ট্রাকসহ হেলে পড়লো ফেরি (ভিডিও)

অনলাইন ডেস্ক

ঘাটে ভেড়ার সময় ট্রাকসহ হেলে পড়লো ফেরি (ভিডিও)

মানিকগঞ্জের পাটুরিয়ায় শাহ আমানত নামের একটি রো রো ফেরি কাত হয়ে আংশিক ডুবে গেছে। এ সময় ফেরিতে থাকা কয়েকটি ট্রাক পদ্মায় ডুবে যায়। 

আজ সকাল পৌনে ১০টার দিকে পাটুরিয়ায় ৫ নম্বর ঘাটে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

ফেরির ডুবে যাওয়া একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে।

ভিডিওতে দেখা যায়, কয়েক মিনিটের মধ্যে ট্রাকসহ ফেরিটি কাত হয়ে ঘাটেই আংশিক ডুবে যায়। এ সময় কয়েকটি ট্রাক ভাসতে থাকে।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন করপোরেশনের (বিআইডব্লিউটিসি) দৌলতদিয়া কার্যালয়ের ব্যবস্থাপক মো. জামাল হোসেন বলেন, বুধবার (২৭ অক্টোবর) সকাল ৯টার দিকে দৌলতদিয়ার ৫ নম্বর ঘাট থেকে ১৭টি ট্রাক নিয়ে রো রো ফেরি আমানত শাহ মানিকগঞ্জের পাটুরিয়ার উদ্দেশে ছেড়ে যায়। ফেরিটি সকাল পৌনে ১০টার দিকে পাটুরিয়ার ৫ নম্বর ঘাটে কাত হয়ে আংশিক ডুবে যায়।

এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি বলে জানিয়েছেন বিআইডব্লিউটিসি পরিচালক (বাণিজ্য) এস এম আশিকুজ্জামান।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার প্রস্তুতি নিয়ে জরুরি সংবাদ সম্মেলন আজ

অনলাইন ডেস্ক

এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার প্রস্তুতি নিয়ে জরুরি সংবাদ সম্মেলন আজ

চলতি বছরের এসএসসি, দাখিল, এসএসসি (ভোকেশনাল) ও দাখিল (ভোকেশনাল) পরীক্ষার সার্বিক বিষয় নিয়ে আজ বুধবার দুপুর দুইটায় জরুরি সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত থাকবেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।   

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের তথ্য ও জনসংযোগ কর্মকর্তা মোহাম্মদ আবুল খায়ের স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এর আগে চলতি বছরের এসএসসি ও সমমান এবং এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার সময়সূচি চূড়ান্ত করে তা প্রকাশ করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ। আগামী ১৪ নভেম্বর থেকে এসএসসি এবং ২ ডিসেম্বর থেকে এইচএসসি পরীক্ষার অনুষ্ঠিত হবে।

এর আগে, পরীক্ষার সূচি সংক্রান্ত একটি খসড়া তৈরি করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছিল। পরে মন্ত্রণালয় থেকে চূড়ান্ত অনুমোদন দেওয়া হয়। এরপরই আজ সকালে এটি ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয়।

এদিকে চলতি বছরের দাখিল পরীক্ষা শুরু হবে ১৪ নভেম্বর। বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) ২০২১ সালের দাখিল পরীক্ষার সময়সূচি আলাদাভাবে ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড।

সূচি অনুযায়ী আগামী ১৪ নভেম্বর দাখিলের কোরআন মজিদ ও তাজবিদ এবং পদার্থবিজ্ঞান পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। ১৮ নভেম্বর হাদিস শরিফ, ২১ নভেম্বর ইসলামের ইতিহাস, রসায়ন, তাজবিদ নসর ও নজম (মুজাব্বিদ গ্রুপ) এবং তাজবিদ (হিফজুল কোরআন গ্রুপ) বিষয়ের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে সাড়ে ১১টা পর্যন্ত পরীক্ষা চলবে।

আরও পড়ুন:


নারায়ণগঞ্জ কারাগারে হাজতির মৃত্যু

যশোরে ৫ শিশুকে বলাৎকার! যুবক গ্রেফতার

বাড়িতে ঢুকে যুবলীগকর্মীকে কুপিয়ে হত্যা


প্রতি বছর ১ ফেব্রুয়ারি এসএসসি, দাখিল ও কারিগরি পরীক্ষা হয়ে থাকে। এবার করোনার কারণে পরীক্ষাগুলো পিছিয়ে আগামী নভেম্বরে সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে ও মাত্র তিনটি নৈর্বচনিক বিষয়ে পরীক্ষা হবে। পরীক্ষা কেন্দ্র নিয়ন্ত্রণও পরিচালনা সংক্রান্ত নির্দেশনা এ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

news24bd.tv রিমু  

পরবর্তী খবর

নারায়ণগঞ্জ কারাগারে হাজতির মৃত্যু

দিলীপ মন্ডল, নারায়ণগঞ্জ

নারায়ণগঞ্জ কারাগারে হাজতির মৃত্যু

নারায়ণগঞ্জ জেলা কারাগারে আশ্রাফ হোসেন (৫০) নামে এক হাজতির মৃত্যু হয়েছে। নিহত আশ্রাফ বন্দর উপজেলার সালেনগর এলাকার মৃত মুসা মিয়ার ছেলে।

গতকাল মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৮টায় তার মৃত্যু হয়। 

আরও পড়ুন:


যশোরে ৫ শিশুকে বলাৎকার! যুবক গ্রেফতার

বাড়িতে ঢুকে যুবলীগকর্মীকে কুপিয়ে হত্যা


ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে কারাগারের জেলার শাহ রফিকুল ইসলাম জানান, ১৪ অক্টোবর বন্দর থানার একটি মাদক মামলায় আদালত আশ্রাফ হোসেনকে কারাগারে প্রেরণ করেন। আশ্রাফ হোসেন মাদকাসক্ত ছিলেন। এছাড়া তার শ্বাসকষ্টের রোগও ছিল। রাতে হঠাৎ সে অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে দ্রুত নারায়ণগঞ্জ ভিক্টোরিয়া জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন। মৃতদেহ হাসপাতাল মর্গে রয়েছে। ময়না তদন্ত শেষে পরিবারের কাছে লাশ হস্তান্তর করা হবে। 

news24bd.tv রিমু  

 

পরবর্তী খবর

এনআইডি নিয়ে সরকারের নতুন পরিকল্পনার কথা জানালেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

এনআইডি নিয়ে সরকারের নতুন পরিকল্পনার কথা জানালেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

সরকার শূন্য বয়স থেকে জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) চালুর পরিকল্পনা করেছে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। 

সচিবালয়ে কর্মরত সাংবাদিকদের সংগঠন ‘বাংলাদেশ সেক্রেটারিয়েট রিপোর্টার্স ফোরাম’ আয়োজিত বিএসএফ সংলাপে গতকাল এ কথা বলেন তিনি।

আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, ‘স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অধীনে মূল দুটি বিভাগ রয়েছে; এর একটি হচ্ছে জননিরাপত্তা বিভাগ এবং অপরটি সুরক্ষা ও সেবা বিভাগ। এই দুই বিভাগে ছোট-বড় মিলিয়ে বেশ কয়েকটি অনুবিভাগ করা হয়েছে। তার মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে আরেকটি বিভাগ যুক্ত হয়েছে। সেটি হচ্ছে জাতীয় পরিচয়পত্র কার্যক্রম। আমরা জাতীয় পরিচয়পত্রের কার্যক্রম ওভাবে শুরু করতে পারিনি। এখনও পরিকল্পনা চলছে কীভাবে সুষ্ঠুভাবে এটাকে এগিয়ে নিয়ে যাবো। হয়তো আরও কিছু দিন সময় লাগবে।’


আরও পড়ুন: 

জ্যৈষ্ঠ আইনজীবী বাসেত মজুমদার আর নেই

ইংল্যান্ড ম্যাচের আগে টাইগার শিবিরে বড় দুটি দুঃসংবাদ


স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আগে যারা ভোটার তাদেরই কেবল এনআইডি দেওয়া হতো। আমাদের নির্বাচন কমিশন ১৮ বছরের পর থেকে এনআইডি দিতো। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শূন্য বয়স থেকে এনআইডি চালুর পরিকল্পনা গ্রহণ করেছেন এবং স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে সেই দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। তবে এনআইডি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে আসার কিছু আইনি জটিলতা দেখা দেওয়ায় ফাইল আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে।’

সচিবালয়ে সংগঠনের নিজস্ব কার্যালয়ে সংগঠনের সভাপতি তপন বিশ্বাসের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সংলাপে সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মাসউদুল হক উপস্থিত ছিলেন।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

১০ মিনিটের সংঘর্ষে রণক্ষেত্র নয়াপল্টন

অনলাইন ডেস্ক

১০ মিনিটের সংঘর্ষে মুহূর্তেই রণক্ষেত্রে পরিণত হয় নয়াপল্টন এলাকা। দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে সাম্প্রদায়িক সহিংসতার বিরুদ্ধে বিএনপি সম্প্রীতি সমাবেশ করে। সমাবেশ শেষে মিছিল নিয়ে যাওয়ার পথে কাকরাইল নাইটিঙ্গেল মোড়ে পুলিশের সঙ্গে বিএনপির নেতা-কর্মীদের সংঘর্ষ শুরু হয়। এ সময় বিএনপি নেতা-কর্মীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল ছোড়ে। পুলিশও টিয়ার শেল নিক্ষেপ এবং লাঠিচার্জ করে। 

এ প্রসঙ্গে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর দাবি করেন, ‘সরকার পরিকল্পিতভাবে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করছে। তারা প্রতিবাদ জানাতে একটা সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করে শান্তিপূর্ণ র‌্যালি নিয়ে জাতীয় প্রেস ক্লাব পর্যন্ত যাওয়ার কর্মসূচি ছিল। আমরা আগে চিঠিও দিয়েছিলাম। কিন্তু দুর্ভাগ্যজনকভাবে সকাল থেকেই নেতা-কর্মীদের গ্রেফতার শুরু করে। মিছিলে অতর্কিত হামলা করে পুলিশ। ৬০ জনের অধিক নেতা-কর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।’ 

মতিঝিল জোনের উপ-কমিশনার (ডিসি) আবদুল আহাদ বলেন, বিএনপির সমাবেশে পুলিশ বাধা দেয়নি। তাদের মিছিলের অনুমতি ছিল না। তবু তারা মিছিল করছিল। মিছিল থেকে বিএনপিই পুলিশের ওপর হামলা চালায়। পরে পুলিশ আত্মরক্ষার্থে তাদের ধাওয়া দেয়। এ ঘটনায় পুলিশের অন্তত ছয় সদস্য আহত হয়েছেন। ঘটনাস্থল ও আশপাশের এলাকা থেকে ৩০ জনের মতো বিএনপি নেতা-কর্মীকে আটক করা হয়েছে। দেশের বিভিন্ন স্থানে সাম্প্রদায়িক সহিংসতার প্রেক্ষাপটে শান্তি শোভাযাত্রা ও সমাবেশের কর্মসূচি দিয়েছিল বিএনপি। এ কর্মসূচি ঘিরে সকাল থেকেই বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়। ছিল পুলিশের সাঁজোয়া যানও। সমাবেশে অংশ নিতে সকাল থেকেই খন্ড খন্ড মিছিল নিয়ে নেতা-কর্মীরা নয়াপল্টনে দলীয় কার্যালয়ের সামনে এসে অবস্থান নিতে শুরু করেন। ফকিরাপুল থেকে কাকরাইলের মোড় পর্যন্ত হাজার হাজার নেতা-কর্মী ব্যানার-ফেস্টুন নিয়ে কর্মসূচিতে অংশ নেন। এ সময় পুলিশের পক্ষ থেকে সড়ক বন্ধ না করার অনুরোধ জানানো হয়। সড়ক বন্ধ করা হবে না বলে নেতারা জানান। কিন্তু সমাবেশে নেতা-কর্মীদের উপস্থিতি বাড়তে থাকায় একপর্যায়ে সড়কের এক পাশে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। বেলা ১১টায় বিএনপি অফিসের সামনে ছোট একটি ট্রাকে শান্তি সমাবেশ শুরু হয়।

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, ঢাকা মহানগর উত্তরের আহ্বায়ক আমান উল্লাহ আমান, দক্ষিণের আহ্বায়ক আবদুস সালাম, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, কেন্দ্রীয় নেতা ফজলুল হক মিলন, শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী, যুবদল, স্বেচ্ছাসেবক দল, ছাত্রদল, মহিলা দলের নেতারা অংশ নেন। মির্জা ফখরুল সমাবেশ থেকে সরকারকে পদত্যাগের আহ্বান জানান এবং নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবি জানান। শান্তিপূর্ণভাবে সমাবেশ শেষ হওয়ার পর কার্যালয়ের সামনে থেকে মিছিল শুরু হয়ে নাইটিঙ্গেল মোড়ে পৌঁছলে বাধে সংঘর্ষ। 

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, নয়াপল্টনের সংক্ষিপ্ত সমাবেশ শেষে ছাত্রদলের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ইসহাক সরকারের নেতৃত্বে একটি মিছিল নাইটিঙ্গেল মোড়ের দিকে এগিয়ে যায়। এ সময় প্রথমে স্কাউট ভবনের সামনে পুলিশ তাদের বাধা দেয়। তখন মিছিলকারীরা পুলিশের বাধা উপেক্ষা করে সামনে এগিয়ে যেতে চাইলে উভয়পক্ষের মধ্যে ধাক্কাধাক্কির ঘটনা ঘটে। পরে বিএনপি নেতা-কর্মীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে ব্যানারের সঙ্গে থাকা বাঁশ ছুড়ে মারে। পরে পুলিশ মিছিলকারীদের লক্ষ্য করে ফাঁকা গুলি বর্ষণ ও টিয়ার শেল নিক্ষেপ করে। এ সময় নেতা-কর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। পুলিশের লাঠিপেটায় অনেক নেতা-কর্মী আহত হন।

আরও পড়ুন:


যশোরে ৫ শিশুকে বলাৎকার! যুবক গ্রেফতার

বাড়িতে ঢুকে যুবলীগকর্মীকে কুপিয়ে হত্যা


এদিকে বিএনপির কিছু নেতা-কর্মী পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়লে আরেকটি অংশ নয়াপল্টনে দলীয় কার্যালয়ে নিচে ও উপরে আটকা পড়ে। পরে পরিস্থিতি শান্ত হলে দুপুর সোয়া ১২টার দিকে নেতা-কর্মীরা কার্যালয় থেকে বেরিয়ে যান। প্রায় ১০ মিনিটের সংঘর্ষে নয়াপল্টন ও আশপাশের এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। পথচারীরা দিগ্বিদিক ছোটাছুটি শুরু করেন। তবে কোনো যানবাহন ভাঙচুর হয়নি।

news24bd.tv রিমু  

পরবর্তী খবর