২০২৬ সালে মাটির নিচ দিয়ে প্রথম মেট্রোরেল চলার প্রত্যাশা

২০২৬ সালে মাটির নিচ দিয়ে প্রথম মেট্রোরেল চলার প্রত্যাশা

Other

এসডিজির মূল সুর বৈষম্য কমানো, কাউকে পেছনে ফেলে না রাখা। ২০৩০ সাল নাগাদ এমন ভারসাম্যপূর্ণ বাংলাদেশ গড়তে চায় সরকার। অথচ দেশের অনানুষ্ঠানিক খাতে কর্মরত ৮৬ শতাংশ শ্রমিক এখনো অরক্ষিত। শোভন কাজ তো দুরে থাক, তাদের জন্য নেই আইনি সুরক্ষা বা জাতীয় পর্যায়ের নূন্যতম কোন মজুরি।

 

বিশ্লেষকরা বলছেন, এই বিপুল শ্রমশক্তির জন্য অন্তর্ভূক্তিমূলক প্রশিক্ষণ, কর্মপরিবেশ, নিরাপত্তা ও আয়বর্ধনের সুযোগ করা না গেলে বাধাগ্রস্ত হবে এলডিসি গ্রাজুয়েশন ও সত্যিকার উন্নয়ন অগ্রযাত্রা।  

এমন হাড়ভাঙা শ্রমই যেন নিয়তি পঞ্চাশোর্ধ্ব ফুলমালা বেগমের। মানিকগঞ্জের উচুটিয়া এলাকায় ইটভাঙানো আর খোয়াচালার কাজ করতে গিয়ে কিছুদিন আগেও আঘাত পান হাতে। কিন্তু, সেরে উঠতে না উঠতেই আবারো কাজে নামতে হয়েছে ক্ষুধার তাড়নায়। যদিও সারাদিন খেটেখুটে জোটে বড়জোর ৩শ টাকা। ৩ বছর আগে স্বামী হারিয়েছেন। পরিবারের খাবার যোগানোর দায় তার কাঁধেই। তবু অভিযোগ নয় বরং আক্ষেপটা, নিজের ভাগ্যের ওপর।

শৈশবের হাতেখড়ি থেকে একযুগ পার করে এখন মোটর গ্যারেজের কাজকর্ম ভালোই দখলে নিয়েছেন সিংগাইরের মোহাম্মদ জিহাদ। বয়সও ছুঁয়েছে ২১-এর কোটা। অথচ, মাসিক আয় রয়ে গেছে ৭ থেকে ৮ হাজারের মধ্যে। যা কি না, বর্তমানে একজন মানুষের গড় আয়েরও অর্ধেক। স্বপ্নটা এখনো দেখে যাচ্ছেন ঠিকই; কিন্তু পথটা যে তার কাছে একেবারেই অচেনা।


সিলেটে বাসার ছাদ থেকে আপন দুই বোনের মরদেহ উদ্ধার

ক্ষমতায় থাকছেন ট্রুডো, তবে গঠন করতে হবে সংখ্যালঘু সরকার

মিডিয়া ভুয়া খবর ছড়িয়েছে: বাপ্পী লাহিড়ি


 

জিহাদ ও ফুলমালার মতো একই রকম শ্রম বেচে জীবিকা চালান দেশের ৮৫.১ শতাংশ শ্রমিক। যা পরিচিত অনানুষ্ঠানিক খাত নামে। অথচ অর্থনীতিকে চাঙ্গা রাখা বড় এই গোষ্ঠীর জন্য নেই নিম্নতম মজুরি, সুরক্ষা কিংবা সুযোগ সুবিধা। ফলে, তাদের ভাগ্যের চাকাটাও থেকে যায়, এক রকম স্থির।

পরিসংখ্যান ব্যুরোর তথ্যেই ৬ কোটি শ্রমিকের সোয়া পাঁচ কোটিই কাজ করেন অনানুষ্ঠানিকভাবে। যার প্রায় ৯০ শতাংশই কাজ করেন উৎপাদন, নির্মাণের মতো শিল্প খাতে। অন্যদিকে, শ্রমিকদের নিয়ে কাজ করা প্রতিষ্ঠান-বিলস এর হিসাবে, বয়েস আমলে নিলে অপ্রাতিষ্ঠানিক খাতের এই শ্রমশক্তির ৮৯.১ শতাংশেরই বয়সসীমা ত্রিশের নিচে। যাদের কেউই সুরক্ষিত নন চলমান আইনে। তাই এই বিশাল জনগোষ্ঠিকে পেছনে রেখে টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা-এসডিজি বাস্তবায়ন কতটা সম্ভব?

news24bd.tv/আলী

;