শিগগিরই ট্রেনের শিডিউল বিপর্যয় বন্ধ হবে: রেলমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

শিগগিরই ট্রেনের শিডিউল বিপর্যয় বন্ধ হবে: রেলমন্ত্রী

ট্রেনের শিডিউল বিপর্যয় শিগরিরই বন্ধ হচ্ছে বলে জানিয়েছেন রেলপথ মন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন। তবে, এখনও অনেক স্থানে ব্রডগেজ লাইন তৈরি না হওয়ায় সাময়িক সমস্যা হচ্ছে।

আজ শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) লাকসাম আখাউড়া সেকসনের ৭২ কিলোমিটারের মধ্যে কুমিল্লা-লাকসাম রেললাইনের ২৪ কিলোমিটার ডুয়েলগেজ লাইনের উদ্বোধনের সময় এসব কথা বলেন তিনি।

নুরুল ইসলাম সুজন বলেন, সারা দেশে অবৈধভাবে দখল করা রেলের সম্পত্তিগুলো পর্যায়ক্রমে উদ্ধার করা হবে। রেলপথ উন্নয়নের মাধ্যমে দেশের সমন্বিত যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নে কাজ চলছে বলেও জানান তিনি।

তিনি আরও বলেন, যে দেশে রেল যোগাযোগ যত উন্নত, বিশ্বে সে দেশ তত বেশি উন্নত। এ অবস্থায় দেশের মিটারগেজ রেলপথকে ব্রডগেজে রূপান্তর করা হবে। প্রায় সাড়ে ছয় হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে এই রেলপথ নির্মাণের ফলে ঢাকা-চট্টগ্রাম, চট্টগ্রাম-সিলেট, ঢাকা-নোয়াখালী ও চট্টগ্রাম-ময়মনসিংহে যাতায়াতে সময় কমে আসবে।

আরও পড়ুন


ঝালকাঠিতে কমিটি নিয়ে বিএনপির একাংশের প্রতিবাদ সভা

এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষা কবে জানালেন শিক্ষামন্ত্রী

রোহিঙ্গাদের নিজ দেশে ফেরাতে ইইউ’র সহায়তা চাইলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান উচ্ছেদের অভিযোগ কাদের মির্জার বিরুদ্ধে


রেলমন্ত্রী বলেন, আগামী বছরের ডিসেম্বরের মধ্যে সারা দেশের সঙ্গে কক্সবাজারের রেল যোগাযোগ ব্যবস্থা চালু হবে। এ ছাড়া আগামীতে রেলওয়ে মিটার গেজ লাইন থাকবে না, এবং শিগগিরই ঢাকা-চট্টগ্রামের পুরো রেলপথ ব্রডগেজ লাইন হয়ে যাবে।

রেলমন্ত্রী ফেনী-বিলোনিয়া রেল লাইনের কথা উল্লেখ করে বলেন, এটি সরকারের গৃহীত পদক্ষেপের মধ্যে রয়েছে। আশা করছি, সে কাজটিও দ্রুত সময়ে শুরু হবে। পরে মন্ত্রী ফেনী রেলওয়ে স্টেশনের যাত্রী সুবিধা বৃদ্ধির জন্য প্লাটফর্ম উঁচু করা, স্টেশন ভবন রিনোভেশন, এক্সেস কন্ট্রোল এবং প্ল্যাটফর্ম শেড নির্মাণ কাজ উদ্বোধন করেন।

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

ট্রলারে করে ঝুঁকি নিয়েই ফিরছে সেন্টমার্টিনে আটকা পর্যটকরা

অনলাইন ডেস্ক

ট্রলারে করে ঝুঁকি নিয়েই ফিরছে সেন্টমার্টিনে আটকা পর্যটকরা

কক্সবাজারের টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌ-রুটে বৈরী আবহাওয়ার কারণে সার্ভিস বোট বন্ধ থাকায় কাঠের বোটে সেন্টমার্টিন দ্বীপে ভ্রমণে যাওয়া প্রায় তিন শতাধিক পর্যটক আটকা পড়েন।

মঙ্গলবার (১৯ অক্টোবর) সকালে ট্রলারে করে ঝুঁকি নিয়েই টেকনাফে ফিরছে এসব পর্যটক। জানা গেছে, আবহাওয়া পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হওয়ার পর এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে তারা। তবে অনেকেই লাইফ জ্যাকেট পরিহিত থাকলেও ট্রলারে ধারণ ক্ষমতার অতিরিক্ত যাত্রী তোলার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

সেন্টমার্টিন ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য হাবিবুর রহমান গণমাধ্যমকে বলেন, গেল কয়েকদিন আগে এসকল যাত্রীরা ট্রলার ও স্পিড বোটে করে সেন্টমার্টিনে আসে। কিন্তু হঠাৎ করে বঙ্গোপসাগরে বায়ুচাপের প্রভাবে আবহাওয়া অফিস কক্সবাজারকে তিন নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখিয়ে যেতে বলে। যার কারণে টেকনাফ সেন্টমার্টিন নৌরুটে নৌযান চলাচল বন্ধ করে দেয় প্রশাসন। 

আরও পড়ুন


মহেশখালীতে সাবেক যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে ও গুলি করে হত্যা

পূজামণ্ডপ কেন্দ্রিক ‘অপ্রীতিকর ঘটনায়’ ৭১ মামলায় আটক ৪৫০

শুধু তামিম নয়, বিশ্বকাপ খেলতে চায়নি আরও একজন: পাপন

তথ্য প্রতিমন্ত্রী শপথ ভঙ্গ করেছে, তার পদত্যাগ করা উচিত: জিএম কাদের


ইউপি সদস্য আরও জানান, নৌযান চলাচল না করায় ভ্রমণে আসা এসব পর্যটকরা আটকা পড়ে। তবে আবহাওয়া পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হলে আজ মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে ৯টি ট্রলারে করে টেকনাফে উদ্দেশে রওনা দেন পর্যটকরা। যাদের দুপুর ১টার দিকে টেকনাফ পৌঁছার কথা রয়েছে।

আবহাওয়া অফিস সহকারী আবহাওয়াবিদ আবদুর রহমান বলেন, আবহাওয়া পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হলেও এখন পর্যন্ত কক্সবাজারকে ৩ নং স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে। তবে দুপুর নাগাদ এ সংকেত নামিয়ে ফেলা হতে পারে।

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

মহেশখালীতে সাবেক যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে ও গুলি করে হত্যা

অনলাইন ডেস্ক

মহেশখালীতে সাবেক যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে ও গুলি করে হত্যা

কক্সবাজারের মহেশখালীতে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে মো: রুহুল কাদের (৩৫) নামের সাবেক এক যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে ও গুলি করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। নিহত রুহুল কাদের মহেশখালী উপজেলা বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের সভাপতি ও ইউনিয়ন যুবলীগের সাবেক সহ-সভাপতি।

সোমবার (১৮ অক্টোবর) দিবাগত রাত ১০ টার দিকে উপজেলার কালামারছড়ার ইউনিয়নের ফকিরজুমপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত রুহুল ওই এলাকার মোহাম্মদ আমিনের ছেলে। 

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, রুহুল রাত ১০টার দিকে মহেশখালী উপজেলার কালারমার ছড়া বাজার থেকে বাড়ি ফিরছিলেন। এসময় ফকিরজুম পাড়ায় পৌঁছলে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে পরিকল্পিতভাবে তাকে সিএনজি থেকে নামিয়ে প্রথমে কুপিয়ে পরে গুলি করে পালিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা।

আরও পড়ুন


পূজামণ্ডপ কেন্দ্রিক ‘অপ্রীতিকর ঘটনায়’ ৭১ মামলায় আটক ৪৫০

শুধু তামিম নয়, বিশ্বকাপ খেলতে চায়নি আরও একজন: পাপন

তথ্য প্রতিমন্ত্রী শপথ ভঙ্গ করেছে, তার পদত্যাগ করা উচিত: জিএম কাদের

বিসিবি সভাপতির কাঠগড়ায় তিন 'সিনিয়র' খেলোয়াড়


এসময় স্থানীয়রা রুহুল কাদেরকে উদ্ধার করে প্রথমে কালারমার ছড়া উপ-স্বাস্থ্যকেন্দ্র ও পরে আশংকাজনক অবস্থায় চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

মহেশখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো: আব্দুল হাই ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। এসময় তিনি জানান, এলাকায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে এ খুনের ঘটনা ঘটতে পারে। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। 

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানায় বাঘের খাঁচায় আরো দুই শাবক

নয়ন বড়ুয়া জয়

চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানায় বাঘের খাঁচায় আরো দুই শাবক

চট্টগ্রামের চিড়িয়াখানায়  বাঘের খাঁচায় আরো দুই শাবক। মা জয়া নামে বাঘিনীর আদরেই বড় হচ্ছে  এসব শাবক। চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ বলছে, চট্টগ্রামের চিড়িয়াখানায় এখন এক ডজন বাঘ।দর্শনার্থীরাও বাঘ দেখে খুশি। 

বনের বাঘ এখন খাঁচায়, চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানায় একের পর এক জন্ম দেয় বাঘের শাবক। সম্প্রতি আরো দুই শাবক জন্ম দিয়েছে মা জয়া। ২০২০ সালের ১৪ নভেম্বর জয়া বাঘিনী জো বাইডেন নামে ছেলে বাঘ শাবকের জন্ম দেয় ।যা তার প্রথম সন্তান ছিল। জো বাইডেনের প্রতি বিমাতাসুলভ আচরণ করায় সেটিকে চিড়িয়াখানার তত্ত্বাবধানে লালন পালন করা হয়েছিল।তবে এবার দুই শাবকই মায়ের  আদরেই বড় হচ্ছে।

আরও পড়ুন:


ইভ্যালিকে লাভজনক প্রতিষ্ঠানে রূপান্তরের সর্বোচ্চ চেষ্টা করব: বিচারপতি মানিক

করোনা: দেশে ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু কমলেও বেড়েছে শনাক্ত

প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় কলেজছাত্রকে অপহরণ করে বিয়ে করলো তরুণী!

ডিএমপি কমিশনার ও র‍্যাব ডিজি’র পদোন্নতি


চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানায় কোন বাঘ না থাকায় ২০১৬ সালে আফ্রিকা থেকে রাজ-পরি নামে  দুই বাঘ আনা হলেও এখন  নতুন দুই শাবকসহ এই চিড়িয়াখানার বাঘের খাঁচায়  এক ডজন বাঘ।

বাঘের ঝাঁক দেখে খুশি দর্শনার্থীরা। শুধু বাঘ নয় হাতিসহ আরো নতুন নতুন প্রানী যুক্ত করার চেষ্টা করছে চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ। কিছুদিন আগেও বিরল সাদা বাঘ শুভ্রা জন্ম দিয়েছে আরেকটি ফুটফুটে ডোরাকাটা শাবক।

news24bd.tv/ কামরুল 

পরবর্তী খবর

সাম্প্রদায়িক সহিংসতায় ৬০ মামলা, গ্রেপ্তার ২৬৩

অনলাইন ডেস্ক

সাম্প্রদায়িক সহিংসতায় ৬০ মামলা, গ্রেপ্তার ২৬৩

দেশের বিভিন্ন স্থানে মন্দির ও বাড়িঘরে ভাঙচুর এবং হামলার ঘটনায় ৬০টি মামলা হয়েছে। আসামি করা হয়েছে ৮ হাজার ৯৪৯ জনকে। এরমধ্যে এখন পর্যন্ত বিভিন্ন জেলার ২৬৩ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। কুমিল্লায় পূজামণ্ডপে ‘কোরআন’ পাওয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে এসব ঘটনা ঘটে।

তথ্যমতে, ঘটনার কেন্দ্রস্থল কুমিল্লায় সহিংসতার ঘটনায় ১ হাজার ৫৫ জনকে আসামি করা হয়েছে। গ্রেপ্তার করা হয়েছে ৪৪ জনকে। নোয়াখালীতে ৫ হাজার জনকে আসামি করে ৯০ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। 

আরও পড়ুন:


ইভ্যালিকে লাভজনক প্রতিষ্ঠানে রূপান্তরের সর্বোচ্চ চেষ্টা করব: বিচারপতি মানিক

করোনা: দেশে ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু কমলেও বেড়েছে শনাক্ত

প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় কলেজছাত্রকে অপহরণ করে বিয়ে করলো তরুণী!

ডিএমপি কমিশনার ও র‍্যাব ডিজি’র পদোন্নতি


এছাড়া বাগেরহাটে ৪, পাবনায় ৩, চাঁপাইনবাবঞ্জে ১০, সিলেটে ২০, মৌলভীবাজারে ২, কুড়িগ্রামে ২১, গাজীপুরে ২০, কিশোরগঞ্জে ৪, মাদারীপুরে ৪ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

সবশেষ গতকাল রোববার (১৭ অক্টোবর) রাতে রংপুরের পীরগঞ্জে হিন্দুদের বাড়িতে হামলা ও অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটেছে। পীরগঞ্জে হামলায় ২০টি বাড়িঘরে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। এ ঘটনায় ৪৫ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

news24bd.tv/ কামরুল 

পরবর্তী খবর

শেখ রাসেলের জন্মদিনে নয়াদিল্লিতে বৃক্ষ রোপণ

অনলাইন ডেস্ক

শেখ রাসেলের জন্মদিনে নয়াদিল্লিতে বৃক্ষ রোপণ

ভারতের নয়াদিল্লিস্থ বাংলাদেশ হাই কমিশন আজ দূতালয় চত্বরে উন্নত প্রজাতির ১০০টি বৃক্ষ রোপণ করা হয়েছে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ঠ পুত্র শেখ রাসেলের ৫৮তম জন্মদিন উপলক্ষে এই আয়োজন করা হয়।

বাংলাদেশের হাই কমিশনার মুহাম্মদ ইমরান বৃক্ষরোপন করে এ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন। এ সময় দূতাবাসের সকল কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন। বঙ্গবন্ধুর শততম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে তাঁর কনিষ্ঠ পুত্র শেখ রাসেলের জন্মদিনে শত বৃক্ষ রোপনের কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়। 

আরও পড়ুন:


ইভ্যালিকে লাভজনক প্রতিষ্ঠানে রূপান্তরের সর্বোচ্চ চেষ্টা করব: বিচারপতি মানিক

করোনা: দেশে ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু কমলেও বেড়েছে শনাক্ত

প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় কলেজছাত্রকে অপহরণ করে বিয়ে করলো তরুণী!

ডিএমপি কমিশনার ও র‍্যাব ডিজি’র পদোন্নতি


বৃক্ষরোপনে সহযোগিতা করেন দিল্লীর খ্যাতনামা স্বেচ্ছাসেবক সংগঠন প্লানটোলজি। বৃক্ষ রোপনের সময়ে প্লানটোলজির নির্বাহী প্রধান রাধুকা আনন্দও  একটি বৃক্ষ রোপন করেন।

পরে শেখ রাসেলের জন্মদিন উপলক্ষে দূতাবাস আয়োজিত অনুষ্ঠানে শিশুদের চিত্রাংকন ও রচনা প্রতিযোগিতায় অংশ নেয় দূতাবাসের কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের সন্তানরা।

news24bd.tv/ কামরুল 

পরবর্তী খবর