প্রায় দুইশো বছর পর প্রাণ ফিরেছে মরা তিস্তায়

প্রায় দুইশো বছর পর প্রাণ ফিরেছে মরা তিস্তায়

Other

প্রায় দুইশো বছর পর প্রাণ ফিরেছে রংপুরের বদরগঞ্জের মরা তিস্তা নদীতে। পুনঃখননের পর যুক্ত হয়েছে চিকলী ও যমুনেশ্বরী নদীর মূল ধারার সাথে।  

জীব-বৈচিত্র্য, পরিবেশ, কৃষি ও জনজীবনে এরইমধ্যে ইতিবাচক প্রভাব ফেলেছে মরা তিস্তা। হারিয়ে যেতে বসা নদীগুলো উদ্ধার এবং প্রবাহ নিশ্চিতের দাবি জানিয়েছেন নদী বিশেষজ্ঞরা।

 

কালের বিবর্তনে ধানি জমি, গো-চারণভূমিতে পরিণত হওয়া মরা তিস্তার বুকে এখন পানি। নদীর পাড়ে পাখিদের কিচিরমিচির। খরা মোকাবেলায় জলের বিশাল আধারে পরিণত এই নদী সেচ সুবিধাও নিশ্চিত করছে।

বরেন্দ্র বহুমূখী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের তথ্য বলছে, ১৭৮৭ সালের ভূমিকম্পের পর এই শাখা নদী বিলুপ্ত হতে শুরু করে। চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি থেকে জুন পর্যন্ত ইআইআরপি প্রকল্পের মাধ্যমে নদীর প্রবাহ এলাকা শনাক্ত করে খনন করা হয়।

বরেন্দ্র অঞ্চলে খরার প্রভাব দূর করতে হারিয়ে যাওয়া ছোট নদীগুলোর প্রবাহ নিশ্চিত করা জরুরি বলে মনে করেন পরিবেশবাদীরা।

আরও পড়ুন:


ডিসেম্বরেই চালু হবে ৫জি নেটওয়ার্ক: মোস্তাফা জব্বার

দেশে বিনিয়োগ করুন: প্রধানমন্ত্রী

যানজট নিরসনের উদ্যোগ আটকে থাকে মহাপরিকল্পনার নথিতেই

মক্কা-মদিনার মসজিদে কাজ করবেন নারীরা


মরা তিস্তা নদীর পানি প্রায় ২০টি গ্রামের ৫ হাজার হেক্টর জমিতে সেচ দিতে কাজে লাগবে বলে জানান প্রকল্প সংশ্লিষ্টরা।

রংপুরের বদরগঞ্জের মরা তিস্তা নদীর উৎস মুখ চিকলী নদী। ৯টি গ্রামের মধ্য দিয়ে প্রবাহিত সাড়ে ১৩ কিলোমিটার দৈর্ঘের নদীটি মিলিত হয়েছে যমুনেশ্বরী নদীতে।

news24bd.tv নাজিম

;