জাপার ফিরোজ রশীদের বিরুদ্ধে সম্পত্তি দখলের অভিযোগ, হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত

অনলাইন ডেস্ক

জাপার ফিরোজ রশীদের বিরুদ্ধে সম্পত্তি দখলের অভিযোগ, হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত

জাতীয় পার্টির (জাপা) কো-চেয়ারম্যান ও ঢাকা-৬ আসনের সংসদ সদস্য কাজী ফিরোজ রশীদের বিরুদ্ধে করা দুদকের মামলা বাতিলে রায় প্রত্যাহার সংক্রান্ত হাইকোর্টের দেওয়া আদেশ স্থগিত করেছেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ।

ফিরোজ রশীদের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আজ রোববার (২৬ সেপ্টেম্বর) প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বে আপিল বেঞ্চ ৬ সপ্তাহের জন্য হাইকোর্টের প্রত্যাহার আদেশ স্থগিত করেন।

দুদকের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী মো. খুরশীদ আলম খান এবং অন্যদিকে কাজী ফিরোজ রশীদের পক্ষে ছিলেন সাবেক অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল এমকে রহমান। ২০১৬ সালের ৬ এপ্রিল রাজধানীর তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানায় দুদকের তৎকালীন উপপরিচালক জুলফিকার আলী বাদী হয়ে মামলাটি করেন। 

মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, ১৯৫১ সালে তৎকালীন কানাডার হাইকমিশনার মোহাম্মদ আলীর অনুকূলে এক বিঘা জমি বাড়িসহ বরাদ্দ দেয় সরকার, যার বর্তমান বাজারমূল্য প্রায় অর্ধশত কোটি টাকা। মোহাম্মদ আলী মারা যাওয়ার পর তাঁর দ্বিতীয় স্ত্রী বেগম আলিয়া মোহাম্মদ আলী, পুত্র সৈয়দ মাহমুদ আলী ও কন্যা সৈয়দা মাহমুদা আলীর নামে প্রথম স্ত্রী ও তার দুই পুত্র দলিল করে দেন, যার নামজারি হয় ১৯৭০ সালে।

মামলার এজাহারে আরও বলা হয়, ১৯৭৯ সালে কাজী ফিরোজ রশিদ বিক্রয় চুক্তির ভুয়া দলিলের মাধ্যমে ভুয়া দাতা বেগম আলেয়া মোহাম্মদ আলী ও আরিফুর রহমান নামের একজনকে সাক্ষী বানিয়ে ওই জমি নিজের নামে দলিল করে দখলে নেন। পরবর্তীতে দুদক অনুসন্ধান শেষে ২০১৫ সালে মামলা করে। মামলায় কাজী ফিরোজ রশিদের বিরুদ্ধে দণ্ডবিধির ৪১৯, ৪২০, ৪৬৭, ৪৬৮ ও ৪৭১ ধারায় অভিযোগ আনা হয়।

আরও পড়ুন


মাওলানা মামুনুল হককে নেয়া হয়েছে কুমিল্লার আদালতে

নির্মাণশৈলী ও রাতে নৈসর্গিক দৃশ্য দেখতে পায়রা সেতুতে পর্যটকদের ভিড়

বিশ্ব নদী দিবস আজ

শাজাহান খানের কাছ থেকে মুক্তি চাইলেন মাদারীপুর জেলা আওয়ামী লীগ


দুদকের করা মামলার এখিতয়ার চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে কাজী ফিরোজ রশিদ আবেদন করলে আদালত রুল জারি করেন। পরবর্তীতে ওই রুল গ্রহণ করে দুদকের মামলা এখতিয়ারবহির্ভুত ঘোষণা করে রায় দেন হাইকোর্ট। তবে রায়ের পর দুদক ওই মামলায় চার্জশিট দেয়। এতে দুদকের চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার অভিযোগ দায়ের করেন ফিরোজ রশিদ। অপরদিকে দুদক ওই রায় প্রত্যাহার চেয়ে হাইকোর্টে আবেদন করে।

হাইকোর্ট দুদকের আবেদন শুনানি না করে প্রধান বিচারপতি বরাবর আবেদন করতে বলেন। এরপর দুদকের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিষয়টি শুনানির জন্য প্রধান বিচারপতি রায় প্রদানকারী বেঞ্চে পাঠান। হাইকোর্টের ওই বেঞ্চ বিষয়টি শুনানি করে রায় প্রত্যাহার করেন। পরবর্তীতে হাইকোর্টের ওই প্রত্যাহারের বিরুদ্ধে আপিল বিভাগে আবেদন করেন কাজী ফিরোজ রশিদ। মোহাম্মদ আলীর জন্ম বগুড়া জেলায়। ১৯৫৩ থেকে ১৯৫৫ সাল পর্যন্ত তিনি পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন। তিনি ১৯৬৩ সালে বগুড়াতেই মারা যান।

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

নারীকে বিবস্ত্র করে নির্যাতন: ওসি-এসআইকে বরখাস্তের নির্দেশ

অনলাইন ডেস্ক

নারীকে বিবস্ত্র করে নির্যাতন: ওসি-এসআইকে বরখাস্তের নির্দেশ

নোয়াখালী বেগমগঞ্জ নারীর বিবস্ত্র করে অবমাননার ঘটনায় ওসিসহ এসআইকে বরখাস্তের নির্দেশ হাইকোর্টের।

বিস্তারিত আসছে...

আরও পড়ুন:


পাগলীর জন্ম নেওয়া সন্তানের পিতা এমপি বদি

টস জিতে ফিল্ডিংয়ে পাকিস্তান

শোয়েব মালিককে ‘দুলাভাই’ ‘দুলাভাই’ বলে ডাকল ভারতীয় দর্শকরা (ভিডিও)

পরবর্তী খবর

মাকে পিটিয়ে হত্যা; ছেলের মৃত্যুদণ্ড

অনলাইন ডেস্ক

মাকে পিটিয়ে হত্যা; ছেলের মৃত্যুদণ্ড

মাকে পিটিয়ে হত্যা মামলায় ছেলে জিয়াউল হককে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। ২০১৮ সালের ১৩ জুন   জিয়াউল হক এই ঘটনা ঘটায়।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক দিলীপ কুমার ভৌমিক এ রায় দেন।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত জিয়াউল হক সদর উপজেলার শিবপুর গ্রামের নুরুল ইসলামের ছেলে।

জানা যায়, ২০১৮ সালের ১৩ জুন আসামি জিয়াউল হক তার ছোট ভাই জুবায়ের খন্দকারের কাছে টাকা চায়। জুবায়ের তাকে টাকা না দিলে ক্রিকেট ব্যাট হাতে জিয়াউল তাকে মারতে আসেন। এ সময় মা জহুরা বেগম (৬০) জুবায়ের বাঁচাতে এগিয়ে আসলে জিয়াউল মায়ের মাথায় ক্রিকেট ব্যাট দিয়ে এলোপাথাড়ি আঘাত করে। পরে আহত অবস্থায় জহুরা বেগমকে সদর হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

আরও পড়ুন:

হিন্দু সম্প্রদায়ের মন্দিরে হামলা, বিচার বিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ

ঘটনার পরদিন জহুরা বেগমের স্বামী নুরুল ইসলাম ছেলে জিয়াউল হককে একমাত্র আসামি করে থানায় হত্যা মামলা করেন। মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ছিলেন ফারুক আহমেদ প্রিন্স ও আসামিপক্ষের ছিলেন অ্যাডভোকেট মাসুদার রহমান বিশ্বাস।

রাষ্ট্রপক্ষের আইজীবী পাবলিক প্রসিউকিটর ফারুক আহমেদ প্রিন্স এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

news24bd.tv/এমি-জান্নাত  

পরবর্তী খবর

হিন্দু সম্প্রদায়ের মন্দিরে হামলা, বিচার বিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ

অনলাইন ডেস্ক

হিন্দু সম্প্রদায়ের মন্দিরে হামলা, বিচার বিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ

কুমিল্লা, চাঁদপুর, নোয়াখালীসহ দেশের ৬ জেলায় হিন্দু সম্প্রদায়ের মন্দিরে হামলা ভাঙচুরের ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। তাদের নিরাপত্তা কেন দেওয়া হবে না জানতে চেয়ে রুল জারি করা হয়েছে।

বিস্তারিত আসছে...

আরও পড়ুন:


পাগলীর জন্ম নেওয়া সন্তানের পিতা এমপি বদি

শোয়েব মালিককে ‘দুলাভাই’ ‘দুলাভাই’ বলে ডাকল ভারতীয় দর্শকরা (ভিডিও)

পরবর্তী খবর

মেডিকেল শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা পদ্ধতি নিয়ে প্রশ্ন প্রধান বিচারপতির

অনলাইন ডেস্ক

মেডিকেল শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা পদ্ধতি নিয়ে প্রশ্ন প্রধান বিচারপতির

মেডিকেল কলেজের শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা পদ্ধতি নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন। শিক্ষার্থীদের পরীক্ষার উত্তরপত্র একই কলেজে শিক্ষকরা না দেখে এবং রেজাল্ট শিট তৈরি না করে ভিন্ন মেডিকেল কলেজে পাঠিয়ে সেই খাতা মূল্যায়ন ও রেজাল্ট শিট করানো উচিত বলে মনে করেন তিনি।

বৃহস্পতিবার (২৮ অক্টোবর) এক মামলার শুনানিতে পাঁচ বিচারপতির ভার্চুয়াল আপিল বেঞ্চে প্রধান বিচারপতি এ বিষয়ে কথা বলেন। তিনি বলেন, ‘দেশের কোনো পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের পরীক্ষার খাতা তো সেই একই বিশ্ববিদ্যালয় দেখে না। অন্য বিশ্ববিদ্যালয়ে সে খাতা দেখতে পাঠানো হয়। কিন্তু মেডিকেল কলেজের শিক্ষার্থীদের রিটেনের খাতা কাটা হয় এবং রেজাল্ট শিট করা হয় যে কলেজের শিক্ষার্থী সেই একই কলেজে।’

বাংলাদেশ মেডিকেল এন্ড ডেন্টাল কাউন্সিল (বিএমডিসি) এর পক্ষের আইনজীবী ব্যারিস্টার তানজীব উল আলমের উদ্দেশে করে প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন বলেন, ‘মেডিকেল কলেজের শিক্ষার্থীদের পরীক্ষার খাতা একই কলেজে না দেখে এবং রেজাল্ট শিট না করে (ডিফরেন্ট) ভিন্ন মেডিকেল কলেজে পাঠিয়ে সে খাতা দেখানো ও রেজাল্ট সিট করানো উচিত।’

আরও পড়ুন:

জাতীয় দলের নতুন দায়িত্বে খালেদ মাহমুদ সুজন


news24bd.tv/ নকিব

পরবর্তী খবর

কুমিল্লায় মন্দিরে হামলা: ১৬ জনকে জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদের নির্দেশ

অনলাইন ডেস্ক

কুমিল্লায় মন্দিরে হামলা: ১৬ জনকে জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদের নির্দেশ

কুমিল্লায় মন্দিরে হামলা ঘটনায় গ্রেপ্তার ১৭ আসামির ১৬ জনকে কুমিল্লা কেন্দ্রীয় কারাগারের সামনে দুই দিন করে জিজ্ঞাসাবাদের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

কুমিল্লা শহরের কাপড়িয়াপট্টি চাঁন্দমনি রক্ষাকালী মন্দিরে হামলার ঘটনাটি ঘটে। মঙ্গলবার কুমিল্লার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ১নং আমলী আদালতের (কোতয়ালী) বিচারক নুসরাত জাহান উর্মি এ আদেশ দেন।


আরও পড়ুন: 

১০ মিনিটের সংঘর্ষে রণক্ষেত্র নয়াপল্টন

এনআইডি নিয়ে সরকারের নতুন পরিকল্পনার কথা জানালেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

টসে জিতে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ


আদালত সূত্রে জানা গেছে, ১৭ আসামির একজন শিশু হওয়ায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-১ (জেলা ও দায়রা জজ) আদালত জামিন দেন। বাকি ১৬ আসামিকে দুই দিন করে জিজ্ঞাসাবাদের আদেশ দেওয়া হয়। কোতোয়ালি মডেল থানার উপ-পরিদর্শক ও মামলার বাদী আলিম খান এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর