ইভালির মতো গ্রাহক ঠকানো বন্ধে সরকার কাজ করছে: বাণিজ্যমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

ইভালির মতো গ্রাহক ঠকানো বন্ধে সরকার কাজ করছে: বাণিজ্যমন্ত্রী

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেছেন, অর্থনীতি বড় হয়েছে, দুর্নীতিও বেড়েছে। ই-ভ্যালির মতো আর কোনো কোম্পানি যাতে গ্রাহককে ঠকাতে না পারে সে বিষয়ে কাজ করছে সরকার।

তিনি বলেন, ই-কমার্স ব্যবসা বন্ধ করা যাবে না, তবে নজরদারির আওতায় নিয়ে আসা হবে। 

বিস্তারিত আসছে..

পরবর্তী খবর

ইভ্যালির ব্যাপারে দুদকের নতুন সিদ্ধান্ত

অনলাইন ডেস্ক

ইভ্যালির ব্যাপারে দুদকের নতুন সিদ্ধান্ত

ই-কমার্স প্ল্যাটফর্ম ইভ্যালির বিরুদ্ধে ৩০০ কোটি টাকা আত্মসাৎ ও পাচারের অভিযোগে তদন্তে নামে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

কিন্তু সাড়ে তিন মাসের মাথায় তদন্ত থেকে সরে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সংস্থাটি।

আরও পড়ুন:


ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আইপিএল নিয়ে জুয়া, ৩ জনের সাজা

চট্টগ্রাম আদালত এলাকায় বোমা হামলা মামলার রায় আজ

টুইটার অ্যাকাউন্ট ফিরে পেতে আদালতে ট্রাম্প

যুবলীগ নেতার সঙ্গে ভিডিও ফাঁস! মামলা তুলে নিতে নারীকে হুমকি


 

সংস্থাটির ভষ্য, ইভ্যালিসহ ই-কর্মাস কমিশনের ‘তফসিলভুক্ত’ নয়। তাই এ সংক্রান্ত অনুসন্ধান এ সংস্থাটি করবে না। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় দুদক প্রধান কার্যালয়ের সামনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এ কথা জানান কমিশন চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মঈনউদ্দীন আবদুল্লাহ।

তিনি বলেন, ‘ই-কমার্স বা ইভ্যালির বিষয়টি দুদকের শিডিউলভুক্ত নয়। মানি লন্ডারিংয়ের কথা যখন হয়েছিল তখন আমরা অনুসন্ধানে নেমেছিলাম। এখন মানিলন্ডারিংসহ ইভ্যালির বিষয়টি অন্য সংস্থা দেখবে।’

news24bd.tv/তৌহিদ

পরবর্তী খবর

১ টাকায় মিলছে পাকিস্তানের ২ রুপি

অনলাইন ডেস্ক

১ টাকায় মিলছে পাকিস্তানের ২ রুপি

বাংলাদেশের ১ টাকায় এখন মিলছে পাকিস্তানের ২ দশমিক ০১ রুপি। স্বাধীনতার পর পাকিস্তানি রুপির চেয়ে এখন দ্বিগুণ হয়েছে বাংলাদেশি টাকার মান। গেল কয়েক দিনে যুক্তরাষ্ট্রের মুদ্রা ডলারের বিপরীতে টাকার মান খানিকটা কমলেও বাংলাদেশি মুদ্রার মান পাকিস্তানের মুদ্রা রুপির দ্বিগুণ হয়েছে।

সোমবার মার্কিন ডলারের বিপরীতে নিজেদের ইতিহাসের সর্বোচ্চ দরপতনের রেকর্ড গড়ল পাকিস্তানি রুপি। 

সর্বশেষ ৮২ (পাকিস্তানি) পয়সা যোগ হয়েছে রুপি দিয়ে ডলার ক্রয়ের ক্ষেত্রে। এরই মধ্য দিয়ে প্রতি ডলারের সমমূল্য হয়ে দাঁড়াল ১৭৩ পাকিস্তানি রুপি। যা ডলারের বিপরীতে বাংলাদেশি টাকার মুদ্রামানের অর্ধেক।

আরও পড়ুন:


ইভ্যালিকে লাভজনক প্রতিষ্ঠানে রূপান্তরের সর্বোচ্চ চেষ্টা করব: বিচারপতি মানিক

করোনা: দেশে ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু কমলেও বেড়েছে শনাক্ত

প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় কলেজছাত্রকে অপহরণ করে বিয়ে করলো তরুণী!

ডিএমপি কমিশনার ও র‍্যাব ডিজি’র পদোন্নতি


 

পাকিস্তানি রুপির অব্যাহত দরপতন ও মুদ্রাস্ফীতি দ্রুতই কাটিয়ে উঠবে দেশ- এমনটাই আশাবাদ পাকিস্তানি প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের।

পাকিস্তানের বিদেশি মুদ্রার রিজার্ভ বাংলাদেশের রিজার্ভের অর্ধেকের কম। বর্তমানে বাংলাদেশ ব্যাংকের বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ ৪৮ বিলিয়ন মার্কিন ডলার, যা পাকিস্তানের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের তুলনায় দ্বিগুণের বেশি।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

এটিএম সেবায় বাড়লো ফি

অনলাইন ডেস্ক

এটিএম সেবায় বাড়লো ফি

এখন থেকে এটিএম (অটোমেটেড টেলার মেশিন) ব্যবহার কারিদের নগদ অর্থ উত্তোলন ও জমা দেয়ার ক্ষেতে বাড়তি ফি গুনতে হবে। তবে অন্যান্য ব্যাংকিং সেবার ক্ষেত্রে আগের ফি অপরিবর্তিত রয়েছে। তবে এই বাড়তি ফি গুনতে হবে শুধু মাত্র এক ব্যাংকের গ্রাহক অন্য ব্যাংকের এটিএম ব্যবহার করলে। নিজ ব্যাংকের এটিএম ব্যবহার করলে এই বাড়িতে ফি তাদের দিতে হবে না। আজ সকাল থেকেই বাড়তি ফি কার্যকর হয়েছে।

সোমবার (১৮ অক্টোবর) বাংলাদেশ ব্যাংক এ সংক্রান্ত একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করেছে। এতে বলা হয়েছে, এক ব্যাংকের গ্রাহক অন্য ব্যাংকের এটিএম সেবা গ্রহণের ক্ষেত্রে এই বাড়তি ফি দিতে হবে।

এক ব্যাংকের গ্রাহক অন্য ব্যাংকের এটিএম বুথ থেকে টাকা উত্তোলন এবং অর্থ জমা দেওয়ার ক্ষেত্রে প্রতি লেনদেনে সর্বোচ্চ ২০ টাকা ফি নিতে পারবে। আগে ছিল ১৫ টাকা। ব্যালেন্স জানতে ও মিনি স্টেটমেন্ট বিবরণী নিতে সর্বোচ্চ ৫ টাকা এবং টাকা স্থানান্তর ও ইন্টারনেট ব্যাংকিংয়ে অর্থ আদান প্রদানের জন্য আদায় করা হবে ১০ টাকা।

আরও পড়ুন:


ইভ্যালিকে লাভজনক প্রতিষ্ঠানে রূপান্তরের সর্বোচ্চ চেষ্টা করব: বিচারপতি মানিক

করোনা: দেশে ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু কমলেও বেড়েছে শনাক্ত

প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় কলেজছাত্রকে অপহরণ করে বিয়ে করলো তরুণী!

ডিএমপি কমিশনার ও র‍্যাব ডিজি’র পদোন্নতি


 

দেশের ভেতরে পয়েন্ট অব সেল ব্যবহার করে নগদ অর্থ উত্তোলন করলে প্রতি লেনদেনে সর্বোচ্চ ২০ টাকা ফি আদায় করবে ব্যাংক।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

বিশ্বে আবারো বেড়েছে অপরিশোধিত তেলের দাম

অনলাইন ডেস্ক

বিশ্ববাজারে ব্যারেলপ্রতি অপরিশোধিত তেলের দাম এক শতাংশ বেড়েছে।

ফলে এখন প্রতি ব্যারেলের দাম পরবে ৮৫ ডলার ৭৩ সেন্ট। সোমবার এসব তথ্য জানিয়েছে  রয়টার্স। বিশ্বজুড়ে চলাচলে নিষেধাজ্ঞা শিথিল হওয়া জ্বালানি খরচ বৃদ্ধিতে অবদান রাখবে  বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা।

তারা জানান, শুধু  যুক্তরাষ্ট্রে বিদ্যুৎ উৎপাদনের জন্য ‘গ্যাস-টু-অয়েল সুইচিং’ বছরের চতুর্থ প্রান্তিকে, দৈনিক সাড়ে চার লাখ ব্যারেল পর্যন্ত চাহিদা বাড়িয়ে দিতে পারে। অবশ্য এর সঙ্গে তাল মেলাতে উৎপাদনকারী দেশগুলোর তেল সরবরাহও বৃদ্ধি পেতে পারে।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

বিচারপতি মানিককে প্রধান করে ইভ্যালি পরিচালনায় পাঁচ সদস্যের বোর্ড

হাবিবুল ইসলাম হাবিব

ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালি পরিচালনার জন্য আপিল বিভাগের সাবেক বিচারপতি এইচ এম সামসুদ্দিন চৌধুরী মানিককে প্রধান করে পাঁচ সদস্যের কমিটি গঠন করে দিয়েছেন হাইকোর্ট। সোমবার বিচারপতি মুহাম্মদ খুরশীদ আলম সরকারের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। 

পণ্য অর্ডার করে না পাওয়ায় ইভ্যালির অবসায়ন চেয়ে হাইকোর্টে রিট করেন এক গ্রাহক। সেই রিটের শুনানি নিয়ে কয়েক দফা নির্দেশনা দেন হাইকোর্ট। পরে গ্রাহকদের কয়েক হাজার কোটি টাকা আটকে থাকা ও প্রতিষ্ঠানটির প্রতারনার অভিযোগ বিচার বিশ্লেষণ করে একটি পরিচালনা কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত নেয় হাইকোর্ট।

তারই প্রেক্ষিতে সোমবার সাবেক বিচারপতি সামসুদ্দিন চৌধুরী মানিককে চেয়ারম্যান করে পাঁচ সদস্যের একটি কমিটি গঠন করে দিয়েছেন হাইকোর্ট। 

কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন- স্থানীয় সরকার ও পল্লী উন্নয়ন বিভাগের সাবেক সচিব মোহাম্মদ রেজাউল আহসান, ওএসডিতে থাকা অতিরিক্ত সচিব মাহবুব কবীর মিলন, চার্টার্ড অ্যাকাউন্টেন্ট ফখরুদ্দিন আহম্মেদ, কোম্পানি আইন বিশেষজ্ঞ আইনজীবী ব্যারিস্টার খান মোহাম্মদ শামীম আজিজ। আদেশের কপি পাওয়ার পর বোর্ড মিটিংয়ে সিদ্ধান্ত হবে কোন প্রক্রিয়ার পরিচালিত হবে ইভ্যালি।

বোর্ডের চেয়ারম্যান সাবেক বিচারপতি শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক বলেন, অন্য চার সদস্য একমত হলে ইভ্যালিকে লাভজনক বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানে রূপান্তরের চেষ্টা করবেন তিনি।

আরও পড়ুন:


ইভ্যালিকে লাভজনক প্রতিষ্ঠানে রূপান্তরের সর্বোচ্চ চেষ্টা করব: বিচারপতি মানিক

করোনা: দেশে ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু কমলেও বেড়েছে শনাক্ত

প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় কলেজছাত্রকে অপহরণ করে বিয়ে করলো তরুণী!

ডিএমপি কমিশনার ও র‍্যাব ডিজি’র পদোন্নতি


এদিকে, সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ কর্তৃক গঠিত কমিটির প্রথম সভা শেষে বাণিজ্য সচিব বলেন, ইকমার্স নিবন্ধ ও লাইসেন্স সিয়ে তার মন্ত্রণালয় কাজ করছে।

জানা আগামী এক মাসের মধ্যে অভিযুক্ত প্রতিষ্ঠান এবং ক্ষতিগ্রস্তদের ক্ষতিপূরণ ও স্বার্থসুরক্ষা নিয়ে একটি সুপারিশ মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে পাঠানো হবে।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর