বিশ্বের প্রশংসাসহ সব অর্জনই প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে

অনলাইন ডেস্ক

বিশ্বের প্রশংসাসহ সব অর্জনই প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে

বিশ্বের সামনে বাংলাদেশকে নতুনভাবে পরিচয় করানো, কিংবা স্বৈরতন্ত্র থেকে গণতন্ত্রে উত্তরণ, অথবা অনুন্নত একটি দেশকে উন্নয়নশীল দেশের কাতারে তুলে আনা। সবশেষ, নিপীড়িত রোহিঙ্গাদের পাশে মানবিকভাবে দাঁড়িয়ে বিশ্বের প্রশংসা -সব অর্জনই এসেছে একজন মানুষের নেতৃত্বে। তিনি বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা। আজ ২৮ শে সেপ্টেম্বর, চার মেয়াদে নির্বাচিত এই প্রধানমন্ত্রী ৭৫ বছরে পা রাখতে যাচ্ছেন আজ। 

চার মেয়াদে নির্বাচিত প্রধানমন্ত্রী তিনি। বাংলাদেশের প্রাচীনতম রাজনৈতিক দল আওয়ামী লীগের সভাপতি ৪ দশক দশকেরও বেশি সময় ধরে। কিন্তু তাঁর কাছে সবচেয়ে প্রিয় পরিচয় তিনি জাতির জনকের কন্যা। তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

জন্ম ১৯৪৭ সালের ২৮শে সেপ্টেম্বর গোপালগঞ্জের নিভৃত পল্লী টুঙ্গীপাড়ায়। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতু্ন্নেসা দম্পতির প্রথম সন্তান শেখ হাসিনা, বাবা মায়ের প্রিয় হাসু।

শৈশব থেকেই বেড়ে উঠেছেন রাজনৈতিক পরিমণ্ডলে। দেখেছেন মুক্তিকামী শোষিত বাঙালিকে স্বাধীনতা এনে দিতে পিতা শেখ মুজিবুর রহমানের নিরন্তর সংগ্রাম। স্বাধীনতা সংগ্রামের উন্মাতাল দিন গুলোতে নিজেও শামিল হয়েছেন।

শেখ হাসিনার জীবনে গভীর অমানিশা নেমে আসে ৭৫এর ১৫ আগষ্ট। যেদিন নির্মম ভাবে ঘাতকেরা হত্যা করে পরিবারের প্রায় সবাইকে। স্বামীর সঙ্গে বিদেশে থাকায় প্রাণে রক্ষা পান তিনি এবং ছোট বোন শেখ রেহানা।

জাতির জনকের হত্যার বিচার হতে হবে। সামরিক শাসনে পিষ্ট বাংলাদেশে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করতে হবে- এ লক্ষ্যে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ১৯৮১তে দেশে প্রত্যাবর্তণ করেন শেখ হাসিনা আওয়ামীলীগের সভাপতির দায়িত্ব নিয়ে।  

রাজপথের দীর্ঘ লড়াই সংগ্রাম শেষে ৯৬তে সরকার প্রধানের দায়িত্ব নেন তিনি। এরপর ২০০৯ থেকে এখন পর্যন্ত টানা তিন মেয়াদে দায়িত্ব পালন করে চলেছেন সফলতার সঙ্গে। আর এই সময়ে বিশ্বের কাছে বাংলাদেশ হয়ে উঠেছে উন্নয়নের বিশ্বয়। স্বল্পন্নত দেশ থেকে বাংলাদেশের উত্তরণ হয়ে মধ্য আয়ের দেশের তালিকায়।

আরও পড়ুন


আইএইএ মহাপরিচালকের প্রতিবেদনে ভুল তথ্য, প্রতিবাদ ইরানের

রাজধানীর যেসব এলাকায় মার্কেট বন্ধ থাকবে আজ

শিশু সন্তানকে জবাই করে মায়ের আত্মহত্যার চেষ্টা, আটক মা


তবে এ অর্জনের পথ সহজ ছিলোনা। রাজনৈতিক জীবনে অন্তত ২০ বার তাঁকে হত্যার চেষ্টা করেছে উগ্রবাদী চক্র। সামরিক শাসন আমলে কারাবন্দী হয়েছেন কয়েক বার।  

তারপরও শত প্রতিকূলতা থামাতে পারেনি শেখ হাসিনাকে। দেশের গণ্ডি পেরিয়ে  বিশ্ব পরিমণ্ডলেও হয়ে উঠেছেন সমান জনপ্রিয়। এখন কেবল বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সেই ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্ত উন্নত বাংলাদেশ গঠনের পথেই হেঁটে চলেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।  

news24bd.tv রিমু  

 

 

পরবর্তী খবর

২০২২ সালে ছুটি কয়দিন তা জানা গেল

অনলাইন ডেস্ক

২০২২ সালে ছুটি কয়দিন তা জানা গেল

২০২২ সালে সাধারণ ও নির্বাহী আদেশ মিলিয়ে ২২ দিন ছুটি থাকবে। এর মধ্যে সাধারণ ছুটি ১৪ এবং নির্বাহী আদেশে ছুটি থাকবে ৮ দিন। 

বৃহস্পতিবার (২৮ অক্টোবর) মন্ত্রিসভার বৈঠকে ২০২২ সালের ছুটির এ তালিকা অনুমোদন দেওয়া হয়। ২২ দিনের মধ্যে ৬ দিন পড়েছে সাপ্তাহিক ছুটির দিনে।

মন্ত্রিসভার বৈঠকের পর দুপুরে সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলনে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

আরও পড়ুন:


পাগলীর জন্ম নেওয়া সন্তানের পিতা এমপি বদি

টস জিতে ফিল্ডিংয়ে পাকিস্তান

শোয়েব মালিককে ‘দুলাভাই’ ‘দুলাভাই’ বলে ডাকল ভারতীয় দর্শকরা (ভিডিও)

পরবর্তী খবর

জানা গেল স্কুলশিক্ষার্থীদের টিকা দেওয়ার তারিখ

অনলাইন ডেস্ক

জানা গেল স্কুলশিক্ষার্থীদের টিকা দেওয়ার তারিখ

স্কুলশিক্ষার্থীদের করোনাভাইরাসের টিকা দেওয়ার ঘোষণা দিলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। আগামী ১ নভেম্বর থেকে তাদের এই টিকা দেওয়া হবে। বৃহস্পতিবার (২৮ অক্টোবর) মন্ত্রিপরিষদ বৈঠক শেষে স্বাস্থ্যমন্ত্রী সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, প্রাথমিকভাবে ঢাকায় ১২টি কেন্দ্রে টিকা দেওয়া শুরু হবে। প্রতিদিন ৪০ হাজার শিক্ষার্থীকে টিকা দেওয়া হবে। তালিকা পাওয়া সাপেক্ষে এই টিকা কার্যক্রম চলবে।


বিস্তারিত আসছে...

আরও পড়ুন:

মেডিকেল শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা পদ্ধতি নিয়ে প্রশ্ন প্রধান বিচারপতির


news24bd.tv/ নকিব

পরবর্তী খবর

বিএনপি কর্মসূচির নামে সন্ত্রাস-জনভোগান্তি সৃষ্টি করলে প্রতিহত করা হবে: কাদের

অনলাইন ডেস্ক

বিএনপি কর্মসূচির নামে সন্ত্রাস-জনভোগান্তি সৃষ্টি করলে প্রতিহত করা হবে: কাদের

বিএনপি কর্মসূচির নামে কোনরূপ সন্ত্রাস ও জনভোগান্তি সৃষ্টি করলে আওয়ামী লীগ জনগণকে সাথে নিয়ে কঠোরভাবে প্রতিহত করবে। আজ বৃহস্পতিবার সকালে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের তাঁর বাসভবনে ব্রিফিংকালে বিএনপিকে সতর্ক করে দিয়ে একথা বলেন।  

তিনি বলেন, সভা-সমাবেশ সকলের সাংবিধানিক অধিকার কিন্তু সমাবেশের অনুমতি না দিলে বিএনপি বলতো সরকার গণতন্ত্রে বিশ্বাস করে না,আর অনুমতি দিলে হামলা,সন্ত্রাস সৃষ্টি করে জনগণের সম্পদ বিনষ্ট করে।

ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, বিএনপির কর্মসূচি মানেই জনগণের মাঝে আতংক সৃষ্টি করা। শেখ হাসিনা সরকার কখনো খালি মাঠে গোল দিতে চায় না,সরকার চায় প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ নির্বাচন, আর খালি মাঠে গোল দিতে আওয়ামী লীগ অভ্যস্তও নয়। বরং বিএনপিই জন্ম লগ্ন থেকে এ চর্চা করে আসছে। 

তিনি বলেন,  ১৫ ই ফেব্রুয়ারীর খালি মাঠে নির্বাচনে কথা বিএনপি ভুলে গেলেও জনগণ এখনও ভুলেনি। বিএনপি নেতারা তাদের ব্যর্থতা আড়াল করতে ও কর্মী সমর্থকদের রোষানল থেকে বাঁচার জন্য এসব বক্তব্য দিচ্ছেন বলেও মন্তব্য করেন ওবায়দুল কাদের। 

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবারও বলেন  নির্বাচন আওয়ামী লীগ সরকারের অধীনে নয়, নির্বাচন হবে নির্বাচন কমিশনের অধীনে। পূজা মণ্ডপের ঘটনায় বিএনপি নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে সরকারের মামলা দেওয়ার অভিযোগ সত্য নয় জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, কে কোন দল করে সেটা দেখে নয়, ভিডিও ফুটেজ দেখেই চিহ্নিতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। 

সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করার মাধ্যমে বিএনপি পরিস্থিতি ঘোলাটে করতে চেয়েছিল কিন্তু সরকার তা শক্ত হাতে দমন করেছে উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপি জাতিকে বিভ্রান্ত করছে এবং  বিভেদ তৈরি করছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করছে দেশকে উন্নয়নের সমৃদ্ধির দিকে এগিয়ে নিতে আর এটাই বিএনপি'র গাত্রদাহের কারণ বলেও মনে করেন ওবায়দুল কাদের। 

তিনি বলেন, গত মঙ্গলবার নয়াপল্টনে পুলিশের উপর হামলা এবং সন্ত্রাস সৃষ্টির মাধ্যমে বিএনপি প্রমাণ করেছে তারা শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি পালনে সক্ষম নয় তাদের কর্মসূচি মানে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করা। ঙ্গলবারের কথিত সম্প্রীতি সমাবেশের আড়ালে বিএনপির ভিন্ন কোন এজেন্ডা ছিল কিনা তা খতিয়ে দেখা দরকার।ব

ওবায়দুল কাদের প্রশ্ন রেখে বলেন,তবে কি অপরাধীদের বাঁচানোর জন্যই সম্প্রীতি সমাবেশের নামে বিএনপির এ সন্ত্রাস? তিনি আরও বলেন, আসলে হামলা,সংঘর্ষ, ষড়যন্ত্র আর সন্ত্রাসী বিএনপির রাজনীতি, সেটা পূজামণ্ডপে হোক আর নয়াপল্টনে হোক বিএনপি এই বৃত্ত থেকে বেরিয়ে আসতে পারছে না। 

আরও পড়ুন:


বিয়েতে মাংস বেশি খেয়েছে, নববধূকে তালাক!

আসছে ইউনিসেক্স কনডম, ব্যবহার করতে পারবে নারী-পুরুষ উভয়ই


স্থানীয় সরকার নির্বাচনের পরবর্তী ধাপে যে সকল এলাকায নির্বাচন হবে সে সকল এলাকার আওয়ামী লীগের প্রতিটি সাংগঠনিক ইউনিটকে এখন থেকেই প্রস্তুতি নেওয়ার নির্দেশ দিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন ইউনিটসমূহকে এখন থেকেই মিটিং করে রেজুলেশন প্রস্তুত করতে হবে।

তিনি বলেন, যখন যে এলাকার জন্য নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা হবে তার পরপরই ইউনিয়ন থেকে উপজেলা এবং জেলা হয়ে রেজুলেশন কেন্দ্রে জমা দিতে হবে। 

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তফসিল ঘোষণার সাথে সাথেই সংশ্লিষ্ট এলাকার রেজুলেশন জমা দেওয়া নিশ্চিত করতে এখন থেকে সভা করে আগেই রেজুলেশন তৈরির কাজ করার নির্দেশনা দেন। 

news24bd.tv রিমু    

 

পরবর্তী খবর

আবাসিক হোটেল থেকে ঢাবি ছাত্রের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার, চিঠিতে যা লেখা ছিল

অনলাইন ডেস্ক

আবাসিক হোটেল থেকে ঢাবি ছাত্রের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার, চিঠিতে যা লেখা ছিল

আদনান সাকিব (২৫) নামে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) এক ছাত্রের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গত বুধবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে রাজধানীর সেগুনবাগিচার একটি আবাসিক হোটেল থেকে পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে। সেই সঙ্গে পাশে পড়ে থাকা একটি চিঠিও উদ্ধার করেছে পুলিশ। 

জানা গেছে, মৃত সাকিবের বাড়ি নীলফামারীর ডিমলা উপজেলার উত্তর সোনাখুলি গ্রামে। বাবার নাম আব্দুল মালেক। সে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের ২০১৪-১৫ শিক্ষাবর্ষের ছাত্র। থাকতেন সার্জেন্ট জহুরুল হক হলে।

শাহবাগ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) পলাশ সাহা আজ সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। 

তিনি জানান, গতকাল রাতে সাকিবের নিখোঁজের বিষয়ে শাহবাগ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন তার স্ত্রী। এরপর তার ফোন নাম্বার ট্র্যাকিং করে লোকেশন পাওয়া যায় সেগুনবাগিচা কর্ণফুলী আবাসিক হোটেল। রাত দেড়টার দিকে হোটেলে গিয়ে রেজিস্ট্রেশনে তার নাম দেখা যায়। তখন হোটেলটির দ্বিতীয় তলায় ১০৭ নম্বর রুমে গিয়ে তাকে ডাকাডাকি করার একপর্যায়ে রুমের দরজা ভাঙা হয়। ভিতরে ঢুকে দেখা যায়, ফ্যানের সাথে নাইলনের রশি পেঁচিয়ে গলায় ফাঁসি লাগিয়ে ঝুলছে সে। তার রুমে পুলিশ একটি সুইসাইডাল নোট উদ্ধার করেছে। যাতে তার মৃত্যুর জন্য কারো দোষ নেই বলে লিখে গেছে। প্রাথমিকভাবে এটা আত্মহত্যা মনে হলেও বিস্তারিত তদন্ত করে দেখা হচ্ছে বলে জানায় পুলিশ। 

আরও পড়ুন:


স্ত্রীর ইচ্ছা পূরণে মন্দিরে ১৭ লাখ রুপির স্বর্ণ দান

নির্বাচনে এক সতীনকে জেতাতে দুই সতীনের প্রচারণা!

চুল কিভাবে কাটতে হবে নিয়ম জারি ইউপি চেয়ারম্যানের!


এদিকে পুলিশ সূত্রে জানা যায়, হোটেলে রেজিস্ট্রেশনে দেখা গেছে পরশু সন্ধ্যায় সে ওই আবাসিক হোটেলের ১০৭ নম্বর রুম ভাড়া নেন সাকিব। হোটেল কর্তৃপক্ষ জানায়, সে ভার্সিটির ভর্তি পরীক্ষা দিতে হোটেলে উঠেছে। 

news24bd.tv রিমু  

 

পরবর্তী খবর

আজ শুরু হল গণটিকার দ্বিতীয় ডোজ, যারা অগ্রাধিকার পাবেন

অনলাইন ডেস্ক

আজ শুরু হল গণটিকার দ্বিতীয় ডোজ, যারা অগ্রাধিকার পাবেন

দেশে করোনাভাইরাসের টিকাদান কার্যক্রমের আওতায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে আজ বৃহস্পতিবার এক দিনের হিসাবে সর্বোচ্চ দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া হবে। এর আগে ২৮ সেপ্টেম্বর যারা টিকার প্রথম ডোজ নিয়েছিলেন শুধুমাত্র তাদেরকেই আজ দ্বিতীয় ডোজ প্রদান করা হবে বলে জানিয়েছে  স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। সকাল ৯টা থেকে শুরু হয়ে বিকেল ৩টা পর্যন্ত চলবে এই গণটিকাদান কর্মসূচি।  

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের টিকাদান কার্যক্রমের পরিচালক গতকাল বুধবার বুলেটিনে জানান,  ২৮ সেপ্টেম্বর সারা দেশে বিশেষ কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনেশন ক্যাম্পেইন অনুষ্ঠিত হয়েছিল। সেই ক্যাম্পেইনের অংশ হিসেবে দ্বিতীয় ডোজের কার্যক্রম ২৮ অক্টোবর অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। ওই দিন সারা দেশে সব সিটি করপোরেশন, পৌরসভা ও উপজেলায় বিশেষ কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনেশন ক্যাম্পেইন অনুষ্ঠিত হবে। ক্যাম্পেইন চলাকালে শুধু দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া হবে।

তিনি আরও জানান, কেন্দ্র পরিবর্তনের কোনো সুযোগ নেই। প্রথম ডোজ নেওয়া কেন্দ্র থেকেই দ্বিতীয় ডোজ নিতে হবে। ক্যাম্পেইনে কাউকেই প্রথম ডোজ দেওয়া হবে না। এটা কেবল দ্বিতীয় ডোজের ক্যাম্পেইন। 

 স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. এবিএম খুরশীদ আলম বলেন, চলতি মাসেই আমরা চার কোটির মতো মানুষকে টিকার দুই ডোজ দিতে পারব। আগামী ২৮ অক্টোবর টিকা ক্যাম্পেইনের প্রায় ৮২ লাখ মানুষ দ্বিতীয় ডোজ পাবেন। আর আগামী মাসে অন্তত পাঁচ কোটি মানুষকে দুই ডোজ পূর্ণ টিকা দিতে পারব।

উল্লেখ্য, প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে গত ২৮-২৯ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত ক্যাম্পেইনের দুই দিনে প্রথম ডোজের টিকা নিয়েছেন ৭৮ লাখ ১১ হাজার ২১৬ জন। একই সঙ্গে এ সময়ে দ্বিতীয় ডোজের টিকা নিয়েছেন আরও ২ লাখ ৮২ হাজার ২০ জন। সবমিলিয়ে ওই দুই দিনে মোট প্রথম ডোজের টিকা নিয়েছেন ৮০ লাখ ৯৩ হাজার ২৩৬ জন।

পরবর্তী খবর