কুকুরের মাংস নিষিদ্ধ হচ্ছে দক্ষিণ কোরিয়ায়
কুকুরের মাংস নিষিদ্ধ হচ্ছে দক্ষিণ কোরিয়ায়

কুকুরের মাংস নিষিদ্ধ হচ্ছে দক্ষিণ কোরিয়ায়

অনলাইন ডেস্ক

দীর্ঘদিন ধরে দক্ষিণ কোরিয়ান খাবারের একটি বড় অংশ ছিল কুকুরের মাংস। দেশটিতে খাবার হিসেবে এটি অত্যন্ত স্বাভাবিক বিষয় হলেও আন্তর্জাতিক অঙ্গনে এটি একটি অস্বস্তিকর বিষয়। এ কারণে দেশটিতে কুকুরের মাংস খাওয়া নিষিদ্ধ করতে যাচ্ছে দেশটির সরকার।

দক্ষিণ কোরিয়ার মানুষেরা বছরে ১০ লাখ কুকুরের মাংস খায়।

তবে দেশটিতে তরুণ প্রজন্মের মধ্যে কুকুরের মাংস খাওয়ার বিষয়ে এক ধরণের হীনমন্যতা তৈরি হয়েছে। যার বড় কারণ, অনেকেই কুকুরকে পোষা প্রাণী বা সার্বক্ষণিক সঙ্গী হিসেবে বেছে নেয়। ফলে তাদের কাছে কুকুরের মাংস খাওয়া একধরণের 'ট্যাবু' হিসেবে গড়ে উঠেছে। এছাড়া পশু অধিকার কর্মীরাও এটি নিয়ে চাপের মধ্যে রয়েছে।

দেশটির প্রেসিডেন্ট মুন জায়ে-ইনের মুখপাত্রের মতে, প্রেসিডেন্ট সোমবার একটি সাপ্তাহিক বৈঠকের সময় প্রধানমন্ত্রী কিম বু-কিউমকে জিজ্ঞাসা করেছিলেন, কুকরের মাংস নিষিদ্ধ করার সময় কি এখনও আসেনি?

প্রেসিডেন্ট মুন জায়ে-ইন কুকুরপ্রেমী হিসেবে পরিচিত এবং রাষ্ট্রপতি প্রাঙ্গণে তার বেশ কয়েকটি কুকুর রয়েছে। যার মধ্যে বেশ কিছু কুকুর তিনি ক্ষমতা গ্রহণের পর উদ্ধার করেছিলেন।

দেশটিতে পশু সংরক্ষণ আইনে কুকুর-বিড়ালের ওপর নিষ্ঠুর আচরণের জন্য নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। কিন্তু দেশটিতে ভোগ করা নিষেধ করা হয়নি।

রও পড়ুন:

বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৫তম জন্মদিন আজ

গালে থাপ্পড়ের পর এবার ডিম হামলার শিকার ম্যাক্রোঁ, ভিডিও ভাইরাল

ইউটিউবারদের আয়ের উপর কর, মিশরে মিশ্র প্রতিক্রিয়া

শিশু সন্তানকে জবাই করে মায়ের আত্মহত্যার চেষ্টা, আটক মা


ফলে এখন কুকুরের খামার ও রেস্তোরাঁ নিয়ন্ত্রণ ও তদারকি করতে আইন ও অন্যান্য স্বাস্থ্যবিধি প্রবিধানের দিকে অগ্রসর হচ্ছে দেশটির কর্তৃপক্ষ।

সূত্র: দ্য গার্ডিয়ান

news24bd.tv/ নকিব