মদ্যপানে অভ্যস্ত রাজকীয় মহিষটির হৃদরোগে মৃত্যু
মদ্যপানে অভ্যস্ত রাজকীয় মহিষটির হৃদরোগে মৃত্যু

মদ্যপানে অভ্যস্ত রাজকীয় মহিষটির হৃদরোগে মৃত্যু

অনলাইন ডেস্ক

মহিষটির নাম সুলতান ঝোটে। আর দশটা মহিষের মত ছিলো না তার জীবন-যাপন। সুলতান ঝোটের জীবন ছিলো রাজকীয়। তার নিত্য খাদ্য তালিকায় থাকতো দুধ-ঘি।

আর সন্ধ্যা নামলেই মদ্যপান।   কিন্তু এমন একটি মহিষের হটাৎ মৃত্যু মেনে নিতে পারছে না কেও। হঠাৎ হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয় ২১ কোটি টাকা দামের এ মহিষটির।

মহিষটি ছিলো ভারতের হরিয়ানার কৈথলের বুড়াখেড়া গ্রামের বাসিন্দা নরেশ বেনিওয়ালের। মহিষটি হরিয়ানাসহ গোটা দেশে পরিচিত ছিল  তার দামের জন্য।  

জানা গেছে, ৬ ফুট দৈর্ঘ্য এবং দেড়টন ওজনের সুলতান এক দিনে ১০ কেজি দুধ, ২০ কিলো গাজর, ১০ কিলো সবজি এবং ১২ কিলো পাতা খেত। তবে আরও একটা নেশা ছিল সুলতানের। সন্ধ্যা হলে মদ্যপান করত।

শুধু হরিয়ানা বা পঞ্জাবই নয়, যেখানে পশু মেলা হতো, সেখানেই সুলতান তার গুণের জন্য পুরস্কার জিতত। ২০১৩-তে সর্বভারতীয় পশু সৌন্দর্য প্রতিযোগিতায় ঝাঝর, কারনাল এবং হিসারে সেরার পুরস্কার জিতেছিল সুলতান।

আরও পড়ুন:


দুই মেয়েসহ মা নিখোঁজ উৎকন্ঠায় পরিবার

রশি দিয়ে বাধা প্রতিবন্ধী শহিদের বন্দী জীবন

বাগেরহাটে সড়ক দুর্ঘটনায় ক্রিকেটার রিদু নিহত

স্কুল খোলার পর যেভাবে চলবে প্রাথমিকের ক্লাস!


 

সুলতানের এত চাহিদার কারণ? সুলতানের বীর্যের বিশাল চাহিদা ছিল। তার মালিক নরেশের দাবি, সুলতানের বীর্য বিক্রি করে বছর ভর লাখ লাখ টাকা আয় করতেন তিনি। বছরে সুলতানের ৩০ হাজার ডোজ বীর্য বিক্রি হত। প্রতি ডোজের দাম ৩০৬ টাকা। আর এ কারণেই সুলতানের দাম এত বিপুল ছিল।

news24bd.tv/আলী