গোপনে ৬ বিয়ে : জামাইকে গ্রামবাসী দিলো গণপিটুনি

অনলাইন ডেস্ক

গোপনে ৬ বিয়ে : জামাইকে গ্রামবাসী দিলো  গণপিটুনি

একে একে ৬টি বিয়ে করছেন সন্তোষ দলুই। সময়ের পরিক্রমায় সন্তান হয়েছে তার একাধিক সংসারে। বছরের পর বছরে এভাবেই চলছিলো তার ৬ সংসারের জীবন। কিন্তু 'চোরের দশদিন, গেরস্তের একদিন' প্রবাদের ন্যয় এক শ্বশুরবাড়ি থেকে অন্য শ্বশুরবাড়ি যাওয়ার পথে ধরা খেলেন হাতে নাতে।

সন্তোষ দলুই তার পঞ্চম ও ষষ্ঠ বিয়ে করেছিলেন পাশাপাশি দুই গ্রামে। ফলে যাওয়া-আসার পথে এক জায়গায় দেখা হয়ে যায় দুই পক্ষের পরিচিতজনদের সঙ্গে। এ সময় সকলের সামনে বেরিয়ে  আসে আসল ঘটনা। ফলশ্রুতিতে কপালে জোটে বেদম গণপিটুনি। অভিযুক্ত যুবককে তুলে দেয়া হয়েছে পুলিশের হাতে। প্রতারণার অভিযোগে সন্তোষের নামে মামলা করেছেন পঞ্চম স্ত্রীর বাবা। 

সম্প্রতি এ ঘটনা ঘটেছে ভারতের পশ্চিম মেদিনীপুরের দাসপুর এলাকায়। তার এই ৬ বিয়ের আদ্যোপান্ত জানতে শুরু হয়েছে তদন্ত।

জানা গেছে, হায়দ্রাবাদে ফুল সাজানোর কাজ করতেন দাসপুরের গদাইপুরের বাসিন্দা সন্তোষ দলুই। সেখানেই সে প্রথম বিয়ে করে। এরপর বছর পাঁচেক আগে নিজের বাড়ি ফিরে সেখানকার এক নারীকে বিয়ে করেন। তাদের এক সন্তানও রয়েছে। 

এরপর মহেশপুর গ্রামে  গিয়ে ফের বিয়ে করে সে। সেখানেও  রয়েছে তার বছর তিনেকের সন্তান। এভাবে একের পর এক বিয়ে করে দেড় বছর আগে মহেশপুরের ঠিক পাশের গ্রাম কলরার এক নারীকে বিয়ে করেন। এটি ছিল তার ষষ্ঠ বিয়ে। 

দিন দুয়েক আগে কলরা গ্রামে শ্বশুরবাড়ি যাওয়ার পথেই বিপাকে পড়েন সন্তোষ। কলরা ও মহেশপুরের মধ্যকার রাস্তায় দাঁড়িয়ে কথা বলছিলেন কয়েকজন যুবক। তাদের চোখে পড়ে, সন্তোষ কলরা গ্রামের দিকে যাচ্ছে। এ সময় মহেশপুরের পরিচিতরা ডেকে জিজ্ঞেস করেন, তিনি কোথায় যাচ্ছেন? এতজনের হাতে ধরা পড়ে সন্তোষ আর বিষয়টি সামলাতে পারেননি।

একদিকে মহেশপুরের লোকজন তাকে ‘জামাই’ বলছেন, অন্যদিকে কলরা গ্রামের বাসিন্দাদেরও একই দাবি। দুই গ্রামবাসীর তর্কাতর্কি আর লাগাতার জেরার মুখে শেষ পর্যন্ত সত্যটা বলতে বাধ্য হন জামাই সন্তোষ। জানান, কলরা গ্রামের রিংকু আসলে তার ষষ্ঠ স্ত্রী।

আরও পড়ুন:


দুই মেয়েসহ মা নিখোঁজ উৎকন্ঠায় পরিবার

রশি দিয়ে বাধা প্রতিবন্ধী শহিদের বন্দী জীবন

বাগেরহাটে সড়ক দুর্ঘটনায় ক্রিকেটার রিদু নিহত

স্কুল খোলার পর যেভাবে চলবে প্রাথমিকের ক্লাস!


 

এরপরেই দুই পরিবারের কাছে জামাইয়ের গোপন সংবাদ পৌঁছায়। তারা ছুটে যান ঘটনাস্থলে। তবে ততক্ষণে উত্তেজিত গ্রামবাসীর হাতে গণপিটুনি খেয়ে অবস্থা খারাপ জামাই সন্তোষের।
সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকার

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

তিন কন্যার জন্মদিন একই দিনে, তবে কেউই জমজ নয় (ভিডিও)

অনলাইন ডেস্ক

একই পরিবারে তিন কন্যা। ৩ জনের জন্মদিনই ২৫ আগস্ট। তবে তারা কেউই জমজ নন। তাদের প্রত্যেকের বয়সের ব্যবধান তিন বছর করে।

সিএনএনের খবরে বলা হয়, ওই তিন কন্যার মা ক্রিস্টিন ল্যামার্ট যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডার বাসিন্দা। গত ছয় বছরে ৩ বার ২৫ আগস্ট দিনটি হাসপাতালের ডেলিভারি রুমে কাটাতে হয়েছে তাকে। তবে এটি মোটেও পরিকল্পিত ছিল না। যদিও অনেকে বিষয়টিকে শুধু কাকতালীয় ভাবতে নারাজ। তাদের দাবি, এর পেছনে অবশ্যই ক্রিস্টিনার সুনির্দিষ্ট পরিকল্পনা ছিল।

ভাত কম খাওয়া প্রসঙ্গে

তবে সেই দাবি উড়িয়ে দিয়েছেন মা ক্রিস্টিনা। ২০১৫ সালের ২৫ আগস্ট জন্ম নেয় তাঁর প্রথম সন্তান সোফিয়া।  দ্বিতীয় মেয়ে গিলিয়ানার জন্ম ২০১৮ সালের ২৫ আগস্ট। আর ২০২১ এর ২৫ আগস্ট জন্ম নেয় ছোট কন্যা মিয়া।

news24bd.tv/এমি-জান্নাত  

পরবর্তী খবর

পাত্রের বীর্য পরীক্ষা করালেন মেয়ের বাবা!

অনলাইন ডেস্ক

পাত্রের বীর্য পরীক্ষা করালেন মেয়ের বাবা!

বিয়ে একটি নতুন সম্পর্কের নাম।এটি একটি সামাজিক বন্ধন বা বৈধ চুক্তি যার মাধ্যমে দু’জন মানুষের মধ্যে দাম্পত্য সম্পর্ক স্থাপিত হয়। বিয়ের আগে একে অপরের দুর্বলতা, সক্ষমতা খুঁজে বের করা খুবই স্বাভাবিক ঘটনা। কিন্তু যদি বলি পাত্রের বীর্ষ পরীক্ষার রিপোর্ট দেখতে চাইলেন মেয়ের বাবা। নিশ্চয় অবাক হচ্ছেন। অবাক হলেও ঘটনাটি সত্যি।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আনন্দ বাজার পত্রিকা বলছে, ঘটনাটি কলকাতার। 

খবরে বলা হয়, ইন্দ্রনীল সাহা নামে কলকাতার এক চিকিৎসকের দাবি, তাঁর মেয়ের সঙ্গে বিয়েতে রাজি হওয়ার আগে হবু জামাইয়ের বীর্য পরীক্ষার রিপোর্ট দেখতে চেয়েছেন পাত্রীর বাবা। এ আবদার নিয়ে ওই চিকিৎসকের দ্বারস্থ হয়েছিলেন সেই ব্যক্তি। 

ভাইরাল ওই পোস্টে ইন্দ্রনীলের আরও দাবি, প্রথমে হতবাক হয়ে গেলেও শনিবার ওই পাত্রের বীর্য পরীক্ষা করানো হয়েছে। স্বাভাবিক ভাবেই ওই পাত্র-পাত্রীর বা তাঁদের পরিবারের নাম-পরিচয় গোপন রেখেছেন তিনি। তবে ফেসবুকের পাতায় তা নিয়ে দু’চার কথা লিখতে ছাড়েননি। এমন অভিজ্ঞতা যে তাঁর কর্মজীবনে এই প্রথম, তা-ও জানিয়েছেন ইন্দ্রনীল।

ইন্দ্রনীল লিখেছেন, ‘এত দিন জানতাম, দেখেশুনে বিয়ে হলে ঠিকুজি-কোষ্ঠি মেলানো হয়। শুনেছি, কখনও মাধ্যমিকের অ্যাডমিট কার্ড দেখে মেয়ের বয়স মেলানো হয়। কিংবা দেখতে চাওয়া হয় ছেলের স্যালারি স্লিপ। (তবে) মেয়ের বাবা ছেলের বীর্য পরীক্ষার রিপোর্ট দেখতে চেয়েছেন। এমনও অভিজ্ঞতা হল এবার। সেটা নয় সহজে পাওয়া যাবে। কিন্ত, এ বার যদি জানতে চান হবু জামাই সহবাসে সক্ষম কি না!’ 

সঙ্গে তাঁর মন্তব্য, ‘আরও কী যে দেখতে শুনতে হবে, কে জানে!’

আরও পড়ুন: পাকিস্তানের কাছে খেলায় হেরে কাশ্মীরী শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা

এ নিয়ে ফেসবুকে সরস মন্তব্য করতে ছাড়েননি অনেকেই। পাত্রীরও স্বাস্থ্য পরীক্ষা করিয়ে নেওয়া প্রয়োজন বলে দাবি করেছেন অনেকে। 

বিষয়টি খুবই গুরুত্বপূর্ণ বলে সমর্থন দিয়েছেন বেশ কয়েকজন ফেসবুক ব্যবহারকারী। তাঁদের মতে, ‘মন্দ কী! এতে তো লিঙ্গসাম্যই বজায় থাকল।’ 

স্বয়ং ইন্দ্রনীল কী মনে করেন? ফেসবুকে তাঁর সাফ জবাব, ‘এ ভাবে দরদাম করে সম্পর্ক তৈরি হয় না!’

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

১৫ দিনের বিরতি ছাড়াই ওমরাহ পালনের সুযোগ

অনলাইন ডেস্ক

১৫ দিনের বিরতি ছাড়াই ওমরাহ পালনের সুযোগ

করোনার কারণে দুইটি ওমরাহ করার ব্যাপারে যে ১৫ দিনের ব্যবধান রাখার নিয়ম ছিল তা বাতিল করেছে সৌদি সরকার।

সোমবার (২৫ অক্টোবর) সৌদির হজ ও ওমরাহ বিষয়ক মন্ত্রণালয় এ সুখবর দেয়। আরব নিউজে এ প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়।

আরও পড়ুন: খালেদা জিয়ার পরবর্তী চিকিৎসা কী জানা যাবে ২১ দিন পর

তথ্যমতে, করোনার পরিস্থিতি স্বাভাবিক ও টিকা কার্যক্রমের বিষয়টি আবশ্যক হওয়ায় এখন থেকে কোন শর্ত ছাড়াই ওমরাযাত্রীরা একাধিক ওমরাহ পালন করতে পারবেন। মাঝখানে বিরতি দিতে হবে না।

news24bd.tv/তৌহিদ

পরবর্তী খবর

স্বামীর ফেসবুক পোস্টে মেয়েদের লাইক নিয়ে মারামারি!

অনলাইন ডেস্ক

স্বামীর ফেসবুক পোস্টে মেয়েদের লাইক নিয়ে মারামারি!

স্বামী ফেসবুকে পোস্ট করলেই ঝড়ের বেগে নারীদের লাইক পরতে থাকে। ব্যাপারটা অনেকদিন থেকেই খেয়াল করছিলেন স্ত্রী। দু'জনেরই ফেসবুক প্রোফাইল থেকে দুজনেই নিয়মিত পোস্ট করেন। স্বামীর পোস্টে অন্যদের লাইক-কমেন্ট নিয়ে আপত্তি নেই, কিন্তু ওই মেয়েদের লাইক নিয়েই যত গোলমাল।

ইকবালকে নিয়ে পুলিশের অভিযান, যা পাওয়া গেছে!

অবশেষে সহ্য করতে না পেরে রাগে স্বামীর ফোনটাই ছুঁড়ে ভেঙে দিলেন স্ত্রী। ডেইলি হান্ট জানায়, ঘটনাটি গুজরাটের ভাদোদারার। ফেসবুক পোস্ট নিয়ে মারামারি শুরু হয়ে যায় স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে। ব্যাপারটা পুলিশ পর্যন্ত গড়িয়েছে। স্ত্রী নির্যাতনের অভিযোগ তুলেছেন স্ত্রী। তবে স্বামী-স্ত্রী দুজনকেই বোঝানোর চেষ্টা করছে পুলিশ।

news24bd.tv/এমি-জান্নাত  

পরবর্তী খবর

রিকশাচালক দেবে ৪ কোটি টাকা আয়কর!

অনলাইন ডেস্ক

রিকশাচালক দেবে ৪ কোটি টাকা আয়কর!

ছবি- সংগৃহীত

প্রায় চার কোটি টাকা আয়কর দেয়ার নির্দেশ পেয়েছেন ভারতের উত্তরপ্রদেশের এক রিকশাচালক। সম্প্রতি দেশটির আয়কর বিভাগ থেকে এমন নোটিশ পেয়েছেন তিনি। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, প্রতাপ সিংহ ভারতের উত্তরপ্রদেশের মথুরার বাকালপুর এলাকার বাসিন্দা। ব্যংকে ব্যবহারের জন্য সম্প্রতি বাকালপুরের একটি জন সুবিধা কেন্দ্রে 'প্যান কার্ডের' জন্য আবেদন করেছিলেন তিনি। তিন মাস পর কার্ডটি হাতে পান তিনি।

এরপর গত ১৯ অক্টোবর আয়কর বিভাগের এক অফিসার ফোন করে তাকে ওই নির্দেশের কথা জানান। আয়কর বিভাগের পাঠানো ওই নির্দেশে প্রতাপকে ৩ কোটি ৪৭ লাখ ৫৪ হাজার ৮৯৬ রুপি দিতে বলা হয়। বাংলাদেশি মুদ্রায় যার পরিমাণ প্রায় ৩ কোটি ৯৬ লাখ টাকা।

এই নির্দেশ পাওয়ার পর প্রতাপ হাইওয়ে থানায় যান। পুলিশ তার অভিযোগ শুনলেও কোন মামলা দায়ের করেনি বলে জানান প্রতাপ। এই বিষয়টি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি ভিডিও আপলোড করেন তিনি।

সংশ্লিষ্ট থানার স্টেশন হাউস অফিসার অনুজ কুমার বলেছেন, ‘কোনো মামলা দায়ের হয়নি। কিন্তু বিষয়টি পুলিশ দেখছে।’ 

আরও পড়ুন:

সকালে সিদ্ধ ডিম কী দুপুরে ভালো থাকে?


news24bd.tv/ নকিব

পরবর্তী খবর