চট্টগ্রামের অসংখ্য অরক্ষিত ড্রেন এখন মরণফাঁদ
পরস্পরকে দোষারোপ করছে সিডিএ ও সিটি করপোরেশন

চট্টগ্রামের অসংখ্য অরক্ষিত ড্রেন এখন মরণফাঁদ

Other

চট্টগ্রাম নগরজুড়ে অসংখ্য অরক্ষিত ড্রেন এখন মরণফাঁদ। একের পর এক হচ্ছে মৃত্যু। তবুও হচ্ছেনা সংস্কার। সিটি কর্পোরেশন বলছে, সিডিএ-র জলাবদ্ধতা প্রকল্পের কাজ চলায় সংস্কার করতে পারছে না তারা।

 

আর সিডিএ বলছে, জলাবদ্ধতা প্রকল্পে খাল খননের পাশাপাশি চলছে ড্রেন সংস্কারের কাজও। দুই সংস্থার পাল্টাপাল্টি অভিযোগ আর গাফিলতির কারণেই ড্রেনে পড়ে প্রাণ হারাচ্ছে সাধারণ মানুষ, এমন অভিযোগ নগরবাসীর।

চট্টগ্রাম নগর জুড়ে সড়কের পাশেই ছোট বড় অসংখ্য নালা। আর এই নালার ওপরেই নগরবাসীর চলাচলের পথ ফুটপাত। অরক্ষিত ড্রেন যেন এখন মরণফাঁদ। প্রতিদিনই হচ্ছে কোননা কোন দূর্ঘটনা। সোমবার রাতে আগ্রাবাদে ড্রেনে পড়ে নিখোঁজের চার ঘন্টা পর কলেজ শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিস।

কলেজ ছাত্রী সাদিয়ার লাশ উদ্ধারের দুদিন আগে মাঝিরঘাট এলাকার পাশের নর্দমায় পড়ে এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়। আর গত ২৬ আগস্ট মুরাদপর এলাকায় নালায় পড়ে নিখোঁজ হয় সালেহ আহমেদ নামে এক ব্যবসায়ী। যার খোঁজই  মেলেনি এখনও।  নগরবাসী অভিযোগ পুরনো ড্রেন সংস্কার না করার কারণে নালায় কেউ পরলেও উদ্ধার করতে লাগে অনেক সময়।

আরও পড়ুন: 


বগুড়া-সিরাজগঞ্জ রেলপথ নির্মাণে সময় বাঁচবে ৩ ঘণ্টা

দেশের ইতিহাসে সবচেয়ে দুঃসময় যাচ্ছে: ফখরুল

প্রকাশ হলো এসএসসি ও এইচএসসির পরীক্ষার রুটিন

নিজের মোটরসাইকেলে আগুন ধরিয়ে দিলেন বাইকার


সিটি কর্পোরেশন বলছে সিডিএর জলাবদ্ধতা প্রকল্পের কারণেই ড্রেন সংস্কার করতে পারছেনা তারা।
আর সিডিএ বলছে খালখননের পাশাপাশি ড্রেনও সংস্কার করবে তারা।

বর্তমানের মতো এমন উদাসীন অভিভাবক চট্টগ্রামে আর দেখা যায়নি বলে হতাশা প্রকাশ করে নগরবাসী। আর দুই প্রতিষ্ঠানের সমন্বয় না থাকলে জলাবদ্ধতা প্রকল্পের তেমন কোন সুফল মিলবে না বলছেন নগর বিশ্লেষকরা।

news24bd.tv/ কামরুল 

;