ঘুম কমে যাওয়ার কারণ চাঁদ : বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণা
ঘুম কমে যাওয়ার কারণ চাঁদ : বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণা

ঘুম কমে যাওয়ার কারণ চাঁদ : বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণা

অনলাইন ডেস্ক

প্রায়শই আমরা আশে পাশের মানুষের মুখে একটা কথা শুনি, ঘুম কম হচ্ছে। কিন্তু এর সমাধান কি?  এই প্রশ্নের উওর জানতে আজ পর্যন্ত কত  যে গবেষণা হয়েছে তার কোনও সঠিক পরিসংখ্যান নেই। এবার ঘুম না হওয়ার কারণ খুঁজে বের করেছে সুইডেনের উপসালা বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েকজন গবেষক। সম্প্রতি বিশ্ববিদ্যালয়টির একদল গবেষক মানুষের ঘুমের ধরন নিয়ে গবেষণা করেছেন।

 

তাদের গবেষণায় উঠে আসে, মানুষের ঘুম কম হওয়ার কারণ। ​পৃথিবীর নানা প্রান্তের, নানা ভৌগোলিক পরিবেশের মানুষের ঘুমের সময় নিয়ে সমীক্ষা চালিয়েছেন গবেষকরা। তার মধ্যে যেমন রয়েছে দক্ষিণ আমেরিকার প্রত্যন্ত গ্রাম, তেমনই রয়েছে ইউরোপের বড় শহর বা এশিয়ার উপকূলবর্তী ছোট্ট জনপদ।

আরও পড়ুন

অস্ট্রেলিয়ান নাগরিকদের ফেসবুক পেজে প্রবেশ বন্ধ করে দিলো সিএনএন

ভ্যাকসিন প্রত্যাখ্যানকারী কর্মীদের বরখাস্ত করবে ইউনাইটেড এয়ারলাইনস

সৌদি আরব, মিশর, সংযুক্ত আরব আমিরাতে মিউজিক চার্ট চালু করেছে ইউটিউব

জেদ্দার বাসিন্দারা নতুন লোহিত সাগরের পানি ক্রীড়াক্ষেত্রে বেশি ব্যবহার করে


 

গবেষক দল বলছে, মানুষের ঘুম কমে যাওয়া বা বেড়ে যাওয়ার সঙ্গে চাঁদের অবস্থানের সম্পর্ক রয়েছে। সকল স্থানের মানুষেরই ঘুমের ধরন বদলে যায় চাঁদের অবস্থানের সঙ্গে। চাঁদের আকার বড় হলে, ঘুম কমে। আর চাঁদের আকার যত ছোট হয়, ঘুম তত বাড়ে।

গবেষক দল জানিয়েছে,  আকাশ মেঘলা থাকুক আর পরিষ্কার থাকুক এতেও হেরফের হয় না ঘুমের অভ্যাসের।

গবেষণাটি  পরিবেশ বিজ্ঞান জার্নালে প্রকাশিত হয়েছে।

news24bd.tv/আলী

;