‘হাত-পা বেঁধে মুখে বালিশ চাপা দিয়ে’ হত্যা করে ভবন মালিককে
‘হাত-পা বেঁধে মুখে বালিশ চাপা দিয়ে’ হত্যা করে ভবন মালিককে

‘হাত-পা বেঁধে মুখে বালিশ চাপা দিয়ে’ হত্যা করে ভবন মালিককে

অনলাইন ডেস্ক

চট্টগ্রাম জালালাবাদ জমির হাউজিং এলাকায় নির্মাণাধীন ভবনের নিরাপত্তাকর্মী মো. হাছান নিজেই ভবন মালিক নিজাম পাশাকে ‘হাত-পা বেঁধে মুখে বালিশ চাপা দিয়ে’ হত্যা করেছে বলে তথ্য উদঘাটন করেছে পুলিশ।

হাছানকে জিজ্ঞাসাবাদের বরাত দিয়ে পুলিশ কর্মকর্তারা বলছেন, নির্মাণাধীন ভবনের রঙের কাজ নিরাপত্তাকর্মী হাছান করতে চেয়েছিলেন কিন্তু ভবন মালিক সেটিতে রাজি হয়নি। ক্ষুব্ধ হয়ে হাত-পা বেঁধে মুখে বালিশ চাপা দিয়ে ভবন মালিককে হত্যা করেন।

গত সোমবার ভোর রাতে নির্মাণাধীন ওই ভবনের পাশ থেকে ৬৫ বছর বয়সী নিজাম পাশার লাশ উদ্ধার করা হয়।

খুন করার পর ময়লার স্তূপে তার লাশ লুকিয়ে রাখা হয়েছিল।

প্রতি সপ্তাহে ভবনের কাজ দেখতে এবং শ্রমিকদের বেতন পরিশোধ করতে সেখানে যেতেন নিজাম। রোববারও গিয়েছিলেন। তার লাশ উদ্ধারের পর থেকে ভবনের দারোয়ান হাছান লাপাত্তা হয়ে যান।

হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় নিহতের স্ত্রী সেলিনা ইয়াসমিন বাদী হয়ে হাছানকে আসামি করে খুলশী থানায় একটি মামলা করেন। এরপর মঙ্গলবার সন্ধ্যায় নগরীর রেয়াজউদ্দিন বাজার এলাকা থেকে হাছানকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

নগর পুলিশের উপ-কমিশনার (উত্তর) মোখলেছুর রহমান বুধবার এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, বিকাশে টাকা দেওয়ার ফাঁদ পেতে পলাতক হাছানকে গ্রেপ্তার করা হয়।

হাছানকে গ্রেপ্তারের পর প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের বরাত দিয়ে খুলশী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আফতাব হোসাইন বলেন, নিজাম পাশার মত হাছানের বাড়িও ফটিকছড়ি উপজেলায়। নিজাম পাশার কাছ থেকে তার ভবনের রঙের কাজ চেয়েছিলেন হাছান। কিন্তু দিতে রাজি না হওয়ায় ক্ষোভ থেকে সে তাকে হত্যা করার কথা জিজ্ঞাসাবাদে বলেছে।

news24bd.tv/ কামরুল