আমার ডিপার্টমেন্টে আমিই গড, তোর বাবার চাকরি খেয়ে ফেলবো
আমার ডিপার্টমেন্টে আমিই গড, তোর বাবার চাকরি খেয়ে ফেলবো

আমার ডিপার্টমেন্টে আমিই গড, তোর বাবার চাকরি খেয়ে ফেলবো

অনলাইন ডেস্ক

ফারহানা ইয়াসমিন বাতেন রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য ও বাংলাদেশ অধ্যয়ন বিভাগের শিক্ষিকা। তার বিরুদ্ধে ক্লাসে ছাত্র-ছাত্রীদের সঙ্গে - ‘লাথি মেরে চারতলা থেকে ফেলে দেবো’, ‘তোর বাবার চাকরি খেয়ে ফেলবো’, ‘১০ বছরেও ইউনিভার্সিটি থেকে বের হতে পারবে না’, ‘আমার ডিপার্টমেন্টে আমিই গড’, ‘পরীক্ষা দিয়ে যাবা, খাতা ছিঁড়ে ফেলে দেবো’ এভাবেই কথা বলতেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

তাছাড়ৃও এই  শিক্ষিকা শিক্ষার্থীদের অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেন বলেও অভিযোগ করেছেন অনেক শিক্ষার্থী। গতকাল বুধবার রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য ও বাংলাদেশ অধ্যয়ন বিভাগের একাধিক শিক্ষার্থীর এমন অভিযোগ করেন।

  

শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করে বলেন, ওই শিক্ষক আমাদের বাবা-মা এমনকি জন্মের পরিচয় তুলেও গালি দেন। ব্যক্তিগত আক্রমণ করে কথা বলেন। তার সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ করলে তিনি পরীক্ষায় ফেল করানোর ভয় দেখান।


আরও পড়ুন

ইকুয়েডর কারাগার: সহিংসতায় মৃতের সংখ্যা ১০০ ছাড়ালো

 চাঁপাইনবাবগঞ্জে ট্রাকের চাকায় পিষ্ট শ্রমিক

বাবা-মাকে ঘরে আটকে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীর ফাঁস, সুইসাইড নোট উদ্ধার

আপা নেই, কে ধমক দেবে?


এক শিক্ষার্থী বলেন, ফারহানা ইয়াসমিন বাতেন শিক্ষার্থীদের সঙ্গে স্বৈরাচারি আচরণ করেন। নিজের বাবা আর্মি অফিসার দাবি করে শিক্ষার্থীদের বাবার চাকরি খেয়ে ফেলারও হুমকি দেন। ওনার কাছে কেউ নিরাপদ নয়। অপমান সহ্য করতে না পেরে তুহিন নামে এক শিক্ষার্থী আত্মহত্যার চেষ্টা করেছে। এ কারণেই পুরো বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা ওই শিক্ষকের অপসারণ দাবি করছে। টানা দীর্ঘদিনের নির্যাতনে ফুঁসে উঠেছে ছাত্ররা।

news24bd.tv/এমি-জান্নাত