দিনাজপুরে গাছে বেঁধে দুই শিক্ষার্থীকে নির্যাতন, ভিডিও ভাইরাল
দিনাজপুরে গাছে বেঁধে দুই শিক্ষার্থীকে নির্যাতন, ভিডিও ভাইরাল

দিনাজপুরে গাছে বেঁধে দুই শিক্ষার্থীকে নির্যাতন, ভিডিও ভাইরাল

Other

দিনাজপুরের হিলিতে ছাগল চুরির অভিযোগে অষ্টম শ্রেণির দুই স্কুল ছাত্রকে মধ্যযুগীয় কায়দায় গাছে বেঁধে নির্যাতন করা হয়েছে। এ ঘটনাটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে পুলিশ শিক্ষার্থীদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে। পরে ভিডিও ফুটেজ দেখে স্থানীয় এক ইউপি সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। পাশাপাশি ঘটনার সাথে জড়িত অন্যান্যদের আটকের চেষ্টা করছে পুলিশ।

শুক্রবার সকালে হাকিমপুর উপজেলার মোল্লা বাজার নামক এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার ১০ ঘণ্টা পর অভিযুক্ত ইউপি সদস্য নাজমুলকে গ্রেপ্তার করে হাকিমপুর থানা পুলিশ।

ভুক্তভোগী ঐ দুই ছাত্র আরিফ ও সৌরভ জানায়, সকালে দুইবন্ধু মোল্লা বাজার এলাকায় ঘুরতে যায় এবং পাশে একটি সুন্দর ছাগলের বাচ্চা দেখতে পেয়ে তারা কোলে নিয়ে খেলা করে। এসময় কয়েকজন লোক তদের চোর বলে ধাওয়া করে, পরে তারা ভয়ে পালানোর সময় রাস্তার উপর থেকে ধরে নিয়ে গিয়ে ছাগল চুরির অভিযোগ এনে গাছের সাথে বেঁধে এলোপাতাড়ি মারধরসহ অমানবিক নির্যাতন করে।

ভুক্তভোগি শিক্ষার্থীর এক বাবা জানান, তারা অষ্টম শ্রেণির ছাত্র। চুরির অপবাদ এনে যারা নির্যাতন করেছে তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানিয়েছেন।

আরও পড়ুন


সূরা বাকারা: আয়াত ১০৩-১০৭, ঈমান বা বিশ্বাসের সঙ্গে খোদাভীরুতা জরুরী

যুক্তরাষ্ট্র সফর শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী

রাজধানীর তেজগাঁওয়ে বিস্ফোরণ, ২ শিক্ষার্থী আহত

কলকাতার হারে জমজমাট আইপিএল


সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নির্যাতনের একটি ভিডিও দেখে হাকিমপুর থানা পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থলে শিক্ষার্থীদের উদ্ধার করে হাকিমপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা শেষে অভিভাবকের কাছে হস্তান্তর করে। এ ঘটনায় নাজমুল নামের এক ইউপি সদস্যকে আটক করা হয়েছে বলে জানান সহকারী পুলিশ সুপার শরীফ আল রাজীব।

ভুক্তভোগি এক শিক্ষার্থীর বাবা মনির বাদি হয়ে সংশ্লিষ্ট থানায় ইউপি সদস্য নাজমুলসহ আরো কয়েক জনের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন। পুলিশ ভিডিও ফুটেজ দেখে বাঁকি আসামীদের আটকের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। দ্রুত তাদের আইনের আওতায় এনে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জনান তারা।

news24bd.tv এসএম