ভুলে যাই বাস্তবতা
ভুলে যাই বাস্তবতা

ভুলে যাই বাস্তবতা

Other

প্রথম শতাব্দীতে রোম সাম্রাজ্যের অংশ ছিল এই অঞ্চল হেগরা। ‌ এখন সৌদি আরবের মদিনা থেকে ৪০০ কি.মি দূরে। শতশত বিস্ময়কর পাহাড়। এই পাহাড়ে অকল্পনীয় ভাবে গর্ত খুঁড়ে বসবাস করতো এক মানবজাতি।

হাজার হাজার বছরের পুরোনো স্মৃতি এখনো দাঁড়িয়ে আছে মরুভূমির মধ্যে। শুধু নেই সেই বসবাসরত মানুষ ও তাদের অধস্তন গোষ্ঠী।

এখন ভীতিকর ও বিস্ময়কর পরিত্যাক্ত পাহাড় হাজার হাজার বছর পূর্বের সাক্ষ্য বহন করে চলছে। কেউ তাদের মনে রাখেনি, যারা কঠিন পাহাড় কেটে বসতি স্থাপন করেছিল। প্রাচীন যুগ থেকে নিকট অতীতে যারা বিশাল বিশাল অট্টালিকা ও বিত্তবৈভব রেখে গেছেন, তাদের নাম কি জানেন উত্তরসুরীরা? তিন পুরুষ পুর্বের পিতা মহ বা মাতা মহের নাম কজনে জানে?

news24bd.tv

মা বাবার অসুস্থতা, এমনকি মৃত্যুর পরে কবর দিতে অনেক বিখ্যাত ব্যাক্তির সন্তানেরা আসেন না। মা বাবাকে কবরে ভিজে মাটিতে রাখার সময় অনেক সন্তান নিজে দূরে দাঁড়িয়ে শুধু তদারকি করেন, হাতে মাটি স্পর্শ করতে দ্বিধা করেন। বৃষ্টি এলে দ্রুত সরে যান। তিনি কি ভেবে দেখেন, কত কষ্ট তার বাবা মা করেছেন তাকে জন্ম দিতে ও বড় করতে? স্ত্রী পুত্র কন্যা নিয়ে মহা আরামে থাকা কতজন সন্তান তার বৃদ্ধ ও রোগাক্রান্ত বাবা মাকে কাছে রেখে সেবা করেন ঐ ভাবে, যেভাবে তার ছোট্ট বেলায় মা বাবা করেছিলেন?

news24bd.tv

অথচ, ভালো ভাবে না খেয়ে, আরামে না থেকে সীমাহীন কষ্ট করে ধনসম্পদের পাহাড় গড়ে রেখে যান সন্তানের জন্য। কতজন উত্তরাধিকারী তার পূর্বপুরুষের জন্য দোয়া করেন? সর্বোচ্চ, মা বাবা, দাদা দাদী? এর পূর্বের কারো নামও হয়তো জানেন না। এটাই বাস্তবতা। কবরে পরিচর্যা করেন কতটা? নিজ বা বাবার নামে প্রতিষ্ঠান করার পিছনে কি মনে রাখি?

আরও পড়ুন


জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলুর বর্ণাঢ্য জীবনী

জাপা মহাসচিব জিয়াউদ্দিন বাবলুর জানাজার সময় ও স্থান

মিয়ানমারে ফেরত যেতে চাওয়ায় মুহিবুল্লাহকে হত্যা: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

চীনা প্রেসিডেন্টকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার শুভেচ্ছা


এ ভাবেই জ্ঞাতসারেই আমরা হারিয়ে ফেলি তাদেরকে, যাদের থেকে ক্রমান্বয়ে আজকের আমি। অথচ, একবারও ভেবে দেখিনা ক'দিন পরে আমারো একই পরিনতি হবে। আমার কবর এক সময়ে হারিয়ে যাবে কালের গহ্বরে। কেউ মনে রাখবেনা। বিত্তবৈভব ভোগ করা মানুষেরাও জানবে না এসবের উৎসের অতীত। তাই ধনসম্পদের চেয়ে বেশি প্রয়োজন ধর্মীয় মূল্যবোধ ও নীতি নৈতিকতার আদর্শিক শিক্ষার। আসুন আমরা স্রষ্টাকে স্মরণকরি এবং আত্মশুদ্ধি ও কল্যানের পথে এগিয়ে যাই। পরম করুণাময় আমাদের সহায় হোন।

লেখক: মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম

news24bd.tv এসএম

সম্পর্কিত খবর