ছাগল চুরির অভিযোগে দুই শিক্ষার্থীকে গাছে বেঁধে নির্যাতন, ভিডিও ভাইরাল

ছাগল চুরির অভিযোগে দুই শিক্ষার্থীকে গাছে বেঁধে নির্যাতন, ভিডিও ভাইরাল

Other

দিনাজপুরের হিলিতে ছাগল চুরির অভিযোগে অষ্টম শ্রেনির দুই স্কুল ছাত্রকে গাছে বেঁধে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে। মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতনের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে, তাদেরে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয় পুলিশ। পরে ভিডিও ফুটেজ দেখে স্থানীয় ওই ইউপি সদস্যকে পুলিশ আটক করে। পাশাপাশি ঘটনার সাথে জড়িত অন্যান্যদের আটকের চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

দিনাজপুরের হিলিতে ছাগল চুরির অভিযোগে অষ্টম শ্রেণির দুই শিক্ষার্থীকে এমন নির্যাতনের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পরে শুক্রবার। অভিযুক্ত, স্থানীয় ইউপি সদস্য নাজমুল। ঘটনার ১০ ঘণ্টা পর ভিডিও দেখে নাজমুলকে আটক করে পুলিশ।   

আরও পড়ুন


রোহিঙ্গাদের নেতা মুহিবুল্লাহ হত্যায় আরও দুইজন গ্রেপ্তার

রাজধানীতে বিস্ফোরণের ঘটনায় দগ্ধ জিকরুল্লাহ'র মৃত্যু

রাষ্ট্রীয় নথি জালসহ কয়েকটি অপরাধে ফেঁসে যাচ্ছেন নাসির-তামিমা

ময়মনসিংহ মেডিকেলে করোনা উপসর্গে ৮ জনের মৃত্যু


নির্যাতিত ওই দুই শিক্ষার্থী জানায়, শুক্রবার সকালে মোল্লা বাজার এলাকায় ঘুরতে গিয়ে একটি ছাগলের বাচ্চা দেখতে পেয়ে কোলে নিয়ে খেলা করে তারা। এ সময় কয়েকজন তাদের চোর বলে ধাওয়া করে। ভয়ে পালানোর চেষ্টাও সফল হয়নি। তাদের ধরে ছাগল চুরির অভিযোগ এনে গাছের সাথে বেঁধে এলোপাতাড়ি মারধর করা হয়।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নির্যাতনের ভিডিও দেখে হাকিমপুর থানা পুলিশ তাদের উদ্ধার করে। পরে হাকিমপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা শেষে অভিভাবকের কাছে তাদের হস্তান্তর  করা হয়। এ ঘটনায় নাজমুল নামের এক ইউপি সদস্যকে আটক করা হয়েছে।
 
চুরির অপবাদ এনে যারা নির্যাতন করেছে তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানায় ভুক্তোভোগীর পরিবার ও প্রতিবেশিরা।

নির্যাতিত শিক্ষার্থীর বাবা বাদি হয়ে সংশ্লিষ্ট থানায় ইউপি সদস্য নাজমুলসহ আরো কয়েক জনের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেছেন। ভিডিও ফুটেজ দেখে বাকি আসামিদেরও আটকের চেষ্টা করছে বলে জানায় পুলিশ।

news24bd.tv/ কামরুল