মুনিয়ার বাসায় শেষ গিয়েছিল নুসরাতের ৩ সহযোগী

নিজস্ব প্রতিবেদক

মুনিয়ার বাসায় শেষ গিয়েছিল নুসরাতের ৩ সহযোগী

মুনিয়ার মৃত্যু নিয়ে এখন তদন্ত করছে পিবিআই। এই তদন্ত করতে যেয়ে একের পর এক বেরিয়ে আসছে চাঞ্চল্যকর তথ্য। হত্যা এবং ধর্ষণের মামলা তদন্ত করতে গিয়ে তদন্তকারী কর্মকর্তারা ইতিমধ্যে গুলশানের ওই ফ্ল্যাটের সিসিটিভি ফুটেজ জব্দ করেছে, রেজিস্টার বুক জব্দ করেছে এবং ওই সমস্ত সিসিটিভির ফুটেজ বিশ্লেষণ করে অনেক চাঞ্চল্যকর তথ্য পাওয়া যাচ্ছে। 

উল্লেখ্য যে, মুনিয়ার মৃত্যুর ২ ঘণ্টা আগে ওই ফ্ল্যাটে তিনজন ব্যক্তি প্রবেশ করেছিল। সিসিটিভি ফুটেজে তাদের ছবি পাওয়া গেছে। কিন্তু তিনজন এক সময় প্রবেশ করেনি। তাদের প্রথমজন প্রবেশের ৪৫ মিনিট পর দ্বিতীয়জন এবং তার ১৫ মিনিট পর তৃতীয়জন প্রবেশ করেছেন।

এর আগে নুসরাতের সাথে মুনিয়ার টেলিআলাপের রেকর্ড পর্যালোচনা করলে দেখা যায় সেখানে নুসরাত বলছে যে, ওদেরকে পাঠাচ্ছি, ওদেরকে বসার ব্যবস্থা কর আমি আসছি। এরা কারা? এই সিসিটিভি ফুটেজের সঙ্গে পরবর্তীতে নুসরাত যখন থানায় গেলেন সেই গুলশান থানার সিসিটিভি ফুটেজ পর্যালোচনা করলে দেখা যায়, যে তিনজন সেদিন মুনিয়ার মৃত্যুর আগে গুলশানের ফ্ল্যাটে গিয়েছিল সেই তিনজনই আবার নুসরাতের সঙ্গে গাড়িতে করে গুলশান থানায় যান এবং গুলশান থানায় যখন নুসরাত মুনিয়ার মৃত্যু নিয়ে মামলা দায়ের করেন সে সময় তাদেরকে নুসরাতের পাশে দেখা গেছে।

প্রশ্ন উঠেছে, নুসরাত কুমিল্লা থেকে মুনিয়ার ফ্ল্যাটে আসার পরপরই এই তিনজন কোথা থেকে মুনিয়ার ফ্ল্যাটে এলো।

আরও তদন্তে দেখা গেছে যে, নুসরাতের কাছে মুনিয়ার ফ্লাটের একটি চাবির ডুপ্লিকেট চাবি থাকত এবং এই চাবিটি তিনি এই তিনজন সহযোগীকে দিয়েছিলেন বলেও প্রাথমিক তদন্তে পাওয়া গেছে। আবার যখন নুসরাত আদালতে নারাজি দরখাস্ত করেন তখনও ওই তিনজন ব্যক্তিকে নুসরাতের সঙ্গে দেখা যায়, তারা কোর্টে ঘোরাঘুরি করছেন। এরও পরে যখন নুসরাত ৮ নম্বর নারী শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন তখনও এই তিনজনকে পাওয়া গেছে।

অনুসন্ধানে দেখা গেছে যে, এই তিনজন নুসরাতের একান্ত ব্যক্তিগত সহযোগী এবং বিশ্বস্ত ব্যক্তি। এরা কুমিল্লাতেও নুসরাতের জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধ নিষ্পত্তিতে কাজ করেন। নুসরাতের পারিবারিক ঝামেলার জন্য তাকে কিছু সন্ত্রাসী গোষ্ঠী পালতে হতো বলে স্থানীয় এলাকাবাসী জানিয়েছেন। বিশেষ করে তার ভাইয়ের সঙ্গে জমিজমা নিয়ে বিরোধ সহিংসতা পর্যায়ে পৌঁছে যায় এবং এ নিয়ে মামলা মোকদ্দমা আছে। এ কারণেই নুসরাত স্থানীয় সন্ত্রাসী গ্রুপদের সঙ্গে উঠাবসা শুরু করেন এবং তাদেরকে নিয়মিত মাসোয়ারা দিতেন। 

একই সময়ে মুনিয়া যেন অবাধ্য না হয়ে যায় এবং তার নাগালের বাইরে না চলে যায় এজন্য মুনিয়াকে নজরদারির মধ্যে রাখার জন্য এরকম কয়েকজনকে ব্যবহার করা হতো। এরা প্রত্যেকেই পেশাদার সন্ত্রাসী এবং এদের বিরুদ্ধে একাধিক মামলা রয়েছে। পুলিশ এখন এই তিনজনকে খুঁজছে। এই তিনজনকে অন্তত সাতটি জায়গায় নুসরাতের সঙ্গে দেখা গেছে এবং এই ভিডিওগুলো একটার পর একটা মিলিয়ে মুনিয়ার মৃত্যুর সঙ্গে এদের কোনো যোগসূত্র আছে কিনা সেটা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। কারণ মুনিয়া যদি যদি সত্যি সত্যি হত্যাকাণ্ডের শিকার হন তাহলে সেই হত্যাকাণ্ডের সময় ওই ফ্ল্যাটে কাউকে থাকতে হবে।

এখন সিসিটিভি ফুটেজ পর্যালোচনায় দেখা যায় যে, তিনজন ব্যক্তি সেদিন ওই ফ্ল্যাটে গিয়েছিলেন। সেই তিনজনই আবার নুসরাতের সঙ্গে সার্বক্ষণিক ভাবে ছায়ার মত ঘোরাফেরা করছে। এরকম একটি পরিস্থিতিতে এই মামলার তদন্তে একটি নাটকীয় মোড় নিয়েছে। 

আরও পড়ুন:


বিএনপির আন্দোলনের হাতিয়ারে মরিচা ধরে গেছে: ওবায়দুল কাদের

নির্বাচন নির্বাচন খেলা আর হবে না: মির্জা ফখরুল

রোহিঙ্গাদের নেতা মুহিবুল্লাহ হত্যায় আরও দুইজন গ্রেপ্তার

প্রবাসীদের জন্য নতুন যে নির্দেশনা দিয়েছে সৌদি সরকার


বিভিন্ন মহল মনে করছেন যে, নুসরাতের বিশ্বস্ত সহযোগী এই তিনজনকে গ্রেপ্তার করতে পারলেই এই মামলার রহস্যজট অনেকখানি উপড়ে যাবে। তবে তদন্তে এটি এখন পর্যন্ত নিশ্চিত হয়েছে যে, মুনিয়ার মৃত্যুর দিন যাদেরকে আসামি হিসেবে অভিযুক্ত করা হয়েছে তাদের কেউই মুনিয়ার ফ্লাটে যায়নি। সিসিটিভি ফুটেজের তাদের ফ্ল্যাটে যাওয়ার কোনো প্রমাণ মেলেনি। বরং যে তিনজন রহস্যজনক ভাবে ফ্ল্যাটে গিয়েছিল সেই তিনজনকে নিয়েই এখন তদন্ত ক্রমশ ঘনীভূত হচ্ছে বলে বিভিন্ন সূত্র নিশ্চিত করেছে।

news24bd.tv/এএ

পরবর্তী খবর

উৎসবমুখর পরিবেশে চলছে ডিআরইউ নির্বাচন

অনলাইন ডেস্ক

উৎসবমুখর পরিবেশে চলছে ডিআরইউ নির্বাচন

ডিআরইউ কার্যালয়ে চলছে ভোটগ্রহণ

উৎসবমুখর পরিবেশে রাজধানীর সেগুনবাগিচায় চলছেপেশাদার সাংবাদিকদের অন্যতম সংগঠন ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) ভোটগ্রহণ। আজ সকাল ৯টায় ডিআরইউ কার্যালয়ের নসরুল হামিদ মিলনায়তনে সকাল ৯টা থেকে ভোটগ্রহণ শুরু হয়। এটি একটানা বিকেল ৫টা পর্যন্ত চলবে।

ভোটারদের সুবিধার জন্য ২০টি বুথ বসানো হয়েছে। সকাল থেকেই বুথগুলোতে ভোটারদের লাইন দেখা গেছে। এবারের নির্বাচনে মোট ভোটার ১ হাজার ৭২২ জন।

নির্বাচন পরিচালনা কমিটির চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন প্রবীণ সাংবাদিক ও দি ফিনান্সিয়াল হেরাল্ড সম্পাদক রিয়াজ উদ্দিন আহমেদ।

পাঁচ সদস্যের নির্বাচন কমিশনে রয়েছেন বিএফইউজের সাবেক সভাপতি ও টিভি টুডের এডিটর-ইন-চিফ মনজুরুল আহসান বুলবুল, বিএফইউজের সাবেক মহাসচিব এম এ আজিজ, ডিইউজের সাবেক সভাপতি শাহজাহান মিয়া ও বাংলাদেশ প্রতিদিনের যুগ্ম সম্পাদক আবু তাহের।


আরও পড়ুন:

গণপরিবহনে শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়া কার্যকর

হাফ পাস শুধুমাত্র ঢাকায় কার্যকর হবে বললেন এনায়েত উল্লাহ

কুমিল্লায় কাউন্সিলর হত্যা: ৬ হামলাকারী শনাক্ত


এবারের নির্বাচনে ২১টি পদের বিপরীতে ৪৪ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তবে একজন করে প্রার্থী থাকায় ভোট হচ্ছে না দুটি পদে। সভাপতি পদ প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী পাঁচ জন প্রার্থীর মধ্যে রয়েছেন- কবির আহমেদ খান, নজরুল ইসলাম মিঠু, রিয়াজ চৌধুরী, সাখাওয়াত হোসেন বাদশা, সৈয়দ শুকুর আলী শুভ।

নির্বাচন কমিশনার মঞ্জুরুল আহসান বুলবুল বলেন, ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির নির্বাচন ২০২১-এর ভোটগ্রহণ সকাল ৯টা থেকে শান্তিপূর্ণভাবে চলছে। বিকেল ৫টা পর্যন্ত এ ভোটগ্রহণ চলবে। আমরা আশা করছি, ভোটগ্রহণ শেষ হওয়ার এক ঘণ্টার মধ্যে ফলাফল ঘোষণা করতে পারবো।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

হাফ পাস শুধুমাত্র ঢাকায় কার্যকর হবে বললেন এনায়েত উল্লাহ

অনলাইন ডেস্ক

হাফ পাস শুধুমাত্র ঢাকায় কার্যকর হবে বললেন এনায়েত উল্লাহ

খন্দকার এনায়েত উল্ল্যাহ

আন্দোলনের মুখে গণপরিবহনে শিক্ষার্থীদের অর্ধেক ভাড়া কার্যকরের ঘোষণা দিলেও ঢাকার বাইরে শিক্ষার্থীদের পুরো ভাড়াই দিতে হবে। আগামী ১ ডিসেম্বর থেকে এই সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে।

বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্ল্যাহ এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানিয়েছেন।

আজ সকাল সাড়ে ১১টার দিকে রাজধানীর কাজী নজরুল ইসলাম অ্যাভিনিউতে ঢাকা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনটি অনুষ্ঠিত হয়।  

খন্দকার এনায়েত বলেন, ভ্রমণকালে বাসে ছাত্র-ছাত্রীদের অবশ্যই নিজ নিজ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের বৈধ পরিচয়পত্র সঙ্গে রাখতে হবে। প্রয়োজনে তা প্রদর্শন করতে হবে। ব্যক্তি মালিকানাধীন বাসে চলাচলের ক্ষেত্রে সকাল ৭টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত শিক্ষার্থীরা হাফ ভাড়ার সুবিধা পাবে।সরকারি ছুটিসহ স্কুল-কলেজের মৌসুমি ছুটির সময়গুলোতে হাফ ভাড়া কার্যকর হবে না।


আরও পড়ুন:

গণপরিবহনে শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়া কার্যকর

কুমিল্লায় কাউন্সিলর হত্যা: ৬ হামলাকারী শনাক্ত


তবে শর্তগুলো শুধুমাত্র ঢাকার ক্ষেত্রে প্রযোজ্য বলে জানান খন্দকার এনায়েত। সেক্ষেত্রে ঢাকার বাইরের জেলাগুলোতে যেসব শিক্ষার্থীরা চলাচল করবে তাদের বাসের সম্পূর্ণ ভাড়া পরিশোধ করতে হবে।

সংবাদ সম্মেলনে হাফ ভাড়ার দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের দ্রুত ঘরে ফেরার অনুরোধ করেন তিনি।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

গণপরিবহনে শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়া কার্যকর

অনলাইন ডেস্ক

গণপরিবহনে শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়া কার্যকর

ফাইল ছবি

শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মুখে গণপরিবহনে ‘হাফ ভাড়া’ কার্যকর করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাস মালিকরা। এক্ষেত্রে কিছু শর্তও নির্ধারণ করে দিয়েছেন তারা। আগামীকাল (১ ডিসেম্বর) থেকে হাফ ভাড়ার সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে।

মঙ্গলবার (৩০ নভেম্বর) সড়ক পরিবহন মালিক সমিতি মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্যাহ এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানিয়েছেন। বেলা পৌনে ১২টার দিকে রাজধানীর কাজী নজরুল ইসলাম অ্যাভিনিউয়ে এই সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

এসময় তিনি বলেন, আগামীকাল বুধবার (১ ডিসেম্বর) থেকে গণপরিবহনে শিক্ষার্থীদের জন্য হাফ পাস ভাড়া কার্যকর। তবে সকাল ৮ থেকে রাত ৮ পর্যন্ত এই ভাড়া নেবে গণপরিবহন। আর ছুটির দিনে এই হাফ পাস ভাড়া কার্যকর হবে না। শুধু রাজধানীতে এটি কার্যকর থাকবে বলেও জানান তিনি।

বিআরটিসি বাসে হাফ ভাড়া কার্যকরে দেওয়া শর্তগুলোর মতো বাস মালিক সমিতিও শর্ত আরোপ করছে। আর এই শর্তগুলো প্রায় একইরকম।

তিনি আরও জানান, ভ্রমণকালে বিআরটিসি বাসের মতোই ব্যক্তি মালিকানাধীন বাসে ছাত্র-ছাত্রীদের অবশ্যই নিজ নিজ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের বৈধ পরিচয়পত্র সঙ্গে রাখতে হবে। প্রয়োজনে তা প্রদর্শন করতে হবে। 

এছাড়াও ছুটির দিন হাফ ভাড়া কার্যকর হবে না। হাফ ভাড়া শুধু ঢাকায় সীমাবদ্ধ, অন্যান্য জেলার জন্য নয় বলে জানিয়েছেন খন্দকার এনায়েত উল্যাহ।

বিআরটিসি বাসে চলাচলের ক্ষেত্রে সকাল ৭টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত শিক্ষার্থীরা হাফ ভাড়ার সুবিধা পাবে। তবে ব্যক্তি মালিকানাধীন বাসে এ সুবিধা শুরু হবে সকাল ৮টায়, চলবে রাত ৮টা পর্যন্ত।

আরও পড়ুন


চাঁপাইনবাবগঞ্জে দুর্বৃত্তের ছুরিকাঘাতে কলেজছাত্র নিহত

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

হাফ পাসের বিষয়ে সিদ্ধান্ত আজ

অনলাইন ডেস্ক

হাফ পাসের বিষয়ে সিদ্ধান্ত আজ

গণপরিবহনে শিক্ষার্থীদের জন্য হাফ পাসের (অর্ধেক ভাড়া) বিষয়ে আজ চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হতে পারে। আজ মঙ্গলবার অর্ধেক ভাড়ার বিষয়ে সংবাদ সম্মেলন করবেন পরিবহন মালিকরা।

সোমবার (২৯ নভেম্বর) এক প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানান ঢাকা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির দপ্তর সম্পাদক সামদানী খন্দকার।

মঙ্গলবার (৩০ নভেম্বর) সকাল ১১টায় কাজী নজরুল ইসলাম অ্যাভিনিউতে ঢাকা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির কার্যালয়ে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে।

সামদানী খন্দকার জানান, এই সংবাদ সম্মেলনে ঢাকা মহানগরে বাসে হাফ ভাড়ার ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত দেওয়া হবে। সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্ল্যাহ উপস্থিত থাকবেন।

এর আগে, শিক্ষার্থীদের জন্য গণপরিবহনে হাফ পাস বাস্তবায়নে পরিবহন নেতাদের সঙ্গে দুইবার বৈঠক করেছে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ)। কিন্তু কোনো সিদ্ধান্ত ছাড়াই এসব বৈঠক শেষ হয়েছে। বৈঠকে উল্টো ভর্তুকি দাবি করেছেন বাসমালিকরা।

আরও পড়ুন


বাবা-মায়ের পর পরিবারের তৃতীয় চেয়ারম্যান সাফিয়া পারভীন

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

স্কুলছাত্র নিহত: ৯ বাসে আগুনের ঘটনায় যা বলছে পুলিশ

অনলাইন ডেস্ক

স্কুলছাত্র নিহত: ৯ বাসে আগুনের ঘটনায় যা বলছে পুলিশ

রাজধানীর রামপুরায় মাঈনুদ্দিন নামের এক এসএসসি পরীক্ষার্থীকে বাস থেকে ধাক্কা মেরে ফেলে দিয়ে নিহতের ঘটনায় বাসচালককে আটক করেছে পুলিশ। ঘাতক বাসটিকেও জব্দ করা হয়েছে।

ওই ছাত্র নিহতের ঘটনায় উত্তেজিত জনতা ৯টি বাসে আগুন জ্বালিয়ে দেয়। তবে কারা আগুন দিয়েছে তা খতিয়ে দেখা হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ। এটি উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে হতে পারে বলেও মনে করছে পুলিশ।

ঘটনাস্থল থেকে খিলগাঁও ফায়ার স্টেশনের সিনিয়র স্টেশন অফিসার হাসান আলী গণমাধ্যমকে জানান, বাস ভাঙচুরের পাশাপাশি ৯টি বাসে আগুন দেওয়া হয়েছে। ফায়ার সার্ভিসের তিনটি ইউনিট এসব বাসের আগুন নেভায়।

এদিকে, দুর্ঘটনাস্থলে গিয়ে সাংবাদিকদের ডিএমপির মতিঝিল বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার (ডিসি) মো. আ. আহাদ জানান, আমরা যতদূর জানি উত্তেজিত জনতা এসব আগুন ধরিয়েছে। তবে কোনো সুযোগসন্ধানী কেউ দুর্ঘটনাকে কেন্দ্র করে উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে বাসে আগুন দিয়েছে কি না তা খতিয়ে দেখবে পুলিশ। এছাড়া কতগুলো বাসে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়েছে তা পরে জানানো হবে।

ডিসি আরও বলেন, আমরা নিহতের ভাইয়ের সঙ্গে কথা বলেছি। তিনি বলেছেন, তারা ভাঙচুর বা আগুন দেননি। অন্য কেউ এসে এসব করেছে। এ ধরনের ঘটনা কাম্য নয়। সিআইডির ক্রাইম সিন ইউনিট ঘটনাস্থল থেকে আলামত সংগ্রহ ও আনুষ্ঠানিকতা শেষ করার পর সড়কটি খুলে দেওয়া হবে।

এর আগে, সোমবার রাত পৌনে এগারোটার দিকে রামপুরা বাজারের সামনে বাসচাপায় মাঈনুদ্দিনের মৃত্যু হয়। নিহত শিক্ষার্থী একরামুন্নেসা স্কুলের এসএসসি পরীক্ষার্থী।

আরও পড়ুন


কাউন্সিলরসহ জোড়া খুন: দুই আসামি ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর