রাঙামাটিতে ভুলে ভরা জন্মনিবন্ধন, নাগরিক ভোগান্তি চরমে
রাঙামাটিতে ভুলে ভরা জন্মনিবন্ধন, নাগরিক ভোগান্তি চরমে

রাঙামাটিতে ভুলে ভরা জন্মনিবন্ধন, নাগরিক ভোগান্তি চরমে

Other

রনি দত্ত। রাঙামাটির দক্ষিণ কালিন্দাপুর ৯নং ওয়ার্ডেও বাসিন্দা। ২০২১সালে ১৬মার্চ জন্ম নিবন্ধন করেছিল। এরপর ২০২১সালে ৩ সেপ্টম্বর অনলাইন অর্থাৎ ডিজিটাল করার জন্য জন্মনিবন্ধন করা হয় ।

সে অনলাইন জন্ম নিবন্ধনে রনি দত্তের নাম ঠিক থাকলেও জন্মস্থান ও স্থায়ী ঠিকানা দেখানো হয় চট্টগ্রামের বোয়ালখালী উপজেলার ৫নং সারোয়াতলী। শুধু রনি তত্ত নয়, একই অবস্থা কৃঞ্ছনা রানী দত্তের। তার স্থায়ী ঠিকানা কালিন্দাপুর ৯নং ওয়ার্ডে থাকলেও অনলাইনে ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধনে দেখানো হয় কালিন্দাপুরের ৮নং ওয়ার্ডে। জন্মস্থানেও আনা হয় পরিবর্তন।

রাঙামাটি ছাড়িয়ে উল্লেখ করা হয় চট্টগ্রামের বোয়ালখালী উপজেলার ৫নং সারোয়াতলী। এ সমস্যায় ভুগছেন সুমী নাগসহ আরও কয়েক হাজার পৌর বাসিন্দা।

রাঙামাটির কালিন্দাপুর ৯নং ওয়ার্ডে বাসিন্দা মৃদুল দত্ত অভিযোগ করে বলেন, তার ছেলে এবং সহধর্মীনি পুরনো জন্ম নিবন্ধন (রেজিস্টার) ঠিক ছিল। কিন্তু নতুন করে যখন সে পুরনো জন্মনিবন্ধন অনলাইনে (ডিজিটাল) করতে যায় সেখানে ভুলে ভরা। নামের বানান তো ঠিক নেই।

জন্মস্থান রাঙামাটি হলেও উল্লেখ করা হয়েছে চট্টগ্রামে। এটা রিতিমত নাগরিক হয়রানি।

একই অভিযোগ রাঙামাটির রিজার্ভ বাজারের বাসিন্দা বাসু নাগের। তিনি বলেন, পুরনো জন্ম নিবন্ধনে নাম ঠিক থাকলেও ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধনে নাম ভুল। ভুল জন্মনিবন্ধন নিয়ে মানুষ এখন মহা বিপদে। সংশোধন করতেও নানা হয়রানি।
অভিযোগ রয়েছে, রাঙামাটি পৌর কর্তৃপক্ষের গাফিলতির কারণে ডিজিটাল জন্মনিবন্ধনে পৌরবাসির ভোগান্তি
বাড়লেও দায় নিতে নারাজ পৌর মেয়র মো. আকবর হোসেন চৌধূরীর।

আরও পড়ুন


শীর্ষ সাইবার সন্ত্রাসীদের ভয়ংকর অপতৎপরতা

বিএনপি এবার ভুল করবে না: মেজর হাফিজ

পুলিশ-আদালত-সরকার একসাথে নিষ্পেষণ চালাচ্ছে: গয়েশ্বর

সব বিশ্ববিদ্যালয় খুলবে এ মাসেই

লাঠিসোটা লাগবে না, জনস্রোতে সরকারের পতন সম্ভব: নুর

গাজীপুর সিটি করপোরেশনের মেয়রকে আ.লীগের শোকজ


 

তিনি বলেন, একটা সময় জন্মনিবন্ধন করা হতো রেজিস্টারে মাধ্যমে। কিন্তু এখন অনলাইনে করা হচ্ছে। সেখানে ভুল হওয়ার কথা না। তবে ২০০৬-৭সালে জন্ম নিবন্ধন তথ্যগত কিছুটা ঘটতি ছিল। সে মাসুল এখনো গুনছে পৌরসভা। পৌরসভা থেকে জন্ম নিবন্ধনগুলো তৈরি করে দেওয়া হলেও অনলাইনে ডিজিটাল সংশোধন করা হয় রাঙামাটি জেলা প্রশাসনের মাধ্যমে। কারণ এটা জেলা প্রশাসনের নিয়ন্ত্রণে। সেখানে কিছুটা ভোগান্তির অভিযোগ রয়েছে। পৌরসভার হাতে থাকলে সে ভোগান্তি থাকতো না।

জানা গেছে, ২০২১সাল অর্থাৎ চলতি বছরের মাঝামাঝি থেকে অনলাইন অর্থাৎ ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধনের কার্যক্রম শুরু করে রাঙামাটি পৌরসভা। সেই থেকে ভুলে ভরা জন্ম নিবন্ধনের ভোগান্তিতে রয়েছে রাঙামাটি পৌর বাসিন্দারা।

news24bd.tv/ তৌহিদ

সম্পর্কিত খবর

;