জুতা ও অন্তর্বাসে মাদক, আরিয়ানের কাছে মেলে কোকেন-এসডি-চরস
জুতা ও অন্তর্বাসে মাদক, আরিয়ানের কাছে মেলে কোকেন-এসডি-চরস
মিলল না জামিন

জুতা ও অন্তর্বাসে মাদক, আরিয়ানের কাছে মেলে কোকেন-এসডি-চরস

অনলাইন ডেস্ক

মাদক কাণ্ডে সোমবার ফের আদালতে পেশ করা হয় শাহরুখ পুত্র আরিয়ান খান সহ তাঁর দুই বন্ধুকে।

এদিন ছেলের শুনানির সময় আদালতে উপস্থিত ছিলেন গৌরী খান।

রোববার একদিনের জন্য আরিয়ানকে ভারতের নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো (এনসিবি) হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছিল আদালত।  

সোমবার আদালতের কাছে জিজ্ঞাসাবাদের কারণেই তিন অভিযুক্তকে ফের আগামী ১১ অক্টোবর অবধি হেফাজতে রাখার আবেদন জানিয়েছে ভারতের নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো (এনসিবি)।

এদিন ভারতের নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো (এনসিবি) তরফ থেকে জানানো হয় যে তদন্তের জন্যই আরিয়ান সহ তিনজনকে হেফাজতে রাখা জরুরি। আরিয়ান খানের ফোন থেকে তাঁর বিরুদ্ধে জোড়াল প্রামাণ্য নথিও পাওয়া গেছে বলে আদালতে জানায় ভারতের নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো, এনসিবি।

news24bd.tv

আরিয়ানের সঙ্গে আন্তর্জাতিক মাদকচক্রের যোগ রয়েছে বলেও দাবি করে ভারতের নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো (এনসিবি)।

পাশাপাশি এদিন আরিয়ানের জামিনের আবেদন করেন তাঁর আইনজীবী সতীশ মানশিন্ডে। তবে সেই আবেদন নস্যাৎ করে আগামী ৭ অক্টোবর অবধি আরিয়ানকে ভারতের নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো (এনসিবি) হেফাজতে রাখার নির্দেশ দিল আদালত।

জুতো থেকে শুরু করে চোখের লেন্সের বাক্স, এমনকি মেয়েদের অন্তর্বাসেও লুকানো ছিল মাদক।

আরিয়ানের কাছ থেকে পাওয়া গেছে ১৩ গ্রাম কোকেন, ৫ গ্রাম এমডি, ২১ গ্রাম চরস, ও MDMA-র ২২ টি পিল এবং নগদ এক লাখ ৩৩ হাজার টাকা।

একাধিক ধারায় মামলা করা হয়েছে আরিয়ানের বিরুদ্ধে। নারকোটিক ড্রাগস অ্যান্ড সাইকোট্রপিক সাবস্ট্যান্সেস (NDPS) ১৯৮৫ আইনের ৮সি, ২৭, ২২ নম্বর ধারা, এছাড়া MDMA ও এক্সট্যাসি আইনের  অন্তর্গত ১৪(১), ১৪ (বি), ২০(বি) ধারায় মামলা করা হয়েছে আরিয়ানের বিরুদ্ধে।  

ভারতের নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো বা এনসিবি সূত্রে জানা গেছে, আরিয়ান খান এবং আরবাজ খান এনসিবিকে সঠিকভাবে বলছেন না যে, কে তাদের মাদক সরবরাহ করতেন? আরবাজ বলছেন যে গোয়ার একজন মাদক সরবরাহকারী তাকে মাদক সরবরাহ করত।

মুনমুন জানান, আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কাছে একটি পাঁচতারা হোটেলের কাছে একজন মাদক ব্যবসায়ী তাকে কিছু মাদকদ্রব্য দিয়েছিলেন। কিন্তু সঠিক নাম কেউই বলছেন না। জেরা করার জন্য সোমবার আরবাজ ও আরিয়ানের বিশেষ বন্ধু শ্রেয়স নায়ারকে গ্রেপ্তার করতে পারে ভারতের নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো (এনসিবি)।

আরও পড়ুন


শীর্ষ সাইবার সন্ত্রাসীদের ভয়ংকর অপতৎপরতা

বিএনপি এবার ভুল করবে না: মেজর হাফিজ

পুলিশ-আদালত-সরকার একসাথে নিষ্পেষণ চালাচ্ছে: গয়েশ্বর

সব বিশ্ববিদ্যালয় খুলবে এ মাসেই

লাঠিসোটা লাগবে না, জনস্রোতে সরকারের পতন সম্ভব: নুর

গাজীপুর সিটি করপোরেশনের মেয়রকে আ.লীগের শোকজ


শনিবার রাতে এক মাদক পার্টি থেকে শাহরুখ খানের পুত্র আরিয়ান খান সহ আটজনকে আটক করে নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরোর কর্তারা। আরিয়ানের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য সেবন ও মাদক কেনা বেচার গুরুতর অভিযোগ এনেছে ভারতের নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো, এনসিবি।

news24bd.tv

 দীর্ঘ ১৬ ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদের পর বাজেয়াপ্ত করা হয় আরিয়ানের ফোন।

খতিয়ে দেখা হয়, শেষ কয়েকদিন কার কার সঙ্গে ফোনে ও হোয়াটস অ্যাপে কথা বলেছেন আরিয়ান। এরপরই আরিয়ান খান, আরবাজ মার্চেন্ট ও মুনমুন ধামেচা, নুপূর সারিকা, ইশমিত সিং, মোহক জয়সওয়াল, বিক্রান্ত চোকার, গোমিত চোপড়াকে গ্রেপ্তার করে ভারতের নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো, এনসিবি।

রোববার আদালতে আরিয়ানের আইনজীবী সতীশ মানশিণ্ডে জানান যে এই পার্টিতে যাওয়ার টিকিটও ছিল না আরিয়ানের কাছে, তাঁকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল। এমনকি আরিয়ানের কাছে কোনও মাদকদ্রব্য ছিল না। তাই তাঁকে গ্রেপ্তার করাই ভুল, বলে দাবি করেন আইনজীবী।

news24bd.tv/ তৌহিদ

সম্পর্কিত খবর

;