আত্মসমর্পণের পর জামিন পেলেন স্বাস্থ্যের সাবেক ডিজি

অনলাইন ডেস্ক

আত্মসমর্পণের পর জামিন পেলেন স্বাস্থ্যের সাবেক ডিজি

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সাবেক মহাপরিচালক (ডিজি) অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ আবুল কালাম আজাদের করোনা ভাইরাস পরীক্ষা ও চিকিৎসায় দুর্নীতির মামলায় জামিন আবেদন মঞ্জুর করেছেন আদালত।

এর আগে তিনি আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করেন।

ঢাকা মহানগর দায়রা জজ আদালতের বিচারক কে এম ইমরুল কায়েশের আদাল আজ বৃহস্পতিবার (৭ অক্টোবর) শুনানি শেষে তার জামিন আবেদন মঞ্জুর করেন। 

আরও পড়ুন:


১ লাখ ২৫ হাজার অবৈধ মোবাইল ফোন বন্ধ করল বিটিআরসি

প্রধান শিক্ষককের বিরুদ্ধে শিক্ষিকা ধর্ষণের অভিযোগ !

শত বছর চেষ্টার পর ম্যালেরিয়ার ভ্যাকসিন অনুমোদন

ভাঙা মোবাইল নিয়ে গেল খুনির কাছে


news24bd.tv/ কামরুল 

পরবর্তী খবর

ছেলের পর বাবাও শিশুটিকে ধর্ষণচেষ্টা চালায়

অনলাইন ডেস্ক

ছেলের পর বাবাও শিশুটিকে ধর্ষণচেষ্টা চালায়

ঢাকার আশুলিয়ায় ৯ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে বাবা ও ছেলেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

তাদের বিরুদ্ধে শিশুর বাবা থানায় মামলা দায়ের করলে বাবা ও ছেলেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

আশুলিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) জিয়াউল ইসলাম জানান, এর আগে বৃহস্পতিবার (১৪ অক্টোবর) রাতে সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে বাবা ও ছেলেকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তাররা হলেন- আশুলিয়ার আউকপাড়ার আব্দুস সাত্তারের ছেলে রেজাউল করিম (৪৩) ও তার ছেলে আব্দুর রহমান (২১)।

এজাহার সূত্রে জানা যায়, গত ১২ অক্টোবর বিকেলে প্রতিবেশী রেজাউল করিম ছাদে শিশুর স্পর্শকাতর স্থানে হাত দেয় ও ধর্ষণের চেষ্টা করে।

এর আগে গত ৬ আগস্ট একইভাবে ছাদে রেজাউল করিমের ছেলে আব্দুর রহমান ধর্ষণের চেষ্টা করে। ভয়ে এতদিন শিশু মেয়েটি কিছু বলেনি। মেয়ে শিশুর মানসিক অবস্থা দেখে পরিবার জানতে চাইলে বিষয়টি খুলে বলে।

শিশুর পরিবার জানায়, মেয়েটি ভয়ে আতঙ্কিত থাকত। সন্দেহ হলে শিশুকে জিজ্ঞেস করলে এসব ঘটনা জানায়। পরে আশুলিয়া থানায় ১৪ অক্টোবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়।

পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) জিয়াউল ইসলাম জানান, বিষয়টি তদন্ত করে অভিযুক্ত বাবা ও ছেলেকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে শুক্রবার দুপুরে তাদের আদালতে পাঠানো হয়েছে।

পরবর্তী খবর

বখাটের বিরুদ্ধে মামলা করে ভয়ে পলাতক বাদী

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি

বখাটের বিরুদ্ধে মামলা করে ভয়ে পলাতক বাদী

ঠাকুরগাঁও বালিয়াডাঙ্গী উপজেলায় এক স্কুলছাত্রীকে যৌন হয়রানীর অভিযোগে মামলা হয়েছে আসাদুল্লাহ (২২) নামে এক বখাটের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় বালিয়াডাঙ্গী থানা তদন্ত করে নারী শিশু নির্যাতন আইনে একটি মামলা রুজু করে। মামলার কারণে পালিয়ে বেড়াচ্ছে স্কুল ছাত্রীর বাবা।

স্কুলছাত্রীর বাবা গত বৃহস্পতিবার (১৪ই অক্টোবর) রাতে ঠাকুরগাঁও বালিয়াডাঙ্গী থানায় এ বিষয়ে একটি লিখিত অভিযোগ দেয়। পরে অভিযোগ তদন্ত করে মামলা রুজু করা হয়।

আসাদুল্লাহ (২২) বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার দুওসুও ইউনিয়নের মেম্বারপাড়া এলাকার সাবেক ইউপি সদস্য মৃত এহ্সান আলীর ছেলে। ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করার কারণে এর আগেও আসাদুল্লাহকে কয়েকবার সতর্ক করা হয়েছে। আসাদুল্লাহ ইউপি সদস্যের ছেলে হওয়ায় এলাকায় দাপট দেখায় ও  অপকর্ম করে বেড়ায় এমন অভিযোগ এলাকাবাসীর।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, গত ১২ই অক্টোবর মঙ্গলবার স্কুলছাত্রী সকালে বাসা হতে আইডিয়াল প্রি-ক্যাডেট স্কুলে যাওয়ার জন্য রাওনা দেয়। পথিমধ্যে আসাদুল্লাহ স্কুল ছাত্রীর সাথে কথা বলার জন্য রাস্তা আটকায়। এসময় স্কুল ছাত্রী থামতে না চাইলে আসাদুল্লাহ তার ব্যাগ ও হাঁত ধরে টানাটানি করে ও শারীরিক যৌন হয়রানী করে। পরে কোনোভাবে স্কুলছাত্রী পালিয়ে গিয়ে বাসায় তার বাবাকে বিষয়গুলো জানায়।

আরও পড়ুন:


ইউনিয়ন নির্বাচন নিয়ে সহিংসতা, নিহত ৪ 

আ.লীগের মনোনয়নপত্র বিক্রি ১৬ থেকে ২০ অক্টোবর

দেশে সাম্প্রদায়িক হামলাগুলোর মদদ দিচ্ছে সরকার: ফখরুল

সেদিন নীল শাড়িটাই পরবো: মাহি

দ্বিতীয় বিয়ে করে সত্যিই 'সারপ্রাইজ' দিলেন মাহি


 

পরে স্কুলছাত্রীর বাবা স্কুল কতৃপক্ষ ও এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিদের সাথে কথা বলে আসাদুল্লাহকে আসামি করে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। পরে সেটি মামলা হিসেবে রুজু হয়। এলাকায় দাপটের কারণে মামলা হওয়ার পর থেকে মেয়ের বাবাকে হুমকী দিচ্ছে আসাদুল্লাহ এমন অভিযোগ মেয়ের বাবার।

মেয়ের বাবা বলেন, আমার মেয়ের গানের গলা অনেক সুন্দর। সে তার ভবিষৎ সুন্দর করার জন্য পড়ালেখা করতেছে। সেখানে বখাটে কথিত সাংবাদিক পরিচয়ধারী আসাদুল্লাহ আমার মেয়ের ভবিষৎ নষ্ট করার জন্য এসব করতেছে। এর আগেও আসাদুল্লাহ কে সতর্ক করা হয়েছে। এখন মামলা করার কারণে বখাটে আসাদুল্লাহ আমাকে ভয়ভীতি দেখাচ্ছে। সেজন্য আমাকে পালিয়ে বেড়াতে হচ্ছে।

বালিয়াডাঙ্গী থানার ওসি হাবিবুল হক প্রধান বলেন, থানায় স্কুলছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছেন। আসামিকে ধরার চেষ্টা চলতেছে। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

কোরআন শরিফ অবমাননার ঘটনায় চার মামলা

অনলাইন ডেস্ক

কোরআন শরিফ অবমাননার ঘটনায় চার মামলা

কুমিল্লা নানুয়া দিঘির পাড়ে দুর্গাপূজা মণ্ডপে কোরআন শরিফ অবমাননার ঘটনায় ৪৩ জনকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে। এই ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে চারটি মামলা করেছে। 

বৃহস্পতিবার (১৪ অক্টোবর) বিকেল সাড়ে ৪টায় কুমিল্লা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার ফারুক আহমেদ এসব তথ্য জানান।

আরও পড়ুন:


ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আইপিএল নিয়ে জুয়া, ৩ জনের সাজা

চট্টগ্রাম আদালত এলাকায় বোমা হামলা মামলার রায় আজ

টুইটার অ্যাকাউন্ট ফিরে পেতে আদালতে ট্রাম্প

যুবলীগ নেতার সঙ্গে ভিডিও ফাঁস! মামলা তুলে নিতে নারীকে হুমকি


 

তিনি বলেন, এ ছাড়াও ঘটনায় জড়িতদের ধরতে অভিযান চলমান রয়েছে।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

পরকীয়ায় বাধা দেওয়ায় শিক্ষককে পেটে-বুকে ছুরি মেরে হত্যা

অনলাইন ডেস্ক

পরকীয়ায় বাধা দেওয়ায় শিক্ষককে পেটে-বুকে ছুরি মেরে হত্যা

মানিকগঞ্জের সাটুরিয়ায় পরকীয়ায় বাধা দেওয়ায় এক প্রভাষককে হত্যার চেষ্টা চালানো হয়েছে। প্রভাসকের নাম মো. শাহিনুর রহমান (৩২)।

ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বৃহস্পতিবার দুপুরে তার মৃত্যু হয়।

নিহত মো. শাহিনুর রহমান ধামরাই উপজেলার বেগম আনোয়ারা গার্লস কলেজের শিক্ষক ছিলেন। তিনি সাটুরিয়া উপজেলার মালসী গ্রামের মৃত শুকুর আলীর ছেলে।

এলাকাবাসী জানান, উপজেলার সদর ইউনিয়নের মালশী গ্রামে সাদ্দাম হোসেন নামে এক যুবককে পরকীয়ায় বাধা দেন শিক্ষক শাহিনুর ইসলাম। এরই জের ধরে গত ৩ সেপ্টেম্বর রাতে ওই শিক্ষক দাওয়াত খেয়ে বাড়ি ফেরার পথে একই গ্রামের আব্দুস সামাদের ছেলে মো. সাদ্দাম হোসেন (২৮) রাস্তায় তার গতিরোধ করেন। তার হাতে থাকা ছুরি দিয়ে কলেজ শিক্ষক শাহিনুরের পেটে ও বুকে বেশ কয়েকটি আঘাত করেন। শেষে তার গলায় ছুরি দিয়ে গলা কেটে হত্যার চেষ্টা করেন।

আরও পড়ুন:


আওয়ামী লীগ বলেছে, তারা সেদিকে যাবে না: ফখরুল

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আইপিএল নিয়ে জুয়া, ৩ জনের সাজা

কুমিল্লার ঘটনায় যা বললেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী


আহত শাহিনুর ওই রাস্তার পাশে পানির ডোবায় পড়ে গিয়ে চিৎকার করলে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করেন। প্রতিবেশীরা মুমূর্ষু শাহিনুরকে সাটুরিয়া উপজেলা হাসপাতালে নিয়ে যান। অবস্থা বেগতিক দেখে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠান ডাক্তাররা।

এ ঘটনায় ওই রাতেই উত্তেজিত শতাধিক গ্রামবাসী সাদ্দামের বাড়ি ঘেরাও করে রাখেন। থানা পুলিশ অভিযুক্ত সাদ্দামকে গ্রেপ্তার করে মানিকগঞ্জ চিফ জুডিশিয়াল আদালতে পাঠালে আদালত জামিন নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। বৃহস্পতিবার পর্যন্ত সাদ্দাম হোসেন মানিকগঞ্জ জেলা কারাগারে আটক আছেন। 

গ্রামবাসী জানান, অভিযুক্ত সাদ্দাম হোসেন স্থানীয় এক গৃহবধূর সঙ্গে দীর্ঘদিন পরকীয়ার জের ধরে অনৈতিক কার্যকলাপ চালিয়ে আসছিল। এ কাজে বাধা দেওয়ায় কলেজ শিক্ষক শাহিনুরের ওপর ইতোপূর্বেও একবার হামলা করেছিল সাদ্দাম।

সাটুরিয়া থানার ওসি মো. আশরাফুল আলম জানান, ছুরিকাঘাতে কলেজ শিক্ষককে হত্যাচেষ্টার ঘটনায় অভিযুক্ত সাদ্দামকে আগেই গ্রেপ্তার করা হয়েছে। শিক্ষকের মৃত্যুতে আদালতে ফের প্রতিবেদন দেওয়া হবে।

news24bd.tv/তৌহিদ

পরবর্তী খবর

‌‘ভুয়া জন্মদিন ও যুদ্ধাপরাধীদের মদদ’ মামলার অভিযোগ গঠনের শুনানি ২৪ অক্টোবর

অনলাইন ডেস্ক

‌‘ভুয়া জন্মদিন ও যুদ্ধাপরাধীদের মদদ’ মামলার অভিযোগ গঠনের শুনানি ২৪ অক্টোবর

ভুয়া জন্মদিন পালন ও যুদ্ধাপরাধীদের মদদ দেওয়ার অভিযোগে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে দায়ের করা পৃথক দুটি মামলায় অভিযোগ গঠনের শুনানির দিন পেছানো হয়েছে। আগামী ২৪ অক্টোবর দিন ধার্য করেছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার (১৪ অক্টোবর) ঢাকার অতিরিক্ত চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আসাদুজ্জামান নুরের আদালত এ দিন নির্ধারণ করেন।

আরও পড়ুন:


আওয়ামী লীগ বলেছে, তারা সেদিকে যাবে না: ফখরুল

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আইপিএল নিয়ে জুয়া, ৩ জনের সাজা

কুমিল্লার ঘটনায় যা বললেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী


এদিন দুই মামলায় অভিযোগ গঠন শুনানির দিন ধার্য ছিল। কিন্তু খালেদা জিয়া অসুস্থ থাকায় তার আইনজীবীরা শুনানি পেছানোর আবেদন করেন। এরপর বিচারক তাদের আবেদন মঞ্জুর করে আগামী ২৪ অক্টোবর দিন ধার্য করেন।

news24bd.tv/তৌহিদ

 

পরবর্তী খবর