দেশে ভ্যাকসিন তৈরি করে তা বিদেশেও রপ্তানি করা হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

দেশে ভ্যাকসিন তৈরি করে তা বিদেশেও রপ্তানি করা হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

ফাইল ছবি

বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন তৈরি করার পর দেশের চাহিদা মিটিয়ে তা বিদেশেও রপ্তানি করা হবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। বৃহস্পতিবার (৭ অক্টোবর) দুপুরে ঢাকার দক্ষিণ কেরানীগঞ্জে মাদকাসক্তি নিরাময় ও মানসিক স্বাস্থ্য পরামর্শ কেন্দ্রের (ওয়েসিস) উদ্বোধন অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা আমাদের কথা দিয়েছে, করোনার ভ্যাকসিন তৈরি করতে যা যা সাপোর্ট প্রয়োজন তারা সব সাপোর্ট আমাদের দেবে। এতে বাংলাদেশ ভ্যাকসিন তৈরির পর বিদেশেও রপ্তানি করতে পারবে।

তিনি বলেছেন, আমরা ৮০ লাখ ভ্যাকসিনের ডোজ একদিনে দিয়েছি। যা পৃথিবীর অনেক দেশ এখনো পারেনি। আমাদের সামনে বিজয় দিবস, এ উপলক্ষে ৮০ লাখেরও বেশি ভ্যাকসিন একদিনে দিতে পারবো বলে আশা রাখি।

আরও পড়ুন:


টিকাদানে বাংলাদেশ অনেক দেশের চেয়ে এগিয়ে রয়েছে উল্লেখ করে জাহিদ মালেক বলেন, আমরা প্রায় সাড়ে তিন কোটি মানুষকে করোনা টিকার প্রথম ডোজ দিয়েছি। প্রায় দুই কোটি মানুষকে দ্বিতীয় ডোজ দিতে সক্ষম হয়েছি। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার কমিটমেন্ট ছিল, বাংলাদেশের জন্য ২০ শতাংশ করোনার টিকা ফ্রি দেওয়া। কিন্তু তারা বলেছে, বাংলাদেশ যেহেতু ভালো ভ্যাকসিন দিতে পারছে, এতে আমাদের ৪০ শতাংশ ফ্রি দেওয়া হবে।

news24bd.tv/ নকিব

পরবর্তী খবর

ইউপি নির্বাচন

দুর্নীতির প্রমাণ পেলে মনোনয়ন বাতিল, আ.লীগের হুঁশিয়ারি

তৌফিক মাহমুদ মুন্না

নির্বাচনে বেশ কিছু ইউনিয়নে বিএনপি-জামায়াত নেতা, সরকারি অর্থ আত্মসাৎ মামলার আসামিসহ বিতর্কিত ব্যক্তি দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন। তবে মনোনয়ন বোর্ডের সদস্যরা বলছেন, অভিযোগের সত্যতা পেলে মনোনয়ন বাতিল করা হবে। 

দ্বিতীয় ধাপে আট বিভাগের ৮৪৮ ইউনিয়নে দলীয় প্রার্থী চূড়ান্ত করেছে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ। স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ডের টানা ছয় দিনের সভায় মনোনয়নপ্রত্যাশীদের আবেদনপত্র, জীবনবৃত্তান্ত এবং পূর্বের মাঠ জরিপ প্রতিবেদনের ভিত্তিতে চেয়ারম্যান পদে দলের প্রার্থী চূড়ান্ত করা হয়। প্রধানমন্ত্রী ও দলীয় প্রধান শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে গণভবনে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

চুলচেরা বিচার-বিশ্লেষণ করে দলীয় প্রার্থী চূড়ান্ত করা হলেও বেশ কিছু ইউনিয়নে বিএনপি-জামায়াত নেতা, রাজাকার সন্তান, সরকারি অর্থ আত্মসাৎ মামলার আসামিসহ বিতর্কিত ব্যক্তি দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন। 

গণমাধ্যমসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরাই এসব মনোনয়নের সমালোচনা করছেন। কোথাও আবার বিক্ষোভ করেছে দলীয় নেতাকর্মীরা।

আরও পড়ুন


থেমে-থেমে জ্বর আসছে খালেদা জিয়ার, খাচ্ছেনও খুবই অল্প

কুমিল্লার ঘটনা উদ্দেশ্যমূলক ও পরিকল্পিত: রিজভী

যুক্তরাষ্ট্রে উড়াল দিলেন মৌসুমী, ভিসা মেলেনি ওমর সানীর

ক্ষমতায় যাওয়ার বিএনপির রঙিন খোয়াব অচিরেই দুঃস্বপ্নে পরিণত হবে: কাদের


কোন অভিযোগ পেলে তদন্ত করা হবে। আর প্রমাণ মিললে মনোনয়ন বাতিল, জানালেন মনোনয়ন বোর্ডের এ সদস্য।

তৃণমূলের যারা এ বিতর্কিতদের নাম পাঠিয়েছে তাদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আগামী ১১ নভেম্বর দ্বিতীয় ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এ ধাপে ভোট হবে ৮৪৮টিতে।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

যারাই বিতর্কিতদের আ.লীগে ঢুকিয়েছেন তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা: নানক

নিজস্ব প্রতিবেদক

যারাই বিতর্কিতদের আ.লীগে ঢুকিয়েছেন তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা: নানক

যে সকল জেলা এবং উপজেলার নেতারা বিতর্কিত প্রার্থীদের পরিচয় গোপন করে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন বোর্ডে লিস্ট পাঠিয়েছেন তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে হুঁশিয়ারি করেছেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক।

সম্প্রতি কুমিল্লায় সাম্প্রদায়িক সহিংসতার ঘটনা, মন্দিরে হামলায় জড়িত আসামিদের ইউপি নির্বাচনের বিষয়ে শুক্রবার সন্ধ্যায় ধানমন্ডির ৯/এ নিজ রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি একথা কথা বলেন।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে মন্দিরে হামলায় ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত অভিযুক্ত দুই আসামির মনোনয়ন বাতিল প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এটি অবশ্যই শঙ্কার বিষয়। তবে সু স্পষ্ট কথা হলো আমার যে, আমাদের মনোনয়নের ব্যাপারে কতগুলো স্তর পার করে চূড়ান্তভাবে স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ডের কাছে আছে। কাজেই এদেরকে যারা চিহ্নিত করে নাই, অথবা এদের পরিচয় যারা গোপন রেখেছে, যে স্তরে বা সংগঠনের যে পর্যায়ে এটি হাইড করেছে বা গোপন করেছে এদের পরিচয় গুলো, সংগঠনের সেই স্তরের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ভাবে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা উচিৎ।

তিনি বলেন, বিভিন্ন গণমাধ্যমে আসা বিভিন্ন সংবাদে এটাই প্রমাণ করে এরা ঢুকে পড়েছে। শুধু ঢুকেই পড়ে নাই, এরা বিভিন্ন নেতাদের কাঁধে সহায় হয়েছে। কাজেই, যে নেতার কাঁধে সহায় হয়েছে সে নেতাকে ঘার ধরে বের করে দেওয়া উচিৎ দল থেকে। অবশ্যই তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া উচিৎ এবং দৃষ্টান্তমূলক ব্যবস্থা নেওয়া উচিৎ যাতে আর কখনো কেউ এই অপকর্ম না করে। দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নেওয়া উচিৎ।

আরও পড়ুন:


ইউনিয়ন নির্বাচন নিয়ে সহিংসতা, নিহত ৪ 

আ.লীগের মনোনয়নপত্র বিক্রি ১৬ থেকে ২০ অক্টোবর

সেদিন নীল শাড়িটাই পরবো: মাহি

দ্বিতীয় বিয়ে করে সত্যিই 'সারপ্রাইজ' দিলেন মাহি


তিনি বলেন, বাংলাদেশ একটি শান্তির এবং সম্প্রীতির বাংলাদেশ। বাংলাদেশে বেশ কিছুদিন যাবত-ই বিএনপি-জামায়াত তর্জন-গর্জন দিচ্ছিল, যে ঢাকা দখলের কথা বলেছিল এবং আন্দোলন-হুমকির কথা বলেছিল। অর্থাৎ দেশের স্থিতিশীলতা নষ্ট করার জন্য তাদের যে অভিপ্রায় ছিল, সেই অভিপ্রায় থেকে তারা এই বাঙ্গালীর একটি ধর্মীয় উৎসব দুর্গাপূজাকে তারা ব্যবহার করে।

নানক বলেন, একটি পবিত্র কোরআন শরিফ একটি মূর্তির নিচে রাখার কোনো যৌক্তিক কারণ নেই। উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ভাবে এই কোরআন শরীফ রেখে কুমিল্লা থেকে শুরু করে বাংলাদেশের কয়েকটি এলাকায় তারা হিন্দু সমাজের ওপর হামলা করলো, মূর্তি ভাঙচুর করলো। এটি একটি সুগভীর উগ্র, ধর্মীয় উগ্রবাদী, মৌলবাদীদের ষড়যন্ত্র। দেশকে অচল পরিস্থিতি তৈরি করা। আমি বিশ্বাস করি যে দেশের অসাম্প্রদায়িক চেতনার মানুষেরা এর নিন্দা জানায়, ঘৃণা জানায়, প্রতিবাদ করে এবং এর সঙ্গে যারা জড়িত তাদের দৃষ্টান্তমূলক বিচার হবে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে অন্যায় করে কেউ পার পাবে না।

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

চট্টগ্রাম-নোয়াখালী-হাতিয়ায় মন্দিরে হামলা, ওবায়দুল কাদেরের বিবৃতি

অনলাইন ডেস্ক

চট্টগ্রাম-নোয়াখালী-হাতিয়ায় মন্দিরে হামলা, ওবায়দুল কাদেরের বিবৃতি

চট্টগ্রাম, নোয়াখালীর বেগমগঞ্জের চৌমুহনী ও হাতিয়ার বুড়িরচরসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে হিন্দু সম্প্রদায়ের মন্দির, বাড়িঘর ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা, ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগ ও লুটপাটের ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

এ ব্যাপারে আজ শুক্রবার তিনি এক বিবৃতি দেন।

তিনি এতে বলেন, আমরা গভীর উদ্বেগের সাথে লক্ষ্য করছি- বাংলাদেশের হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা যখন তাদের সর্বোচ্চ ধর্মীয় উৎসব দুর্গাপূজা উদযাপন করছে তখন এ দেশের চিহ্নিত সাম্প্রদায়িক এবং জঙ্গিগোষ্ঠী সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গুজব সৃষ্টি করে এবং মিথ্যা অপপ্রচার চালিয়ে দেশের বিভিন্ন জায়গায় পূজামন্ডপ, মন্দির এবং হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়িঘর, ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা চালিয়েছে। আমরা দৃঢ়তার সাথে বলতে চাই, স্বাধীন বাংলাদেশে অভ্যুদয় ঘটেছিল জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে অসাম্প্রদায়িক নীতির ভিত্তিতে। এ ধরনের হামলা মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও বাঙালি জাতির হাজার বছরের আবহমান ঐতিহ্য, সংস্কৃতি ও সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির মূলে কুঠারাঘাতের শামিল। বাংলাদেশ একটি সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ, এ দেশে কোনো ধর্মীয় সম্প্রদায়ের উপর যে কোনো প্রকার হামলা বরদাশত করা হবে না। বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার সরকার যে কোনো মূল্যে অসাম্প্রদায়িক নীতির সুরক্ষা প্রদান করতে বদ্ধপরিকর।

আরও পড়ুন:


ইউনিয়ন নির্বাচন নিয়ে সহিংসতা, নিহত ৪ 

আ.লীগের মনোনয়নপত্র বিক্রি ১৬ থেকে ২০ অক্টোবর

দেশে সাম্প্রদায়িক হামলাগুলোর মদদ দিচ্ছে সরকার: ফখরুল

সেদিন নীল শাড়িটাই পরবো: মাহি

দ্বিতীয় বিয়ে করে সত্যিই 'সারপ্রাইজ' দিলেন মাহি



‘আমরা কোনো অবস্থাতেই মহান মুক্তিযুদ্ধের মূলনীতি ভূ-লুণ্ঠিত হতে দেব না। এই বাংলাদেশ জাতি-ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সকল সম্প্রদায় ও ধর্মীয় বিশ্বাসী মানুষের। বাংলাদেশের মানুষ অসাম্প্রদায়িক ও ধর্মভীরু, তবে সাম্প্রাদায়িক ও ধর্মান্ধ নয়।

বিবৃতিতে ওবায়দুল কাদের এমপি বলেন, ইতোমধ্যে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুকন্যা জননেত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার নির্দেশে দেশের এসব জায়গায় শান্তি-শৃঙ্খলা ও সম্প্রীতি ফিরিয়ে আনতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে কঠোর নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে। এ সকল সাম্প্রদায়িক হামলার সাথে যারা জড়িত তাদেরকে আইনের আওতায় এনে বিচারের মুখোমুখি করা হবে। এই ষড়যন্ত্রের নেপথ্যের কুশীলবদেরও অবিলম্বে গ্রেপ্তার করা হবে। যারা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গুজব সৃষ্টি করছে তাদেরকে চিহ্নিত করে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর হাতে সোপর্দ করার জন্য সকলের প্রতি অনুরোধ জানাই।

বিবৃতিতে তিনি এ সকল ধর্মান্ধ, সাম্প্রদায়িক ও জঙ্গিবাদী শক্তির পৃষ্ঠপোষক বিএনপি-জামায়াত অশুভ জোটকে প্রতিরোধ করার জন্য দেশের মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বসী প্রগতিশীল সকল মানুষকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান।

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

দেশে সাম্প্রদায়িক হামলাগুলোর মদদ দিচ্ছে সরকার: ফখরুল

অনলাইন ডেস্ক

দেশে সাম্প্রদায়িক হামলাগুলোর মদদ দিচ্ছে সরকার: ফখরুল

চট্টগ্রামে বেগম জিয়ার রোগমুক্তি কামনায় দোয়া ও মিলাদ মাহফিল শেষে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, সরকার কুমিল্লাসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় সাম্প্রদায়িক হামলাগুলোর মদদ দিচ্ছে।

শুক্রবার দুপুরে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন তিনি।

তিনি বলেন, সরকারের একটি মহলের ইঙ্গিতে দেশের বিভিন্ন জায়গায় সাম্প্রদায়িক হামলাগুলো হচ্ছে। যা দেশের ভাবমুর্তি বিনষ্ট করছে। জাতীয়তাবাদী দল সব সময় সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বজায় রেখেছে। বিএনপির সময় এ ধরনের ঘটনা ঘটেনি বলা যায়। এ সরকার ক্ষমতা আসার পর থেকে ক্ষমতা টিকিয়ে রাখার জন্য সব সময় বিভিন্ন ভাবে সমস্যা তৈরি করছে।’

আরও পড়ুন:


ইউনিয়ন নির্বাচন নিয়ে সহিংসতা, নিহত ৪ 

আ.লীগের মনোনয়নপত্র বিক্রি ১৬ থেকে ২০ অক্টোবর

সেদিন নীল শাড়িটাই পরবো: মাহি

দ্বিতীয় বিয়ে করে সত্যিই 'সারপ্রাইজ' দিলেন মাহি


 

তিনি অভিযোগ করে বলেন, সরকার মাঝেমধ্যে সংকট তৈরি করে জনগণের দৃষ্টি ভিন্ন দিকে সরিয়ে নিতে নানা ঘটনা সৃষ্টি করে। যা কখনোই গ্রহণযোগ্য নয়। অনতিবিলম্বে হামলাকারীদের চিহ্নিত করে বিচারের আওতায় নিয়ে আসা হোক।

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

তৃতীয় ধাপের ইউপি নির্বাচন

আ.লীগের মনোনয়নপত্র বিক্রি ১৬ থেকে ২০ অক্টোবর

অনলাইন ডেস্ক

আ.লীগের মনোনয়নপত্র বিক্রি ১৬ থেকে ২০ অক্টোবর

তৃতীয় ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে মনোনয়ন পেতে আগ্রহীদের আগামী ১৬ অক্টোবর থেকে ২০ অক্টোবর আবেদনপত্র সংগ্রহ ও জমার তারিখ নির্ধারণ করেছে আওয়ামী লীগ।

আবেদনপত্র সংগ্রহ ও জমা দিতে হবে ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয় থেকে।

এ ব্যাপারে শুক্রবার (১৫ অক্টোবর) আ.লীগের দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেতে আগ্রহীদের আগামী ১৬ অক্টোবর থেকে ২০ অক্টোবর পর্যন্ত আবেদনপত্র সংগ্রহ ও জমার তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে। দলটির সভাপতি শেখ হাসিনার ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয় থেকে আবেদনপত্র সংগ্রহ করতে ও জমা দিতে হবে।

আরও পড়ুন:


ইউনিয়ন নির্বাচন নিয়ে সহিংসতা, নিহত ৪ 

প্রথম স্বামীর কথার জবাব দিলেন মাহি

সেদিন নীল শাড়িটাই পরবো: মাহি

দ্বিতীয় বিয়ে করে সত্যিই 'সারপ্রাইজ' দিলেন মাহি


আরও বলা হয়, লোকসমাগম ছাড়া স্বাস্থ্যবিধি মেনে প্রার্থী নিজে অথবা একজন যোগ্য প্রতিনিধির মাধ্যমে আবেদনপত্র সংগ্রহ এবং জমা দিতে হবে। আবেদনপত্র সংগ্রহের সময় প্রার্থীর জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপি সঙ্গে আনতে হবে। প্রতিদিন সকাল সাড়ে ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত আবেদনপত্র সংগ্রহ ও জমা দেওয়া যাবে।

তৃতীয় ধাপে এক হাজার সাতটি ইউপি ও ৯টি পৌরসভায় সাধারণ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর