ভারতে পড়ে থাকা অব্যবহৃত সোনা থেকে আয়ের সুযোগ

অনলাইন ডেস্ক

ভারতে পড়ে থাকা অব্যবহৃত সোনা থেকে আয়ের সুযোগ

অনেকের বাসা-বাড়িতেই সোনার অলংকার অব্যবহৃত পড়ে থাকে। কেউ আবার নিরাপত্তার জন্য ব্যাংকের লকারে রেখে দেন এসব গহনা। বিপদের আশঙ্কায় অনেকেই এসব গহনা পরতেও পারেন না। তাই এসব মানুষের কথা মাথায় রেখেই নতুন এক প্রকল্প হাতে নিয়েছে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

রিভ্যাম্পড গোল্ড ডিপোজিট স্কিম (আর-জিডিএস) একটি প্রকল্প হাতে নিয়েছে স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া। এর মাধ্যমে ঘরে পড়ে থাকা অলস সোনার গহনা থেকেও এখন আয় করতে পারবেন ভারতীয়রা। দেশের মানুষের কাছে গচ্ছিত থাকা সোনা যাতে কাজে লাগে তাই কেন্দ্রীয় সরকারের এই প্রকল্প স্বর্ণ নগদীকরণের লক্ষ্যে চালু করা হয়েছে।

আর-জিডিএস-এ তিনভাবে বিনিয়োগ করার সুযোগ রয়েছে। এতে তিনটি আলাদা ধাপে আলাদা তিনটি হারে সুদ বাবদ আয় করতে পারবেন গ্রাহকরা। স্বল্পকালীন মেয়াদে ১ থেকে ৩ বছর, মধ্যমেয়াদী ৫ থেকে ৭ বছর এবং দীর্ঘমেয়াদি ১২ থেকে ১৫ বছরের জন্য বিনিয়োগ করা যাবে।

সবচেয়ে কম ১০ গ্রাম স্বর্ণ বিনিয়োগ করার সুযোগ থাকবে নতুন এই প্রকল্পে। এক্ষেত্রে বার কিংবা গয়না দুই ধরণের স্বর্ণ রেখেই এই সুবিধা পাওয়া যাবে। সর্বনিম্ন সীমা নির্ধারিত হলেও বিনিয়োগের কোনো সর্বোচ্চ সীমা রাখা হয়নি। বিনিয়োগকারী এর জন্য রাখতে পারবেন একজন নমিনিও।

আরও পড়ুন:

দুঃসময়ে শাহরুখের পাশে দাঁড়ালেন সাইমন

ঢাকায় মানুষের কর্মক্ষমতা কমছে: গবেষণা

আ.লীগ নেতার বিরুদ্ধে তাঁতীলীগের নেত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ

আনুশকার শরীরে ‘ফরেন বডি’ ব্যবহারের আলামত মিলল


গ্রাহকরা এক বছরের জন্য বছরে ০.০৫ শতাংশ সুদ পাবেন স্বল্পকালীন বিনিয়োগের জন্য। এ ছাড়া ০.৫৫ শতাংশ সুদ দুই বছর পর্যন্ত এবং ০.৬০ শতাংশ হারে সুদ পাওয়া যাবে তার বেশি হলে। মধ্যমেয়াদী বিনিয়োগে বছরে ২.২৫ হারে ও দীর্ঘমেয়াদির ক্ষেত্রে ২.৫০ শতাংশ হারে সুদ পাবেন গ্রাহকরা।

আর-জিডিএস নামের ওই প্রকল্পে গ্রাহকরা যখন অংশ নেবেন সেই সময়ের স্বর্ণের দর অনুযায়ী বিনিয়োগের মোট পরিমাণ নির্ধারণ করা হবে। এর উপরেই নির্ধারণ করা হবে সুদও। প্রতি আর্থিক বছরের সমাপ্তিতে ৩১ মার্চ সংশ্লিষ্ট ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে জমা পড়বে সুদ। প্রতি বছর সরল সুদ অথবা একবারে মেয়াদের শেষে সমষ্টিগত সুদ নিতে পারবেন গ্রাহকরা।

news24bd.tv/ নকিব

পরবর্তী খবর

গির্জায় ছুরিকাঘাতে নিহত ব্রিটিশ এমপি

অনলাইন ডেস্ক

গির্জায় ছুরিকাঘাতে নিহত ব্রিটিশ এমপি

কনজারভেটিভ এমপি স্যার ডেভিড অ্যামেসের হত্যাকাণ্ডকে পুলিশ সন্ত্রাসী ঘটনা হিসেবে ঘোষণা করেছে। বিবিসির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।   

ব্রিটিশ এই এমপি গতকাল শুক্রবার ইংল্যান্ডের পূর্বাঞ্চলে তার নিজ সংসদীয় আসনে গির্জায় এক সভায় ছুরিকাঘাতে শিকার হয়ে মৃত্যুবরণ করেন। হত্যার সন্দেহে ২৫ বছর বয়সী এক ব্রিটিশ ব্যক্তিকে ঘটনাস্থলে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।  

বিবিসি খবরে আরও বলা হয়েছে, অ্যামেসকে উপর্যুপরি ছুরিকাঘাত করেছে ওই দুর্বৃত্ত। এসেক্স পুলিশের বিশ্বাস এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত আটক ব্যক্তি ছাড়া অন্য কাউকে সন্দেহ করছে না তারা। তবে তদন্তের অংশ হিসেবে কর্মকর্তারা বর্তমানে লন্ডন এলাকায় দুটি ঠিকানায় তল্লাশি চালাচ্ছেন বলে জানিয়েছে মেট।

আরও পড়ুন:


লাইভ চলাকালে সাবেক টিকটকার স্ত্রীকে পুড়িয়ে হত্যা!

যে কারণে ম্যান্ডেলার জিনিসপত্র নিলামে উঠেছে

রেকর্ড ভাঙার দ্বারপ্রান্তে বিটকয়েনের দাম!

আইপিএল: কে কোন পুরস্কার পেলেন জেনে নিন


এদিকে এমপি স্যার ডেভিড অ্যামেসের হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় দুঃখ প্রকাশ করেছেন দলটির সাবেক নেতা স্মিথ। 

উল্লেখ্য, ১৯৮৩ সালে বাসিলডন থেকে পার্লামেন্টে প্রতিনিধিত্ব করার জন্য প্রথম নির্বাচিত হন অ্যামেস। পরে ১৯৯৭ সাল থেকে সাউথএন্ড ওয়েস্ট থেকে নির্বাচন করেন।

news24bd.tv রিমু   

পরবর্তী খবর

লাইভ চলাকালে সাবেক টিকটকার স্ত্রীকে পুড়িয়ে হত্যা!

অনলাইন ডেস্ক

লাইভ চলাকালে সাবেক টিকটকার স্ত্রীকে পুড়িয়ে হত্যা!

লামো নামের এক ব্লগার নারীকে হত্যার অভিযোগে সাবেক স্বামীকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে আদালত। গতকাল শুক্রবার সিএনএনের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে অনুসারীদের জন্য লাইভে ছিলেন ৩০ বছর বয়সী লামো। লাইভ চলাকালেই লামোর সাবেক স্বামী তার গায়ে পেট্রোল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেন। এতে মারাত্মক দগ্ধ হয়ে দুই সপ্তাহ পর মারা যান তিনি।  

গত বছরের সেপ্টেম্বরে চীনের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চেলর সিচুয়ার প্রদেশে এ ঘটনা ঘটে। ওই ঘটনায় অভিযুক্ত ব্যক্তিকে বৃহস্পতিবার (১৪ অক্টবর) মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয়েছে বলে প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে।   

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, জনপ্রিয় টিকটকার লামো ছিলেন পেশায় একজন কৃষক। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বেশ সরব পদচারণা ছিল তার। ২০২০ সালের জুনে তার সাবেক স্বামী ট্যাঙ লুর সঙ্গে  বিচ্ছেদ হয় লামোর। বিচ্ছেদের আগে প্রায়ই স্ত্রীকে মারধর করতেন ট্যাঙ লু। বিচ্ছেদের পর থেকেই লামোকে ফের বিয়ের জন্য চাপ দিচ্ছিলেন ট্যাঙ লু। কিন্তু বার বার তাকে ফিরিয়ে দিচ্ছিলেন লামো। এই ঘটনায় ক্ষুব্ধ ট্যাঙ লু লাইভ চলাকালেই সাবেক স্ত্রীকে পুড়িয়ে হত্যা করেন।

আরও পড়ুন:


আজকের রাশিফল, কী আছে ভাগ্যে জেনে নিন

যে কারণে ম্যান্ডেলার জিনিসপত্র নিলামে উঠেছে

রেকর্ড ভাঙার দ্বারপ্রান্তে বিটকয়েনের দাম!

আইপিএল: কে কোন পুরস্কার পেলেন জেনে নিন


ঘটনার পর ট্যাঙ লুকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তার বিরুদ্ধে আনা হত্যার অভিযোগ প্রমাণ হওয়ায় জরিমানাসহ ট্যাঙ লুকে মৃত্যুদণ্ড দেন চীনা আদালত।  

সেসময় লামোর মৃত্যুর ভয়াবহতা সারাবিশ্বে ভীষণ আলোড়ন তুলেছিল। 

news24bd.tv রিমু     

পরবর্তী খবর

প্রেমিকের সঙ্গে পূজা দেখতে গিয়ে অচেতন অবস্থা জঙ্গলে পড়েছিল তরুণী

অনলাইন ডেস্ক

প্রেমিকের সঙ্গে পূজা দেখতে গিয়ে অচেতন অবস্থা জঙ্গলে পড়েছিল তরুণী

প্রতীকি ছবি

দশমীর রাতে গিয়েছিলেন প্রেমিকের সঙ্গে পূজা দেখতে। রাতে বাড়ি ফেরার কথা থাকলেও আর ফেরেনি তরুণী। পরে এক পর্যায়ে ওই তরুণীর খোঁজ মেলে জঙ্গলে। অচেতন অবস্থায় পরে ছিলেন তিনি। এখন পর্যন্ত প্রেমিকেরও খোঁজ পাওয়া যায়নি। এখন প্রশ্ন উঠেছে তাহলেও কি ওই তরুণীকে ধর্ষণ করে ফেলে রেখে যাওয়া হয়েছে।

ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের পূর্ব বর্ধমানের আউশগ্রামে। এনিয়ে ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে গ্রামটিতে।

ভারতীয় গণমাধ্যম সংবাদ প্রতিদিনের এক প্রতিবেদনে এমনটিই জানানো হয়েছে।

গণমাধ্যমটির প্রতিবেদনে আরও জানানো হয়, বেশ কয়েক বছর আগেই ওই তরুণীর বিবাহ বিচ্ছেদ হয়। দু’টি সন্তানও রয়েছে তাঁর। সন্তানদের নিয়ে আপাতত বাপের বাড়িতেই থাকেন তরুণী।

সম্প্রতি এক যুবকের সঙ্গে সম্পর্ক তৈরি হয় তাঁর। দশমীর সন্ধ্যায় ওই যুবকের সঙ্গে পূজা দেখতে বেরিয়েছিলেন তিনি। বাবাকে জানিয়েছিলেন রাতেই বাড়ি ফিরবেন। কিন্তু অনেক রাতেও বাড়ি না ফেরায় শুরু হয় খোঁজ খবর।

আরও পড়ুন


বরিশালের ক্ষুদে বোলিং যাদুকর সাদিদে মুগ্ধ বিশ্ব, স্বপ্ন বড় হয়ে বিশ্বকাপ জয়ের

কুমিল্লায় ট্রেনে পাথর নিক্ষেপ, জানালার কাঁচ ভেঙে শিশুসহ আহত ৩

ট্রফি জিতে অবসর নিয়ে যা বললেন ধোনি

শনিবার রাজধানীর যে সব মার্কেট ও দর্শনীয় স্থান বন্ধ


বেশ কিছুক্ষণ পর আউশগ্রামের মলডাঙ্গা আদিবাসীপাড়ার কাছে একটি জঙ্গলে ওই তরুণীকে অচৈতন্য অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন স্থানীয়রা। তাঁরাই পুলিশে খবর দেয়। প্রথমে ওই তরুণীকে জামতাড়া ব্লক প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে বেশ কিছুক্ষণ চিকিৎসা হয় তাঁর। তারপর বর্ধমান মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় তাঁকে। বর্তমানে সেখানেই চিকিৎসাধীন ওই তরুণী।

পুলিশ সুপার কামনাশিস সেন বলেন, ওই তরুণী অতিরিক্ত নেশাগ্রস্ত ছিলেন। তার জেরেই অচেতন হয়ে পড়েন তিনি। তাঁর বন্ধুর খোঁজে তল্লাশি চলছে। তাকে পাওয়া গেলে ঘটনার রহস্যের জট কাটবে বলেই আশা তাঁর।

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

ম্যান্ডেলার ব্যবহৃত যেসব ব্যক্তিগত জিনিসপত্র নিলামে, দাম কত?

অনলাইন ডেস্ক

ম্যান্ডেলার ব্যবহৃত যেসব ব্যক্তিগত জিনিসপত্র নিলামে, দাম কত?

আগামী ১১ ডিসেম্বর অনলাইনে ও সরাসরি নিলামে তোলা হবে দক্ষিণ আফ্রিকার বর্ণবাদী নেতা ও প্রয়াত প্রেসিডেন্ট নেলসন ম্যান্ডেলার ব্যক্তিগত কিছু জিনিসপত্র। নিউইয়র্কভিত্তিক নিলামকারী প্রতিষ্ঠান গার্নসি এ নিলাম আয়োজন করবে বলে জানিয়েছে তার পরিবার। তবে দাম কত ধরা হবে সে বিষয়ে তেমন কিছু জানা যায় নি। 

রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, নেলসন ম্যান্ডেলার ব্যবহৃত প্রায় ১০০ জিনিসপত্র নিলামে তোলা হবে। এর মধ্যে রয়েছে রঙিন প্যাটার্নযুক্ত মাদিবা শার্ট, যা তিনি বিশেষ অনুষ্ঠানে পরতেন। এই শার্ট পরেই তিনি ১৯৯৮ এবং ২০০৩ সালে ব্রিটেনের রানী এলিজাবেথের সঙ্গে দেখা করেছিলেন।

নিলামে অন্য যেসব জিনিস তোলা হচ্ছে, তার মধ্যে থাকছে সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামাসহ অন্য রাষ্ট্রপ্রধানদের উপহার, ম্যান্ডেলার চশমা, ব্রিফকেস ও প্যান্ট। ১৯৭৬ সালে রোবেন দ্বীপে বন্দী থাকার সময় তিনি যে চার পৃষ্ঠার চিঠি লিখেছিলেন, সেটিও নিলামে তোলা হচ্ছে।

আরও পড়ুন:


যে কারণে ম্যান্ডেলার জিনিসপত্র নিলামে উঠেছে

রেকর্ড ভাঙার দ্বারপ্রান্তে বিটকয়েনের দাম!

আইপিএল: কে কোন পুরস্কার পেলেন জেনে নিন

মোবাইলে টুজি সচল, থ্রিজি ও ফোরজির জন্য নেটিজেনদের আক্ষেপ


মূলত, নেলসন ম্যান্ডেলার সম্মানে ইস্টার্ন কেপ প্রদেশের প্রত্যন্ত কুনু গ্রামের নেলসন ম্যান্ডেলা ফ্রিডম গার্ডেন গড়ে তোলা হয়েছে। তার তহবিল জোগাতেই প্রায় ১০০ রকমের জিনিস নিলামে তোলা হচ্ছে।  

উল্লেখ্য, ২০১৩ সালে জোহানেসবার্গে ৯৫ বছর বয়সে নেলসন ম্যান্ডেলা মৃত্যুবরণ করেন। দক্ষিণ আফ্রিকার কুনুতে ফ্রিডম গার্ডেনে তাকে সমাধিস্থ করা হয়েছে। 

news24bd.tv রিমু  

পরবর্তী খবর

যে কারণে ম্যান্ডেলার জিনিসপত্র নিলামে উঠেছে

অনলাইন ডেস্ক

যে কারণে ম্যান্ডেলার জিনিসপত্র নিলামে উঠেছে

দক্ষিণ আফ্রিকার অবিসংবাদিত নেতা প্রয়াত প্রেসিডেন্ট নেলসন ম্যান্ডেলার ব্যক্তিগত কিছু জিনিসপত্র নিলামে তুলেছে তার পরিবার। এই অর্থ নেলসনের সম্মানে নির্মিত একটি স্মারক বাগানে দেওয়া হবে বলে জানা গেছে। রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, নেলসন ম্যান্ডেলার ব্যবহৃত প্রায় ১০০ জিনিসপত্র নিলামে তোলা হবে। এর মধ্যে রয়েছে রঙিন প্যাটার্নযুক্ত মাদিবা শার্ট, যা তিনি বিশেষ অনুষ্ঠানে পরতেন। এই শার্ট পরেই তিনি ১৯৯৮ এবং ২০০৩ সালে ব্রিটেনের রানী এলিজাবেথের সঙ্গে দেখা করেছিলেন।

নিউইয়র্কভিত্তিক নিলামকারী প্রতিষ্ঠান গার্নসি আগামী ১১ ডিসেম্বর অনলাইনে ও সরাসরি এ নিলাম আয়োজন করবে বলেও জানা গেছে। 

আরও পড়ুন:


রেকর্ড ভাঙার দ্বারপ্রান্তে বিটকয়েনের দাম!

আইপিএল: কে কোন পুরস্কার পেলেন জেনে নিন

মোবাইলে টুজি সচল, থ্রিজি ও ফোরজির জন্য নেটিজেনদের আক্ষেপ

সন্তান জন্ম দিয়েই মারা গেলেন নির্যাতনের শিকার গায়ে আগুন দেয়া সেই কিশোরী


নিলামে অন্য যেসব জিনিস তোলা হচ্ছে, তার মধ্যে থাকছে সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামাসহ অন্য রাষ্ট্রপ্রধানদের উপহার, ম্যান্ডেলার চশমা, ব্রিফকেস ও প্যান্ট। ১৯৭৬ সালে রোবেন দ্বীপে বন্দী থাকার সময় তিনি যে চার পৃষ্ঠার চিঠি লিখেছিলেন, সেটিও নিলামে তোলা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, ২০১৩ সালে জোহানেসবার্গে ৯৫ বছর বয়সে নেলসন ম্যান্ডেলা মৃত্যুবরণ করেন। দক্ষিণ আফ্রিকার কুনুতে ফ্রিডম গার্ডেনে তাকে সমাধিস্থ করা হয়েছে। 

news24bd.tv রিমু  

 

পরবর্তী খবর