অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর শরীরে 'অ্যাসিড' নিক্ষেপের অভিযোগ
অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর শরীরে 'অ্যাসিড' নিক্ষেপের অভিযোগ

ফাইল ছবি

যৌতুকের টাকা না পেয়ে

অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর শরীরে 'অ্যাসিড' নিক্ষেপের অভিযোগ

অনলাইন ডেস্ক

সাড়ে সাত মাসের এক অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর শরীরে বিষাক্ত তরল পদার্থ নিক্ষেপের অভিযোগ উঠেছে। ঘটনাটি ঘটেছে মাদারীপুরের ঝাউদীতে।

শনিবার রাত ১০টার দিকে ওই গৃহবধূকে আহতাবস্থায় ভর্তি করা হয়েছে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত স্বামী ও শ্বশুরকে আটক করেছে সদর থানা পুলিশ।

  গৃহবধূর পরিবারের অভিযোগ করে দাবি করেছে যৌতুকের কারণে অ্যাসিড নিক্ষেপ করা হয়েছে।

এলাকাবাসী ও স্বজনরা জানান, এ বছরের জানুয়ারি মাসে মাদারীপুর সদর উপজেলার ঝাউদী ইউনিয়নের মাদ্রা গ্রামের সুমন শেখের সঙ্গে বিয়ে হয় একই ইউনিয়নের কালাইমারা গ্রামের ওই মেয়ের। বিয়ের পর থেকেই শ্বশুরবাড়ির লোকজন বিভিন্ন সময়ে যৌতুক দাবি করে আসছিল।

আরও পড়ুন:


রোববার রাজধানীর যেসব এলাকার মার্কেট বন্ধ থাকবে

প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ১৩ বছর বয়সী কিশোরীকে দুদিন ধরে ধর্ষণ

নির্বাচন কমিশন নিয়ে রাজনীতিতে আবারও উত্তাপ, যা বলছে বিএনপি-আ.লীগ

পল্লবী থেকে উধাও হওয়া সেই ৩ বান্ধবীকে দেওয়া হল পরিবারের জিম্মায়


বিয়ের দুই মাস পরে সে অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার পরেই বাবার বাড়ি চলে আসেন ওই গৃহবধূ। কিন্তু তাতেও ক্ষান্ত হয়নি সুমন ও তার পরিবার। স্থানীয়রা কয়েকবার বিষয়টি মীমাংসা করার চেষ্টা করেছেন।  

এ অবস্থায় শনিবার সন্ধ্যায় ওই গৃহবধূর বাবার বাড়িতে আসেন সুমন ও তার বাবা সোবহান শেখ। পরে সুমন কৌশলে তাকে ডেকে ঘরের পেছনে নিয়ে যায়। তখন বোতলে থাকা বিষাক্ত পানি নিক্ষেপের চেষ্টা চালায়। ধস্তাধস্তির একপর্যায়ে তার হাত ও মুখমণ্ডলে বিষাক্ত পদার্থ ছিটকে দেয়।

পরে ওই গৃহবধূর চিৎকারে স্বজন ও এলাকাবাসী এগিয়ে এসে তাকে উদ্ধার করে জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। পালিয়ে যাওয়ার সময় শ্বশুরকে আটক করা হয়। পরে অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত সুমনকে আটক করে সদর থানা পুলিশ।

news24bd.tv/ কামরুল 

;