প্রেসক্লাবের মর্যাদা ক্ষুন্ন করেছে বিএনপি : তথ্যমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

প্রেসক্লাবের মর্যাদা ক্ষুন্ন করেছে বিএনপি : তথ্যমন্ত্রী

জাতীয় প্রেসক্লাবে মির্জা ফখরুল সাহেবদের রাজনৈতিক দলের কার্যালয়ের মতো সমাবেশ করে প্রেসক্লাবের পবিত্রতা ও মানমর্যাদা নষ্ট করা হয়েছে বলেছেন তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ। 

সোমবার দুপুরে সচিবালয়ে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে সমসাময়িক বিষয়ে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়কালে এবিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা বলেন।

ড. হাছান বলেন, প্রেসক্লাবে অবশ্যই সরকারের পক্ষে-বিপক্ষে বা সিভিল স্যোসাইটির আলোচনা সভা হতে পারে। কিন্তু নয়া পল্টনে কার্যালয়ের সামনে যেভাবে সমাবেশ হয়, প্রেসক্লাবকে সেভাবে সমাবেশস্থল বানানো সমীচীন নয়, যেটি রোববার বিএনপি করেছে বলে জেনেছি।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, প্রেসক্লাব সাংবাদিকদের প্রতিষ্ঠান। এটি একটি জাতীয় প্রতিষ্ঠান। এখানে রাজনৈতিক দলের কার্যালয়ের সামনে যেভাবে সমাবেশ হয়, সেভাবে সমাবেশ করা সমীচীন নয়। মির্জা ফখরুল সাহেবরা এটি করেছেন। এতে প্রেসক্লাবের পবিত্রতা ও মানমর্যাদা নষ্ট করা হয়েছে বলে আমি ব্যক্তিগতভাবে মনে করি।

নব্বইয়ের গণঅভ্যুত্থানের মতো সরকারের পতন ঘটানোর জন্য বিএনপি’র ডাকের জবাবে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাছান মাহমুদ বলেন, ‘২০০৯ সালে সরকার গঠনের ৩ মাস পর থেকে সাড়ে ১২ বছর ধরে আমরা গণঅভ্যুত্থানের কথা শুনে আসছি। গত সাড়ে ১২ বছরের উন্নয়নের কারণে প্রতিটি মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন হয়েছে। বিএনপি ক্ষমতায় বসে আবার পেট্রোল বোমার রাজনীতি করবে, ৫শ’ জায়গায় বোমা ফোটাবে, দেশকে আবার দুর্নীতিতে চ্যাম্পিয়ন বানাবে এবং শায়খ আব্দুর রহমান, বাংলা ভাই, এগুলো সৃষ্টি করবে এজন্য বিএনপির পক্ষে মানুষ কখনো নামবে না। বিএনপি দিবাস্বপ্ন দেখছে।

আরও পড়ুন:


ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আইপিএল নিয়ে জুয়া, ৩ জনের সাজা

চট্টগ্রাম আদালত এলাকায় বোমা হামলা মামলার রায় আজ

টুইটার অ্যাকাউন্ট ফিরে পেতে আদালতে ট্রাম্প

যুবলীগ নেতার সঙ্গে ভিডিও ফাঁস! মামলা তুলে নিতে নারীকে হুমকি


 

বিএনপি নেতারা প্রায়ই বলেন যে, জাতীয় ঐক্য স্থাপন করতে হবে, কিন্তু যে ঐক্যটা তারা করেছিলেন, সেই ঐক্যটাই বাতাস চলে যাওয়া বেলুনের মতো চুপসে গেছে’ বলেন তথ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘২০ দলীয় জোট যেটি বহু আগে তারা করেছিলেন সেই দলে এখন আট-দশটি দলের বেশি নেই। বাকি সবদল পালিয়ে গেছে। মির্জা ফখরুল সাহেবকে বলবো, তাদের বরং নিজেদের ঘর সামলানোর দিকে মনোযোগ দিয়ে আগামী নির্বাচনের প্রস্তুতি গ্রহণ করা প্রয়োজন।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

হাফ পাস শুধুমাত্র ঢাকায় কার্যকর হবে বললেন এনায়েত উল্লাহ

অনলাইন ডেস্ক

হাফ পাস শুধুমাত্র ঢাকায় কার্যকর হবে বললেন এনায়েত উল্লাহ

খন্দকার এনায়েত উল্ল্যাহ

আন্দোলনের মুখে গণপরিবহনে শিক্ষার্থীদের অর্ধেক ভাড়া কার্যকরের ঘোষণা দিলেও ঢাকার বাইরে শিক্ষার্থীদের পুরো ভাড়াই দিতে হবে। আগামী ১ ডিসেম্বর থেকে এই সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে।

বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্ল্যাহ এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানিয়েছেন।

আজ সকাল সাড়ে ১১টার দিকে রাজধানীর কাজী নজরুল ইসলাম অ্যাভিনিউতে ঢাকা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনটি অনুষ্ঠিত হয়।  

খন্দকার এনায়েত বলেন, ভ্রমণকালে বাসে ছাত্র-ছাত্রীদের অবশ্যই নিজ নিজ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের বৈধ পরিচয়পত্র সঙ্গে রাখতে হবে। প্রয়োজনে তা প্রদর্শন করতে হবে। ব্যক্তি মালিকানাধীন বাসে চলাচলের ক্ষেত্রে সকাল ৭টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত শিক্ষার্থীরা হাফ ভাড়ার সুবিধা পাবে।সরকারি ছুটিসহ স্কুল-কলেজের মৌসুমি ছুটির সময়গুলোতে হাফ ভাড়া কার্যকর হবে না।


আরও পড়ুন:

গণপরিবহনে শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়া কার্যকর

কুমিল্লায় কাউন্সিলর হত্যা: ৬ হামলাকারী শনাক্ত


তবে শর্তগুলো শুধুমাত্র ঢাকার ক্ষেত্রে প্রযোজ্য বলে জানান খন্দকার এনায়েত। সেক্ষেত্রে ঢাকার বাইরের জেলাগুলোতে যেসব শিক্ষার্থীরা চলাচল করবে তাদের বাসের সম্পূর্ণ ভাড়া পরিশোধ করতে হবে।

সংবাদ সম্মেলনে হাফ ভাড়ার দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের দ্রুত ঘরে ফেরার অনুরোধ করেন তিনি।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

গণপরিবহনে শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়া কার্যকর

অনলাইন ডেস্ক

গণপরিবহনে শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়া কার্যকর

ফাইল ছবি

শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মুখে গণপরিবহনে ‘হাফ ভাড়া’ কার্যকর করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাস মালিকরা। এক্ষেত্রে কিছু শর্তও নির্ধারণ করে দিয়েছেন তারা। আগামীকাল (১ ডিসেম্বর) থেকে হাফ ভাড়ার সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে।

মঙ্গলবার (৩০ নভেম্বর) সড়ক পরিবহন মালিক সমিতি মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্যাহ এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানিয়েছেন। বেলা পৌনে ১২টার দিকে রাজধানীর কাজী নজরুল ইসলাম অ্যাভিনিউয়ে এই সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

এসময় তিনি বলেন, আগামীকাল বুধবার (১ ডিসেম্বর) থেকে গণপরিবহনে শিক্ষার্থীদের জন্য হাফ পাস ভাড়া কার্যকর। তবে সকাল ৮ থেকে রাত ৮ পর্যন্ত এই ভাড়া নেবে গণপরিবহন। আর ছুটির দিনে এই হাফ পাস ভাড়া কার্যকর হবে না। শুধু রাজধানীতে এটি কার্যকর থাকবে বলেও জানান তিনি।

বিআরটিসি বাসে হাফ ভাড়া কার্যকরে দেওয়া শর্তগুলোর মতো বাস মালিক সমিতিও শর্ত আরোপ করছে। আর এই শর্তগুলো প্রায় একইরকম।

তিনি আরও জানান, ভ্রমণকালে বিআরটিসি বাসের মতোই ব্যক্তি মালিকানাধীন বাসে ছাত্র-ছাত্রীদের অবশ্যই নিজ নিজ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের বৈধ পরিচয়পত্র সঙ্গে রাখতে হবে। প্রয়োজনে তা প্রদর্শন করতে হবে। 

এছাড়াও ছুটির দিন হাফ ভাড়া কার্যকর হবে না। হাফ ভাড়া শুধু ঢাকায় সীমাবদ্ধ, অন্যান্য জেলার জন্য নয় বলে জানিয়েছেন খন্দকার এনায়েত উল্যাহ।

বিআরটিসি বাসে চলাচলের ক্ষেত্রে সকাল ৭টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত শিক্ষার্থীরা হাফ ভাড়ার সুবিধা পাবে। তবে ব্যক্তি মালিকানাধীন বাসে এ সুবিধা শুরু হবে সকাল ৮টায়, চলবে রাত ৮টা পর্যন্ত।

আরও পড়ুন


চাঁপাইনবাবগঞ্জে দুর্বৃত্তের ছুরিকাঘাতে কলেজছাত্র নিহত

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

হাফ পাসের বিষয়ে সিদ্ধান্ত আজ

অনলাইন ডেস্ক

হাফ পাসের বিষয়ে সিদ্ধান্ত আজ

গণপরিবহনে শিক্ষার্থীদের জন্য হাফ পাসের (অর্ধেক ভাড়া) বিষয়ে আজ চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হতে পারে। আজ মঙ্গলবার অর্ধেক ভাড়ার বিষয়ে সংবাদ সম্মেলন করবেন পরিবহন মালিকরা।

সোমবার (২৯ নভেম্বর) এক প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানান ঢাকা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির দপ্তর সম্পাদক সামদানী খন্দকার।

মঙ্গলবার (৩০ নভেম্বর) সকাল ১১টায় কাজী নজরুল ইসলাম অ্যাভিনিউতে ঢাকা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির কার্যালয়ে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে।

সামদানী খন্দকার জানান, এই সংবাদ সম্মেলনে ঢাকা মহানগরে বাসে হাফ ভাড়ার ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত দেওয়া হবে। সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্ল্যাহ উপস্থিত থাকবেন।

এর আগে, শিক্ষার্থীদের জন্য গণপরিবহনে হাফ পাস বাস্তবায়নে পরিবহন নেতাদের সঙ্গে দুইবার বৈঠক করেছে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ)। কিন্তু কোনো সিদ্ধান্ত ছাড়াই এসব বৈঠক শেষ হয়েছে। বৈঠকে উল্টো ভর্তুকি দাবি করেছেন বাসমালিকরা।

আরও পড়ুন


বাবা-মায়ের পর পরিবারের তৃতীয় চেয়ারম্যান সাফিয়া পারভীন

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

স্কুলছাত্র নিহত: ৯ বাসে আগুনের ঘটনায় যা বলছে পুলিশ

অনলাইন ডেস্ক

স্কুলছাত্র নিহত: ৯ বাসে আগুনের ঘটনায় যা বলছে পুলিশ

রাজধানীর রামপুরায় মাঈনুদ্দিন নামের এক এসএসসি পরীক্ষার্থীকে বাস থেকে ধাক্কা মেরে ফেলে দিয়ে নিহতের ঘটনায় বাসচালককে আটক করেছে পুলিশ। ঘাতক বাসটিকেও জব্দ করা হয়েছে।

ওই ছাত্র নিহতের ঘটনায় উত্তেজিত জনতা ৯টি বাসে আগুন জ্বালিয়ে দেয়। তবে কারা আগুন দিয়েছে তা খতিয়ে দেখা হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ। এটি উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে হতে পারে বলেও মনে করছে পুলিশ।

ঘটনাস্থল থেকে খিলগাঁও ফায়ার স্টেশনের সিনিয়র স্টেশন অফিসার হাসান আলী গণমাধ্যমকে জানান, বাস ভাঙচুরের পাশাপাশি ৯টি বাসে আগুন দেওয়া হয়েছে। ফায়ার সার্ভিসের তিনটি ইউনিট এসব বাসের আগুন নেভায়।

এদিকে, দুর্ঘটনাস্থলে গিয়ে সাংবাদিকদের ডিএমপির মতিঝিল বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার (ডিসি) মো. আ. আহাদ জানান, আমরা যতদূর জানি উত্তেজিত জনতা এসব আগুন ধরিয়েছে। তবে কোনো সুযোগসন্ধানী কেউ দুর্ঘটনাকে কেন্দ্র করে উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে বাসে আগুন দিয়েছে কি না তা খতিয়ে দেখবে পুলিশ। এছাড়া কতগুলো বাসে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়েছে তা পরে জানানো হবে।

ডিসি আরও বলেন, আমরা নিহতের ভাইয়ের সঙ্গে কথা বলেছি। তিনি বলেছেন, তারা ভাঙচুর বা আগুন দেননি। অন্য কেউ এসে এসব করেছে। এ ধরনের ঘটনা কাম্য নয়। সিআইডির ক্রাইম সিন ইউনিট ঘটনাস্থল থেকে আলামত সংগ্রহ ও আনুষ্ঠানিকতা শেষ করার পর সড়কটি খুলে দেওয়া হবে।

এর আগে, সোমবার রাত পৌনে এগারোটার দিকে রামপুরা বাজারের সামনে বাসচাপায় মাঈনুদ্দিনের মৃত্যু হয়। নিহত শিক্ষার্থী একরামুন্নেসা স্কুলের এসএসসি পরীক্ষার্থী।

আরও পড়ুন


কাউন্সিলরসহ জোড়া খুন: দুই আসামি ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

আটটি বাসে আগুন দিল উত্তেজিত জনতা

অনলাইন ডেস্ক

আটটি বাসে আগুন দিল উত্তেজিত জনতা

রাজধানীর রামপুরায় অনাবিল পরিবহনের বাসচাপায় এক শিক্ষার্থী মারা গেছে। শিক্ষার্থীর মৃত্যুকে কেন্দ্র করে ঘটনাস্থলে জড়ো হয়ে সড়ক অবরোধ করেছে উত্তেজিত জনতা। পাশাপাশি উত্তেজিত জনতা বাসে একে একে আটটি বাসে আগুন দিয়েছে। নিহত শিক্ষার্থীর নাম মাঈনুদ্দিন। সে রামপুরা একরামুনেছা স্কুল অ্যান্ড কলেজের এসএসসি পরীক্ষার্থী ছিল। 

সোমবার রাতে রামপুরা বাজারের সামনে এ ঘটনা ঘটে। উত্তেজিত জনতা বাসগুলোতে আগুন দেওয়ার পাশাপাশি ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করছে।

ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদফতরের কন্ট্রোল রুমের ডিউটি অফিসার এরশাদ হোসেন বলেন, ১১টার পরপরই রামপুরার আবুল হোটেলের পাশে একটি বাসে আগুন দেয়ার সংবাদ পাই। সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে ফায়ার সার্ভিসের দুইটি ইউনিট পাঠানো হয়। ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা গিয়ে দেখেন আরও বেশ কয়েকটি বাসে আগুন দেওয়া হয়েছে। পরে ইউনিট সংখ্যা বাড়ানো হয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, ওই ছাত্রের সঙ্গে বাস ভাড়া নিয়ে তর্কে জড়িয়ে পড়ে বাসের হেলপার। পরে তাকে ধাক্কায় দিলে, রাস্তায় পড়ে যায় সে। এরপর চলন্ত বাস, তার মাথার উপর দিয়ে চালিয়ে পালিয়ে যায়। এতে ঘটনা স্থলেই তার মৃত্যু হয়।

রামপুরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম বলেন, বাসচাপায় রামপুরা বাজারের সামনে একজন নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় উত্তেজিত জনতা সড়ক অবরোধ ও বাসে আগুন দিয়েছে। ঘটনাটি আদৌ কীভাবে ঘটেছে পুলিশ তা জানার চেষ্টা করছে।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর