ভণ্ড কবিরাজের চিকিৎসায় ঝলসে গেল মুখ, হাসপাতালে ভর্তি
ভণ্ড কবিরাজের চিকিৎসায় ঝলসে গেল মুখ, হাসপাতালে ভর্তি

ভণ্ড কবিরাজের চিকিৎসায় ঝলসে গেল মুখ, হাসপাতালে ভর্তি

অনলাইন ডেস্ক

গৃহবধূ হাসিনা বেগমের মুখমণ্ডল ঝলসে যাওয়ার অভিযোগে এক নারী কবিরাজ ও তার সহযোগীকে আটক করে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেছে এলাকাবাসী। গতকাল সোমবার দুপুরে কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারী উপজেলার দেওয়ানের খামার (লাকী হল পাড়া) গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।  

এদিকে, মুখমণ্ডল ঝলসে যাওয়া গৃহবধূ বর্তমানে ভূরুঙ্গামারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন।  

ভুক্তভোগী হাসিনা বেগমের স্বামী রাসেদুন্নবী বুলু বলেন, তার স্ত্রী হাসিনা বেগম বেশ কিছুদিন ধরে অসুস্থ।

নাগেশ্বরী উপজেলার উত্তর ব্যাপারী হাট নামক এলাকা থেকে সকিনা বেগম নামের এক নারী কবিরাজ প্রতিবেশী আমিনুরের বাড়িতে চিকিৎসা  দিতে আসতেন। সোমবার হাসিনা বেগমকে চিকিৎসার জন্য ওই কবিরাজের কাছে নেওয়া হয়। এতে হাসিনা বেগমের সারা মুখে ফোসকা উঠেছে। এছাড়া শরীরে আঘাতের চিহ্নও পাওয়া গেছে।  

এ ব্যাপারে চিকিৎসা কর্মকর্তা ডা. সাদ্দাম হোসেন বলেন, 'হাসিনা বেগমের মুখমণ্ডলের প্রায় পুরো অংশই ঝলসে গেছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে কেমিক্যাল জাতীয় কোনো পদার্থ ছোড়া হয়েছে তাঁর মুখে। তাঁর শরীরে আঘাতের চিহ্ন দেখা গেছে। তাঁকে উন্নত চিকিৎসার জন্য কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। '

আরও পড়ুন:


আবারও ফেরি চলাচল বন্ধ

রাজধানীর যেসব এলাকায় মার্কেট বন্ধ থাকবে আজ

পরকীয়ার জেরে শ্যালিকার বিয়ে ভাঙলেন দুলাভাই, আপত্তিকর ছবি!

মুহিবুল্লাহ হত্যাকাণ্ড: দায় স্বীকার করে জবানবন্দি দিলেন ইলিয়াছ

বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডে চাকরির সুযোগ


ভূরুঙ্গামারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তদন্ত আজাহার আলী বলেন, 'এলাকাবাসী এক নারী কবিরাজ ও তার সহযোগীকে আটক করে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেছে। লিখিত অভিযোগ পেলে আইনি পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে। ' 

news24bd.tv রিমু