কোরবানি নিয়ে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত আনা সেই শিক্ষকের জামিন নাকচ
কোরবানি নিয়ে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত আনা সেই শিক্ষকের জামিন নাকচ

কোরবানি নিয়ে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত আনা সেই শিক্ষকের জামিন নাকচ

অনলাইন ডেস্ক

কোরবানি নিয়ে ফেসবুকে বিরূপ মন্তব্য করা লালমনিরহাটের তালুক শাখাতী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক পবিত্র কুমার রায়ের (৫০) জামিন নাকচ করে দিয়েছেন আদালত। পবিত্র কুমারের জামিন আবেদন উত্থাপিত হয়নি মর্মে খারিজ (নটপ্রেস রিজেক্ট) করেন আদালত।

মঙ্গলবার (১২ অক্টোবর) হাইকোর্টের বিচারপতি মো. রেজাউল হক ও বিচারপতি মো. বদরুজ্জামানের ভার্চুয়াল বেঞ্চ এই আদেশ দেন।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে পশু কোরবানি নিয়ে বিরূপ মন্তব্য করার পর থেকে গ্রেপ্তার হয়ে কারাগারে রয়েছেন পবিত্র কুমার রায়।

বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল একেএম আমিন উদ্দিন মানিক।

আদালতে রাষ্ট্র পক্ষের শুনানিতে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল একেএম আমিন উদ্দিন মানিক, সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল আন্না খানম কলি ও মো সাইফুর রহমান সিদ্দিকী সাইফ। আর আসামি পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী আবদুস সালাম মিয়া।

আরও পড়ুন


ইভ্যালি পরিচালনায় বোর্ড গঠন করে দেবেন হাইকোর্ট, আদেশ কাল

বিতর্কিতদের হাতে নৌকা তুলে দিচ্ছে কারা?

আত্মসমর্পণের পর ড. মুহাম্মদ ইউনূসসহ ৪ জনের জামিন মঞ্জুর

নোয়াখালীতে কারাগারে বৃদ্ধ হাজতির মৃত্যু


জানা গেছে, পবিত্র কুমার রায় তার ফেসবুক আইডিতে ঈদুল আজহার দিন ২১ জুলাই পশু কোরবানি নিয়ে বিরূপ মন্তব্য করে একটি পোস্ট দেন। এরপর সেটি নিয়ে স্থানীয়দের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। এরপর পবিত্র কুমার রায় পোস্টটি ফেসবুক থেকে রিমুভ করে ক্ষমা চেয়ে আরও একটি পোস্ট দেন।

এর পর পবিত্র কুমার রায়কে গ্রেফতারে দাবিতে ওইদিন দুপুরে জুমার নামাজের পর উপজেলার তালুক শাখাতী এলাকায় বিক্ষোভ মিছিল করেন মুসল্লিরা। পরে কালীগঞ্জ থানা পুলিশ ওই শিক্ষকে গ্রেফতারে আশ্বাস দিলে তারা মিছিল বন্ধ করেন।

এরপর মো. জহির রায়হান নামে এক ব্যক্তি ফেসবুকে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দেওয়ার অভিযোগে পবিত্র কুমার রায়ের বিরুদ্ধে মামলা করেন। পরে ২৩ জুলাই পবিত্র কুমার রায়কে গ্রেফতার করে পুলিশ।

news24bd.tv এসএম