এবার ডিভি লটারিতে নেই বাংলাদেশ, কিন্তু সক্রিয় ধান্দাবাজরা

অনলাইন ডেস্ক

এবার ডিভি লটারিতে নেই বাংলাদেশ, কিন্তু সক্রিয় ধান্দাবাজরা

নাগরিকত্ব পাওয়ার অন্যতম সহজ সুযোগ যুক্তরাষ্ট্রের গ্রিনকার্ড (ডিভি-২০২৩) লটারিতে আবেদন নেওয়া হচ্ছে ৬ অক্টোবর থেকে। মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ঘোষণায় এই কর্মসূচি শুরু হয়েছে। 

তবে বাংলাদেশ, ব্রাজিল, কানাডা, চীন, কলম্বিয়া, ডমিনিকান রিপাবলিকান, আল সালভেদর, হাইতি, হন্ডুরাস, ভারত, জ্যামাইকা, মেক্সিকো, নাইজেরিয়া, পাকিস্তান, ফিলিপাইন, সাউথ কোরিয়া, যুক্তরাজ্য নেই এই কর্মসূচিতে। 

কারণ, এসব দেশের ইতিমধ্যেই লটারিতে অংশগ্রহণের কোটা পূরণ হয়ে গেছে। 

ঘোষণা অনুযায়ী ৯ নভেম্বর দুপুর পর্যন্ত এই লটারির আবেদন নেওয়া হবে। আর আগামী  বছর ৮ মে থেকে বিজয়ীদের নাম উঠবে লটারিতে। এই দফায় মোট ৫৫ হাজার জন বিজয়ী হবে। বিজয়ীর স্বামী/স্ত্রী, সন্তানেরাও ভিসার যোগ্য হবেন। 

আবেদন যথারীতি নেওয়া হচ্ছে স্টেট ডিপার্টমেন্টের ওয়েবসাইটে- https://dvprogram.state.gov/। 

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় যোগ্য দেশগুলোর নাগরিকদের কালক্ষেপণ না করে ওয়েবসাইটে আবেদন করার পরামর্শ দিয়েছে। আবেদন জমা দিতে কোনো ফি লাগবে না। জানা গেছে, গত বছর এ লটারিতে ৭৩ লাখ ৩৬ হাজার ৩০২ জন আবেদন করেছিলেন। বিজয়ী ৫৫ হাজার জনের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ছিল মিসর, রাশিয়া, সুদান এবং আলজেরিয়া। 

উল্লেখ্য, যে সব দেশ কম ভিসা পাচ্ছে, কেবলমাত্র তারাই এ লটারিতে অন্তর্ভুক্ত হয়। বাংলাদেশ অনেক আগেই ডিভি লটারির আওতামুক্ত হয়েছে। এরপরও যুক্তরাষ্ট্রে সংঘবদ্ধ একটি চক্র এবারও ঢাকায় তাদের এজেন্টদের জানিয়েছে গ্রামের উচ্চশিক্ষিতদের আবেদন ওয়েবসাইটে পাঠানোর জন্য। 

আরও পড়ুন:


ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আইপিএল নিয়ে জুয়া, ৩ জনের সাজা

চট্টগ্রাম আদালত এলাকায় বোমা হামলা মামলার রায় আজ

টুইটার অ্যাকাউন্ট ফিরে পেতে আদালতে ট্রাম্প

যুবলীগ নেতার সঙ্গে ভিডিও ফাঁস! মামলা তুলে নিতে নারীকে হুমকি


 

এ জন্য তারা নির্দিষ্ট পরিমাণের ফি ধার্য করে দিয়েছে বলে নিউইয়র্কে ব্যাপক গুঞ্জন উঠেছে। এমন নিশ্চয়তাও দেওয়া হচ্ছে যে, তাদের মাধ্যমে আবেদন করলেই ভাগ্য প্রসন্ন হবে। এ ব্যাপারে সবাইকে সজাগ থাকার আহ্বান জানিয়েছে সংশ্লিষ্টরা। 

তারা জানান, বাংলাদেশের কোনো নাগরিক ডিভি লটারিতে আবেদনের যোগ্য নন। তাই তারা যেন কারও কথায় বিভ্রান্ত না হন।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

কানাডায় শীতকালীন উৎসবে প্রবাসীদের মিলনমেলা

লায়লা নুসরাত, কানাডা

কানাডায় শীতকালীন উৎসবে প্রবাসীদের মিলনমেলা

উৎসবমুখর ও বর্ণিল আয়োজনের মধ্য দিয়ে কানাডার ক্যালগেরির মালব্রো কমিউনিটি সেন্টারে অনুষ্ঠিত হয়ে গেলো শীতকালীন উৎসব। তুষারাবৃত কানাডার কর্মময় একঘেয়েমি জীবন থেকে বেরিয়ে এসে প্রবাসী বাঙালিরা সারাদিনব্যাপী আনন্দ-উৎসবে মেতে ছিল অন্যরকম এক মিলন মেলায়।

হেমন্তের আবাহনে বাংলার মাঠে প্রান্তরে এখন নবান্ন। নতুন ধান আর ঘরে ঘরে পিঠা-পুলির উৎসব। আর এই উৎসবের সাথে তাল মিলিয়ে কর্মময় জীবনের পাশাপাশি প্রবাসী বাঙালিরা ও মেতে উঠেছিল শীতকালীন উৎসবে। বাঙালি জীবনের এ সংস্কৃতি উৎসব যেন এক মহামিলন।

নতুন প্রজন্মের কাছে আবহমান বাংলার কৃষ্টি ইতিহাস ও ঐতিহ্য তুলে ধরাই ছিল উৎসবের মূল লক্ষ্য। বিভিন্ন স্টলে ছিল বাংলার ঐতিহ্যময় হরেক রকমের পিঠা পুলি ও বাঙালী খাবারের পসরা।

ছবি আঁকিয়ে শিশুরা ফুটিয়ে তোলে মনের চোখে দেখা আবহমান বাংলার প্রকৃতি। আড্ডার সঙ্গে ছিল গান আর শিশু-কিশোরদের পদচারণায় মুখরিত এক খন্ড বাংলাদেশ।

বাংলাদেশ কানাডা অ্যাসোসিয়েশন অফ ক্যালগেরির সভাপতি মোঃ রশিদ রিপন বলেন, স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে শীতকালীন পিঠা উৎসব করতে পেরে আমরা আনন্দিত। নতুন প্রজন্মের মাঝে আমরা আমাদের ইতিহাস সংস্কৃতি ও ঐতিহ্যকে তুলে ধরতে চাই।

বাংলাদেশ কানাডা অ্যাসোসিয়েশন অফ ক্যালগেরির সাধারণ সম্পাদক জয়ন্ত বসু বলেন, ভবিষ্যৎ প্রজন্মের কাছে আমরা আমাদের সংস্কৃতিকেই শুধু নয়, তুলে ধরতে চাই আমাদের গৌরব উজ্জ্বল স্বাধীনতার ইতিহাস। সুবর্ণজয়ন্তীর এই ডিসেম্বর মাসে সবাইকে আমাদের আন্তরিক অভিনন্দন।

বাংলাদেশ কানাডা অ্যাসোসিয়েশন অফ ক্যালগেরির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শুভ মজুমদার বলেন, দীর্ঘ দুই বছর পর সবাইকে একসঙ্গে দেখে অনেক ভালো লাগছে, প্রাণের মেলায় আমরা আবার নতুন করে মিলিত হয়েছি। বিশ্ববাসী প্যানডেমিক থেকে মুক্তি পেয়ে নতুন করে জেগে উঠুক এমনটাই আমাদের প্রত্যাশা।

কমিউনিটি ব্যক্তিত্ব সাইফুল ইসলাম রিপন বলেন, দিন দিন কেন জানি, আমরা আমাদের সংস্কৃতিকে হারিয়ে ফেলছি, নতুন প্রজন্মের কাছে আমাদের ইতিহাস ও ঐতিহ্যকে তুলে ধরতে  শীতকালীন এই উৎসব গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে আমি মনে করি।

প্রবাসী বাংলাদেশীরা ছাড়াও বিদেশিরাও অংশ নিয়েছিলেন এই উৎসবে। উৎসবে স্থানীয় সংগীত শিল্পী সেলিম রেজা ও খালিদা নাসরিন বানি'র পরিবেশনায় ছিল এক অন্যরকম সাংস্কৃতিক সন্ধ্যা।

আরও পড়ুন


দেশকে দুর্নীতিতে চ্যাম্পিয়ন ও জঙ্গি রাষ্ট্র হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছিল বিএনপি: জয়

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

ইউএনডব্লিউটিওর ২৪তম সাধারণ অধিবেশনে বাংলাদেশের অংশ গ্রহণ

ইসমাইল হোসাইন রায়হান (স্পেন প্রতিনিধি):

ইউএনডব্লিউটিওর ২৪তম সাধারণ অধিবেশনে বাংলাদেশের অংশ গ্রহণ

বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ডের সিইও জাবেদ আহমেদের নেতৃত্বে তিন সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল স্পেনের মাদ্রিদে ম্যারিওট কনভেনশন হল এ ইউএনডব্লিউটিওর(UNWTO) ২৪তম সাধারণ অধিবেশনে যোগ দিয়েছে।

সাধারণ পরিষদ হল ইউএনডব্লিউটিওর প্রধান সমাবেশ এবং আসন্ন দ্বিবার্ষিক (২০২২-২০২৩)-এর জন্য UNWTO-এর কর্মসূচী এবং বাজেট অনুমোদন করার জন্য সদস্য রাষ্ট্রগুলির প্ল্যাটফর্ম এটি। সারা বিশ্ব থেকে হাজারের অধিক প্রতিনিধি নিরাপদে পর্যটন পুনরায় চালু করার প্রচেষ্টায় যোগ দেয়। এই সাধারণ পরিষদই হল সঙ্কটের আঘাতের পর পর্যটন খাতের প্রথম সত্যিকারের বিশ্বব্যাপী সমাবেশ।

২০২১ সাধারণ পরিষদ উদ্ভাবন, শিক্ষা এবং গ্রামীণ উন্নয়নের গুরুত্বের পাশাপাশি অন্তর্ভুক্তিমূলক বৃদ্ধিতে পর্যটনের ভূমিকার উপর বিশেষ জোর দেয়, বিশ্ব পর্যটন দিবস ২০২১ এর থিম।

আজ মহাসচিব ইউএনডব্লিউটিও-র কর্মসূচী বাস্তবায়ন,২০১৯ সালে সর্বশেষ বৈঠকের পর থেকে ক্রিয়াকলাপ এবং নতুন উদ্যোগের বিষয়ে সাধারণ পরিষদে তার প্রতিবেদন উপস্থাপন করেন। এজেন্ডায় ২০২২ সালের জন্য ইউএনডব্লিউটিও কার্যনির্বাহী পরিষদের সদস্যদের নির্বাচন অন্তর্ভুক্ত রয়েছে, বিশ্ব কমিটি পর্যটন নৈতিকতা, সেইসাথে সাধারণ পরিষদের পরবর্তী অধিবেশনের অবস্থান এবং তারিখ বেছে নেওয়া, পর্তুগাল এবং উজবেকিস্তান বিড জমা দেওয়ার জন্য সেট করে। মরক্কো কিংডম এই বছরের সাধারণ পরিষদের হোস্ট করার জন্য নির্ধারিত ছিল কিন্তু পরবর্তীতে নিশ্চিত করেছে যে জনস্বাস্থ্য বিবেচনার পরিবর্তনের অর্থ এটি করতে অক্ষম। সংস্থার সংবিধি এবং নিয়ম অনুসারে,২৪ তম অধিবেশনটি স্পেনের মাদ্রিদে UNWTO সদর দপ্তরে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ডের সিইও জাবেদ আহমেদ বলেন,করোনায় পুরো বিশ্ব পর্যটন শিল্পে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে,সেখানে থেকে অনেক দেশ তাদের পর্যটন শিল্পকে গতিশীল করেছে,প্রত্যেক দেশের পরিকল্পনা,অভিজ্ঞতা মত বিনিময় হয়েছে,আমরা ব্যাপক অভিজ্ঞতা সন্চয় করেছি যা আমাদের পর্যটন শিল্পে ব্যাপক সুফল বয়ে আনবে।

আরও পড়ুন:


আফ্রিকার ৭ দেশ থেকে এলেই ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিন

দুই হাত হারানো ফাল্গুনীকে বিয়ে করলো এনজিও কর্মী সুব্রত

স্বাধীনতার ৫০ বছরে স্বাস্থ্যখাতে অভাবনীয় সাফল্য

ঢাকার যানজটেই শেষ জিডিপির প্রায় ৮৭ হাজার কোটি টাকা


সিভিল এভিয়েশন এবং টুরিজমের এডিশনাল সেক্রেটারি জনাব গোলাম কিবরিয়া বলেন,প্রচলিত টুরিজমের বাহিরে গিয়ে গ্রামীণ সভ্যতা,গ্রামীণ সমাজ,গ্রামীণ কালচার প্রমোট করার ব্যাপক সুযোগ পেয়েছি বিশ্ব দরবারে তুলে ধরার,বাংলাদেশের পর্যটন কে ব্যাপক প্রচারের মাধ্যমে আমরা গতিশীল করার আপ্রাণ চেষ্টা অব্যাহত রাখছি,দেশের বাহিরে দূতাবাসের মাধ্যমে আমরা বাংলাদেশ কে বিশ্বের কাছে প্রমোট করছি। 

এসময় স্পেনে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত জনাব মোহাম্মদ সারওয়ার মাহমুদ এনডিসি উপস্থিত ছিলেন।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

তিন সাংবাদিক নেতাকে মার্কিন দূতাবাসের অভিনন্দন

অনলাইন ডেস্ক

তিন সাংবাদিক নেতাকে মার্কিন দূতাবাসের অভিনন্দন

দেশের তিনজন সাংবাদিক নেতাকে অভিনন্দন জানিয়েছে মার্কিন দূতাবাস। ইউ.এস. এ্যাম্বাসি ঢাকা- এর ফেসবুক পেইজ থেকে তাদের অভিনন্দন জানানো হয়েছে।

আরও পড়ুন:

ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিলে পুলিশের বাধা

আজ আঘাত হানতে পারে ঘূর্ণিঝড় 'জাওয়াদ'

 ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটের সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন নজরুল ইসলাম মিঠু। নুরুল ইসলাম হাসিব যিনি ইউ.এস. ইন্টারন্যাশনাল ভিজিটিং লিডারশিপ প্রোগ্রামের অংশগ্রহণ করেছেন এবং নাদিয়া শারমিন, ২০১৫ ইউ. এস. ইন্টারন্যাশনাল ওমেন অব কারেজ স্বীকৃতিপ্রাপ্ত।

উল্লেখিত তিনজনকে এসকল অবদানের জন্য অভিনন্দন জানায় মার্কিন দূতাবাস।

 news24bd.tv/এমি-জান্নাত  

পরবর্তী খবর

বিশ্বমানের রেলওয়ে করার লক্ষ্যে কাজ করছে সরকার: রেলমন্ত্রী

ইসমাইল হোসাইন রায়হান, স্পেন

বিশ্বমানের রেলওয়ে করার লক্ষ্যে কাজ করছে সরকার: রেলমন্ত্রী

স্পেনে রেলমন্ত্রী

রেলওয়ে মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়নের দিকেই এগুচ্ছে সরকার। গোটা দেশেই রেল যোগাযোগ আধুনিকায়নের পাশাপাশি নতুন রুটও চালু করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন। স্পেন সফরকালে নিউজ টোয়েন্টিফোরকে দেওয়া স্বাক্ষাতকারে একথা জানান মন্ত্রী।

এসময় রেলমন্ত্রী জানান, আমরা ঢাকা-চট্টগ্রাম বুলেট ট্রেন চালুর পরিকল্পনা করছি। ঢাকা থেকে কক্সবাজার রেল চালু হচ্ছে শিগগিরই। এছাড়া অন্যান্য রেলপথেরও উন্নয়নকাজ চলমান আছে। ঢাকা থেকে নোয়াখালীগামী উপকূল এক্সপ্রেসের সাথে আরো একটি একটি নতুন ট্রেনও দেওয়া হবে বলে জানান তিনি। প্রত্যেক জেলার সাথে ট্রেন যোগাযোগ চালু হবে এবং প্রত্যেকটি বন্দরেও রেল কানেক্টিভিটি করা হবে বলে জানান মন্ত্রী।

নুরুল ইসলাম সুজন আরও বলেন, পদ্মা সেতুতে রেল সংযোগ হয়েছে, যমুনা নদীর উপরও আলাদা রেলসেতু তৈরির কাজ শুরু হয়েছে। এছাড়া দেশের সব রেলপথ হবে ব্রডগেজ। রেলের মাধ্যমে আমরা আন্তর্জাতিক যোগাযোগকে আরো শক্তিশালী করতে চাই। সাধারণ মানুষের কাছে ট্রেন ভ্রমণ আরো জনপ্রিয় করতে যা যা করা দরকার সবই করা হচ্ছে বলেও জানান রেলমন্ত্রী।

৩ দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে রেলমন্ত্রীর সফরসঙ্গী হিসেবে ছিলেন, রেলপথ মন্ত্রণালয়ের সচিব মোঃ সেলিম রেজা, অতিরিক্ত সচিব ভুবন চন্দ্র বিশ্বাস, অতিরিক্ত মহাপরিচালক কামরুল আহসান, অতিরিক্ত মহাপরিচালক মন্জুরুল আলম চৌধুরী, যুগ্ম সচিব মো: আতিকুর রহমান, রেলমন্ত্রী এপিএস মো: নাজমুল হক ও রাসেদ প্রধান।

আরও পড়ুন


নোয়াখালীতে মুরগি খেতে এসে আটক বাঘ

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

স্পেনে গাজীপুর অ্যাসোসিয়েশনের পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন

অনলাইন ডেস্ক

স্পেনে গাজীপুর অ্যাসোসিয়েশনের পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন

স্পেনের বাংলাদেশিদের অন্যতম আঞ্চলিক সংগঠন গাজীপুর অ্যাসোসিয়েশন ইন স্পেনের নতুন কমিটি গঠন করা হয়েছে। মঙ্গলবার স্পেনের রাজধানী মাদ্রিদের বাংলা টাউন রেস্টুরেন্টে আয়োজিত সাধারণ সভায় নতুন কমিটি ঘোষণা করেন সংগঠনটির সাবেক সভাপতি কমিউনিটি নেতা মোরশেদ আলম তাহের।
 
নবগঠিত কমিটির সভাপতি হিসেবে গাজীপুর অ্যাসোসিয়েশন ইন স্পেনের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান আহ্বায়ক সৈয়দ আমিনুল হক আলন ও গাজীপুর অ্যাসোসিয়েশন ইন স্পেনের যুগ্ম আহ্বায়ক ওমর ফারুক সাধারণ সম্পাদক এবং রাজিব আহম্মেদকে সাংগঠনিক সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পেয়েছেন।

সভায় স্পেনে বসবাসরত গাজীপুরবাসীর নেতাসহ দূরদূরান্তে বসবাসরত প্রবাসীরা ভার্চুয়াল মাধ্যমে উপস্থিত ছিলেন।

কমিটিতে বিভিন্ন পদে মনোনীত হয়েছেন— সিনিয়র সহ-সভাপতি মালেক মিয়া, সহ-সভাপতি যথাক্রমে- মজিবুর রহমান, আল আমিন, মামুন হোসাইন, আলমগীর হোসেন, সিনিয়র সহ-সাধারণ সম্পাদক আলী হোসেন, সহ-সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবির, রনি মোল্লা, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আমিরুল জহির, অর্থ সম্পাদক (কোষাধ্যক্ষ) আলাল সরকার, প্রচার ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক মোবারক হোসেন, শিক্ষা ও ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক মনির মোল্লা, সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক মঞ্জুর রশিদ, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক  শিমুল চন্দ্র ঘোষ, ক্রীড়া সম্পাদক জাহিদ হাসান, দপ্তর সম্পাদক শহীদুল্লাহ, সমাজকল্যাণ সম্পাদক আজগর রশিদ, মহিলা সম্পাদিকা সানজিদা আক্তার, সহ-মহিলা সম্পাদিকা কামরুন্নাহার মীম, সম্মানিত সদস্য জাহাঙ্গীর আলম, সোলেমান হোসেন, মোয়াজ্জেম সরকার, কামরুজ্জামান কামরান, শহিদুল ইসলাম প্রমুখ। 

আরও পড়ুন:

গণপরিবহনে শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়া কার্যকর

হাফ পাস শুধুমাত্র ঢাকায় কার্যকর হবে বললেন এনা


সভায় সর্বসম্মতিক্রমে সদ্য সাবেক সভাপতি মোরশেদ আলম তাহেরকে প্রধান উপদেষ্টা করে ৪ সদস্য বিশিষ্ট উপদেষ্টা কমিটি গঠন করা হয়। উপদেষ্টা কমিটির অন্য সদস্যরা হচ্ছেন- কাজী দেলোয়ার হোসেন, ইসমাইল হোসেন, সাইদুর রহমান ও খোরশেদ আলম। 

স্পেনের রাজধানী মাদ্রিদে বসবাসরত গাজীপুর অ্যাসোসিয়েশনের আহ্বায়ক কমিটির এক সাধারণ সভায় অ্যাসোসিয়েশনের কার্যক্রম গতিশীল করার লক্ষ্যে এ কমিটি ঘোষণা করা হয়।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর