একটি পানির বোতলের জন্য জীবন দিলো কিশোর

অনলাইন ডেস্ক

একটি পানির বোতলের জন্য জীবন দিলো কিশোর

ছেলেটির বয়স ১৪ হবে, ট্রেনে ট্রেনে ঘুরে পানি বিক্রি করা তার পেশা। সেই পানির একটি বোতল রক্ষা করতে গিয়ে নিজের জীবন হারিয়েছে নাম না জানা এক হকার।
 
মর্মান্তিক এই ঘটনা ঘটেছে নরসিংদী রেলওয়ে স্টেশনে।  আজ বুধবার দুপুর সোয়া ২টার দিকে স্টেশনটির ১নং প্ল্যাটফর্মের মাঝামাঝি স্থানে এই দুর্ঘটনা ঘটে। ধারণা করা হচ্ছে, নিহত ওই কিশোরের বাড়ি কিশোরগঞ্জের ভৈরবে।

রেলওয়ে পুলিশ জানায়, ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী তিতাস কমিউটার ট্রেনটি দুপুর ২টার কিছু পরে নরসিংদী রেলওয়ে স্টেশনে যাত্রাবিরতি দেয়। যাত্রাবিরতি শেষে ট্রেনটি আবার চলতে শুরু করলে  প্ল্যাটফর্মের মাঝামাঝি স্থানে ট্রেনের বগি থেকে ওই কিশোর হকার নামার উদ্যোগ নেয়। এ সময় মাথায় থাকা পানির বোতল ভর্তি ক্যারেট থেকে একটি বোতল ওই কামরার দরজায় পড়ে যায়। সেটি কুঁড়িয়ে নিতে হাত বাড়ালে ওই কিশোর ট্রেন ও প্ল্যাটফর্মের মধ্যবর্তী ফাঁকে পড়ে যায়। এতে তার ডান পা ট্রেনের চাকার নিচে কাটা পড়ে। ওই অবস্থায় তাকে টেনে প্ল্যাটফর্মের ওপরে তুলে আনেন উপস্থিত এক ব্যক্তি।


আরও পড়ুন:

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আইপিএল নিয়ে জুয়া, ৩ জনের সাজা

চট্টগ্রাম আদালত এলাকায় বোমা হামলা মামলার রায় আজ

টুইটার অ্যাকাউন্ট ফিরে পেতে আদালতে ট্রাম্প

যুবলীগ নেতার সঙ্গে ভিডিও ফাঁস! মামলা তুলে নিতে নারীকে হুমকি


স্থানীয়রা জানিয়েছেন, স্টেশনের লোকজন তাকে দ্রুত নরসিংদী সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক তৌহিদুল আলম তাকে মৃত ঘোষণা করেন। তিনি জানান, হাসপাতালে নেওয়ার পথেই ওই কিশোর মারা গেছে। অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে তার মৃত্যু হয়। তাকে পা বিচ্ছিন্ন অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়। তার লাশ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

দুর্ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন নরসিংদী রেলওয়ে স্টেশন মাস্টার হাসানুর রহমান।

news24bd.tv/এমি-জান্নাত 

পরবর্তী খবর

মধ্যরাতে শেষ হচ্ছে নিষেধাজ্ঞা, ইলিশ শিকারে প্রস্তুত জেলেরা

অনলাইন ডেস্ক

ইলিশ ধরায় নিষেধাজ্ঞা শেষ হচ্ছে আজ। ২২ দিনের নিষেধাজ্ঞা শেষে আজ মধ্যরাতে নদীতে জাল নামাবেন জেলেরা। তাই ব্যস্ততা বেড়েছে পটুয়াখালী ও চাঁদপুরের জেলে পল্লীগুলোতে।  

এরই মধ্যে নৌকা ও মাছ ধরার সরঞ্জাম নিয়ে সাগর ও নদীতীরে ভিড়তে শুরু করেছেন জেলেরা। আনন্দ-উচ্ছ্বাসে চলছে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি। 

ইলিশ ধরার প্রস্তুতি এবং বেকার জেলেদের এমন কর্মব্যস্ততা পটুয়াখালীর উপকূলে। কেউ নৌকা প্রস্তুত করছেন, কেউ বা বুনছেন জাল। আবার কেউবা ডিজেলসহ মাছ ধরার অন্যান্য উপকরন সংগ্রহ করছেন।

ইলিশ শিকারে টানা ২২ দিনের নিষেধাজ্ঞা শেষ হচ্ছে আজ। মধ্যরাত থেকে ইলিশ শিকারে নামবেন জেলেরা। তারা জানান, নিষেধাজ্ঞাকালে রোজগার না থাকায় দিনগুলো কেটেছে অর্থকষ্টে। এমনকি অনেকেই পাননি সরকারি প্রণোদনার চালও। তাই সংসার চালাতে ধার-দেনাও করতে হয়েছে। 

আরও পড়ুন:পাত্রের বীর্য পরীক্ষা করালেন মেয়ের বাবা!

সংশ্লিষ্টরা জানান, এরই মধ্যে সাগরে যাওয়ার সব প্রস্তুতি শেষ করেছে জেলেরা।

একই চিত্র চাঁদপুরেও। নিষেধাজ্ঞার সময় সীমা শেষ হওয়ায় স্বস্তি ফিরেছে জেলে পাড়ায়। 

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

সুনামগঞ্জে 'হাওর বৃত্ত'র উদ্বোধন করলেন এমপি পীর মিসবাহ

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি:

সুনামগঞ্জে 'হাওর বৃত্ত'র উদ্বোধন করলেন এমপি পীর মিসবাহ

সুনামগঞ্জ জেলার বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার পলাশ ইউনিয়নের পলাশ বাজার গোল চত্বরে 'হাওর বৃত্ত'র উদ্বোধন করেছেন, জাতীয় সংসদের বিরোধী দলীয় হুইপ ও সুনামগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ।

সোমবার (২৫ অক্টোবর) সকালে বিশ্বম্ভরপুর উপজেলা পরিষদের বাস্তবায়নে ৮ লক্ষ টাকা ব্যায়ে চত্বরের উদ্বোধন করেন তিনি।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর হোসেন, বিশ্বম্ভরপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সফর উদ্দিন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সাদিউর রহিম জাদিদ,সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুর রহমান মাষ্টার, বিশ্বম্ভরপুর উপজেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক মো.আব্দুল কাদির প্রমুখ।

আরও পড়ুন:


গোসলখানার দরজা বন্ধ করে কিশোরীকে জোরপূর্বক ধর্ষণ!

হাসপাতালে খালেদা জিয়াকে দেখতে কোকোর স্ত্রী

প্রেমিকাকে জিহ্বা কাটার ঘটনায় প্রেমিকাসহ গ্রেপ্তার ৪

জোর করে তুলে নিয়ে বিয়ে, দুই বছর পর পিটিয়ে হত্যা করল স্বামী


উদ্বোধন শেষে জাতীয় সংসদের বিরোধী দলীয় হুইপ ও সুনামগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ বলেন, সুনাগঞ্জের বিশ্বম্ভরপুর উপজেলা এক সময় উন্নয়ন বঞ্চিত ছিল।কিন্তু আমি সংসদ সদস্য হওয়ার পর এই এলাকার মানুষদের কথা দিয়েছিলাম বিশ্বম্ভরপুর উপজেলাকে একটি উন্নয়ন মূলক মডেল উপজেলা তৈরি করব এবং সেটি করছি।

এরপর জাতীয় সংসদের বিরোধী দলীয় হুইপ ও সুনামগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ বিশ্বম্ভরপুর উপজেলা সদরে জয় বাংলা চত্বর, শহিদ মিনার, প্রেসক্লাব ও হাওর বিলাশ, হাওর ভিউ পরিদর্শন করেন।

news24bd.tv/ কামরুল 

পরবর্তী খবর

নোয়াখালীতে মন্দির হামলা ভাংচুরের ঘটনায় জামায়াত নেতা সহ আরও গ্রেপ্তার ১১

নোয়াখালী প্রতিনিধি:

নোয়াখালীতে মন্দির হামলা ভাংচুরের ঘটনায় জামায়াত নেতা সহ আরও গ্রেপ্তার ১১

নোয়াখালীতে মন্দির হামলা ভাংচুরের ঘটনায় ও ফেসবুকে উস্বকানি মূলক প্রচারণার অভিযোগে ১১ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

এর মধ্যে রয়েছে, জেলা স্বেচ্ছাসেবকদলের সহ-সভাপতি ফয়সল ইনাম কমল (৩৯) ও সেনবাগ উপজেলার বীজবাগ ইউনিয়ন সাবেক চেয়ারম্যান ও জামায়াত নেতা হারুনুর রশিদ (৪৮)। এই নিয়ে বেগমগঞ্জে ১৩৫জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। 

আরও পড়ুন:


গোসলখানার দরজা বন্ধ করে কিশোরীকে জোরপূর্বক ধর্ষণ!

হাসপাতালে খালেদা জিয়াকে দেখতে কোকোর স্ত্রী

প্রেমিকাকে জিহ্বা কাটার ঘটনায় প্রেমিকাসহ গ্রেপ্তার ৪

জোর করে তুলে নিয়ে বিয়ে, দুই বছর পর পিটিয়ে হত্যা করল স্বামী


নোয়াখালী পুলিশ সুপার মো. শহীদুল ইসলাম আজ সোমবার সকাল ১১টায় নিজ কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান। পুলিশ সুপার জানান, কুমিল্লার ঘটনায় উসকানি মূলক বক্তব্য ফেসবুকে প্রচার সহ ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে। 

ফয়সল ইনাম কমলের বিরুদ্ধে ৩২টি মামর সহ ব্যাপক অভিযোগ রয়েছে। তার বিরুদ্দে উসকানি দাতা হিসাবে প্রমাণিত হয়েছে। 

news24bd.tv/ কামরুল 

পরবর্তী খবর

রাজধানী মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেপ্তার ৫৯

অনলাইন ডেস্ক

রাজধানী মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেপ্তার ৫৯

রাজধানী ঢাকার বিভিন্ন এলাকায় মাদকবিরোধী অভিযান চালিয়ে ৫৯ জনকে গ্রেপ্তার করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) বিভিন্ন অপরাধ ও গোয়েন্দা বিভাগ। রোববার সকাল ৬টা থেকে সোমবার সকাল ৬টা পর্যন্ত রাজধানীর বিভিন্ন থানা এলাকায় এ অভিযান চালানো হয়। 

আরও পড়ুন:


গোসলখানার দরজা বন্ধ করে কিশোরীকে জোরপূর্বক ধর্ষণ!

হাসপাতালে খালেদা জিয়াকে দেখতে কোকোর স্ত্রী

প্রেমিকাকে জিহ্বা কাটার ঘটনায় প্রেমিকাসহ গ্রেপ্তার ৪

জোর করে তুলে নিয়ে বিয়ে, দুই বছর পর পিটিয়ে হত্যা করল স্বামী


গ্রেপ্তারের সময় তাদের কাছ থেকে ২৬০ গ্রাম ১১ পুরিয়া হেরোইন, ৪ হাজার ৭০২ পিস ইয়াবা, ৪ কেজি ৮৩৬ গ্রাম ৩৫ পুরিয়া গাঁজা ও ৪ লিটার দেশি মদ জব্দ করা হয়।

গ্রেপ্তারদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে ৫১টি মামলা করা হয়েছে। সূত্র: ডিএমপি নিউজ

news24bd.tv/ কামরুল 

পরবর্তী খবর

প্রচারণায় জমে উঠেছে চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচন

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি:

প্রচারণায় জমে উঠেছে চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচন

আগামী ২ নভেম্বর অনুষ্ঠিতব্য চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনকে ঘিরে প্রার্থীদের প্রতিশ্রুতি আর প্রচার-প্রচারণায় মুখর হয়ে উঠেছে পৌর এলাকা। মানুষের মাঝে বিরাজ করছে নির্বাচনী আমেজ। নির্বাচন কেন্দ্র করে পৌর এলাকার প্রতিটি অলিগলি, দোকানের সামনে, ফাঁকা জায়গায়, বাড়ির সম্মুখে ছেয়ে গেছে সাদা-কালো পোস্টারে।

সেই সঙ্গে চলছে প্রত্যেক প্রার্থীর ভোট প্রার্থনা ও নিয়মিত উঠান বৈঠক। পাশাপাশি পৌরসভার ১৫ টি ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থীদের পোস্টার ছেয়ে গেছে সর্বত্র। 

এদিকে ছোট ছোট হ্যান্ডবিল নিয়ে মেয়র প্রার্থী, সাধারণ কাউন্সিলর প্রার্থী ও সংরক্ষিত নারী প্রার্থী ও সমর্থকরা ভোটারদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোট প্রার্থনা করছেন। হ্যান্ডবিল বিলির সঙ্গে চালিয়ে যাচ্ছেন উঠান বৈঠকও। সেই সঙ্গে প্রার্থীরা দিচ্ছেন বিভিন্ন উন্নয়নের প্রতিশ্রুতি। সাবেক, বর্তমান ও নতুন প্রার্থীরা সবাই উন্নয়নের অঙ্গীকার করে যাচ্ছেন। 

শুধু তাই নয়, অনেকেই আবার বয়স্কদের বুকে জড়িয়ে ধরছেন। ভোটের দিন যতই ঘনিয়ে আসছে, ততই বাড়ছে নির্বাচনী উত্তাপ বাড়ছে। চায়ের স্টল, হোটেলসহ সব জায়গাতেই চলছে প্রার্থীদের নিয়ে আলোচনা আর জল্পনা-কল্পনা। দুপুর ২টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত গান-ছন্দে প্রার্থীদের নজরকাড়া ভোট প্রার্থনা আর মাইকের আওয়াজে আন্দোলিত এখন শহর। এছাড়া সামাজিক মাধ্যমে চলছে অনেক প্রার্থীর সমর্থনে নির্বাচনী প্রচারণা। গণসংযোগে রাত-দিন ব্যস্ত সময় পার করছেন প্রার্থীরা, আর যাচ্ছেন ভোটারদের দ্বারে দ্বারে। 

আরও পড়ুন:


গোসলখানার দরজা বন্ধ করে কিশোরীকে জোরপূর্বক ধর্ষণ!

হাসপাতালে খালেদা জিয়াকে দেখতে কোকোর স্ত্রী

পুকুরে না, সেই গদা পাওয়া গেল বাড়ির ভেতরে!

জোর করে তুলে নিয়ে বিয়ে, দুই বছর পর পিটিয়ে হত্যা করল স্বামী


প্রার্থনা করছেন ভোট, দিচ্ছেন নানান প্রতিশ্রুতি। যোগ দিচ্ছেন উঠোন বৈঠকে। এদিকে থেমে নেই কর্মীরাও। ছোট ছোট দলে ভাগ হয়ে নিজেদের প্রার্থীর পক্ষে ভোট চাইছেন ভোটারদের কাছে। থেমে নেই নারী কর্মীরাও, তারাও দলে দলে ভোট চাইতে যাচ্ছেন এ বাড়ি ও বাড়ি। নির্বাচনের দিন যতই ঘনিয়ে আসছে ততই সরগরম হচ্ছে ভোটের মাঠ। প্রতিদিন প্রতিটি ওয়ার্ডে হচ্ছে কোনো না কোনো প্রার্থীর উঠোন বৈঠক অথবা নির্বাচনী পথসভা। পাড়া-মহল্লার চায়ের দোকানগুলোতে অনেক রাত পর্যন্ত চলছে সাধারণ ভোটারদের হিসেব নিকাশ। এ পৌরসভা নির্বাচনে এবার মেয়র পদে ৪ জন এবং কাউন্সিলর পদে ১০৭ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। 

আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকে মেয়র পদে লড়ছেন জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মো. মোখলেসুর রহমান। তিনি নৌকা প্রতীক নিয়ে মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন। তিনি বলছেন, তাকে নির্বাচিত করলে এ পৌরসভা হবে দৃষ্টিনন্দন। যেটির গর্বের অধিকারী হবেন পৌর নাগরিকরা। তার পক্ষে আওয়ামী লীগ, যুবলীগ বিভিন্ন অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা নৌকার বিজয় সুনিশ্চিত করতে মাঠে একযোগে কাজ করছেন। 

অন্যদিকে পরিবর্তনের অঙ্গীকার নিয়ে আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী জেলা যুবলীগের সভাপতি সামিউল হক লিটন মোবাইল প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তিনি একটি আধুনিক মডেল পৌরসভা গড়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করছেন। এদিকে স্বতন্ত্র প্রার্থী নারিকেল গাছ প্রতীকের বিএনপি নেতা মো. নজরুল ইসলাম মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন। তিনিও পৌর নাগরিকদের সার্বিক উন্নয়নে নানা প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন। এছাড়া স্বতন্ত্র প্রার্থী জগ প্রতীকের জামায়াত নেতা মো. মোস্তাফিজুর রহমান মুকুল কৌশল অবলম্বন করে ভোট প্রার্থনা করছেন। 

news24bd.tv/ কামরুল 

পরবর্তী খবর