দেশে সাম্প্রদায়িক শক্তির উত্থান ঘটতে দেওয়া হবে না : ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী
দেশে সাম্প্রদায়িক শক্তির উত্থান ঘটতে দেওয়া হবে না : ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী

দেশে সাম্প্রদায়িক শক্তির উত্থান ঘটতে দেওয়া হবে না : ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বের ফলেই আজকে বাংলাদেশ বিশ্বের কাছে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি স্থাপনে অনন্য দৃষ্টান্ত স্হাপন করেছে। বিরাজমান সৌহার্দপূর্ণ সম্প্রীতি নষ্টের জন্য  বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন রকম পায়তারা চলছে। সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠীসমূহ নিজেরা নিজেরাই বিভিন্ন ইস্যু তৈরি করে  বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করার অপচেষ্টা চালাচ্ছে বলে জানিয়েছেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল।

তিনি বলেন, আমাদের যে অসাম্প্রদায়িক চেতনার বাংলাদেশ,  যে অসাম্প্রদায়িক চেতনা নিয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সাহসী  নেতৃত্বে হিন্দু, মুসলিম, খিস্টান, বৌদ্ধ সকলে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে মহান  মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে দেশ স্বাধীন করেছিলেন।

  বঙ্গবন্ধুর সেই অসাম্প্রদায়িক  বাংলাদেশে কোনো সাম্প্রদায়িক শক্তির উত্থান ঘটতে দেওয়া হবে না।   

তিনি আজ রাজধানীর যুব ভবনে যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর আয়োজিত প্রস্তাবিত যুব প্রশিক্ষন নীতিমালা ২০২১ বিষয়ক কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যেকালে এসব কথা বলেন।

ষড়যন্ত্রকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে জানিয়ে প্রতিমন্ত্রী বলেন, সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টকারীদের কোনো ছাড় দেওয়া হবে না। তাদের  বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।   সরকার যথাযথ তদন্তের মাধ্যমে  তাদের প্রত্যেককে আইনের আওতায় নিয়ে আসবে।  

আরও পড়ুন:


ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আইপিএল নিয়ে জুয়া, ৩ জনের সাজা

চট্টগ্রাম আদালত এলাকায় বোমা হামলা মামলার রায় আজ

টুইটার অ্যাকাউন্ট ফিরে পেতে আদালতে ট্রাম্প

যুবলীগ নেতার সঙ্গে ভিডিও ফাঁস! মামলা তুলে নিতে নারীকে হুমকি


 

সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টকারীদের বিরুদ্ধে দেশের যুবসমাজসহ সকল সচেতন  মানুষকে সোচ্চার হওয়ার আহবান জানিয়ে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বলেন, যারা মুক্তিযুদ্ধ বিরোধী, যারা দেশের উন্নয়ন চাই না সেই প্রতিক্রিয়াশীল গোষ্ঠী অত্যন্ত পরিকল্পিতভাবে জঘন্য এ সকল কর্মকাণ্ডে জড়িত।   এরা দেশের শত্রু, জাতির শত্রু। এদেরকে সরকার কোনোভাবেই ছাড় দিবে না। এদেরকে বিচারের আওতায় এনে উপযুক্ত শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে।  

যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মোঃ আজহারুল ইসলাম খানের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মোঃ আখতার হোসেন। এ সময়ে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় এবং যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের উর্ধতন কর্মকর্তাসহ যুব সমাজের প্রতিনিধিবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।  

news24bd.tv/আলী