সন্তান জন্ম দিয়েই মারা গেলেন নির্যাতনের শিকার গায়ে আগুন দেয়া সেই কিশোরী

প্লাবন রহমান

মৃত সন্তান জন্ম দিয়ে শেষ পর্যন্ত মারা গেলেন স্বামীর নির্যাতনে গায়ে আগুন দেয়া কিশোরী মা লাবণ্য। যৌতুকের টাকার চাপে শেষ পর্যন্ত নিজের গায়ে আগুন লাগিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছিলেন তিনি। রাজধানীর শেখ হাসিনা বার্ণ ইউনিটে গতকাল বৃহস্পতিবার চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয় লাবণ্যের। মেয়েকে নির্যাতনকারী স্বামী শাহীন আলম ও তার পরিবারের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চেয়েছেন লাবণ্যের বাবা-মা।   

সুরাইয়া নেওয়াজ লাবন্য। ১৭ বছর বয়সী এই তরুণী এখন না ফেরার দেশে। নিজের গায়ে আগুন লাগিয়ে নির্যাতন থেকে মুক্তি খুঁজে চলে গেছেন পরপারে।

মাত্র ১৭ বছর বয়সেই জীবন শেষ করে দিতে চেয়েছেন সুরাইয়া নেওয়াজ লাবণ্য। বিয়ের এক বছর না যেতেই স্বামীর যৌতুকের চাপ-সেইসঙ্গে শশুর বাড়ির লোকজনের নানামুখী নির্যাতনে আত্মহত্যার পথ বেছে নেন এই স্ত্রী। পেটে সন্তানের আকার বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বেড়েই চলছিল লাবন্যের ওপর শারিরীক-মানসিক নির্যাতন। এসব সইতে না পেরে নিজের শরীর নিজেই ঝলসে দেন আগুনে। পরে রাজধানীর শেখ হাসিনা বার্ণ ইউনিটে ভর্তি হলেও শেষ রক্ষা হয়নি। বৃহস্পতিবার পৃথিবীর সব মায়া ছেড়ে চলে গেলেন লাবন্য। তার আগে শরীরের ৯০ ভাগ পোড়া নিয়ে হাসপাতালে জন্ম দেন পাঁচ মাসের মৃত কন্যা সন্তান।

অথচ গত বছর নভেম্বরে ভালবেসে বিয়ে করেন শাহীন আলম ও লাবণ্য। অভিযোগ, বিয়ের পর থেকেই শারীরিক ও মানসিক নির্যাতনের পাশাপাশি ২ লাখ টাকা যৌতুক চেয়ে স্ত্রীকে চাপে রেখেছিলেন স্বামী শাহীনসহ শশুর বাড়ির লোকজন। এরইমধ্যে সন্তান সম্ভবা হলেও এতটুকু সহানুভুতি মেলেনি। শেষ পর্যন্ত লাবণ্যের ঠাই হয় বাপের বাড়ি। সেখানে থাকা অবস্থায়ও ফোনে স্বামী যৌতুক দাবি করলে, গত ৯ অক্টোবর সন্ধ্যায় নিজের গায়ে কেরোসিন ঢেলে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন এই তরুণী। 

আরও পড়ুন:


নতুন সুখবর দিলেন জয়া

চট্টগ্রামে মা ও দুই শিশু সন্তানের মরদেহ উদ্ধার

বাংলাদেশের সেই খুদে লেগস্পিনারকে নিয়ে যা বললেন শচীন! (ভিডিও)

মনোনয়ন ফরম কিনতে গিয়ে জানলেন ১১ বছর আগেই মৃত!


অভিযোগ সম্পর্কে কথা বলতে চেষ্টা করলে স্বামী শাহীনের দুইটি নাম্বারই বন্ধ পাওয়া গেছে। তবে ফোনে শাহীনের বাবা আবু তাহের জানিয়েছেন, ঘটনা সম্পর্কে তিনি শুনেছেন। বিস্তারিত কিছু জানেন না তিনি।

সুরাইয়া ইয়াসমিন লাবণ্যের শশুরবাড়ি ময়মনসিংহের ধোবাউরার খাগড়া এলাকায়। আর বাবার বাড়ি নেত্রোকোনার কলমাকান্দার গাখাজোড়া এলাকায়। পাঁচ দিন আগে ওই বাবার বাড়ি থাকা অবস্থায় ফোনে স্বামীর সঙ্গে কথা হওয়ার পরই গায়ে আগুন দেয় মেয়েটি।

news24bd.tv রিমু  

পরবর্তী খবর

অটোরিকশায় পাওয়া গেলো একলাখ ইয়াবা, ব্যবসায়ী আটক

অনলাইন ডেস্ক

অটোরিকশায় পাওয়া গেলো একলাখ ইয়াবা, ব্যবসায়ী আটক

উদ্ধার করা ইয়াবা

কক্সবাজারের খুরুশকুল এলাকায় একটি সিএনজিচালিত অটোরিকশায় তল্লাশি চালিয়ে এক লাখ ইয়াবাসহ গফুর উদ্দিন (২৮) নামের এক মাদক কারবারিকে আটক করেছে র‌্যাব। 

গতকাল রাতে তাকে আটক করা হয়। তবে নুরুল আমিন (৪২) ও নুর মোহাম্মদ (৩৭) নামে আরও দুই মাদক কারবারি পালিয়ে যান। আটক গফুর উদ্দিন উখিয়া উপজেলার বালুখালীর আনঞ্জুমান পাড়ার আব্দুস সালামের ছেলে।

র‌্যাব-১৫ এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আবু সালাম চৌধুরী স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

গফুর উদ্দিন

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, রাত সাড়ে ৯টার দিকে র‌্যাবের একটি দল খুরুশকুল রোডস্থ সিকদার মার্কেটের সামনে অভিযান চালায়। এ সময় একটি সিএনজিচালিত অটোরিকশায় তল্লাশি চালিয়ে এক লাখ ইয়াবাসহ গফুর উদ্দিনকে আটক করা হয়।


আরও পড়ুন:

গণপরিবহনে শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়া কার্যকর

হাফ পাস শুধুমাত্র ঢাকায় কার্যকর হবে বললেন এনায়েত উল্লাহ

কুমিল্লায় কাউন্সিলর হত্যা: ৬ হামলাকারী শনাক্ত


গফুর উদ্দিনের বিরুদ্ধে মামলা দিয়ে জব্দ ইয়াবা ও সিএনজিচালিক অটোরিকশাসহ তাকে কক্সবাজার সদর থানায় সোপর্দ করা হয়েছে বলেও বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

৭ মণ ওজনের মাছটি বিক্রি হলো

অনলাইন ডেস্ক

৭ মণ ওজনের মাছটি বিক্রি হলো

৭ মণ ওজনের সেই শাপলাপাতা মাছ

পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় জেলেদের জালে ধরা পড়া ৭ মণ ওজনের সেই শাপলাপাতা মাছটি বিক্রি করা হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে এ মাছটি মৎস্য বন্দর আলীপুরের ধুলাসার ঘাটে নিয়ে আসে। মাছটি ৬৩ হাজার টাকায় বিক্রি করা হয়েছে।

পায়রা বন্দর সংলগ্ন রাবনাবদ নদীতে রোববার রাতে জেলেদের জালে মাছটি ধরা পরে।

জেলেরা জানায়, প্রথমে জাল থেকে মাছটি ট্রলারে তুলতে বেগ পেতে হয়েছে জেলেদের। পরে তারা ট্রলারে নিয়ে আড়ৎ ঘাটে আসলে মাছটি বরিশালের এক মৎস্য ব্যবসায়ি কিনে নেয়।

আলীপুরের ধুলাসার ফিস আড়ৎ মালিক মো.আবু জাফর বলেন, গত দু’দিন আগে এ শাপলাপাতা মাছটি সেলিম ফকিরের জালে ধরা পরে। মঙ্গলবার সকালে এটিকে আড়ৎ ঘাটে নিয়ে আসে। মাছটি ৬ থেকে ৭ মন ওজন হতে পারে। তবে এ শাপলাপাতা মাছটি বিক্রি করা হয়েছে বলে তিনি জানিয়েছেন।

আরও পড়ুন: 


জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম না ফেরার দেশে


news24bd.tv/ তৌহিদ

পরবর্তী খবর

হাফ ভাড়ার সিদ্ধান্ত প্রত্যাখ্যান, শিক্ষার্থীদের নতুন কর্মসূচি ঘোষণা

অনলাইন ডেস্ক

হাফ ভাড়ার সিদ্ধান্ত প্রত্যাখ্যান, শিক্ষার্থীদের নতুন কর্মসূচি ঘোষণা

নতুন কর্মসূচি ঘোষণা করেছে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা

শুধুমাত্র ঢাকা মহানগরীতে হাফ ভাড়ার সিদ্ধান্তকে প্রত্যাখ্যান করে নতুন কর্মসূচি ঘোষণা করেছে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। মঙ্গলবার (৩০ নভেম্বর) বিকেল ৪টার দিকে রাজধানীর বনানীর বিআরটিএ ভবনের চেয়ারম্যানের রুম থেকে বেরিয়ে এসে সাংবাদিকদের এসব কথা জানান আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা।

দুপুরে স্টেট ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থী ইনজামুল হকের নেতৃত্বে তিন সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল বিআরটিএ চেয়ারম্যানের নূর মোহাম্মদ মজুমদারের সঙ্গে দেখা করে নয় দফা দাবিগুলোর বিষয়ে আলোচনা করেন।

ইনজামুল হক বলেন, তবে আশানুরূপ কোনো আলোচনা হয়নি। দাবি পূরণের বিষয়ে তেমন আশ্বাস মেলেনি। কাল সারাদেশে সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সামনে শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করা হবে।

আরও পড়ুন:

উগান্ডায় 'ফড়িং ফ্রাই' বিক্রি করে চাকরি হারালো বিমান কর্মচারী


news24bd.tv/ নকিব

পরবর্তী খবর

আত্রাইয়ে দেশি মাছের জমজমাট বাজার

বাবুল আখতার রানা, নেত্রকোনা

আত্রাইয়ে দেশি মাছের জমজমাট বাজার

দেশি মাছ

৩০ বছরের ঐতিহ্য রয়েছে নওগাঁর আত্রাইয়ের দেশি মাছের বাজারের। রুই, কাতলা, শিং, মাগুর, পাবদা, টাংরা, বোয়াল, টাকিসহ বিভিন্ন জাতের দেশি মাছ পাওয়া যায় এ বাজারে। স্থানীয় চাহিদা মিটিয়ে এসব মাছ পাঠানো হয় রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন জেলায়। 

নাটোরের চলনবিল, সিংড়া বিল, হালতিবিলসহ কমপক্ষে ১০টি বিল ও নদী থেকে ধরা প্রায় ৫ লাখ টাকার মাছ প্রতিদিন কেনাবেচা হয় এই বাজারে। এতে বিক্রেতারা লাভবান হলেও তাদের অভিযোগ, যোগাযোগ ব্যবস্থা ভালো না হওয়ায় মাছের আমদানি কম। 

মাছের বাজার

প্রতিদিন ভোর হতে না হতেই জেলেরা মাছ নিয়ে ছুটে যান আত্রাইয়ের দেশি মাছ বাজারে। ভোর ৬টা থেকে সকাল ৯টা পর্যন্ত চলে কেনাবেচা। খালে, বিলে, নদীতে ধরা পড়া দেশি মাছে জমে উঠে বাজার। রুই, কাতলা, শিং, মাগুর, পাবদা, ট্যাংরাসহ বিভিন্ন জাতের মাছ কেনাবেচা হয় এখানে।


আরও পড়ুন:

গণপরিবহনে শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়া কার্যকর

হাফ পাস শুধুমাত্র ঢাকায় কার্যকর হবে বললেন এনায়েত উল্লাহ

কুমিল্লায় কাউন্সিলর হত্যা: ৬ হামলাকারী শনাক্ত


আত্রাই মৎস্য ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি বাবুল আকন্দ বলেন, বিভিন্ন জায়গা থেকে ক্রেতারা দেশি মাছ কিনতে আসেন আত্রাইয়ের এই বাজারে। দাম কম হওয়ায় খুশি তারা। আবার বিক্রেতারাও খুশি সহজেই মাছ বিক্রি করতে পেরে।

বিক্রেতারা অভিযোগ করে বলেন, ঐতিহ্যবাহী এ মাছ বাজারে যাতায়াতের জন্য যে যোগাযোগ ব্যবস্থা প্রয়োজন, তা নেই বললেই চলে।

যোগযোগ ব্যবস্থার উন্নতি হলে আত্রাইয়ের ঐতিহ্যবাহী এ মাছের বাজার আবারো জমে উঠবে, এ প্রত্যাশা সবার। 

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

বিপুল ভোটে শ্বশুরকে হারিয়ে চেয়ারম্যান ‌‘বউমা’

অনলাইন ডেস্ক

বিপুল ভোটে শ্বশুরকে হারিয়ে চেয়ারম্যান ‌‘বউমা’

গত রোববার তৃতীয় ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জ উপজেলার বৈরচুনা ইউনিয়ন পরিষদে অংশ নিয়ে বিপুল ভোটে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন টেলিনা সরকার হিমু।

আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে নৌকা মাার্কা নিয়ে নির্বাচনে অংশ নেন তিনি। ভোট পেয়েছেন ৭ হাজার ৪৭৭। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন তার আপন মামাশ্বশুর সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আইয়ুব আলী। চশমা মার্কা নিয়ে ভোটে অংশ নিয়ে তিনি পেয়েছেন ৩ হাজার ১৭ ভোট। 

হিমুর স্বামী নুরে আলম সিদ্দিকী দুলাল উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন এবং বিগত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে অংশ নিয়ে অল্প ভোটের ব্যবধানে হেরে যান। ২০২০ সালের ২৩ জানুয়ারি দুলালের অকাল মৃত্যু হয়। ওই ইউনিয়নে এবার চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ প্রার্থী করে দুলালের স্ত্রী হিমু সরকারকে।

অপরদিকে, একই পদে প্রার্থী হন সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান ও হিমুর মামাশ্বশুর আইয়ুব আলী চৌধুরী। তরুণ ভোটাররা ঝুঁকে পড়েন হিমুর পক্ষে। অপরদিকে, অপেক্ষাকৃত বয়স্ক ভোটাররা পক্ষ নেন আইয়ুবের। লড়াই জমে ওঠে শ্বশুর ও তার 'বউমা'র মধ্যে। অবশেষে শ্বশুরকে হারিয়ে জয় পান 'বউমা'। হিমু সরকার জেলার মধ্যে প্রথম নারী চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেন।

নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান টেলিনা সরকার হিমু বলেন, জনগণ আমাকে নির্বাচিত করেছে। ইনশাআল্লাহ আমি জনগণের সুখে-দুঃখে পাশে থাকব। আমি বিশ্বাস করি এই বিজয়ে নারীরা আরও এক ধাপ এগিয়ে যাবে ও আমার দল শক্তিশালী হবে।

আরও পড়ুন


পলো-বাওয়া উৎসবে মাতল গুরুদাসপুরবাসী

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর