প্রেমিকের সঙ্গে পূজা দেখতে গিয়ে অচেতন অবস্থা জঙ্গলে পড়েছিল তরুণী
প্রেমিকের সঙ্গে পূজা দেখতে গিয়ে অচেতন অবস্থা জঙ্গলে পড়েছিল তরুণী

প্রতীকি ছবি

প্রেমিকের সঙ্গে পূজা দেখতে গিয়ে অচেতন অবস্থা জঙ্গলে পড়েছিল তরুণী

অনলাইন ডেস্ক

দশমীর রাতে গিয়েছিলেন প্রেমিকের সঙ্গে পূজা দেখতে। রাতে বাড়ি ফেরার কথা থাকলেও আর ফেরেনি তরুণী। পরে এক পর্যায়ে ওই তরুণীর খোঁজ মেলে জঙ্গলে। অচেতন অবস্থায় পরে ছিলেন তিনি।

এখন পর্যন্ত প্রেমিকেরও খোঁজ পাওয়া যায়নি। এখন প্রশ্ন উঠেছে তাহলেও কি ওই তরুণীকে ধর্ষণ করে ফেলে রেখে যাওয়া হয়েছে।

ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের পূর্ব বর্ধমানের আউশগ্রামে। এনিয়ে ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে গ্রামটিতে।

ভারতীয় গণমাধ্যম সংবাদ প্রতিদিনের এক প্রতিবেদনে এমনটিই জানানো হয়েছে।

গণমাধ্যমটির প্রতিবেদনে আরও জানানো হয়, বেশ কয়েক বছর আগেই ওই তরুণীর বিবাহ বিচ্ছেদ হয়। দু’টি সন্তানও রয়েছে তাঁর। সন্তানদের নিয়ে আপাতত বাপের বাড়িতেই থাকেন তরুণী।

সম্প্রতি এক যুবকের সঙ্গে সম্পর্ক তৈরি হয় তাঁর। দশমীর সন্ধ্যায় ওই যুবকের সঙ্গে পূজা দেখতে বেরিয়েছিলেন তিনি। বাবাকে জানিয়েছিলেন রাতেই বাড়ি ফিরবেন। কিন্তু অনেক রাতেও বাড়ি না ফেরায় শুরু হয় খোঁজ খবর।

আরও পড়ুন


বরিশালের ক্ষুদে বোলিং যাদুকর সাদিদে মুগ্ধ বিশ্ব, স্বপ্ন বড় হয়ে বিশ্বকাপ জয়ের

কুমিল্লায় ট্রেনে পাথর নিক্ষেপ, জানালার কাঁচ ভেঙে শিশুসহ আহত ৩

ট্রফি জিতে অবসর নিয়ে যা বললেন ধোনি

শনিবার রাজধানীর যে সব মার্কেট ও দর্শনীয় স্থান বন্ধ


বেশ কিছুক্ষণ পর আউশগ্রামের মলডাঙ্গা আদিবাসীপাড়ার কাছে একটি জঙ্গলে ওই তরুণীকে অচৈতন্য অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন স্থানীয়রা। তাঁরাই পুলিশে খবর দেয়। প্রথমে ওই তরুণীকে জামতাড়া ব্লক প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে বেশ কিছুক্ষণ চিকিৎসা হয় তাঁর। তারপর বর্ধমান মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় তাঁকে। বর্তমানে সেখানেই চিকিৎসাধীন ওই তরুণী।

পুলিশ সুপার কামনাশিস সেন বলেন, ওই তরুণী অতিরিক্ত নেশাগ্রস্ত ছিলেন। তার জেরেই অচেতন হয়ে পড়েন তিনি। তাঁর বন্ধুর খোঁজে তল্লাশি চলছে। তাকে পাওয়া গেলে ঘটনার রহস্যের জট কাটবে বলেই আশা তাঁর।

news24bd.tv এসএম

;