সাড়া ফেলেছে 'চন্দ্রাবতী কথা'

অনলাইন ডেস্ক

সাড়া ফেলেছে 'চন্দ্রাবতী কথা'

মুক্তির প্রথম সপ্তাহেই দর্শকপ্রিয়তা পাচ্ছে সরকারি অনুদানপ্রাপ্ত ম্যানগ্রোভ পিকচারস ও বেঙ্গল ক্রিয়েশনসের প্রযোজনায় ও বসুন্ধরা এলপি গ্যাসের সহযোগিতায় নির্মিত ছবি ‘চন্দ্রাবতী কথা’ । রাজধানীর স্টার সিনেপ্লেক্সের বসুন্ধরা সিটি, সীমান্ত সম্ভার, সনি স্কয়ার মিরপুর, এসকেএস টাওয়ার মহাখালী, যমুনা ব্লকবাস্টার ও সিনেস্কোপ নারায়ণগঞ্জে মুক্তি পেয়েছে। 

হল থেকে ফেরা কিছু দর্শকের তাৎক্ষিণক মন্তব্যে জানা যায়, ছবিটির নির্মাণশৈলী, গল্প, অতীতের পটভূমি, নাটকীয় উপস্থাপনা সকল কিছুই ছিল চিত্তাকর্ষক। এমন ভালো ছবি দেশে নিয়মিত ভাবে তৈরি হলে, বহির্বিশ্বে বাংলাদেশের ছবির মুখ উজ্জ্বল হবে। চন্দ্রাবতীর জীবনী দেখানোর সঙ্গে সঙ্গে সিনেমাতে ওই সময়ের সামাজিক বিভিন্ন প্রেক্ষাপট, ঘটনা এবং পারফরম্যান্স স্টাইলও উঠে এসেছে।  

সেন্সর বোর্ডে জমা দেওয়ার পর সেন্সর বোর্ড সিনেমাটি আটকে রাখে এক বছরেরও অধিক সময়। শেষ পর্যন্ত চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে কোন ধরনের কর্তন ছাড়াই সেন্সর ছাড়পত্র পায় ‘চন্দ্রাবতী কথা’।

বাংলাদেশের প্রথম নারী কবি বলা হয় চন্দ্রাবতীকে। মলুয়া, দস্যু কেনারামের পালা এবং অসম্পূর্ণ রামায়ণ তার অন্যতম সৃষ্টি। তবে তার সৃষ্টির চেয়ে ঢের নাটকীয় এবং একই সঙ্গে বিয়োগান্তক তার নিজের জীবন। ষোড়শ শতকের অসম্ভব প্রতিভাবান ও সংগ্রামী এই নারীকে নিয়ে নির্মিত হয়েছে পূর্ণদৈর্ঘ্য এই ছবিটি।

আরও পড়ুন:

কোহলিদের কোচ হচ্ছেন রাহুল দ্রাবিড়, চোখ কপালে উঠার মত বেতন

ঘোড়ার খামারে বিয়ে করছেন বিল গেটসের মেয়ে

চীনে পবিত্র কোরআনের অ্যাপ সরিয়ে নিল অ্যাপল

স্কাউটদলের অভিযানে দুর্ঘটনা, ১১ জন নিহত


যদিও সরকারি অনুদানে ছবিটি নির্মিত, তবে সার্বিক নির্মাণের স্বার্থে ৩ বছর আগে এই ছবিটির সহযোগিতায় এগিয়ে আসে বসুন্ধরা এলপি গ্যাস। বসুন্ধরা এলপি গ্যাস সবসময় সর্বপ্রকারে এর কার্যক্রমের সাথে থেকেছে এবং বিনিয়োগ করেছে । সুস্থ ছবি যেন সগৌরবে প্রেক্ষাগৃহে ফিরে আসে এবং সুস্থধারার দর্শকও যেন উপকৃত হন, সেই আশাতেই 'চন্দ্রাবতী কথা' ছবির সাথে সম্পৃক্ততা এবং হলে গিয়ে সবাই ছবিটি দেখলে, তবেই সবার শ্রম স্বার্থক হবে বলে বসুন্ধরা এলপি গ্যাস কর্তৃপক্ষ থেকে জানা যায়।

গত মঙ্গলবার রাজধানীতে চলচ্চিত্রটির প্রিমিয়ার শো অনুষ্ঠিত হয়। প্রদর্শনীতে প্রধান অতিথি ছিলেন তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান, বিশেষ অতিথি ছিলেন মুক্তিযোদ্ধা চলচ্চিত্র নির্মাতা নাসিরুদ্দিন ইউসুফ এবং চলচ্চিত্র নির্মাতা মোরশেদুল ইসলাম। আরও উপস্থিত ছিলেন তথ্যচিত্র নির্মাতা মানজারে হাসিন মুরাদ।

news24bd.tv/ নকিব

পরবর্তী খবর

খোলামেলা ছবি নিয়ে ভাইরাল শ্রীলেখা

অনলাইন ডেস্ক

খোলামেলা ছবি নিয়ে ভাইরাল শ্রীলেখা

নিজের জীবনকে নিজের মতো করে উপভোগ করতে ভালবাসেন টলি অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র। বিতর্ক গুজব কোনটাতেই কর্ণপাত করেন না  তিনি। শ্রীলেখা হরহামেশাই সোশ্যাল মিডিয়ায় বাজে মন্তব্যের শিকার হন। পালটা মন্তব্য করতেও ছাড়েন না স্পষ্টভাষী এই অভিনেত্রী। 

সিনেমায় যেমন চরিত্রের প্রয়োজনে সব করতে পারেন, বাস্তব জীবনেও নিজের মতাদর্শে অনড় এ অভিনেত্রী। 

সম্প্রতি একটি ফটোশুটে অংশ নিয়েছেন শ্রীলেখা। ৪৬ বছর বয়সেও তিনি খুলে দিয়েছেন রূপ-শরীরের আগল। খোলামেলা সেই ফটোশুটের ভিডিও আবার শেয়ারও করেছেন অভিনেত্রী। 

ক্যাপশনে লিখেছেন,  ‘অবশ্যই আমি আমার শরীরের এই ভাঁজগুলোর মালিক। ভালোবাসাই আমার ধর্ম।’ 

ভিডিওতে দেখা যায়, কখনো শাড়িতে, কখনো ফ্যাশনেবল পাশ্চাত্য পোশাকে, কখনো বা ব্রাইডাল লেহেঙ্গায় কনের সাজে ক্যামেরাবন্দী হয়েছেন শ্রীলেখা।

আরও পড়ুন:


আফ্রিকার ৭ দেশ থেকে এলেই ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিন

দুই হাত হারানো ফাল্গুনীকে বিয়ে করলো এনজিও কর্মী সুব্রত

স্বাধীনতার ৫০ বছরে স্বাস্থ্যখাতে অভাবনীয় সাফল্য

ঢাকার যানজটেই শেষ জিডিপির প্রায় ৮৭ হাজার কোটি টাকা


শ্রীলেখার এই ফটোশুট নিয়ে দারুণ আলোচনা হচ্ছে ফেসবুকে। তবে এবার নেতিবাচক মন্তব্যের আধিক্য নেই। বরং প্রশংসায় ভাসছেন তিনি।

শ্রীলেখা মিত্রর পরবর্তী সিনেমা ‘ন্যায়-জাজমেন্ট ডে’। এ সিনেমার লুক সামনে এনেছেন তিনি। সিনেমাটিতে শ্রীলেখার লুক নিয়েও কিছুদিন ধরে চলছে আলোচনা। তা ছাড়া অংশুমান প্রত্যুষের ‘নির্ভয়া’ সিনেমার কাজ শেষ করেছেন শ্রীলেখা। তারকাখচিত এই সিনেমায় আরো অভিনয় করেছেন—সব্যসাচী চক্রবর্তী, প্রিয়াঙ্কা সরকার, গৌরব চক্রবর্তী, শান্তিলাল মুখোপাধ্যায় প্রমুখ।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

কৃষকদের কাছে রাস্তায় ক্ষমা চাইতে বাধ্য হলো কঙ্গনা (ভিডিও)

অনলাইন ডেস্ক

কৃষকদের কাছে রাস্তায় ক্ষমা চাইতে বাধ্য হলো কঙ্গনা (ভিডিও)

বলিউডের কনট্রোভার্সি কুইন কঙ্গনা রানাওয়াত এক ইনস্টাগ্রাম পোস্টে শিখ ধর্মাবলম্বীদের খালিস্তানি জঙ্গি বলে দাবি করেছিলেন। সেই মন্তব্য শিখ সম্প্রদায় এবং শিখ কৃষক আন্দোলনকে আঘাত করেছে এই অভিযোগ এনে অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে এফআইআরও দায়ের করা হয়েছে। সেই বিতর্কের আগুন ঠাণ্ডা হওয়ার আগেই নয়া বিতর্কে কঙ্গনা। এবার পঞ্জাবে বিক্ষোভের মুখে পড়লেন বলিউডের কনট্রোভার্সি।

শুক্রবার ভারতের পাঞ্জাব প্রদেশের কিরাতপুর এলাকায় আন্দোলনরত কৃষকরা এই বলিউড স্টারের গাড়ি আটকে দেয়। এ সময় কঙ্গনার গাড়ি ঘিরে ফেলে  তার করা মন্তব্যের জন্য ক্ষমা চাইতে বলেন কৃষকরা।  ঘণ্টাদেড়েক পর কঙ্গনা ক্ষমা চাইলে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়।

 এনডিটিভি জানিয়েছে, মানালি থেকে চণ্ডীগড় যাচ্ছিলেন কঙ্গনা। রোপড়ের কাছে বুঙ্গা সাহিবে তার গাড়িবহর আটকানো হয়। আন্দোলনকারী দলে ছিলেন বিপুল সংখ্যক শিখ কৃষক ও নারীরা। তারা কঙ্গনার কাছে কৃষক আন্দোলন নিয়ে তার 'খালিস্তানি' মন্তব্যের জন্য ক্ষমা চাওয়ার দাবি জানান। তবে নিজের ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে ওই ঘটনার ভিডিও পোস্ট করে কঙ্গনা  দাবি করেছেন, বিক্ষোভকারীরা তাকে মেরে ফেলার হুমকি দিচ্ছে। হেনস্থা করছে।

ঘণ্টা দেড়েক এই অচলাবস্থা চলার পর শেষমেশ হার মানেন কঙ্গনা। গাড়ির বাইরে এসে নিজের মন্তব্যের জন্য ক্ষমা চান তিনি। কৃষকদের অভিবাদনও করেন। এরপরই আন্দোলনকারীরা বিক্ষোভ তুলে নিলে চন্ডীগড়ের উদ্দেশে রওনা দেন অভিনেত্রী।

আরও পড়ুন:

গণপরিবহনে শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়া কার্যকর

হাফ পাস শুধুমাত্র ঢাকায় কার্যকর হবে বললেন এনা


এদিকে, এই ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। চন্ডীগড়-উনা হাইওয়েতে কঙ্গনা গাড়ি আটকে থাকার কারণে যানজটও তৈরি হয়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় পুলিশ।

 

প্রসঙ্গত, ভারতে কৃষি আইন প্রত্যাহারের পর গত ২০ নভেম্বর নিজের ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে কঙ্গনা শিখ ধর্মাবলম্বীদের খালিস্তানি জঙ্গি বলে দাবি করেছিলেন।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

এসব হীন কাজ কীভাবে করতে পারেন আপনারা : সানাই

অনলাইন ডেস্ক

এসব হীন কাজ কীভাবে করতে পারেন আপনারা : সানাই

সামাজিক মাধ্যমে আপত্তিকরভাবে নিজেকে উপস্থাপন করে বার বার মুখোমুখি হয়েছেন সমালোচনার।বেশ কয়েক বছর নাটক ও সিনেমায় অভিনয় করেছেন তিনি। তবে ক্যারিয়ারে সুবিধাজনক অবস্থানে যেতে পারেননি তিনি। তাইতো আলেচিত সমালোচিত মডেল ও অভিনেত্রী সানাই মাহবুব সুপ্রভা ঘোষনা দিয়ে অভিনয় ছাড়েন। অভিনয় জগত ছেড়ে এখন ইসলামের পথে আসার কথাও প্রকাশ্যে জানান তিনি। তবে তার আগের ভিডিওগুলো এখনও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করা হচ্ছে বলে অভিযোগ জানিয়ে সম্প্রতি ফেসবুক লাইভে আসেন সানাই।

ফেসবুক লাইভে এসে সানাই অভিযোগ করেন, তিনি এখন সম্পূর্ণ ইসলামের পথে আছেন। তবে এখনও অনেক আইডি থেকে তার আগের ভিডিও পোস্ট করে বিভ্রান্তি ছড়ানো হচ্ছে, যা আইনের পরিপন্থী। তাই এখন আইনের আশ্রয় নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলেও জানান সানাই।

তিনি বলেন, দেড় বছর পর লাইভে আসলাম। কিন্তু এখনও অনেক ফেসবুক গ্রুপ ও ইউটিউব চ্যানেল থেকে আমার আগের লাইভ, গানসহ নানা কিছু প্রকাশ করা হচ্ছে। মানুষকে বিভ্রান্ত করা হচ্ছে। আমি এখন ইসলামের পথে রয়েছি। এসব করা আইনের পরিপন্থী। আমার ভিডিও ব্যবহার করে টাকা কামানোর এসব হীন কাজ কীভাবে করতে পারেন আপনারা!

আরও পড়ুন :অভিনয় ছেড়ে ইসলামের নিয়ম পালন করতে চাই : সানাই

 তাই আমি আইনি পথে চলার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। দ্রুতই এসব চ্যানেল কিংবা গ্রুপের বিরুদ্ধে মামলা করব। একজন পর্দানশীল নারী যে কতটা পাওয়ারফুল হতে পারে তা আপনারা দেখবেন।

এ সময় এই ধরনের ভিডিও আপলোড বন্ধ করার অনুরোধও জানান তিনি। অন্যথায় তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়ার হুশিয়ারিও দেন তিনি।

এর আগে সানাই বলেছিলেন,‘ইসলামের ছায়া তলে থেকে শান্তি খুঁজে পেতে চাই। নিজের ভুল বুঝতে পেয়েছি এবং অভিনয় জগত থেকে নিজেকে গুটিয়ে নিয়েছি। এ জগতে আর ফিরছি না। পুরোপুরি ইসলামের নিয়ম পালন করতে চাই। ইচ্ছে আছে খুব শিগগিরই হজে যাওয়ার, বাকিটা মহান আল্লাহর ইচ্ছে। ’

আরও পড়ুন:

গণপরিবহনে শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়া কার্যকর

হাফ পাস শুধুমাত্র ঢাকায় কার্যকর হবে বললেন এনা


 

একই সঙ্গে ইসলামের পথে যাতে তিনি চলতে পারেন, সেজন্য সবার কাছে দোয়াও চেয়েছেন। কারো কাছে তার ছবি থাকলে সেগুলো সরিয়ে ফেলারও অনুরোধ এই অভিনেত্রীর।

প্রসঙ্গত, সিনেমার নায়িকা হওয়ার স্বপ্ন নিয়ে ঢালিউডে পা রেখেছিলেন সানাই। কিন্তু সেই পথচলা ছন্দ মিলিয়ে ধারাবাহিক করতে পারেননি। অল্প সময়ের ফাঁকে কিছু সিনেমায় তিনি শুটিং করেছিলেন।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

ক্যাটরিনার বিয়েতে অতিথিদের মানতে হবে ৮ নির্দেশনা

অনলাইন ডেস্ক

ক্যাটরিনার বিয়েতে অতিথিদের মানতে হবে ৮ নির্দেশনা

ভিকি কৌশল ও ক্যাটরিনা কাইফ।

ভারতীয় মিডিয়ায় বর্তমানে আলোচিত বিষয় ভিকি কৌশল ও ক্যাটরিনা কাইফের বিয়ে। বিয়েতে কে কে থাকবেন কিংবা কাকে কাকে দাওয়াত দেওয়া হবে না এ নিয়ে চলছে নানা আলোচনা।

তবে ভারতীয় গণমাধ্যম বলছেন, ভিকি-ক্যাটরিনার বিয়েতে প্রবেশ করতে বিভিন্ন নিয়ম মানতে হবে অতিথিদের। 

ভারতীয় সিনেমার আলোচিত নায়িকার বিয়েতে ফোন ব্যবহার করা নিষিদ্ধ। থাকবেন না কোনও সাংবাদিক।

রাজস্থানের বিলাসবহুল প্রাসাদের বাইরে মোতায়েন করা হবে পুলিশ সদস্যদের। তাছাড়া থাকবেন নিরাপত্তারক্ষীর দল।

এখন নতুন করে জানা গেল, গোপন কোড জানলে তবেই তারকা যুগলের বিয়েতে প্রবেশ করতে পারবেন আমন্ত্রিতরা। 

আনন্দবাজার জানায়, সোস্যাল মিডিয়ায় অনেকে বলাবলি করছেন ‘বড়লোক বলেই এত নাটক’, কারও মতে, ‘নিমন্ত্রণ রক্ষা করাই উচিত নয়’। কেউ বা আবার ঠাট্টা করে বলছেন, ‘এ তো বিয়ে নয়, মিশন ইম্পসিবল’। ভিকি কৌশল এবং ক্যাটরিনা কইফের নামে হ্যাশট্যাগ দিয়ে বিভিন্ন মতামতের জোয়ার টুইটারে। কিন্তু এত সমালোচনার কারণ কী?

অবশ্য এ ব্যাপারটি নিয়ে মুখ খুলতে নারাজ ভিকি এবং ক্যাটরিনা। তাঁদের পরিবারের সদস্য এবং তারকা-বন্ধুদেরও কড়া নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, ‘বিয়ের খবর যেন ঘরের বাইরে না বেরোয়।

কিন্তু তা ধরে রাখা যাচ্ছে না। একে একে সব খবরই প্রকাশ পাচ্ছে।

এর মাঝেই প্রকাশ পেল বিয়েবাড়িতে প্রবেশ করার নিয়মাবলির তালিকা-

১। ভিকি এবং ক্যাটরিনার বিয়েতে প্রবেশ করার আগে অতিথিদের ছবি না তোলার চুক্তিতে সই করতে হবে।

২। বিয়ের সময়ে ফোন ব্যবহার করা যাবে না।

৩। রাজস্থানে বিয়েবাড়ি থেকে বেরোনো পর্যন্ত বাইরের কারও সঙ্গে যোগাযোগও করা যাবে না।

৪। অতিথিদের মধ্যে কেউ যেন নেটমাধ্যমে ছবি পোস্ট না করেন, সে বিষয়েও স্পষ্ট নির্দেশিকা রয়েছে তালিকায়।

৫। বিয়েবাড়ির ঠিকানা পাঠানো যাবে না কাউকে।

৬। বিয়ে প্রাঙ্গনে রিল ভিডিয়ো বানানো যাবে না।

৭। তা ছাড়া গোপন কোড না জানলে বিয়েতে প্রবেশ করতে পারবেন না আমন্ত্রিতরাও।

৮। একইসঙ্গে কোভিড বিধি নিয়ে রয়েছে কড়াকড়ি।

আরও পড়ুন: 


৪ অভিজ্ঞ ছাড়াই ওয়েস্ট ইন্ডিজের সঙ্গে লড়বে পাকিস্তান


news24bd.tv/ তৌহিদ

পরবর্তী খবর

বিয়ের আগে বাচ্চা নিতে বাবা-মা-ভাইয়ের সমর্থন পান স্বরা

অনলাইন ডেস্ক

বিয়ের আগে বাচ্চা নিতে বাবা-মা-ভাইয়ের সমর্থন পান স্বরা

স্বরা ভাস্কর।

বলিউডে সাপোর্টিং রোলে অভিনয়ের জন্য পরিচিত স্বরা ভাস্কর। কিছু ইন্ডেপেন্ডেন্ট ফিল্মে তিনি স্টারিং রোলে অভিনয় করেছেন। 

সম্প্রতি মা হওয়ার সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে সকলকে চমকে দিয়েছিলেন দুটি স্ক্রিন পুরস্কার এবং তিনবার ফিল্মফেয়ার এ্যাওয়ার্ডের জন্য মনোনয়নপ্রাপ্ত এ অভিনেত্রী।

তিনি মা হওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছেন। তবে তা বায়োলজিক্যাল চাইল্ড নয়, দত্তকের।

আর তাতেই সমাজের একটা অংশের কটাক্ষ ঘিরে ধরেছে অভিনেত্রীকে।

স্বরা জানান, ‘আমি বাচ্চা নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিতে অনেকেই বোকা বোকা চিন্তা দেখানো শুরু করেছেন। ‘এরপর তো আর বিয়ে হবে না’, ‘সবাই কী কবলে’, ‘কে তোমায় বিয়ে করবে’র মতো নানা কথা শুনতে হয়েছে। তবে আমি আমার মা-বাবা, আমার ভাই, আমার জামাইবাবু, আমার বন্ধু-বান্ধব ও পরিবারের সমর্থন পেয়েছি। যার জন্য নিজেকে ভাগ্যবান মনে করি।’

‘মিড ডে’কে গত মাসে দেওয়া সাক্ষাৎকারে নিজের মা হওয়ার সিদ্ধান্তের কথা জানান স্বরা।

সঙ্গে জানান, বাচ্চা দত্তক নেওয়ার যেসব নিয়ম কানুন আছে তা সব তিনি পূরণ করে ফেলেছেন। এখন অপেক্ষা করছেন কবে তাঁর নম্বর আসবে ও তাঁর সন্তানকে দেখতে পাবেন।

স্বরা আরও জানিয়েছিলেন পরিবারের শখ তাঁর বরাবরের। আর একসময় বুঝতে পারেন বিয়ে ছাড়াও বাচ্চা নেওয়া সম্ভব এবং তাও দত্তক নেওয়ার মাধ্যমে।

তারপরই Central Adoption Resource Authority-র শরনাপন্ন হন স্বরা। সেখানকার প্রতিনিধিদের সাথে কথা বলেন। সমস্ত ফর্মালিটিস পূরণ করেন।

আরও পড়ুন: 


৪ অভিজ্ঞ ছাড়াই ওয়েস্ট ইন্ডিজের সঙ্গে লড়বে পাকিস্তান


তারকা বলে সেখানে তাঁকে আলাদা করে কোনও সুবিধে দেওয়া হয়নি। বরং, তিনিও আর পাঁচজনের মতো এখনও জানেন না কবে পাবেন সন্তান। আপাতত অপেক্ষা করতে হবে তাঁকে।

news24bd.tv/ তৌহিদ

পরবর্তী খবর