যে কারণে ইভ্যালির ওয়েবসাইট-অ্যাপ বন্ধ

অনলাইন ডেস্ক

যে কারণে ইভ্যালির ওয়েবসাইট-অ্যাপ বন্ধ

আলোচিত সমালোচিত ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালি তাদের ওয়েব সাইটের সার্ভারসহ, অফিসের খরচ চালানো ও কর্মীদের বেতন-ভাতার  প্রদানের অনিশ্চয়তা দেখা যাওয়ায় তাদের ওয়েবসাইট বন্ধ করে দিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। শনিবার (১৬ অক্টোবর) ফেসবুকে ঘোষণা দিয়ে এতথ্য জানিয়েছে ইভ্যালি।

গ্রাহকদের অর্ডারের পণ্য দিতে না পারায় প্রতারণার অভিযোগে গত মাসে প্রতিষ্ঠানটির শীর্ষ কর্মকর্তাদের গ্রেফতার করা হয়।

ফেসবুকে গ্রাহকদের জন্য দেওয়া ওই জরুরি নোটিশে ইভ্যালি জানিয়েছে, ‘সম্মানিত গ্রাহক, বর্তমান পরিস্থিতি সম্পর্কে আপনারা সবাই অবগত। ডিজিটাল বাংলাদেশ নির্মাণের অপ্রতিরোধ্য অগ্রযাত্রার অংশীদার হয়ে দেশের অনলাইন কেনাকাটাকে সবার হাতের মুঠোয় নিয়ে যেতে আমরা কাজ করে যাচ্ছি অবিরাম। আমরা এ কাজকে এগিয়ে নিতে চাই। চাই আপনাদের সকলের সহযোগিতায় আমাদের ব্যবসায়িক কার্যক্রমকে চালিয়ে যেতে। আর এ সুযোগ পেলে সকলের সব ধরনের অর্ডার ডেলিভারি দিতে আমরা অঙ্গীকারাবদ্ধ ছিলাম, আছি, থাকব।’

‘বর্তমান পরিস্থিতিতে অজ্ঞাতনামা হিসেবে আমাদের সকল এমপ্লয়িরা শঙ্কার মধ্যে দিন অতিবাহিত করছেন। আমাদের সম্মানিত সিইও এবং চেয়ারম্যান কারাগারে থাকায় আমাদের ব্যাংকিং-ও সাময়িকভাবে বন্ধ। এমন পরিস্থিতিতে আমাদের সার্ভারসহ, অফিসের খরচ চালানো এবং আমাদের এমপ্লয়িদের দায়িত্ব নেওয়ার বিষয়গুলোতে অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছে। আমাদের উকিলের মাধ্যমে আমাদের সম্মানিত সিইও’র বক্তব্য হলো- সুযোগ এবং সময় পেলে আমাদের পক্ষে চার মাসের মধ্যেই সকল জটিলতা গুছিয়ে উঠা সম্ভব।’

নোটিশে আরও বলা হয়, ‘এ পরিস্থিতিতে আমাদের সার্ভার বন্ধ হয়ে যাওয়ার জন্য আমরা আন্তরিকভাবে দুঃখিত। পুনরায় দ্রুত সার্ভার চালু করে দেওয়ার জন্য আমাদের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। গ্রাহক ও সেলারদের স্বার্থ সুরক্ষায় আমরা সর্বোচ্চ সচেষ্ট। দেশীয় ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান হিসেবে বিশ্ব দরবারে প্রতিষ্ঠিত হতে আমাদের এই যাত্রায় আমরা আপনাদের পাশে পেয়েছি সবসময়। আপনাদের এ ভালোবাসায় আমরা চিরকৃতজ্ঞ। সামনের দিনগুলোতেও আমরা এভাবে আপনাদের পাশে চাই। আপনাদের ভালোবাসার শক্তি আমাদের অদম্য পথচলার প্রেরণা। ইভ্যালির পাশে থাকার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ।’

আরও পড়ুন:


ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আইপিএল নিয়ে জুয়া, ৩ জনের সাজা

চট্টগ্রাম আদালত এলাকায় বোমা হামলা মামলার রায় আজ

টুইটার অ্যাকাউন্ট ফিরে পেতে আদালতে ট্রাম্প

যুবলীগ নেতার সঙ্গে ভিডিও ফাঁস! মামলা তুলে নিতে নারীকে হুমকি


ইভ্যালির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. রাসেল ও তার স্ত্রী প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান শামীমা নাসরিন বর্তমানে কারাগারে রয়েছেন। রাসেল কেরানীগঞ্জের কেন্দ্রীয় কারাগারে আর তার স্ত্রী গাজীপুরের কাশিমপুর কারাগারে আছেন।

ews24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

এক পরিবারের ৫ সদস্যের ইসলাম গ্রহণ

অনলাইন ডেস্ক

এক পরিবারের ৫ সদস্যের ইসলাম গ্রহণ

একই পরিবারের পাঁচ সদস্য খ্রিস্টান ধর্ম ত্যাগ করে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছেন।ছিন্টুর নাম পরিবর্তন করে সেন্টু ইসলাম খলিফা, লিন্ডার নাম আয়েশা খলিফা, ভিক্টরের নাম তামিম ইসলাম খলিফা, এডমন্ডের নাম রিয়াজুল ইসলাম খলিফা ও উর্মীর নাম উর্মী ইসলাম খলিফা রাখা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৫ নভেম্বর) বিকেলে বরিশাল সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট এনায়েত উল্লাহর আদালতে উপস্থিত হয়ে এফিডেভিটের মাধ্যমে তাদের নামও পরিবর্তন করা হয়।

ইসলাম ধর্ম গ্রহণকারীরা হলেন- গৌরনদী উপজেলার নলচিড়া ইউনিয়নের কলাবাড়িয়া গ্রামের খ্রিস্টানপাড়ার বাসিন্দা কাঠমিস্ত্রি ছিন্টু রায় (৪৫), তার স্ত্রী লিন্ডা রায় (৩৫), ছেলে ভিক্টর রায়, এডমন্ড রায় (১৩) ও মেয়ে উর্মী রায় (৬)।

বরিশালের গৌরনদী উপজেলায় এই ঘটনা শুক্রবার বিকেলে প্রকাশ পায়।

ধর্ম পরিবর্তনের বিষয়ে জানতে চাইলে সেন্টু ইসলাম খলিফা বলেন, দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন ওয়াজ শুনে ও ইসলামি বই পড়ে স্ত্রী-সন্তানদের নিয়ে ইসলাম ধর্ম গ্রহণের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। বৃহস্পতিবার প্রথমে স্থানীয় মসজিদের ইমামের কাছে স্ত্রী-সন্তানদের নিয়ে স্বেচ্ছায় কলেমা পড়ে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করি। ওইদিনই বরিশাল সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে উপস্থিত হয়ে এফিডেভিট সম্পন্ন করেছি। ইসলামী আদর্শ নিয়ে বাকি জীবন কাটিয়ে দিতে তিনি সবার দোয়া চেয়েছেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে নলচিড়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান গোলাম হাফিজ মৃধা বলেন, ওই পরিবারের কোনো সাহায্যের প্রয়োজন হলে তা ইউনিয়ন পরিষদ থেকে ব্যবস্থা করা হবে।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

ডিএসসিসির দুই পরিচ্ছন্নতাকর্মী চাকরিচ্যুত, একজন বরখাস্ত

অনলাইন ডেস্ক

ডিএসসিসির দুই পরিচ্ছন্নতাকর্মী চাকরিচ্যুত, একজন বরখাস্ত

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) ময়লার গাড়িচাপায় রাজধানীর নটর ডেম কলেজের শিক্ষার্থী নাঈম হাসানের মৃত্যুর ঘটনায় দুই জনকে চাকরিচ্যুত ও একজনকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার রাতে সংস্থাটির মুখপাত্র ও জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. আবু নাছের স্বাক্ষরিত এ সংক্রান্ত এক অফিস আদেশ গণমাধ্যমে পাঠান।

ডিএসসিসি থেকে অবৈধভাবে গাড়ি বরাদ্দ করে চালানোয় পরিচ্ছন্নতাকর্মী মো. হারুন মিয়া ও গাড়ি চালানোর কাজে সহযোগিতা করায় আরেক পরিচ্ছন্নতাকর্মী মো. আবদুর রাজ্জাককে কর্মচ্যুত করা হয়েছে।

পরিচ্ছন্নতাকর্মী হারুন মিয়া ও আবদুর রাজ্জাক দৈনিক মজুরিতে কাজ করছিলেন। তারা করপোরেশনের স্থায়ী কর্মী নন। 

এ ছাড়া সাময়িক বরখাস্ত হওয়া কর্মী হলেন গাড়িচালক (ভারী) মো. ইরান মিয়া। তিনি করপোরেশনের নিয়োগপ্রাপ্ত গাড়িচালক। নাঈম হাসানকে যে গাড়িটি চাপা দিয়েছে, সেটি ইরানের অনুকূলে বরাদ্দ ছিল। তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

হ্যাট্টিক চেয়ারম্যান হওয়া নিয়ে আশাবাদি আক্তারুজ্জামান মন্টু

অনলাইন ডেস্ক

হ্যাট্টিক চেয়ারম্যান হওয়া নিয়ে আশাবাদি আক্তারুজ্জামান মন্টু

সিরাজগঞ্জের চৌহালী উপজেলার ঘোড়জান ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনীত চেয়ারম্যান  প্রার্থী আক্তারুজ্জামান সরকার (মন্টু) উপজেলা নির্বাচন কার্যালয়ে মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন। মনোনয়ন জমা দিতে যাওয়ার সময়ে প্রার্থীর সমর্থকরা বিশাল জনসমাগমের উপস্থিতিতে উৎসব মুখর পরিবেশে উপজেলা নির্বাচন কার্যালয়ে যান তিনি। সাবেক দুইবারের ইউপি চেয়ারম্যান এবং প্রায় ৩২ বছর যাবৎ ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি আক্তারুজ্জামান মন্টু এবার জয়ের ব্যাপারে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

বৃহস্পতিবার মনোনয়ন জমাদানের সময়ে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের বিভিন্ন অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ এবং প্রায় কয়েক হাজার সাধারণ জনতা। 

আক্তারুজ্জামান মন্টু  বলেন, আমি প্রায় ৩২ বছর যাবৎ  ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করেছি। জনগণের সুখে দুঃখে সবসময় তাদের পাশে দাড়িয়েছি। সেজন্যই আজ এত মানুষ আমার সাথে এসেছে। আমি বিশ্বাস করি বঙ্গবন্ধু কন্য শেখ হাসিনার দেয়া এই নৌকা এবারও বিজয়ী হবে। 

এদিকে স্থানীয়রা জানান, আক্তারুজ্জামান মন্টু দীর্ঘদিন যাবত এলাকার বিভিন্ন সামাজিক কর্মকাণ্ডে জড়িত। যে কোন সমস্যায় তিনি জনগণের পাশে দাড়ান। 

এই বিষয়ে আক্তারুজ্জামান মন্টু বলেন, আমি বঙ্গবন্ধুর আদর্শের রাজনীতি করি। বঙ্গবন্ধু কন্য যে সিধান্ত দিবেন, আমি সে সিধান্ত মেনে নিব। 

ইতোমধ্যে তিনি ঘোড়জান ইউনিয়নের বিভিন্ন ওয়ার্ডসহ হাট বাজার,রাস্তাঘাট ও ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় গণসংযোগ শুরু করেছেন।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

অ্যাপে দেখা যাবে বাস ভাড়া

অনলাইন ডেস্ক

অ্যাপে দেখা যাবে বাস ভাড়া

এখন থেকে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের ‘হ্যালো সিএমপি’ অ্যাপে বন্দর নগরীর সকল রুটের ভাড়ার তালিকা সংযোজন করা হয়েছে। ফলে অ্যাপটির মাধ্যমে চলাচলের সময় নগরীর জনসাধারণ সহজেই তার নির্ধারিত গন্তব্যের বাস ভাড়া সম্পর্কে নিশ্চিত হতে পারবেন। 

বৃহস্পতিবার (২৫ নভেম্বর) দুপুরে নগরীর দামপাড়া সিএমপি মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার সালেহ মোহাম্মদ তানভীর। 

তিনি বলেন, চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের ‘হ্যালো সিএমপি’ অ্যাপটি আপডেট করা হয়েছে। সেখানে মানুষ প্রতিদিনের জীবন-যাপনের সঙ্গে সম্পর্কিত ১৪টি সেবা পাবে। এতে নতুনভাবে ‘গাড়ি ভাড়া’ নামে একটি অপশন যুক্ত করা হয়েছে। 

পুলিশ কমিশনার বলেন, বাসের ড্রাইভার কিংবা হেলপারের মাধ্যমে ভাড়া আদায় সংক্রান্ত কোনো ধরনের হয়রানির শিকার হলে ট্রাফিক পুলিশকে জানালে তারা ব্যবস্থা নেবে। এছাড়াও তাৎক্ষনিকভাবে জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ বা সিএমপির কন্ট্রোল নাম্বার ৩০৩৫২/৬৩৯০২২/ ৬৩০৩৭৫ এ অভিযোগ জানালে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আরও পড়ুন: 


ফখরুল বললেন, আন্দোলন-আন্দোলন-আন্দোলন

ধর্ষণ মামলায় জামিন: ক্ষমা চাইলেন বিচারক


 

সংবাদ সম্মেলনে অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ট্রাফিক) শ্যামল কুমার নাথ, অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (প্রশাসন ও অর্থ) সানা শামীনুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ক্রাইম অ্যান্ড অপারেশন) মো. শামসুল আলম, উপপুলিশ কমিশনার (সদর) মো. আমির জাফরসহ পুলিশের অন্যান্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

গুরুত্বপূর্ণ ৭০ স্পটে ৪১১ সিসি ক্যামেরা

অনলাইন ডেস্ক

গুরুত্বপূর্ণ ৭০ স্পটে ৪১১ সিসি ক্যামেরা

অপরাধ দমন ও নজরদারি বাড়াতে মেট্রোপলিটন এলাকার গুরুত্বপূর্ণ ৭০ স্পটে বসছে ৪১১ সিসি (ক্লোজ সার্কিট) ক্যামেরা। এছাড়াও গণপরিবহনে যাত্রীদের অটোমেটিক ভাড়া সম্পর্কে পরামর্শ দিবে ‘হ্যালো সিএমপি’ অ্যাপস।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে দামপাড়া পুলিশ লাইনস্থ মিডিয়া সেন্টারে এসব সিসি ক্যামরা ও গাড়ি ভাড়া সম্পর্কিত ডিজিটাল অ্যাপস এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ (সিএমপি) কমিশনার সালেহ্ মোহাম্মদ তানভীর।

চট্টগ্রাম নগরের গুরুত্বপূর্ণ এলাকাগুলোকে কেন্দ্রীয় নিয়ন্ত্রণ কক্ষ দ্বারা সার্বক্ষণিক ‘Eyes of CMP’ এর মাধ্যমে সিসি ক্যামেরার মাধ্যমে নজরদারির আওতায় আনা হবে। সে সময় সিএমপি কমিশনার সালেহ্ মোহাম্মদ তানভীরে এসব তথ্য জানান।

আরও পড়ুন

বিচারের দাবিতে নটর ডেম শিক্ষার্থীদের ৪৮ ঘণ্টার আলটিমেটাম

তিনি বলেন, ৪১১টি সিসিটিভি ক্যামেরা দিয়ে সার্বক্ষণিক নজরদারির মধ্যে থাকবে নগরের ৭০টি গুরুত্বপূর্ণ স্পট। এরমধ্যে ২৪ ঘণ্টা পর্যবেক্ষণে থাকবে  ২টি টেকনিক্যাল টিম। ২টি টিমের একটি টিম ফিল্ডের টেকনিক্যাল ত্রুটিগুলো সংশোধনে নিয়োজিত থাকবে এবং অন্যটি কন্ট্রোল রুম থেকে মনিটরিং করবে। এই কন্ট্রোল রুম ১৫ দিনের ব্যাকআপ স্টোরেজ সম্পন্ন।

ভবিষ্যতে পুরো নগরকে সিসিটিভি ক্যামেরার আওতায় নিয়ে আসা হবে বলে জানিয়ে তিনি বলেন, প্রাথমিকভাবে আমরা এভাবে কার্যক্রম এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছি। ভবিষ্যতে ফেইস রিকগনিশন ক্যামেরা সংযোজনের বিষয়টিও পরিকল্পনায় আছে।

তিনি আরও বলেন, বিভিন্ন জোন অনুযায়ী দায়িত্বে নিয়োজিত অফিসারদের সাথে পর্যালোচনা করে দীর্ঘ সময় নিয়ে অপরাধপ্রবণ এলাকাগুলো চিহ্নিত করে এই ক্যামেরাগুলো বসানো হয়েছে।

 news24bd.tv/এমি-জান্নাত    

পরবর্তী খবর