কানাডায় ‘সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি: চ্যালেঞ্জ কোথায়?’ আলোচনা অনুষ্ঠিত

লায়লা নুসরাত, কানাডা

কানাডায় ‘সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি: চ্যালেঞ্জ কোথায়?’ আলোচনা অনুষ্ঠিত

কানাডার ক্যালগেরিতে আলবার্টার প্রথম বাংলা অনলাইন পোর্টাল ‘প্রবাস বাংলা ভয়েস’র আয়োজনে প্রধান সম্পাদক আহসান রাজীব বুলবুলের সঞ্চালনায় ‘সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি: চ্যালেঞ্জ কোথায়?’ শীর্ষক এক ভার্চুয়াল আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

উক্ত ভার্চুয়াল আলোচনায় প্রধান অতিথি হিসেবে অংশগ্রহণ করেন প্রবাসী সাংবাদিক ও কানাডার নতুনদেশ পত্রিকার প্রধান সম্পাদক শওগাত আলী সাগর। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, এবিএম কলেজের প্রতিষ্ঠাতা প্রেসিডেন্ট ড: মোহাম্মদ বাতেন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট কলামিস্ট, উন্নয়ন গবেষক ও সমাজতাত্ত্বিক বিশ্লেষক মো. মাহমুদ হাসান।

এছাড়াও অন্যান্যের মধ্যে আলোচনায় অংশ নেন প্রকৌশলী আবদুল্লাহ রফিক, প্রকৌশলী মোহাম্মদ কাদির, সিলেট এসোসিয়েশন অব কেলগেরীর সভাপতি রুপক দত্ত এবং বিশিষ্ট কমিউনিটি ব্যক্তিত্ব ও রিয়েল এস্টেট ব্যবসায়ী কিরন বনিক শংকর।

আলোচনায় বক্তারা বলেন, বঙ্গবন্ধুর কাঙ্খিত সোনার বাংলাদেশ বিনির্মানের পথে সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ উগ্র সাম্প্রদায়িকতাবাদ ও ধর্মান্ধতা। আর এটি মোকাবিলায় সকল প্রগতিশীল শক্তিকেই স্ব স্ব অবস্থান থেকে দায়িত্ব পালনে সচেষ্ট হতে হবে। কুমিল্লায় সংঘটিত অপ্রত্যাশিত ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করে বক্তারা বলেন, মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও বাঙালি জাতির হাজার বছরের আবহমান ঐতিহ্য, সংস্কৃতি ও সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি ধরে রাখতে আমাদের সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে।

প্রবাসী সাংবাদিক ও কানাডার নতুনদেশ পত্রিকার প্রধান সম্পাদক শওগাত আলী সাগর বলেন, কুমিল্লার ঘটনাকে কেন্দ্র করে বিভিন্ন স্থানে ঘটে যাওয়া ঘটনাবলীকে কোনভাবেই বিচ্ছিন্নভাবে দেখার সুযোগ নেই। রাষ্ট্র ও সরকারকে আগে স্বীকার করে নিতে হবে, দেশে সাম্প্রদায়িকতা আছে, হিন্দু ফোবিয়া আছে। সমস্যাকে স্বীকার করেই সমাধানের পথ অনুসন্ধান করতে হবে। স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশ কে স্বাধীনভাবেই সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির পথ বের করতে হবে। অপরাধ করলে শাস্তি অনিবার্য -এ ধারণা জনগনের মনে তৈরি করতে পারলে পুলিশ প্রহরায় উৎসব, পূজা-পার্বণ আয়োজনের প্রয়োজন নেই।

কলামিস্ট উন্নয়ন গবেষক ও সমাজতাত্ত্বিক বিশ্লেষক মোঃ মাহমুদ হাসান বলেন, ধর্মান্ধ শক্তিকে ব্যবহার করে উগ্রবাদকে উস্কে দিয়ে অরাজকতার মাধ্যমে ফায়দা হাসিলের অপচেষ্টাকে রুখতে, রাষ্ট্রকে ধর্মনিরপেক্ষতার পরিবেশ নিশ্চিত করে সাম্প্রদায়িকতা সৃষ্টির উর্বর পথকে রুদ্ধ করতে হবে। সংবিধানে সংখ্যাগুরুর অবস্থান কে সংহত করে সংখ্যালঘুর অধিকার কে নিশ্চিত করা যাবে না। ধর্ম বর্ণ নির্বিশেষে আমরা সবাই বাঙালি, বাংলাদেশ সবার দেশ এ ভাবনাটিকে সংহত করতে হলে কুমিল্লা সহ বিভিন্ন স্থানে ঘটে যাওয়া ন্যাক্কারজনক সাম্প্রদায়িক ঘটনার জন্য দায়ীদের বিরুদ্ধে দ্রুত দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করে জনমনে আস্থা ফিরিয়ে আনতে হবে।

বিশেষ অতিথি এবিএম কলেজের প্রতিষ্ঠাতা প্রেসিডেন্ট ডঃ মোহাম্মদ বাতেন বলেন- খুবই দুঃখজনক, ধিক্কার জানাই। বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ, কোনো ধর্মীয় সম্প্রদায়ের ওপর এ ধরনের হামলার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। এক শ্রেণীর অপশক্তি প্রতিনিয়তই এধরনের ঘটনা ঘটিয়ে পার পেয়ে যাচ্ছে। তাদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করতে হবে যাতে করে ভবিষ্যতে এধরনের ঘটনা আর না ঘটে। কুরআন হাদিসের রেফারেন্স টেনে তিনি বলেন, সকল ধর্মের মানুষের মৌলিক অধিকার নিশ্চিত করতে না পারলে, ইসলামের মূলনীতি বিঘ্নিত হয়।

প্রকৌশলী আবদুল্লাহ রফিক বলেন- স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী পার হলেও ৭১ এর পরাজিত শক্তিরা এখনও সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করার চেষ্টায় লিপ্ত। সুখী, সমৃদ্ধ অর্থনীতির অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ বিনির্মাণে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধুর মতোই সুদৃঢ় লক্ষ্য ও প্রতিশ্রুতি নিয়ে কাজ করে যাচ্ছেন। তাতে কোনো অপশক্তি বাঁধা হয়ে দাঁড়াতে পারবে না। অপশক্তি রোধে প্রয়োজন শুধু সমন্বয়ের।

সিলেট এসোসিয়েশন অব কেলগেরীর সভাপতি রুপক দত্ত বলেন - আমরা বিস্মিত, হতবাক। এই কি সেই বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা? কোথায় আমরা? এই অপশক্তির উৎস কোথায়? তিনি আরো বলেন-চট্টগ্রাম, নোয়াখালী জেলার বেগমগঞ্জের চৌমুহনী ও হাতিয়ার বুড়িরচরসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের মন্দির, বাড়িঘর ও ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে হামলা, ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগ ও লুটপাটের ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। অপরাধী যেই হোক, বাংলার মাটিতে তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেখতে চাই।

আরও পড়ুন


ছড়াচ্ছিল দুর্গন্ধ, উৎস খুঁজতে গিয়ে মিলল চিকিৎসকের মরদেহ

৭ বছর পর হলে আসছে অনন্ত জলিলের ‘অ্যাকশন সিনেমা’

কিশোরী প্রেমিকাকে কাশবনে ডেকে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করে দুই বন্ধু

মোস্তাফিজকে রুখে দেয়ার ইচ্ছে স্কটল্যান্ডের!


প্রকৌশলী মোহাম্মদ কাদির বলেন, এ লজ্জা আমাদের সবার। এখনই যদি কঠোরভাবে এই অপশক্তির দমন না করি, তাহলে ভবিষ্যতে এরা আরো বেশি করে মাথা চাড়া দিয়ে উঠবে। শুধু প্রশাসন নয়, সর্বস্তরের সবাই কে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়ে তিনি আরো বলেন- আসুন এখনই ওদের নির্মূলে সোচ্চার হই। জনসচেতনতা গড়ে তুলি।

বিশিষ্ট কমিউনিটি ব্যক্তিত্ব ও রিয়েল এস্টেট ব্যবসায়ী কিরন বনিক শংকর বলেন- বাংলাদেশের সনাতন ধর্মাবলম্বীরা যখন তাদের সর্বোচ্চ ধর্মীয় উৎসব দুর্গাপূজা উদযাপন করছে, তখন চিহ্নিত সাম্প্রদায়িক ও জঙ্গিগোষ্ঠী সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গুজব ও মিথ্যা অপপ্রচার চালিয়ে দেশের বিভিন্ন জায়গায় পূজামণ্ডপ, মন্দির ও হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়িঘর ও ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে যে হামলা চালিয়েছে তাঁর তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি।

বাংলাদেশ সম্প্রীতির দেশ, অসাম্প্রদায়িকতার দেশ- প্রবাসে থেকে আপনজনদের উপর এই হামলা কোনোভাবেই মেনে নিতে পারছি না। অত্যন্ত দুঃখ ভারাক্রান্ত মনে আবেগ আপ্লুত হ্রদয়ে সাবেক এই ছাত্রনেতা বলেন, আওয়ামী লীগ সরকারের আমলে বারবার এমন ঘটনায় আমরা হতাশ ও দিকভ্রান্ত। তিনি বলেন, আর দাবি নয়, দেখতে চাই শেখ হাসিনার সরকার এমন ঘটনার পুনরাবৃত্তি রোধে সর্বোচ্চ কঠোরতা প্রদর্শন করেছে।

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

বাংলাদেশি এজেন্সি বাড়াতে মালয়েশিয়ার মন্ত্রীর বিরোধিতা

অনলাইন ডেস্ক

বাংলাদেশি এজেন্সি বাড়াতে মালয়েশিয়ার মন্ত্রীর বিরোধিতা

মালয়েশিয়ার মানবসম্পদ বিষয়ক মন্ত্রী এম সারাভানান বলেছেন, যদি বাংলাদেশের ২০০০ এজেন্সিকে শ্রমিক পাঠানোর অনুমোদন দেয়া হয়, তাহলে মালয়েশিয়া হতে পারে বাংলাদেশিদের জন্য এক আস্তাকুড়। 

তিনি বলেছেন, বাংলাদেশি সরকার ১০টি এজেন্সির অনুমোদন বৃদ্ধি করে ২০০০ করার জন্য অনুরোধ করেছে মালয়েশিয়া সরকারকে। এ নিয়ে বাংলাদেশের প্রস্তাবিত সমঝোতা স্বারকে এ বিষয়ে এক বছরের মতো আলোচনা করছে উভয় দেশের সরকার।

আরও পড়ুন:


হেফাজত মহাসচিব মাওলানা নুরুল ইসলাম আইসিইউতে

অন্তঃসত্ত্বা নারীকে হত্যা করে পেট চিরে বাচ্চা চুরি!


তবে বাংলাদেশের এমন অনুরোধের বিরোধিতা করেছেন মালয়েশিয়ার এই মন্ত্রী এম সারাভানান। এ খবর দিয়েছে অনলাইন ফ্রি মালয়েশিয়া টুডে। 

মন্ত্রী সারাভানান বলেছেন, এর আগে বাংলাদেশ থেকে শ্রমিক আনতো ১০টি কোম্পানি। যদি আমি এই সংখ্যা দশের অধিক বৃদ্ধি করতে চাই, তাহলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে।

রাজধানী কুয়ালালামপুরে একটি হোটেলে আয়োজিত ন্যাশনাল একশন প্লান অন ফোর্সড লেবার অনুষ্ঠানে লাঞ্চের পর সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন তিনি। 

তিনি আরও বলেন, সমঝোতা স্বারকের বিষয়ে একটি চূড়ান্ত খসড়া পেয়েছি। তা মন্ত্রীপরিষদের সামনে উপস্থাপন করব। তারপর দু’সপ্তাহের মধ্যেই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

news24bd.tv/ কামরুল 

পরবর্তী খবর

সাত দেশের সঙ্গে ফ্লাইট স্থগিত করলো আমিরাত

অনলাইন ডেস্ক

সাত দেশের সঙ্গে ফ্লাইট স্থগিত করলো আমিরাত

সংযুক্ত আরব আমিরাত করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্টের সংক্রমণ রোধে সাত দেশের সঙ্গে ফ্লাইট স্থগিত ঘোষণা করেছে। শনিবার (২৭ নভেম্বর) খালিজ টাইমসের খবরে বলা হয়েছে, আগামী ২৯ নভেম্বর থেকে এ স্থগিতাদেশ কার্যকর হবে। 

যে সাত দেশের সঙ্গে ফ্লাইট স্থগিত করা হয়েছে সেগুলো হলো— দক্ষিণ আফ্রিকা, নামিবিয়া, বতসোয়ানা, জিম্বাবুয়ে, মোজাম্বিক, লিসোথো ও এসওয়াতিনি।

জেনারেল সিভিল এভিয়েশন অথরিটি, সুপ্রিম কাউন্সিল ফর ন্যাশনাল সিকিউরিটি এবং ন্যাশনাল ইমার্জেন্সি ক্রাইসিস অ্যান্ড ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট অথরিটি জানিয়েছে, পরবর্তী ঘোষণা না দেওয়া পর্যন্ত ফ্লাইট স্থগিতাদেশ বহাল থাকবে। 

উল্লেখ্য, গত সপ্তাহে দক্ষিণ আফ্রিকায় শনাক্ত হয় B.1.1.529 নামে করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট। করোনার নতুন ধরন শনাক্ত হওয়ার পর ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞার পাশাপাশি কোয়ারেন্টিনের বিধিনিষেধ আরোপ করছে বিভিন্ন দেশ। 

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

গ্রিসে প্রবাসীকল্যাণ মন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

গ্রিসে প্রবাসীকল্যাণ মন্ত্রী

গ্রিসের রাজধানী এথেন্স বিমানবন্দর "এলেফথেরোস ভেনিজেলোস"-এ এসে পৌঁছেন প্রবাসীকল্যাণ মন্ত্রী ইমরান আহমেদ (এমপি)। 

গ্রিসে বাংলাদেশ দূতাবাসের রাষ্ট্রদূত আসুদ আহমেদ ও বিশ্বজিৎ পালসহ দূতাবাসের সব কর্মকর্তা বিমানবন্দরে উপস্থিত হয়ে প্রাচীন সভ্যতার দেশ গ্রিসে স্বাগতম জানান তাকে। 

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- বাংলাদেশ কমিউনিটির সভাপতি হাজী মো. আব্দুল কুদ্দুস, গ্রিস আওয়ামী লীগের সভাপতি মান্নান মাতুব্বর, সাধারণ সম্পাদক বাবুল হাওলাদার, সাংগঠনিক লোকমান উদদীন। মন্ত্রীর সফরসঙ্গী হিসেবে রয়েছেন প্রবাসীকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব আহমেদ মুনির সালেহীন, বাংলাদেশ ওয়েজ-আর্নার বোর্ডের মহাপরিচালক মোহাম্মদ হামিদুর রহমান, অর্থ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব বিশ্বজিৎ ভট্টাচারিয়া খোকন (এনডিসি) প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মহাপরিচালক মোহাম্মদ সারোয়ার আলম, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পরিচালক মোহাম্মদ মনোয়ার মোকাররম এবং পিডব্লিউডির প্রকৌশলী কাজী ফিরোজ হাসান। মুজিব বর্ষের কর্মসূচি অনুযায়ী গ্রিসে বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশি পরিবারের সন্তানদের বাংলা শিক্ষা কার্যক্রমের আওয়াতায় বঙ্গবন্ধুর নামে একটি বাংলা স্কুল প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে বিদ্যালয়ের জায়গা নির্ধারণ ও সংশ্লিষ্ট গ্রিক মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে বৈঠক করা সফরের মূল উদ্দেশ্য বলে জানা গেছে।
 
পাঁচ দিনের সফরে মন্ত্রীকে বাংলাদেশ কমিউনিটি ইন গ্রিস থেকে সংবর্ধনা দেওয়ার পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। রাজধানী এথেন্স থেকে তিনশ বিশ কিলোমিটার দূরে বাঙালি অধ্যুষিত এলাকা "মানোলাদা" গ্রাম পরিদর্শনে মন্ত্রী প্রবাসীদের সব দুঃখ-দুর্দশা নিরসনের লক্ষ্যে প্রবাসীদের বাসস্থানের সমস্যার সমাধান করত স্থানীয় মেয়রের সঙ্গে বৈঠকের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। মন্ত্রীর গ্রিস সফরে গ্রিসে বসবাসরত সব প্রবাসী বাংলাদেশির সব সমস্যার সমাধানের সুনির্দিষ্ট পথের সন্ধান পাওয়া যাবে বলে আশা করছেন বিশিষ্টজনরা।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

খালেদা জিয়ার জন্য মালয়েশিয়ায় বিএনপি'র দোয়া মাহফিল

অনলাইন ডেস্ক

খালেদা জিয়ার জন্য মালয়েশিয়ায় বিএনপি'র দোয়া মাহফিল

বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সুস্থতা কামনায় দোয়া মাহফিল আয়োজন করেছে দলটির মালয়েশিয়া শাখা ও এর অঙ্গসংগঠনসমূহ। বুধবার রাজধানী কুয়ালালামপুর বুকিত বিন্তাং এর একটি রেস্টুরেন্ট এ উক্ত দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

মালয়েশিয়া বিএনপির সিনিয়র নেতা শহীদুল্লাহ শহীদ এর সভাপতিত্বে এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মালয়েশিয়া বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি ও স্বেচ্ছাসেবক দল কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সহ-সভাপতি মাহবুব আলম শাহ। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যুবদল মালয়েশিয়া সভাপতি মোঃ জাহাঙ্গীর আলম খান, বিএনপি যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ওলিউল্লাহ জাহিদ, যুবদল মালয়েশিয়া সাবেক সভাপতি মো নাসির উদ্দিন নাসির, যুবদল মালয়েশিয়া সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোঃ মিনহাজ মন্ডল।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন মালয়েশিয়া বিএনপির নেতা একেএম আজহারুল ইসলাম পান্না, বিএনপি নেতা মোঃ ইকবাল হোসেন, মালয়েশিয়া মহানগর যুবদলের সভাপতি মোঃ শামীম রেজা, মহানগর যুবদলের সাধারণ সম্পাদক মোঃ রাসেল রানা, মহানগর যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক, মোহাম্মদ শাহিন আলম। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন মালয়শিয়া স্বেচ্ছাসেবক দলের সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোঃ আবু কাউছার ভূঁইয়া।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশিসহ ১২৯ জন আটক

অনলাইন ডেস্ক

মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশিসহ ১২৯ জন আটক

মালয়েশিয়ায় আটকরা।

মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশিসহ ১২৯ জন অবৈধ অভিবাসীকে গ্রেপ্তার করেছে দেশটির অভিবাসন বিভাগ।

সোমবার রাতে বালাকংয়ে মেশিনের যন্ত্রাংশ তৈরির একটি কারখানায় মালয়েশিয়ার অভিবাসন বিভাগের অভিযানে এদের গ্রেপ্তার করা হয়।

ইমিগ্রেশনের পরিচালক দাতুক খায়রুল দাজাইমি দাউদ বলেন, সোমবার রাত ৮টার দিকে শুরু হওয়া অভিযানে ১৩৪ জন অভিবাসীর কাগজপত্র পরীক্ষা করার পর কারখানায় কর্মরত ২০ থেকে ৪৯ বছর বয়সী ১১০ জন পুরুষ ও ১৯ জন নারীকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেপ্তারদের মধ্যে ইন্দোনেশিয়া, বাংলাদেশ, ভারত, মিয়ানমার এবং নেপালের শ্রমিক রয়েছেন। খায়রুল দাজাইমি বলেছেন, ধারা ৬ (১)(সি) অভিবাসন আইন ১৯৫৯/৬৩ এর অধীনে অবৈধ শ্রমিক রাখার দায়ে নিয়োগকর্তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে এবং  ৫০০০ রিঙ্গিত করে জরিমানা করা হবে বলে সাংবাদিকদের জানান।

আরও পড়ুন:


ম্যারাডোনা ছোট স্তন পছন্দ করতেন না


news24bd.tv/তৌহিদ

পরবর্তী খবর