শেখ রাসেলকে আঁকলো ছোট্ট সোনামনিরা

অনলাইন ডেস্ক

দেড় বছর বয়‌সে মা‌য়ের কো‌লে চড়ে কারাবন্দী বাবার সঙ্গে দেখা কর‌তে যেত ছোট্ট রা‌সেল। শিক্ষ‌কের মু‌খে সেই গল্প শু‌নেছিল এমসিপিএস (মিরপুর ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজ)-এর তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রী আরীষা। পরে সেই ঘটনাকেই রং তু‌লির আঁচ‌ড়ে সে রূপ দিয়েছে ছোট্ট ক্যানভাসে।

রাজধানীর আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজের চতুর্থ শ্রেণির শিক্ষার্থী লাবিবা রহমান প্রগতির ক্যানভাসে আছে আরেক গল্প। শেখ রাসেল ভালোবাসতো ফড়িংয়ের পেছনে ছুটতে। তাই বন-জঙ্গল ছিল তার ভীষণ পছন্দের। সেজন্য জন্মদিন উপলক্ষে বাবার কাঁধে চড়ে ঘুরতে বেরিয়েছে সে। আর পরিবারের সবাইকে নিয়ে দিনটি উদযাপন করেছে সুন্দর এক ফুল বাগানে।

শহীদ শেখ রাসেলকে নিয়ে এমন অসংখ্য ছোট ছোট ঘটনা রং তু‌লির আঁচ‌ড়ে রঙিন হয়ে ওঠে শিশুদের ক্যানভাসে। সেই ক্যানভাসে অংশ নেয় লাল-নীল-হলুদ-সবুজ অসংখ্য রং।

আজ সোমবার জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ঠপুত্র শহীদ শেখ রাসেলের ৫৮তম জন্মদিন উপলক্ষে শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র লিমিটেড আয়োজিত শিশুদের চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় এভাবেই শহীদ শেখ রাসেলের নানা স্মৃতি রং তুলির আঁচড়ে ফুটিয়ে তোলেন ছোট্ট সোনামনিরা।

আরও পড়ুন:


ফতুল্লায় সুজন ফকির হত্যাকাণ্ডে দুই ঘাতক গ্রেপ্তার

মন্দিরে হামলার ঘটনায় গোয়েন্দা সংস্থা নিয়ে প্রশ্ন রিজভীর

প্রেম করে বিয়ে করায় ৪ নাতি ও ২ মেয়েকে পুড়িয়ে হত্যা

বড় ভাই শেখ জামালের মতো সেনা অফিসার হতে চাইতো শেখ রাসেল: প্রধানমন্ত্রী


আঁকিয়েদের সবার বয়স ১১ বছরের কম হলেও তাদের আঁকা চিত্রকর্মে যেন ফুটে ওঠে বাংলাদেশের ইতিহাস।

এ আয়োজনকে কেন্দ্র করে সকাল থেকেই রাজধানীর বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় অবস্থিত শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র ক্লাবের মাঠটি মুখর ছিল শিশুদের পদচারণায়। সবার হাতে ছিল রং-তুলি আর স্কেচবোর্ড। ‘শহীদ শেখ রাসেল চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা-২০২১’ এ অংশ নিতে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে হাজির হয় প্রায় দুইশ’ খুঁদে প্রতিযোগী।

প্রতিযোগিতায় বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে তৃতীয় থেকে পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থীরা অংশ নেয়। শেখ রাসেলের জীবনের নানা মুহূর্ত ফুটে ওঠে শিশুদের রং তুলিতে। বিচারকদের মন জয় করে প্রতিযোগিতায় প্রথম স্থান অর্জন করে আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের ৪র্থ শ্রেণির শিক্ষার্থী মিনহাজ জামান। দ্বিতীয় হন ভিকারুননিসা নূন স্কুলের পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থী মিথিলা ভৌমিক ও তৃতীয় হয়েছেন নারায়ন আইডিয়াল স্কুলের পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থী শ্রেয়সী সাহা।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র লিমিটেডের চেয়ারম্যান ও বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সায়েম সোবহান আনভীর। তিনি খুঁদে চিত্রকরদের সঙ্গে কুশল বিনিময় করে শহীদ শেখ রাসেলের জন্মদিন উপলক্ষে আগত অতিথি ও শিশুদের নিয়ে কেক কাটেন। এরপর বিজয়ীদের হাতে পুরস্কারের চেক, ক্রেস্ট ও সার্টিফিকেট তুলে দেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ প্রতিদিন সম্পাদক ও নিউজ টোয়েন্টিফোরের সিইও নঈম নিজাম, শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রের ডিরেক্টর ইনচার্জ ইসমত জামিল আকন্দ লাবলু, পরিচালক (ক্রীড়া) সালেহ জামান সেলিম প্রমুখ। 

প্রথম পুরস্কার হিসেবে বিজয়ী পেয়েছে এক লাখ টাকা, দ্বিতীয় পুরস্কার ৫০ হাজার টাকা ও তৃতীয় পুরস্কার ছিল ২৫ হাজার টাকা। এছাড়াও বিজয়ীদের ক্রেস্ট, সার্টিফিকেট ও স্কুল ব্যাগসহ বিভিন্ন শিক্ষা উপকরণ দেওয়া হয়। প্রতিযোগীদের মধ্যে ২৭ জনকে শুভেচ্ছা পুরস্কার হিসেবে দেওয়া হয় স্কুল ব্যাগসহ বিভিন্ন শিক্ষা উপকরণ। অংশগ্রহণকারী সকলকেই সার্টিফিকেট ও নগদ পাঁচ হাজার টাকা দেওয়া হয়েছে।

প্রতিযোগিতার বিষয় ছিল ‘শেখ রাসেলকে নিয়ে যা আঁকতে ভালো লাগে’। দেড় ঘণ্টার প্রতিযোগিতায় শিশুরা মনের মাধুরি মিশিয়ে রঙ-তুলিতে নিজের মতো করে আঁকেন শেখ রাসেলের জীবনের নানা মুহূর্ত। অনুষ্ঠানে প্রধান বিচারক ছিলেন বিশিষ্ট কথাসাহিত্যিক ও ইস্ট ওয়েস্ট মিডিয়া গ্রুপের পরিচালক ইমদাদুল হক মিলন, সহকারী বিচারক ছিলেন শহীদ আনোয়ার উচ্চ বিদ্যালয়ের চারুকলা শিক্ষক শেখ ফারহানা টুম্পা এবং তরুণ শিল্পী ও কালের কণ্ঠের কার্টুনিস্ট প্রসূন হালদার।

শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র ক্লাবের ডিরেক্টর ইনচার্জ ইসমত জামিল আকন্দ লাভলু বলেন, শহীদ শেখ রাসেল নিহত হওয়ার আগ পর্যন্ত বিভিন্ন ক্ষেত্রে তার মেধার স্বাক্ষর রেখে গেছেন। শেখ রাসেল আজ বাংলাদেশের শিশু-কিশোর, তরুণ, শুভ বুদ্ধিসম্পন্ন মানুষদের কাছে এক ভালোবাসার নাম। শেখ রাসেলের এই ছোট্ট জীবন আমাদের জন্য অনেক শিক্ষণীয়।

চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার আয়োজনের বিষয়ে অভিভাবকরা বলেন, করোনার কারণে শিশুরা দীর্ঘদিন ঘরবন্দী ছিল। তারা মানসিকভাবে খুবই ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে এই সময়ে। সকল ধরনের আয়োজন বন্ধ থাকায় কোথাও অংশগ্রহণের সুযোগ ছিল না তাদের। শেখ রাসেলের জন্মদিন উপলক্ষে আয়োজিত এই প্রতিযোগিতায় শিশুরা খুব আনন্দের সঙ্গে অংশগ্রহণ করেছে। এমন আয়োজনের জন্য সংশ্লিষ্টদের ধন্যবাদ জানান তারা।

news24bd.tv/তৌহিদ

পরবর্তী খবর

করোনায় দেশে ২৪ ঘণ্টায় ছয়জনের মৃত্যু

অনলাইন ডেস্ক

করোনায় দেশে ২৪ ঘণ্টায় ছয়জনের মৃত্যু

করোনাভাইরাসে গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে আরও ছয়জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৮ হাজার ১ জনে।

একই সময়ে নতুন করে করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন ১৯৭ জন। এ পর্যন্ত মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা হয়েছে ১৫ লাখ ৭৭ হাজার ৪৪৩ জন।

আজ বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, একদিনে করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন ২২৬ জন। এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ১৫ লাখ ৪২ হাজার ২৭৪ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় ১৯ হাজার ৪৩ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। পরীক্ষা করা হয় ১৯ হাজার ১৩২টি নমুনা। পরীক্ষার বিপরীতে শনাক্তের হার ১ দশমিক ০৩ শতাংশ।

আরও পড়ুন:


চট্টগ্রামেও হাফ ভাড়া নেওয়ার ঘোষণা

লকডাউন দেয়ার বিষয়ে যা জানালেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী


সবশেষ ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়াদের ২ জন পুরুষ ও ৪ জন নারী। এ সময়ে ঢাকায় ৫ ও ময়মনসিংহে ১ জন মারা গেছেন। বাকি বিভাগগুলোতে কারো মৃত্যু হয়নি।  

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

রংপুরে এখন আর মঙ্গা নেই: বাণিজ্যমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

রংপুরে এখন আর মঙ্গা নেই: বাণিজ্যমন্ত্রী

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেছেন, একসময় রংপুর অঞ্চলের মানুষকে ছোট করে দেখা হতো, এখন আর সেই দিন নেই। অবস্থার আমূল পরিবর্তন হয়েছে। মানুষ এখন রংপুর অঞ্চলের প্রশংসা করে। 

তিনি বলেন, পুরো রংপুর অঞ্চলে এখন কোথাও আর মঙ্গা নেই। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিরোধী দলে থাকাবস্থায় রংপুর সফরকালে বলেছিলেন, আমরা ক্ষমতায় গেলে রংপুর অঞ্চলের মঙ্গা শেষ করবো। প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ উদ্যোগে আজ তা-ই হয়েছে।

রোববার (৫ ডিসেম্বর) ঢাকায় ইকোনমিক রিপোর্টার্স ফোরাম মিলনায়তনে রংপুর বিভাগীয় সাংবাদিক সমিতি (আরডিজেএ) আয়োজিত “আরডিজেএ-এর প্রয়াত সদস্যের সন্তানদের বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, মঙ্গা কাটিয়ে দেশের উন্নয়নের সঙ্গে তাল মিলিয়ে রংপুরও এগিয়ে যাচ্ছে। রংপুরের উন্নয়ন এখন দৃশ্যমান।

তিনি বলেন, রংপুরে পাইপে গ্যাস সররাহের কাজ দ্রুত এগিয়ে চলছে, অল্প সময়ের মধ্যে তা শেষ হবে। এ অঞ্চলে বেশ কয়েকটি স্পেশাল ইকোনমিক জোন গড়ে তোলার কাজ চলছে। প্রায় সাড়ে আট হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে তিস্তা নদীর দু’ধারে উন্নয়নমূলক কাজ বাস্তবায়ন হচ্ছে।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, রংপুরে শিল্প কলকারখানা গড়ে তোলা হচ্ছে। উত্তর-পূর্ব ভারত থেকে নদীপথে মালামাল আনা-নেওয়ার জন্য বন্দর গড়ে তোলা হয়েছে। জলযান চলাচলের সুবিধার্থে নদীর নাব্য বাড়ানো হচ্ছে।

আরও পড়ুন:


চট্টগ্রামেও হাফ ভাড়া নেওয়ার ঘোষণা

লকডাউন দেয়ার বিষয়ে যা জানালেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী


তিনি বলেন, কুড়িগ্রামে একটি কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় গড়ে তোলার কাজ চলছে, সংসদে এ সংক্রান্ত বিল পাস হয়েছে। সৈয়দপুরকে আমরা আঞ্চলিক বিমানবন্দর হিসেবে গড়ার কাজ করছি। ভুটান ও নেপাল এ বিমানবন্দর ব্যবহার করবে। প্রতিদিন সৈয়দপুরে ১৫-১৬টি ফ্লাইট পরিচালিত হচ্ছে। এতে বোঝা যাচ্ছে, এ অঞ্চলের মানুষের অর্থনৈতিক অবস্থার উন্নতি হয়েছে। 

আরডিজেএ সভাপতি মোকছুদার রহমান মাকসুদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন, সংগঠনের সাবেক সভাপতি শফিকুল করিম সাবু, নাজমুল হক সরকার, ইকোনমিক রিপোর্টার্স ফোরামের সাধারণ সম্পাদক এসএম রাশিদুল ইসলাম। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন আরডিজেএ’র সাধারণ সম্পাদক মো. মিজানুর রহমান।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

উদ্যোক্তা তৈরির জন্য সব ধরনের পদক্ষেপ নিচ্ছি: প্রধানমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

উদ্যোক্তা তৈরির জন্য সব ধরনের পদক্ষেপ নিচ্ছি: প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শিক্ষাজীবন শেষ করে চাকরির পেছনে না ছুটে উদ্যোক্তা হতে তরুণ প্রজন্মের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। উদ্যোক্তা তৈরি করার জন্য আওয়ামী লীগ সরকার সব ধরনের পদক্ষেপ নিচ্ছে।

তিনি বলেন, ‘পাস করেই চাকরির পেছনে না ছুটে, নিজেরা উদ্যোক্তা হতে হবে এবং অন্যকে চাকরি দেওয়ার সুযোগ তৈরি করতে হবে।’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ ‘৯ম জাতীয় এসএমই পণ্য মেলা-২০২১’-এর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির ভাষণে এ কথা বলেন। তিনি রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আয়োজিত মূল অনুষ্ঠানে ভিডিও কনফারেন্সের সাহায্যে গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি সংযুক্ত হন।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘তরুণ সমাজকে শিক্ষার সুযোগ করে দিয়েছি। কারিগরি শিক্ষা এবং ভোকেশনাল ট্রেনিংয়েরও সুযোগ করে দিয়েছি। পাশাপাশি কম্পিউটার ট্রেনিংয়ের মাধ্যমে অনলাইনে সব রকম ব্যবসা বাণিজ্য যাতে করতে পারে সে ব্যবস্থাও করে দিয়েছি।’

আরও পড়ুন


চট্টগ্রামেও হাফ ভাড়া নেওয়ার ঘোষণা


প্রধানমন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার যুব সমাজের কল্যাণে স্টার্টআপ প্রোগ্রাম নিচ্ছে এবং এ জন্য বাজেটে আলাদা টাকাও বরাদ্দ আছে। কাজেই উদ্যোক্তা হতে চাইলে, যে কেউ হতে পারে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশে এখন ব্রডব্যান্ড সুবিধা প্রায় ইউনিয়ন পর্যায় পর্যন্ত পৌঁছে যাচ্ছে। বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ উৎক্ষেপণ করা হয়েছে। মোবাইল ফোন সবার হাতে হাতে পৌঁছে গেছে।

ডিজিটাল ডিভাইসের মাধ্যমে যোগাযোগ খুব সহজ হয়ে গেছে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রি বলেন, ‘ক্রয়-বিক্রয়, পণ্যমান—সবকিছু জানার একটা সুযোগ হচ্ছে। বাজার সম্পর্কে জানার সুযোগ হচ্ছে। বাজারের চাহিদা ও পণ্যের মূল্য সম্পর্কে জানার সুযোগ হচ্ছে। এ সুবিধাগুলো কিন্তু এখন চলে এসেছে। যার ফলে আমি মনে করি আমাদের মানুষের আর কষ্ট করার কোনো অর্থ হয় না। একটু স্ব-উদ্যোগে কাজ করলেই কিন্তু নিজেরা উদ্যোক্তা হতে পারেন এবং নিজেরা কাজ করতে পারেন।’

মারাত্মক করোনাভাইরাস আক্রমণের কারণে ১৯ মাস বিরতির পর এসএমই ফাউন্ডেশন এবারের মেলার আয়োজন করেছে। ২০২০ সালের মার্চ মাসে শেষ এসএমই মেলার আয়োজন করেছিল, যখন দেশে করোনভাইরাস সংক্রমণের প্রথম কয়েকটি কেস শনাক্ত হওয়ার পরে দ্রুত গুটিয়ে যায়।

১২ ডিসেম্বর পর্যন্ত প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত  চলমান এ মেলায় প্রথম বারের মতো ১০টি ব্যাংক, আর্থিক প্রতিষ্ঠান এবং ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) অংশ নিচ্ছে। পাশাপাশি সারা দেশ থেকে বাছাই করা ৩০০ এসএমই প্রতিষ্ঠান অংশ নিচ্ছে, যাদের প্রায় ৬০ শতাংশ নারী উদ্যোক্তা।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে বিশেষ অতিথি এবং অনুষ্ঠানে সভাপতি শিল্পমন্ত্রী নুরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ুন জাতীয় এসএমই পুরস্কার ২০২১ বিজয়ী চার উদ্যোক্তার হাতে ক্রেস্ট, সনদ ও চেক তুলে দেন।

বিশেষ অতিথি এবং আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে শিল্প প্রতিমন্ত্রী কামাল আহমেদ মজুমদার, শিল্প সচিব জাকিয়া সুলতানা, এফবিসিসিআই সভাপতি মো. জসিম উদ্দিন এবং এসএমই ফাউন্ডেশনের চেয়ারপারসন ড. মো. মাসুদুর রহমান বক্তৃতা দেন।

মুজিববর্ষ এবং স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদ্‌যাপনকালে দেশে শতভাগ বিদ্যুতায়নের অঙ্গীকার পুণর্ব্যক্ত করে সরকারপ্রধান বলেন, ‘আজকে শতভাগ বিদ্যুৎ যখন দেওয়া হচ্ছে, পাশাপাশি যোগাযোগ ব্যবস্থার ব্যপক উন্নয়ন আমরা করে দিয়েছি। আর, একটা জায়গায় বিদ্যুৎ ও যোগাযোগ ব্যবস্থা যদি থাকে, তাহলে সেখানে পণ্য উৎপাদন ও বাজারজাতকরণে কোনো সমস্যা হয় না।’

আমাদের দেশে কাঁচামালের সহজলভ্যতা রয়েছে, সে বিবেচনাতেও দেশে শিল্প গড়ে উঠতে পারে বলে অভিমত ব্যক্ত করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘এতে করে আমার নিজের দেশে যেমন বাজার সম্প্রসারণ হচ্ছে এবং মানুষের ক্রয় ক্ষমতা বাড়ছে, সেইসঙ্গে বিদেশেও আমরা রপ্তানি করতে পারব, আমাদের রপ্তানি পণ্য বৃদ্ধি পাবে।’ সেজন্য আমাদের পণ্যগুলো যাতে আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন হয় সেদিকে দৃষ্টি দেওয়ার আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী। সূত্র: বাসস।

news24bd.tv/ কামরুল 

পরবর্তী খবর

বঙ্গবন্ধু তৃণমূল থেকে তার সংগ্রাম শুরু করেছিলেন: পুতুল

অনলাইন ডেস্ক

বঙ্গবন্ধু তৃণমূল থেকে তার সংগ্রাম শুরু করেছিলেন: পুতুল

ফাইল ছবি

শেখ হাসিনার কন্যা আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন অটিজম বিশেষজ্ঞ সায়মা ওয়াজেদ পুতুল বলেছেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কত তৃণমূল থেকে তার সংগ্রাম শুরু করেছিলেন আজ অনেকই তা ভুলে গেছেন।

আজ রোববার (৫ ডিসেম্বর) ফরেন সার্ভিস একাডেমিতে ‘বিশ্ব শান্তি সম্মেলন’ উপলক্ষে অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি তিনি এসব কথা বলেন।

সায়মা ওয়াজেদ বলছেন, আমার নানা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান তার সারাজীবন মানুষের শান্তির জন্য সংগ্রাম করেছেন। বঙ্গবন্ধু কত তৃণমূল থেকে তার সংগ্রাম শুরু করেছিলেন আজ অনেকই তা ভুলে যান। তার রাজ‌নৈ‌তিক ক্যারিয়ার যে তৃণমূল থে‌কে শুরু করা সেটাও অনে‌কে ভু‌লে যান।

আরও পড়ুন


চট্টগ্রামেও হাফ ভাড়া নেওয়ার ঘোষণা


তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু সংলাপে বিশ্বাস করতেন এবং সাধারণ মানুষের অধিকারের জন্য দাঁড়িয়ে যেতেন, লড়াই করতেন। তিনি বিশ্বাস করতেন শান্তি তখনই অর্জন হবে যখন সমাজে ভয়হীনতা, সাম্য ও ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠা হবে।

news24bd.tv/ কামরুল 

পরবর্তী খবর

শাহবাগে শিক্ষার্থীদের প্রতীকী লাশের মিছিল

অনলাইন ডেস্ক

শাহবাগে শিক্ষার্থীদের প্রতীকী লাশের মিছিল

শাহবাগে প্রতীকী লাশের মিছিল

সড়কে নিরাপত্তা নিশ্চিত করা ও সারা দেশে গণপরিবহনে অর্ধেক ভাড়ার (হাফ পাস) শর্তহীন প্রজ্ঞাপন জারি করাসহ ৯ দফা দাবিতে রাজধানীর শাহবাগে প্রতীকী লাশের মিছিল করেছে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা।

আজ রোববার দুপুর ১টার দিকে তারা এ মিছিল করেন। মিছিলে রাজধানীর বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা অংশ নেন।

শিক্ষার্থীরা শাহবাগ থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি এলাকা পর্যন্ত মিছিল করেন। পরে তারা রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করে পরবর্তী কর্মসূচি ঘোষণা করেন। 

আরও পড়ুন:


চট্টগ্রামেও হাফ ভাড়া নেওয়ার ঘোষণা

লকডাউন দেয়ার বিষয়ে যা জানালেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী


নিরাপদ সড়ক আন্দোলনের অন্যতম সমন্বয়ক ইনজামুল হক পরবর্তী কর্মসূচির ঘোষণা দিয়ে বলেন, সড়ক ব্যবস্থায় আলোর পথ দেখানোর জন্য আগামীকাল আমরা শহীদ মিনারে মোমবাতি প্রজ্জ্বলন কর্মসূচি পালন করব। পাশাপাশি সেখানে প্রতিবাদী গানের আসর হবে। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আমাদের আন্দোলন চলবে।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর