সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিচ্ছে পুলিশ

অনলাইন ডেস্ক

সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিচ্ছে পুলিশ

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে গুজব ও বিভ্রান্তি ছড়িয়ে যারা সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করছে, তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিচ্ছে পুলিশ।

সোমবার (১৮ অক্টোবর) রাতে পুলিশ সদরদপ্তরের এআইজি (মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশনস) মো. কামরুজ্জামানের পাটানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা বলা হয়।

প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সাম্প্রতিক সময়ে দেশে বিদ্যমান সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করতে কিছু ব্যক্তি কিংবা গোষ্ঠী উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে গুজব ও বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে। অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টির অপচেষ্টা করছে। আবার অনেক ক্ষেত্রে চক্রান্তকারীরা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের পোস্ট কিংবা বিভিন্ন তথ্য বিকৃত বা অপব্যাখ্যা করে তা বিভিন্ন মাধ্যমে ছড়িয়ে সংঘাতমূলক পরিস্থিতি সৃষ্টির অপচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে।

বাংলাদেশ পুলিশের সংশ্লিষ্ট ইউনিটগুলো বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে গুজব ও বিভ্রান্তি সৃষ্টিকারীদের মনিটর করছে ও তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ অব্যাহত রয়েছে।

আরও পড়ুন:


ইভ্যালিকে লাভজনক প্রতিষ্ঠানে রূপান্তরের সর্বোচ্চ চেষ্টা করব: বিচারপতি মানিক

করোনা: দেশে ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু কমলেও বেড়েছে শনাক্ত

প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় কলেজছাত্রকে অপহরণ করে বিয়ে করলো তরুণী!

ডিএমপি কমিশনার ও র‍্যাব ডিজি’র পদোন্নতি


প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমসহ যে কোনো মাধ্যমে গুজব ও বিভ্রান্তি না ছড়াতে এবং যাচাই ছাড়া সংবাদে বিশ্বাস না করতে সবার প্রতি বিশেষ অনুরোধ জানিয়েছে বাংলাদেশ পুলিশ।

যে কোনো অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতি মোকাবিলায় জনগণের সার্বিক সহযোগিতাও প্রত্যাশা করছে বাংলাদেশ পুলিশ।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

খালেদা জিয়ার বিদেশে চিকিৎসার দাবিতে বিক্ষোভ

অনলাইন ডেস্ক

খালেদা জিয়ার বিদেশে চিকিৎসার দাবিতে বিক্ষোভ

নেতাকর্মীদের সমাবেশ

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও উন্নত চিকিৎসার জন্য বিদেশে নেওয়ার দাবিতে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে সমাবেশ করছে ছাত্রদল। আজ শনিবার সকালে ১০টায় জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে শুরু হয় এ বিক্ষোভ সমাবেশ।

সমাবেশে ছাত্রদল নেতাকর্মীরা খালেদা জিয়ার মুক্তি ও বিদেশে চিকিৎসার দাবিতে বিভিন্ন রকমের স্লোগান দিয়ে যাচ্ছেন।

এদিকে, বিক্ষোভ সমাবেশকে কেন্দ্র করে প্রেস ক্লাব ও পল্টন এলাকার আশপাশে সতর্ক অবস্থান রয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। 

আরও পড়ুন:


কুমিল্লায় জোড়া খুন: নেপথ্যে কারা, জানতে চায় পরিবার


জানা গেছে, বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত হওয়ার কথা রয়েছে। এছাড়া সমাবেশে উপস্থিত হয়েছেন ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সভাপতি ফজলুর রহমান খোকন, সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামল, সহসভাপতি কাজী রওনকুল ইসলাম শ্রাবণ, মামুন হাসান, জাকির হোসেন জাকির, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, সাংগঠনিক সাইফ মাহমুদ জুয়েলসহ অনেকে। 

news24bd.tv রিমু      

 

পরবর্তী খবর

নীলফামারীতে ঘিরে রাখা জঙ্গি আস্তানা থেকে ৫ জন আটক

অনলাইন ডেস্ক

নীলফামারীতে ঘিরে রাখা জঙ্গি আস্তানা থেকে ৫ জন আটক

জঙ্গি আস্তানা থেকে আটক ৫ জন

নীলফামারী সদরের মাঝাপাড়া এলাকায় ঘিরে রাখা জঙ্গি আস্তানা থেকে পাঁচ জনকে আটক করেছে র‌্যাব। এসময় জব্দ করা হয়েছে বোমা তৈরির সরাঞ্জম। ওই আস্তানায় র‌্যাবের বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিটের একটি টিম কাজ করছে। 

শনিবার (৪ ডিসেম্বর) সকালে র‌্যাব-১৩ এর পরিচালক রেজা আহমেদ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এসময় তিনি জানান, মাঝাপাড়া পুটিহারি এলাকার ওই বাড়িটি আজ ভোররাত থেকেই ঘিরে রাখা হয়। সেখানে অভিযান চালিয়ে পাঁচ জনকে আটক করা হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে র‍্যাবের আইন ও গণমাধ্যম পরিচালক খন্দকার আল মঈন বলেন, আটক পাঁচজনের তথ্যের ভিত্তিতে নীলফামারীর মাঝাপাড়া পুটিহারি এলাকার ওই বাড়িটি শুক্রবার দিনগর রাত থেকেই ঘিরে রাখা হয়। সকালে ওই বাড়ি থেকে সদৃশ বস্তু ও বোমা তৈরির সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়েছে।

এ বিষয়ে রংপুর র‌্যাব কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে বিস্তারিত জানানো হবে বলেও জানান র‌্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক।

আরও পড়ুন


হীরের টুকরো এমন শিক্ষককেও হুমকি দেবে বহু নোংরা-নষ্ট ছাত্র!

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

ইউপি নির্বাচন: পরিস্থিতি অবনতির ধাপে বাংলাদেশ

অনলাইন ডেস্ক

ইউপি নির্বাচন: পরিস্থিতি অবনতির ধাপে বাংলাদেশ

ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচন ঘিরে রাজনৈতিক সহিংসতায় আবারও ‘অবনতিশীল পরিস্থিতি’র মানচিত্রে ফিরেছে বাংলাদেশ। সংকট বিশ্লেষণকারী ব্রাসেলসভিত্তিক নীতি গবেষণা প্রতিষ্ঠান ইন্টারন্যাশনাল ক্রাইসিস গ্রুপ (আইসিজি) এই পর্যবেক্ষণ জানিয়েছে। গত বৃহস্পতিবার প্রকাশিত প্রতিবেদনে ইউপি নির্বাচন নিয়ে ক্ষমতাসীন দলের অন্তর্দ্বন্দ্বের বিষয়টি বিশেষভাবে উঠে এসেছে।

গত অক্টোবরেও একবার দুর্গাপূজার সময় গুজব, সংঘাত ও প্রাণহানির জন্য বাংলাদেশ পরিস্থিতিকে অবনতিশীল বলে উল্লেখ করেছিল প্রতিষ্ঠানটি। এবার গত নভেম্বর মাসজুড়ে নির্বাচনী সংঘাতে হতাহত হওয়ার ঘটনা তুলে ধরে আবার বাংলাদেশ পরিস্থিতিকে অবনতিশীল তালিকায় রেখেছে আইসিজি।

এর আগে আইসিজি ২০১৩, ২০১৪ ও ২০১৫ সালের বিভিন্ন সময়ে রাজনৈতিক সংঘাত ও সহিংসতার কারণে বাংলাদেশের অবনতিশীল পরিস্থিতির তথ্য তাদের বিশ্লেষণে তুলে ধরেছিল।

ঢাকায় গত সপ্তাহে বিদেশি কূটনৈতিক মিশনগুলোর প্রতিনিধিদের উদ্দেশে সরকারের ব্রিফিংয়ে ইউপি নির্বাচন ঘিরে সংঘাত ও মৃত্যুর বিষয়টি আলোচনায় এসেছিল। পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন পরে সাংবাদিকদের বলেছিলেন, ‘বিরোধী দলগুলোর অনেকে নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন। অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন হচ্ছে। উচ্ছ্বাস বেশি। একমাত্র খারাপ বিষয় হলো মৃত্যু। কোনো নির্বাচনেই আমরা একটি মৃত্যুও চাই না। তবে আমি জানি না এটি কিভাবে সম্ভব।’

ইন্টারন্যাশনাল ক্রাইসিস গ্রুপের প্রতিবেদনে নির্বাচনী সহিংসতাকে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের অন্তর্দ্বন্দ্ব হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে। নির্বাচনে সহিংসতাগুলোর বেশির ভাগই হয়েছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ও বিদ্রোহী প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে।

আইসিজি তাদের প্রতিবেদনে গত নভেম্বরের বাংলাদেশে রাজনৈতিক সংঘাতকে গুরুত্ব দিয়ে বলেছে, স্থানীয় সরকার নির্বাচন ঘিরে ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দলের মধ্যে অন্তর্দ্বন্দ্বে ৪৫ জনেরও বেশি নিহত এবং শতাধিক ব্যক্তি আহত হয়েছে।

এই প্রতিবেদনে বলা হয়, গত ১১ নভেম্বর দ্বিতীয় ধাপের ইউপি নির্বাচনে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের মধ্যে বিরোধে বেশ কয়েকজন নিহত হয়। বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি) ওই নির্বাচন বর্জন করেছে (বস্তুত বিএনপি নেতারা স্বতন্ত্রভাবে নির্বাচন করেছেন)। নরসিংদীতে গত ৪ নভেম্বর সংঘর্ষে তিনজন নিহত এবং ১০ জন আহত হয়। গত ৫ নভেম্বর কক্সবাজারে সংঘর্ষে নিহত হয় একজন। পাবনা ও মেহেরপুরে গত ৮ নভেম্বর সংঘর্ষে দুজন নিহত এবং ৩৫ জন আহত হয়। ভোটের দিন নরসিংদী, কুমিল্লা, কক্সবাজার ও চট্টগ্রাম জেলায় সংঘর্ষে অন্তত সাতজন নিহত হয়। সেদিন দেশজুড়ে নির্বাচনী সহিংসতায় শতাধিক লোক আহত হয়।

ক্রাইসিস গ্রুপের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, তৃতীয় ধাপের ইউপি নির্বাচন ঘিরে গত ২৫ থেকে ২৮ নভেম্বর ব্রাহ্মণবাড়িয়া, ভোলা ও টাঙ্গাইল জেলায় আওয়ামী লীগের অন্তর্দ্বন্দ্বে অন্তত তিনজন নিহত হয়। ভোটের দিন টাঙ্গাইল, লক্ষ্মীপুর, নরসিংদী, খুলনা, যশোর, ঠাকুরগাঁও ও মুন্সীগঞ্জে সংঘাতে বেশ কয়েকজন নিহত হয়। চতুর্থ ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন আগামী ২৬ ডিসেম্বর এবং পঞ্চম ধাপের নির্বাচন আগামী বছরের ৫ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।

আইসিজির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, নভেম্বর মাসজুড়েই কথিত জঙ্গি গ্রেপ্তার অব্যাহত ছিল। কর্তৃপক্ষ ঢাকা থেকে জামা’আতুল মুজাহিদীনের একজন সদস্য ও দিনাজপুর থেকে আনসার আল-ইসলামের একজন সদস্যকে আটক করে।

সরকার তার সমালোচকদের মুখ বন্ধ করতে বিতর্কিত ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ব্যবহার করা অব্যাহত রেখেছে বলেও ক্রাইসিস গ্রুপের প্রতিবেদনে উল্লেখ আছে। সেখানে আরো বলা হয়েছে, ওই আইনের আওতায় কর্তৃপক্ষ গত ২ নভেম্বর দুজন সাংবাদিকের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছে এবং গত ৮ নভেম্বর তিনটি মামলায় ফটো সাংবাদিক শফিকুল ইসলাম কাজলের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে চিকিৎসার জন্য বিদেশে যেতে দেওয়ার দাবিতে বিএনপি গত ২৪ নভেম্বর আট দিনের প্রতিবাদ কর্মসূচির ডাক দেয়। পুলিশ গত ৩ নভেম্বর কক্সবাজারের একটি শিবিরে আরাকান রোহিঙ্গা স্যালভেশন আর্মির কথিত এক নেতার মরদেহ উদ্ধার করেছে। পুলিশ বলেছে, জনতার পিটুনিতে তাঁর মৃত্যু হয়ে থাকতে পারে।

প্রতিবেদনে আরো বলা হয়েছে, র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) গত ৮ নভেম্বর কক্সবাজারের উখিয়ায় রোহিঙ্গা শিবিরে অবৈধ অস্ত্র কারখানার সন্ধান পেয়েছে বলে দাবি করেছে এবং তিনজন রোহিঙ্গাকে আটক করেছে। এদিকে জাতিসংঘ গত মাসে ভাসানচরে দ্বিতীয়বার সফর করেছে। ছয় মাস বিরতির পর গত ২৫ নভেম্বর কক্সবাজার থেকে সপ্তম দফায় এক হাজার ৫০০ রোহিঙ্গাকে ভাসানচরে স্থানান্তর করা হয়েছে।

আইসিজি বিশ্বব্যাপী সংঘাত, সহিংসতার তথ্য তুলে ধরে পরিস্থিতি সম্পর্কে ধারণা দেওয়ার লক্ষ্যে কাজ করে। আইসিজি বিশ্বের দেশগুলোর পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করে ‘সংঘাতের ঝুঁকি’, ‘অবনতিশীল পরিস্থিতি’, ‘সমাধানের সম্ভাবনা’ ও ‘পরিস্থিতির উন্নতি’ এই চার ধাপে বিশ্লেষণ করে। এসব বিশ্লেষণ কৌশলগত তথ্য হিসেবে বিভিন্ন দেশের সরকার, প্রতিষ্ঠান ও গবেষকরা ব্যবহার করেন।

আরও পড়ুন


পাকিস্তানের বিপক্ষে টসে হেরে ফিল্ডিংয়ে বাংলাদেশ

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

কমিটি ঘোষণা: গণফোরামের একাংশের নতুন সভাপতি মন্টু, সা. সম্পাদক সুব্রত

কমিটি ঘোষণা: গণফোরামের একাংশের নতুন সভাপতি মন্টু, সা. সম্পাদক সুব্রত

ছবি: সংগৃহীত

গণফোরামের একাংশের নতুন সভাপতি পদে মোস্তফা মহসীন মন্টু ও সাধারণ সম্পাদক পদে অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরীকে নির্বাচিত করে নতুন কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। গতকাল শুক্রবার বিকেলে রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে কাউন্সিল অধিবেশনে নতুন এ কমিটি ঘোষণা করা হয়।

এর আগে কাউন্সিল অধিবেশনে উত্থাপিত সাংগঠনিক, রাজনৈতিক ও অর্থবিষয়ক প্রস্তাবের ওপর বিভিন্ন জেলা ও উপজেলার নেতারা আলোচনা করেন। সাংগঠনিক অধিবেশনে কাউন্সিলরদের মতামতের ভিত্তিতে নতুন কমিটি নির্বাচনের জন্য বিষয় নির্বাচনী কমিটি গঠিত হয়। 

বিষয় নির্বাচনী কমিটি সর্বসম্মতিক্রমে বীর মুক্তিযোদ্ধা মোস্তফা মোহসীন মন্টু সভাপতি ও অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরীকে সাধারণ সম্পাদক করে ১৫৭ সদস্য বিশিষ্ট নতুন কমিটি ঘোষণা করে। কাউন্সিলররা করতালির সঙ্গে দুই হাত তুলে নতুন কমিটিকে সমর্থন ও স্বাগত জানান।

নির্বাচনী অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন অ্যাডভোকেট মহসিন রশিদ। বিষয় নির্বাচনী কমিটির পক্ষে নতুন কমিটির সদস্যদের নাম পড়ে শোনান অধ্যাপক ড. আবু সাইয়িদ ও অ্যাডভোকেট জগলুল হায়দার আফ্রিক।

এদিকে আগামীর গণতান্ত্রিক আন্দোলনে গণফোরামের দুই অংশই ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন দলটির একাংশের সভাপতি ড. কামাল হোসেন। শুক্রবার সকালে গণফোরামের একাংশের ষষ্ঠ জাতীয় সম্মেলনে এক লিখিত বার্তায় তিনি এ আশা প্রকাশ করেন।

আরও পড়ুন:


কুমিল্লায় জোড়া খুন: নেপথ্যে কারা, জানতে চায় পরিবার

নৌকার বিরুদ্ধে স্ট্যাটাস দিলে ক্রসফায়ারের হুমকি


উদ্বোধনীতে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী দেশের বর্তমান অবস্থা তুলে ধরে বলেন, এ সরকারকে বিদায় করতে হবে। এর কোনো বিকল্প নেই। আসুন সকলে মিলে ঐক্যবদ্ধভাবে এ সরকারের বিরুদ্ধে একটি গণ আন্দোলন গড়ে তুলি। পরবর্তীতে একটি জাতীয় সরকার প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে দেশের বর্তমান রাজনৈতিক সমস্যার সমাধান করতে হবে।

news24bd.tv রিমু   

পরবর্তী খবর

সড়কে দুর্নীতি: আজ ‘লাল কার্ড’ দেখাবে শিক্ষার্থীরা

অনলাইন ডেস্ক

সড়কে দুর্নীতি: আজ ‘লাল কার্ড’ দেখাবে শিক্ষার্থীরা

ফাইল ছবি

নিরাপদ সড়কসহ ১১ দফা দাবিতে সড়কে দুর্নীতির বিরুদ্ধে ‘লাল কার্ড’ প্রদর্শনের কর্মসূচি ঘোষণা করেছে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের একটি দল। গতকাল শুক্রবার সকাল ১১টার দিকে রামপুরা ব্রিজের পাশে দাঁড়িয়ে আন্দোলন করেছে শিক্ষার্থীরা। আন্দোলন থেকে খিলগাঁও মডেল কলেজের এক শিক্ষার্থী সড়কে অনিয়মের প্রতিবাদে আজ শনিবার দুপুর ১২টায় রামপুরা ব্রিজ এলাকায় ‘লাল কার্ড’ দেখানোর কর্মসূচি ঘোষণা করে।

এনিয়ে শিক্ষার্থী সোহাগী সামিয়া বলেন, ‘নিরাপদ সড়কের দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আমরা আন্দোলন চালিয়ে যাব। সড়কের অব্যবস্থাপনা ও দুর্নীতির কারণে দুর্ঘটনা ঘটছে, আমরা সড়কের অনিয়ম, দুর্নীতির বিরুদ্ধে লাল কার্ড দেখাব।’ 

প্রশাসনকে ঘুষ দিয়ে চালকের লাইসেন্স এবং ফিটনেস ছাড়া গাড়ি চলছে—এই অভিযোগ করে সামিয়া বলেন, ‘এসব গাড়ি দুর্ঘটনার অন্যতম কারণ। এসব বন্ধ করতে হবে। এইচএসসি পরীক্ষার্থী ও শিক্ষার্থীরা যাতে ক্ষতিগ্রস্ত না হয়, সেই চিন্তা মাথায় নিয়ে এই কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়েছে।’

গতকাল শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের কারণে যান চলাচলে তেমন ব্যাঘাত ঘটেনি। আন্দোলনে খিলগাঁও মডেল বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ, পশ্চিম খিলগাঁও উচ্চ বিদ্যালয়, ফয়েজুর রহমান আইডিয়াল ইনস্টিটিউটসহ কয়েকটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা অংশ নেয়। গতকাল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে সাপ্তাহিক ছুটির দিন হলেও শিক্ষার্থীরা নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের ইউনিফর্ম পরে অংশ নেয়। শিক্ষার্থীদের আন্দোলনকে কেন্দ্র করে রামপুরা ও হাতিরঝিল থানার পর্যাপ্তসংখ্যক পুলিশ সদস্য মোতায়েন থাকতে দেখা গেছে। কোনো অপ্রীতিকর ঘটনার সৃষ্টি যাতে না হয় সেদিকে নজর রাখা হয়েছে। 

উল্লেখ্য, জ্বালানি তেলের দাম বাড়ার কারণে গত ৭ নভেম্বর থেকে ঢাকাসহ সারা দেশে বাসের ভাড়া গড়ে ২৭ শতাংশ বাড়ানো হয়। শিক্ষার্থীদের জন্য গণপরিবহনে অর্ধেক ভাড়া নিশ্চিত করতে ১১ নভেম্বর বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষকে (বিআরটিএ) একটি স্মারকলিপি দেয় নিরাপদ সড়ক আন্দোলনের (নিসআ) সঙ্গে যুক্ত শিক্ষার্থীরা।

আরও পড়ুন:


দুশ্চিন্তা থেকে মুক্ত হওয়ার কিছু আমল


সেদিন থেকেই অর্ধেক ভাড়ার দাবিতে সড়কে শিক্ষার্থীদের আন্দোলন শুরু হয়। আন্দোলনের মধ্যে ২৪ নভেম্বর ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ময়লার গাড়ির চাপায় নটর ডেম কলেজের শিক্ষার্থী নাঈম হাসান নিহত হলে অর্ধেক ভাড়ার সঙ্গে আন্দোলনে নিরাপদ সড়কের দাবি যুক্ত হয়। আন্দোলনের মুখে গত মঙ্গলবার রাজধানীতে বাসে অর্ধেক ভাড়া নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে ঢাকা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতি। 

news24bd.tv রিমু   

পরবর্তী খবর