লাফিয়ে বাড়ছে ডলারের দাম

অনলাইন ডেস্ক

লাফিয়ে বাড়ছে ডলারের দাম

রপ্তানি আয়ে ধীরগতি ও প্রবাসী আয়ের নিম্নমুখী প্রবণতার মধ্যে বিভিন্ন পণ্যের আমদানি চাহিদা বাড়ায় ব্যাংকগুলোতে মার্কিন ডলারের সংকট দেখা দিয়েছে। ঘাটতি মেটাতে তারা কেন্দ্রীয় ব্যাংক থেকে মার্কিন ডলার কিনছে। এ কারণে প্রায় প্রতিদিনই বাড়ছে ডলারের দাম। বাংলাদেশ ব্যাংক ও বাণিজ্যিক ব্যাংক সূত্রে এই তথ্য জানা গেছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো বলছে, গত রবিবার ডলারের বিপরীতে টাকার মান কমেছে প্রায় পাঁচ পয়সা। অর্থাৎ ডলারের দাম বেড়েছে। গতকাল সোমবার আন্ত ব্যাংক মুদ্রাবাজারে প্রতি ডলার বিক্রি হচ্ছে ৮৫ টাকা ৬৫ পয়সায়। এর প্রভাব পড়েছে খোলাবাজারেও। খোলাবাজারে প্রতি ডলার কিনতে এখন খরচ হচ্ছে প্রায় ৮৯ টাকা।

বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্যানুযায়ী, গত ৫ আগস্ট আন্ত ব্যাংক মুদ্রাবাজারে প্রতি ডলার ৮৪ টাকা ৮০ পয়সায় বিক্রি হয়। ওই মাসে খোলাবাজারে ডলার বিক্রি হয়েছে ৮৭ টাকা ৪০ পয়সা থেকে ৮৭ টাকা ৫০ পয়সায়। আড়াই মাসেরও কম সময়ে ডলারের বিপরীতে টাকা ৮৫ পয়সা দর হারিয়েছে। আর খোলাবাজারে কমেছে প্রায় দেড় টাকা।

ডলারের দাম নিয়ন্ত্রণের মধ্যে রাখতে বাজারে ডলার বিক্রি বাড়িয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। চলতি অক্টোবর মাসের প্রথম ১৩ দিনে বিক্রি করা হয়েছে প্রায় ৩৫ কোটি ডলার। এটি আগস্ট মাসের পুরো সময়ের চেয়ে চার কোটি ডলার বেশি। সব মিলে গত আড়াই মাসে প্রায় ১২৯ কোটি ডলার বিক্রি করা হয়েছে। দেশি মুদ্রায় যার পরিমাণ প্রায় ১১ হাজার কোটি টাকা।

সাধারণত ডলারের দাম বাড়লে প্রবাসী ও রপ্তানিকারকরা লাভবান হন। আর ক্ষতিগ্রস্ত হন আমদানিকারক ও সাধারণ মানুষ। কারণ ডলারের দাম বাড়লে পণ্যমূল্যও বেড়ে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র মো. সিরাজুল ইসলাম বলেন, ‘ব্যবসা-বাণিজ্য স্বাভাবিক হওয়ায় এখন আমদানি বেশ বাড়ছে। আবার বিলম্বে পরিশোধ শর্তে যেসব পণ্য আমদানি করা হয়েছিল, সেগুলোও পরিশোধ করতে হচ্ছে। করোনার টিকা আমদানির অর্থও পরিশোধ করতে হচ্ছে। সব মিলিয়ে ডলারের চাহিদা বৃদ্ধি পাওয়ায় দামও বাড়ছে।’ তবে সংকট সামাল দিতে বাজারে প্রয়োজনীয় ডলার সরবরাহ করা হচ্ছে বলে জানান তিনি।

করোনা পরিস্থিতি উন্নতি হওয়ার পর দেশে আমদানির গতি বাড়ছে। মূলধনী যন্ত্রপাতি, শিল্পের কাঁচামাল, শিল্পের মধ্যবর্তী পণ্য, খাদ্যপণ্য, জ্বালানি তেলসহ সব পণ্যের আমদানিই এখন বেশ ঊর্ধ্বমুখী।

বাংলাদেশ ব্যাংকের সর্বশেষ তথ্যানুযায়ী, চলতি অর্থবছরের প্রথম দুই মাসে (জুলাই-আগস্ট) এক হাজার ৭৬ কোটি ডলারের পণ্য আমদানি করা হয়েছে। এই অঙ্ক গত অর্থবছরের (২০২০-২১) একই সময়ের চেয়ে ৪৫.৩১ শতাংশ বেশি। অন্যদিকে একই সময়ে এক হাজার ২১৩ কোটি ডলারের বিভিন্ন পণ্য আমদানির ঋণপত্র (এলসি) খোলা হয়েছে। এই অংশ গত অর্থবছরের একই সময়ের চেয়ে ৪৮.৬০ শতাংশ বেশি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একটি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) বলেন, বাজারের সরবরাহের চেয়ে ডলারের ঘাটতি রয়েছে। বেশির ভাগ ব্যাংকেই চলছে ডলারের সংকট। এর কারণ রপ্তানি আয়ের ধীরগতি ও প্রবাসী আয় কমে যাওয়া। কিন্তু আমদানি বাড়ছে বেশ গতিতে। তিনি আরো বলেন, কেন্দ্রীয় ব্যাংক খুব প্রয়োজন ছাড়া কোনো ব্যাংকের কাছে ডলার বিক্রি করছে না।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের তথ্য বলছে, গত জুন থেকে প্রবাসী আয় কমছে। সেপ্টেম্বর মাসে দেশে যে পরিমাণ প্রবাসী আয় এসেছে, তা আগের মাসের চেয়ে প্রায় সাড়ে ৪ শতাংশ এবং গত অর্থবছরের একই সময়ের চেয়ে প্রায় ২০ শতাংশ কম। এ ছাড়া চলতি অর্থবছরের প্রথম তিন মাসের হিসাবে প্রবাসী আয়ের প্রবাহ কমেছে প্রায় সাড়ে ১৯ শতাংশ। আর চলতি অক্টোবর মাসের প্রথম ১৪ দিনে দেশে এসেছে মাত্র ৮৮ কোটি ডলার।

অন্যদিকে চলতি অর্থবছরের প্রথম তিন মাসে রপ্তানি আয় বেড়েছে মাত্র ১১.৩৭ শতাংশ।

করোনাভাইরাস মহামারির মধ্যে দেশে এক বছরেরও বেশি সময় ধরে একই জায়গায় ‘স্থির ছিল ডলারের দর। গত ৫ আগস্ট থেকে টাকার বিপরীতে ডলারের দাম বাড়তে শুরু করে। এখন প্রায় প্রতিদিনই বাড়ছে দাম।

আরও পড়ুন


যুক্তরাষ্ট্রের প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ পররাষ্ট্রমন্ত্রী কলিন পাওয়েল মারা গেছেন

বঙ্গোপসাগরে লঘুচাপ, আরও দুদিন বৃষ্টির সম্ভাবনা

চিকিৎসকের আত্মহত্যা, লাশের পাশে পড়ে থাকা চিঠিতে যা লেখা ছিল

আরেক দফায় বেড়েছে ভোজ্য তেলের দাম, সয়াবিন লিটার প্রতি ১৬০ টাকা


বাজার স্থিতিশীল রাখতে গত আগস্ট মাসে রেকর্ড পরিমাণ ডলার বিক্রি করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। ওই মাসে ৬৪ কোটি ১০ লাখ ডলার বিক্রি করা হয়। তবে সেপ্টেম্বর মাসে বিক্রির পরিমাণ কিছুটা কমে হয় ৩০ কোটি ৫০ লাখ ডলার। আর অক্টোবর মাসের প্রথম ১৩ দিনে বিক্রি করা হয়েছে ৩৪ কোটি ৭০ লাখ ডলার। সব মিলে চলতি অর্থবছরের আগস্ট থেকে ১৩ অক্টোবর পর্যন্ত ১২৯ কোটি ৩০ লাখ ডলার বিক্রি করা হয়েছে। অথচ চাহিদা না থাকায় চলতি অর্থবছরের প্রথম মাসেও কোনো ডলার বিক্রি করতে হয়নি বাংলাদেশ ব্যাংককে। উল্টো জুলাইয়েও ব্যাংকগুলো থেকে ২০ কোটি ৫০ লাখ ডলার কিনেছিল বাংলাদেশ ব্যাংক। গত অর্থবছরে প্রায় ৮০০ কোটি ডলার কেনা হয়েছিল।

নিয়ম অনুযায়ী, ব্যাংকগুলো চাইলেও বাড়তি ডলার নিজেদের কাছে রাখতে পারে না। বাংলাদেশ ব্যাংকের নীতিমালা অনুযায়ী, একটি ব্যাংক তার মূলধনের ১৫ শতাংশের সমপরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা নিজেদের কাছে রাখতে পারে। এর অতিরিক্ত হলেই তাকে বাজারে ডলার বিক্রি করতে হবে।

সূত্র: কালের কণ্ঠ 

 

পরবর্তী খবর

মিশরে আবারও চালু হল তিন হাজার বছর আগের রাজপথ

অনলাইন ডেস্ক

মিশরে আবারও চালু হল তিন হাজার বছর আগের রাজপথ

অ্যাভিনিউ অফ স্ফিংস

মিশরে প্রায় তিন হাজার বছরের পুরনো রাজপথ আবারও চালু করা হয়েছে। দেশটির লাক্সরে 'অ্যাভিনিউ অফ স্ফিংস' নামের এই রাস্তাটি সম্প্রতি এক জাঁকজমকপূর্ণ অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে খুলে দেয়া হয়েছে। খবর বিবিসির।

মিশরে প্রাচীন যুগের দুইটি গুরুত্বপূর্ণ মন্দিরের সংযোগ পথ ছিল এই সড়ক। এই পথটি খুঁড়ে বের করতে কয়েক দশক সময় লেগেছে।

avenue of sphinxes

রাজপথটি আবার খুলে দেওয়া উপলক্ষে ফারাওদের সময়ের মতো করেই এক শোভাযাত্রার আয়োজন করা হয়। এই অনুষ্ঠানের সঙ্গীতের বানী নেয়া হয় মন্দিরের দেয়ালের হায়ারোগ্লিফিকসে লেখা নানা গল্প থেকে।

প্রাচীন মিশরের কিছু ভাস্কর্য

করোনাকালীন বিপর্যয় সামলাতে হিমশিম খাচ্ছে দেশটির সরকার। এর উপরে নানা রাজনৈতিক বিপর্যয়ে ভুগছে দেশটি। ফলে নতুন এই দর্শনীয় স্থান দেশটির পর্যটন শিল্পকে আবারও জাগিয়ে তুলবে বলে আশা করছে দেশটির সরকার।

আরও পড়ুন:

বরিশালে একই পরিবারের ৫ সদস্যের ইসলাম গ্রহণ


news24bd.tv/ নকিব

পরবর্তী খবর

অস্ট্রেলিয়ার জঙ্গলে নতুন প্রাণী খুঁজে পাওয়ার দাবি!

অনলাইন ডেস্ক

অস্ট্রেলিয়ার জঙ্গলে নতুন প্রাণী খুঁজে পাওয়ার দাবি!

ছবি- সংগৃহীত

অস্ট্রেলিয়ার জঙ্গলে অদ্ভুত এক প্রানী দেখেছেন বলে দাবি করেছেন অস্ট্রেলিয়ার এক ব্যক্তি। ওই প্রাণীর অর্ধেক মানুষ ও বাকি অর্ধেক কুকুরের মতো বলে দাবি করেন তিনি। ওই প্রাণীটিকে 'ডগম্যান' বলা উল্লেখ করা হচ্ছে। খবর দ্য সানের।

অস্ট্রেলিয়ার একটি হ্রদে নিজের কায়াকে বসে মাছ ধরছিলেন জন নামে ওই ব্যক্তি। 

তার দাবি, হঠাৎই হ্রদের পাড়ের জঙ্গল থেকে অদ্ভুত একটা আওয়াজ কানে আসে। প্রথমে বিষয়টাতে গুরুত্ব দেননি তিনি। কায়াকের প্যাডেলে চাপ দিয়ে এগিয়ে যাওয়ার সময় ফের একই আওয়াজ শুনতে পান।

শব্দটা ঠিক কোন জায়গা থেকে আসছে তা নিশ্চিত হওয়ার জন্য কায়াক নিয়ে হ্রদের মধ্যে বেশ কিছুক্ষণ অপেক্ষা করেন। তখনই তার নজরে আসে হ্রদের পাড়ে গাছের পেছনে সেই অদ্ভুত চেহারা। সঙ্গে সঙ্গে তিনি ক্যামেরা বের করে ছবিও তোলেন। 

প্যারানর্মাল অ্যান্ড ইউএফও পডকাস্ট, বিলিভ-এর কাছে জন দাবি করেছেন, তিনি যতই এগোচ্ছিলেন ওই অদ্ভুত আওয়াজটাও যেন তার সঙ্গে সঙ্গে চলছিল। তিনি থামতেই, আওয়াজটা থেমে যাচ্ছিল।

প্রমাণ রাখতে তিনি ছবিও তুলে রেখেছেন বলে দাবি করেন। তবে কেউ তার ছবি বিশ্বাস করবে না বলে ছবিটি প্রকাশ্যে আনতে চাইছিলেন না তিনি।

আরও পড়ুন:

বরিশালে একই পরিবারের ৫ সদস্যের ইসলাম গ্রহণ


news24bd.tv/ নকিব

পরবর্তী খবর

ধর্ম অবমাননার অভিযোগে পাকিস্তানে আটক ৪

অনলাইন ডেস্ক

ধর্ম অবমাননার অভিযোগে পাকিস্তানে আটক ৪

ছবি- আল জাজিরা

ধর্ম অবমাননার অভিযোগে পাকিস্তানে চারজনকে আটক করা হয়েছে। একজন খ্রিস্টান প্রতিবেশীর অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ার ঘোষণা মসজিদ থেকে দেয়ার জন্য ইমামের সাথে তর্ক করার অভিযোগ উঠেছে ওই চারজনের বিরুদ্ধে। খবর আলজাজিরার।

পুলিশের বরাত দিয়ে সংবাদমাধ্যম আলজাজিরা জানায়, এ ঘটনায় ধর্ম অবমাননার অভিযোগে চারজনকে আটক করা হয়েছে। গত ১৮ নভেম্বর পাকিস্তানের লাহোর শহরের খোদি খুশাল সিং গ্রামে ঘটনাটি ঘটেছে। 

পুলিশ কর্মকর্তা ফারিয়াদ বলেছেন, অভিযুক্তদের আটক করা হয়েছে। এরই মধ্যে তাদের আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

অভিযুক্ত সবাই মুসলিম বলে প্রতিবেদনে জানানো হয়। মসজিদ থেকে খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের কারো শেষকৃত্যের ঘোষণা দিতে অস্বীকৃতি জানান ইমাম। এ নিয়ে ওই ইমামের সঙ্গে তর্ক করেন অভিযুক্তরা। পরে ধর্ম অবমাননার অভিযোগে তাদেরকে আটক করা হয়।

আরও পড়ুন:

যৌন কেলেঙ্কারির পর অনির্দিষ্টকালের বিরতিতে অজি অধিনায়ক


news24bd.tv/ নকিব

পরবর্তী খবর

মদিনায় ভয়াবহ সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৪, আহত ৪৮

অনলাইন ডেস্ক

মদিনায় ভয়াবহ সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৪, আহত ৪৮

সৌদি আরব

সৌদি আরবে বাস ও ট্রাকের সংঘর্ষে চারজন নিহত হয়েছেন। এ দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ৪৮ জন। দেশটির সংবাদমাধ্যম আরব নিউজ এ খবর জানিয়েছে।

খবরে বলা হয়, স্থানীয় সময় শুক্রবার (২৬ নভেম্বর) দেশটির মদিনা প্রদেশের আল-হিজরাহ মহাসড়কে এ ঘটনা ঘটে।

সৌদি রেড ক্রিসেন্ট কর্তৃপক্ষের মুখপাত্র খালেদ আল সেহাইল জানান, এ দুর্ঘটনায় বাসযাত্রী, চালক ও চালকের সহকারীসহ ৪৮ জন আহত হয়েছেন।

আরও পড়ুন


স্বল্পোন্নত দেশ থেকে বের হয়ে যাওয়া ও বাংলাদেশের চ্যালেঞ্জ

সিলেট থেকে বিদেশে পণ্য রপ্তানির ব্যবস্থা করা হবে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী


দুর্ঘটনার পর পরই সেখানে ২০টি অ্যাম্বুলেন্স চলে যায়। আহতদের উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। 

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

মাঝ আকাশে বিমানে যাত্রীর আত্মহত্যা

অনলাইন ডেস্ক

মাঝ আকাশে বিমানে যাত্রীর আত্মহত্যা

প্রতীকী ছবি

মিশর থেকে রাশিয়াগামী একটি ফ্লাইটে মাঝ আকাশেই বিমানের মধ্যেই আত্মহত্যা করেছেন এক যাত্রী। বিমানের টয়লেটে তিনি আত্মহত্যা করেছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

খালিজ টাইমসের প্রতিবেদনে জানা যায়, মিশরের শার্ম এল-শেখ রিসোর্ট থেকে যাত্রা করা এস-৭ এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে করে রাশিয়ার দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় সামারা শহরে ফিরছিলেন ওই যাত্রী। ফ্লাইট ছাড়ার কিছুক্ষণ পরই তিনি টয়লেটে যান। এরপর এক ফ্লাইট পরিচালক তাকে প্লেনের বাথরুমে অচেতন অবস্থায় দেখতে পান।

এরপর বিমানটি মিশরের কায়রোতে জরুরি অবতরণ করে। কিন্তু ওই যাত্রীকে বাঁচানো যায়নি। ওই একই বিমানে তার মরদেহ দেশে ফেরত পাঠানো হয়।

বাজা টেলিগ্রাম নিউজ চ্যানেল জানিয়েছে, তার নাম আলেক্সান্ডার, বয়স ৪৮ বছর। ওই যাত্রী সম্ভবত গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

আরও পড়ুন:

যৌন কেলেঙ্কারির পর অনির্দিষ্টকালের বিরতিতে অজি অধিনায়ক


news24bd.tv/ নকিব

পরবর্তী খবর