কেনাকাটা করে ফেরার পথে দুই বোনকে শ্লীলতাহানি ও মারধর, অভিযুক্ত গ্রেপ্তার
Breaking News
কেনাকাটা করে ফেরার পথে দুই বোনকে শ্লীলতাহানি ও মারধর, অভিযুক্ত গ্রেপ্তার

কেনাকাটা করে ফেরার পথে দুই বোনকে শ্লীলতাহানি ও মারধর, অভিযুক্ত গ্রেপ্তার

অনলাইন ডেস্ক

রাজধানীর মিরপুর থেকে কেনাকাটা করে বাড়ি ফেরার পথে দুই বোনকে শ্লীলতাহানি ও মারধরের অভিযোগে এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী সেলিম ওরফে সেইলাকে (৩৮) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

জানা গেছে, গ্রেপ্তার মো. সেলিম সাভার উপজেলার কাউন্দিয়া ইউনিয়নের বাকসাত্রা গ্রামের বাসিন্দা ও মৃত মহব্বত আলীর পুত্র।  

আজ মঙ্গলবার সকালে সাভার মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কাজী মাইনুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।  

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, শনিবার (১৬ অক্টোবর) রাতে সহোদর দুই বোন রাজধানীর মিরপুর থেকে কেনাকাটা করে সাভারের কাউন্দিয়ায় নিজ বাসায় ফিরছিলেন। রাত সোয়া ৯টার দিকে তারা কাউন্দিয়া খেয়াঘাটে পৌঁছলে এলাকার প্রভাবশালী চিহ্নিত সন্ত্রাসী সেলিম তাদের গতিরোধ করে বড় বোনের স্পর্শকাতর স্থানে হাত দিয়ে শ্লীলতাহানির চেষ্টা করেন। এ সময় দুই বোন এর প্রতিবাদ করলে তাদের অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেন সেলিম।    

আরও জানা যায়, বাগবিতণ্ডার একপর্যায়ে সেলিম ঘাটে থাকা পারাপারের নৌকা থেকে ছাতা নিয়ে ছোট বোনকে মারধর করতে থাকেন। এ সময় বড় বোন বাধা দিলে তাকেও উপর্যুপরি ছাতা দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর আহত করেন সেলিম। এ ছাড়া সেলিমের ভাগনে রিপন মারধরের সময় তাকে সহযোগিতা করেন।

এ ঘটনায় ভুক্তভোগী দুই তরুণীর চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে সেলিম ও তার ভাগনে রিপন দৌড়ে পালিয়ে যান। পরে তাদের উদ্ধার করে সাভার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।  

আরও পড়ুন

এশিয়ার শীর্ষ ধনী মুকেশ আম্বানির বাড়ির অন্দরমহলের খবর একনজরে

ইউপি ও পৌরসভা নির্বাচনে আরও খুনোখুনির আশঙ্কা

দলে পরিবর্তন, এক নজরে ওমানের বিপক্ষে বাংলাদেশের সম্ভাব্য একাদশ

যুক্তরাষ্ট্রের প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ পররাষ্ট্রমন্ত্রী কলিন পাওয়েল মারা গেছেন

এ ব্যাপারে সাভার মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কাজী মাইনুল ইসলাম বলেন, দুই বোনকে মারধর ও শ্লীলতাহানির ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করেছেন ভুক্তভোগীদের মা। মামলার পর কাউন্দিয়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ হারুন অর রশিদ কাউন্দিয়া বাজারে অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত আসামিকে গ্রেপ্তার করে এবং তাকে আদালতে প্রেরণ করা হয়।

এছাড়া তার বিরুদ্ধে ২০১৭ সালে ইয়াবাসহ আটক হওয়ায় সাভার মডেল থানায় একটি মামলা চলমান আছে বলেও জানিয়েছেন কাজী মাইনুল ইসলাম।

news24bd.tv রিমু