রাজধানীতে ১৭ বছরের কিশোরীকে ধর্ষণ

অনলাইন ডেস্ক

রাজধানীতে ১৭ বছরের কিশোরীকে ধর্ষণ

১৭ বছরের এক কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। রাজধানীর তুরাগে এ ঘটনা ঘটে।  

 ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত ইফতেখার আহমেদ নোমান পলাতক রয়েছেন। সোমবার রাত সাড়ে ১২টায় ওই কিশোরীকে শারীরিক পরীক্ষার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) ভর্তি করা হয়েছে।

গতকাল মঙ্গলবার তুরাগ থানার এসআই জাকির বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, কিশোরীর পরিবার থানায় ইফতেখার আহমেদ নোমানের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ করেন। পরে মেয়েটির শারীরিক পরীক্ষার জন্য ঢামেক হাসপাতালের ওসিসিতে ভর্তি করা হয়। অভিযুক্ত নোমানকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

আরও পড়ুন:


‘ডু অর ডাই’ ম্যাচে সাকিব-মুস্তাফিজের কার্যকর বোলিংয়ে স্বস্তির জয়

বিশ্বে আবারও করোনায় সংক্রমণ ও মৃত্যু বেড়েছে

ইভ্যালিকে লাভজনক প্রতিষ্ঠানে রূপান্তরের সর্বোচ্চ চেষ্টা করব: বিচারপতি মানিক

করোনা: দেশে ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু কমলেও বেড়েছে শনাক্ত

news24bd.tv রিমু  

পরবর্তী খবর

ময়মনসিংহে ২৭ ইউপির ১২টির ফলাফল প্রকাশ

সৈয়দ নোমান,ময়মনসিংহ

ময়মনসিংহে ২৭ ইউপির ১২টির ফলাফল প্রকাশ

ময়মনসিংহ জেলা।

ময়মনসিংহের তিন উপজেলায় তৃতীয় ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হলেও একমাত্র ত্রিশাল উপজেলার ১২ ইউনিয়নের ফলাফল পাওয়া গেছে। তবে একটি রামপুর ইউনিয়নে নির্বাচনী ফলাফল স্থগিত রেখেছে স্থানীয় নির্বাচন অফিস। এছাড়া বাকী ১১টির মধ্যে ছয়টিতে নৌকা ও বাদ বাকী ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থীরা বিজয়ী হয়েছেন। উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ফারুক হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

জানা যায়, ধানীখোলা ইউনিয়নে মামুনুর রশিদ সোহেল, কানিহারী ইউনিয়নে শহিদুল্লাহ মন্ডল, ত্রিশাল ইউনিয়নে জাকির হোসেন, সাখুয়া ইউনিয়নে ডা. আজিজ, বালিপাড়ায় গোলাম আহমেদ বাদল ও আমিরাবাড়ি ইউনিয়নে হাবিবুর রহমান হাবিব নৌকা প্রতীক নিয়ে নির্বাচিত হয়েছেন।

অপরদিকে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী হয়ে বৈলর ইউনিয়নে খন্দকার মশিউর রহমান শাহানশাহ, হরিরামপুর ইউপিতে আবু সাঈদ, মঠবাড়ি ইউপিতে আ. কুদ্দুস. ও মোক্ষপুর ইউনিয়নে সামসুদ্দিন জয়ী হয়েছেন।

আরও পড়ুন: 


ভোট নিয়ে সংঘর্ষে ছাত্রলীগ নেতার মৃত্যু

একমাত্র কাঁঠাল ইউনিয়নে যুবদল নেতা নূরে আলম সিদ্দিকী আলম স্বতন্ত্র হয়ে বিজয়ী হয়েছেন।

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

পুলিশের সঙ্গে প্রার্থীর কর্মীদের সংঘর্ষ, ভাঙচুর-অগ্নিসংযোগ

অনলাইন ডেস্ক

পুলিশের সঙ্গে প্রার্থীর কর্মীদের সংঘর্ষ, ভাঙচুর-অগ্নিসংযোগ

লালমনিরহাট জেলা।

নির্বাচনী ফল নিয়ে পুলিশের সঙ্গে বিভিন্ন প্রার্থীর কর্মীদের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে লালমনিরহাট সদর উপজেলার গোকুন্ডা ও খুনিয়াগাছ ইউনিয়নে।

 বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা বিভিন্ন সড়ক অবরোধসহ ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করেছেন।

রোববার সন্ধ্যার পর থেকে মধ‌্যরাত পর্যন্ত সদর উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় এসব সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে বলে নিশ্চিত করেছেন লালমনিরহাটের পুলিশ সুপার আবিদা সুলতানা।

স্থানীয় একটি সূত্র জানায়, সদর উপজেলার গোকুন্ডা ইউনিয়নে নির্বাচনী ফলাফলকে কেন্দ্র করে নৌকার প্রার্থী গোলাম মোস্তফা স্বপনের কর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ হয়। এছাড়া খুনিয়াগাছ ইউনিয়নে লাঙ্গল প্রার্থী জুলফিকার আলী বুলুর কর্মীরা পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়ান। 
 
প্রার্থীদের বিক্ষুব্ধ কর্মীরা সড়ক অবরোধ করেন। তারা ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করেন। অন্তত ২০ জন আহত হয়েছেন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ লাঠিচার্জের পাশাপাশি টিয়ারশেল ও রাবার বুলেট চালায়।

আরও পড়ুন: 


ভোট নিয়ে সংঘর্ষে ছাত্রলীগ নেতার মৃত্যু

পুলিশ সুপার বলেন, যারা শান্ত পরিস্থিতি নষ্ট করতে ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করছেন, তাদের আইনের আওতায় আনা হবে।

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে ভোট

আওয়ামী লীগ ৪, স্বতন্ত্র ১০

জাহিদুজ্জামান, কুষ্টিয়া

আওয়ামী লীগ ৪, স্বতন্ত্র ১০

কুষ্টিয়া জেলা।

কুষ্টিয়ার সীমান্তবর্তি দৌলতপুর উপজেলার মোট ১৪টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীক নিয়ে ৪ জন ও স্বতন্ত্র ১০ জন বেসরকারিভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।

২৮ নভেম্বর রোববার ভোটগ্রহণ ও গণনা শেষে রিটানিং কর্মকর্তারা বেসরকারিভাবে বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করেন।

দৌলতপুর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা গোলাম আজম জানান, প্রাগপুর ইউনিয়নে আশরাফুল ইসলাম মুকুল মাষ্টার, রামকৃষ্ণপুর ইউনিয়নে সিরাজ মন্ডল, হোগলবাড়ীয়া ইউনিয়নে সেলিম চৌধুরী ও দৌলতপুর ইউনিয়নে মহিউল ইসলাম মহি নৌকা প্রতীক নিয়ে বেসরকারিভাবে বিজয়ী হয়েছেন।

এছাড়া বাকী ১০ টি ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থীরা বিজয়ী হয়েছেন। এরা হলো খাস- মথুরাপুর ইউনিয়নে মনোয়ার কবির মিন্টু (আনারস), ফিলিপনগর ইউনিয়নে নঈম উদ্দিন ছেন্টু (চশমা), মরিচা ইউনিয়নে জাহিদুল ইসলাম জাহিদ (আনারস), চিলমারী ইউনিয়নে ইঞ্জিনিয়ার আব্দুল মান্নান (মোটরসাইকেল), পিয়ারপুর ইউনিয়নে সোহেল রানা বুলবুল (চশমা), রিফায়েতপুর ইউনিয়নে আব্দুর রশিদ বাবলু (মোটরসাইকেল), আদাবাড়ীয়া ইউনিয়নে আব্দুল বাকী (আনারস), বোয়ালিয়া ইউনিয়নে খোয়াজ হোসেন মাষ্টার (চশমা), খলিশাকুন্ডি ইউনিয়নে জুলমত হোসেন (ঘোড়া) এবং আড়িয়া ইউনিয়নে হেলাল উদ্দিন (মোটরসাইকেল) প্রতীক নিয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন।

রোববার সকাল ৮ টা থেকে বিকেল ৪ টা পর্যন্ত উত্তাপ আর উৎকণ্ঠার মধ্য দিয়ে কঠোর নিরাপত্তায় ভোটগ্রহণ হয়। ভোট শুরুর দুই ঘণ্টা পর এজেন্টদের বের করে দিয়ে প্রকাশ্যে নৌকায় সীল মারতে বাধ্য করার অভিযোগ এনে হোগলবাড়িয়া ইউনিয়নের স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী বিল্লাল হোসেন ভোট বর্জন করেন। তারাগুনিয়ায় নিজ বাড়ির সামনে সাংবাদিকদের সামনে তিনি ভোট বর্জনের ঘোষণা করেন।

আরও পড়ুন:


ভোট নিয়ে সংঘর্ষে ছাত্রলীগ নেতার মৃত্যু


নির্বাচন নির্বিঘ্ন করতে স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে তিন প্লাটুন বিজিবি ও র‌্যাব মোতায়েন ছিলো। দু'একটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়া ভোটকেন্দ্রের বাইরের পরিবেশ ছিল শান্তিপূর্ণ।

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

‘ভোটের মাঠে’ ৬ জন নিহত

অনলাইন ডেস্ক

‘ভোটের মাঠে’ ৬ জন নিহত

নির্বাচনী সহিংসতা।

নির্বাচন কেন্দ্রীক সহিংসতায় সারাদেশে নিহত হয়েছেন মোট ছয়জন। এর মধ্যে মুন্সিগঞ্জে দুজন, নরসিংদী, লক্ষ্মীপুর, খুলনা, যশোরে একজন করে মোট ছয়জন প্রাণ হারান।

সারাদেশ থেকে প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-

মুন্সিগঞ্জ: নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় মুন্সিগঞ্জ সদর উপজেলার চরাঞ্চলের বাংলাবাজার ও পঞ্চসারে শাকিল ও রিয়াজুল নামে দুজন নিহত হয়েছেন।

আহত হয়েছেন আরও অন্তত ১০ জন।

রোববার সন্ধ্যার পর এ ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছেন সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবু বক্কর সিদ্দিক।

তিনি বলেন, নিহতরা হলেন- বাংলাবাজারের কাচিকাটা গ্রামের হারুন মোল্লার ছেলে শাকিল এবং পঞ্চসারের গোসাইবাগ এলাকার মৃত আলতাফ উদ্দিন শেখের ছেলে রিয়াজুল শেখ।

স্থানীয়রা জানান, সদর উপজেলার বাংলাবাজারের কাইজ্জার চর এলাকায় নির্বাচনের ফলাফল পক্ষে না যাওয়ায় সংরক্ষিত মহিলা মেম্বার (বই প্রতীকের) প্রার্থী আরাফ বেগমের কর্মী সমর্থকদের হামলায় জয়ী হওয়া (কলম প্রতীকের) মহিলা মেম্বার রাবেয়া বেগমের ভাগনা শাকিলকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। এ সময় কমপক্ষে আরও ১০ জন আহত হন।

এদিকে একই সময় শহরের উপকণ্ঠ পঞ্চসারের গোসাইবাগ এলাকায় জয়ী হওয়া আনারস প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী গোলম মোস্তফার কর্মী সমর্থকদের হামলায় অপর স্বতন্ত্র প্রার্থী টেলিফোন প্রতীকের মোহাম্মদ আলী সিদ্দিকীর চাচাতো ভাই রিয়াজুল শেখ নিহত হন।

ওসি মো. আবু বক্কর সিদ্দিক বলেন, কেন আর কীভাবে এসব ঘটনা ঘটেছে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

নরসিংদী: নরসিংদীর রায়পুরার চান্দেরকান্দীতে নির্বাচনী সহিংসতায় আরিফ (২৪) নামে এক সিএনজি চালক গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হয়েছেন। 

আজ রোববার সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টার দিকে চান্দেরকান্দী এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় পুলিশসহ আহত হয়েছেন কমপক্ষে আরো ৫ জন।

গুলিবিদ্ধ অবস্থায় ফরিদ নামে আরো একজনকে ঢাকা মেডিকেলে পাঠানো হয়েছে।

স্থানীয়রা জানায়, ভোট গণনা শেষে পুলিশ সদস্যরা যাওয়ার পথে চান্দেরকান্দি এলাকায় এ হামলার ঘটনা ঘটে। পরে দুর্বৃত্তরা এলোপাতাড়ি গুলি করলে সিএনজি চালক আরিফ মারা যায়। বর্তমানে নিহতের লাশ রায়পুরা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রয়েছে।

লক্ষ্মীপুর: লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে নির্বাচনী সহিংসতায় সাজ্জাদুর রহমান সজিব নামে এক ছাত্রলীগ নেতা নিহত হয়েছে। রোববার (২৮নভেম্বর) বিকেল ৫টার দিকে চাঁদপুর হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

এর আগে বিকেলে রামগঞ্জ উপজেলার ইছাপুর ইউনিয়নের নয়নপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্রের বাইরে আওয়ামী লীগ প্রার্থী ও স্বতন্ত্র প্রার্থী সমর্থকদের সংঘর্ষের ঘটনায় গুরুতর আহত হয় সজিব।

নিহত সজিব রামগঞ্জ উপজেলার ইছাপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি ও একই ইউনিয়নের নয়নপুর গ্রামের মৃত- আব্দুস সাত্তারের ছেলে।

স্থানীয় এলাকাবাসী ও পুলিশ জানয়, রামগঞ্জ উপজেলার ইছাপুর ইউপি নির্বাচনে নৌকা প্রতিকের পক্ষে সিলমারা নিয়ে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষে ছাত্রলীগ নেতা সজিবের মাথায় চাপাতি ও লাঠির আঘাতে গুরুতর আহত হয়। পরে এলাকাবাসী আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে চাঁদপুর হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক রায়হান মাহমুদ রুপক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

সজিবেরে মাথায় গুরুতর আঘাত লাগায় প্রচুর রক্তক্ষরণ হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে লক্ষ্মীপুরের পুলিশ সুপার ড. এ এইচ কামরুজ্জামান জানান, বিষয়টি তদন্ত চলছে।

এদিকে, একই উপজেলার নির্বাচনী এলাকা পৃথক স্থান থেকে বিপুল পরিমাণ অস্ত্রসহ ৪০ জনকে আটক করেছে আইনশৃঙ্খলাবাহিনী। এসয় এলজি, পিস্তল সহ বিপুল পরিমাণ অস্ত্র উদ্ধার করা হয়।

অপরদিকে, তৃতীয় ধাপের নির্বাচনে লক্ষ্মীপুর রামগঞ্জে বেশ কয়েকটি কেন্দ্রে একটি বিশেষ দল ও প্রতিকের পক্ষে প্রকাশ্য ভোট প্রদানের অভিযোগ ও এক স্বতন্ত্র প্রার্থীর গাড়ি ভাঙচুর করা হয়েছে। একই সঙ্গে ব্যালট পেপার ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা চালানোর অভিযোগও পাওয়া গেছে একাধিক কেন্দ্রে। এসব কেন্দ্রের বাইরে কিছুক্ষণ পর পর ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়ে আতঙ্ক সৃষ্টি করা হয়েছে। তবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের তৎপরতায় কোনো ভোট কেন্দ্র দখলের কোনো খবর পাওয়া যায়নি। এসব ঘটনায় অন্তত ২০ জনকে আটক করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

অপরদিকে, এজেন্টদের বের করে দেওয়া সহ নানা অভিযোগ এনে লক্ষ্মীপুর পৌরসভার হাতপাখা প্রতিকের মেয়র প্রার্থী মো. জহির উদ্দিন ২টার দিকে ভোট বর্জন করেন।

বিস্তারিত আসছে...

পরবর্তী খবর

ফের মেয়র নির্বাচিত প্রধানমন্ত্রীর ভাতিজা

অনলাইন ডেস্ক

ফের মেয়র নির্বাচিত প্রধানমন্ত্রীর ভাতিজা

ভোট কেন্দ্রে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভাতিজা আবু সালেহ মো. তাজিমুল ইসলাম শামীম।

রংপুরের পীরগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগ সমর্থিক প্রার্থী আবু সালেহ মো. তাজিমুল ইসলাম শামীম নির্বাচিত হয়েছেন। এ নিয়ে তিনি টানা দ্বিতীয়বার মেয়র হলেন। তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভাসুরপূত্র ও পরমানু বিজ্ঞানী ড. ওয়াজেদ মিয়ার ভাতিজা।

এবার নৌকা প্রতীকে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু সালেহ মো. তাজিমুল ইসলাম শামীম পেয়েছেন ৭ হাজার ৭০৪ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মাওলানা সুলতান মাহমুদ হাতপাখা প্রতীকে ভোট পেয়েছেন ২ হাজার ৬৬৩। লাঙ্গল প্রতীকে জাতীয় পার্টির প্রার্থী জায়দুল ইসলাম ১ হাজার ১৫৬ ভোট পেয়েছেন।

রোববার (২৮ নভেম্বর) সন্ধ্যায় ভোট গণনা শেষে বেসরকারিভাবে এ ঘোষণা দেন রিটার্নিং অফিসার এমদাদুল হক। এর আগে সকাল ৮টা থেকে টানা বিকেল ৪টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে ইভিএম পদ্ধতিতে প্রথমবারের মতো ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন ভোটাররা।

এছাড়া নির্বাচনে সাধারণ কাউন্সিলর পদে ১নং ওয়ার্ডে কবিরুল ইসলাম (উটপাখি), ২নং ওয়ার্ডে মশিউর রহমান পারভেজ (ডালিম), ৩নং ওয়ার্ডে রাসেল মিয়া (বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায়), ৪নং ওয়ার্ডে সাইফুল ইসলাম আজাদ (ডালিম), ৫নং ওয়ার্ডে আরমান আলী তালুকদার (উটপাখি), ৬নং ওয়ার্ডে আশরাফুল ইসলাম (পানির বেতল), ৭নং ওয়ার্ডে আলমগীর হোসেন (উটপাখি), ৮নং ওয়ার্ডে আব্দুর রাজ্জাক (পানির বোতল) এবং ৯নং ওয়ার্ডে নুরুল ইসলাম নুরু ( ডালিম) নির্বাচিত হয়েছেন।

আরও পড়ুন: 

ভোট নিয়ে সংঘর্ষে ছাত্রলীগ নেতার মৃত্যু

এছাড়া সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে ১নং ওয়ার্ডে এসমত আরা শেলী (চশমা), ২নং ওয়ার্ডে শাবানা খাতুন (চশমা) ও ৩নং ওয়ার্ডে সেলিনা আকতার শিখা (অটোরিকশা) নির্বাচিত হয়েছেন।

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর