মেসির জোড়া গোলে জয় পেল পিএসজি (ভিডিও)

অনলাইন ডেস্ক

মেসির জোড়া গোলে জয় পেল পিএসজি (ভিডিও)

একাদশে ছিলেন না নেইমার। তবে ছিলেন আরও দুই বড় তারকা ফুটবলার লিওনেল মেসি এবং কিলিয়ান এমবাপে। আর তাদের নৈপুণ্যে ৩-২ গোলে জার্মান ক্লাব লাইপজিগকে হারিয়ে জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে ফরাসি ক্লাবটি।

গতকাল মঙ্গলবার রাতে পার্ক দে প্রিন্সেসে চ্যাম্পিয়নস লিগের ম্যাচে লাইপজিগকে আতিথেয়তা দেয় পিএসজি। ম্যাচের প্রথম গোলটিও করে স্বাগতিকরা। জুলিয়ান ড্রাক্সলারের কাছ থেকে বল পেয়ে ডি বক্সের বাইরে থেকেই নেয়া দারুণ শটে দলকে এগিয়ে নেন এমবাপে।

তবে একটি গোলের পর পিএসজি যেন তাল হারিয়ে ফেলে। সুযোগ নেয় লাইপজিগ। ২৭ মিনিটে ক্লাবটির পর্তুগিজ ফরোয়ার্ড আন্দ্রে সিলভা বাঁ-প্রান্ত থেকে আসা অ্যাঞ্জেলিনোর মাটি ঘেঁষা ক্রস দারুণ প্লেসমেন্টে জড়ান জালে।

সিলভার গোলে সমতায় ফেরার পর দ্বিতীয়ার্ধে পিএসজিকে ভড়কে দেন নর্দি মুকিয়েলে। এবারো বাঁ-প্রান্ত থেকে সেই অ্যাঞ্জেলিনোর ক্রস, তবে বল এলো উড়ে। উড়ন্ত সেই বলকে জালে পাঠানোর কাজটি করলেন মুকিয়েলে। ৫৭ মিনিটে ভলি শটে পিএসজি গোলরক্ষক কেইলর নাভাসকে পরাস্ত করেন এই ফরাসি ডিফেন্ডার।

২-১ গোলে পিছিয়ে পড়া পিএসজিকে হার যখন উঁকি দিচ্ছিল, তখনই জেগে উঠলেন মেসি। আক্রমণভাগে তার রসায়ন জমে উঠল এমবাপের সঙ্গে। ৬৭ মিনিটে পিসজিকে সমতায় ফেরানো গোলটি আসে এ মৌসুমে পিএসজিতে যোগ দেয়া মেসির পা থেকে।

ডি বক্সে এমবাপের উদ্দেশ্যে প্রথমে বলটা মেসিই বাড়ান। তবে তিনি শট না নিয়ে সেই বল আবার দেন মেসিকে। এই আর্জেন্টাইন আর সময়ক্ষেপণ না করে জাদুকরী বাঁ পায়ে নেন শট। প্রথম শটে অবশ্য বল পোস্টে লেগে গোললাইনের কাছে ঘুরতে থাকে। সেই বল লাইপজিগের কেউ ক্লিয়ার করার আগেই মেসি ফিরতে শটে পাঠান জালে।

ম্যাচ শেষের ২৫ মিনিট আগে মেসির এই গোল জমিয়ে তোলে ম্যাচ। আত্মবিশ্বাস ফিরে পাওয়া পিএসজি বাড়িয়ে দেয় নিজেদের আক্রমণ। তার ফলটাও হাতেনাতে পায় মরিসিও পচেত্তিনো দল। ৭৩ মিনিটে এমবাপের গতির সঙ্গে পেরে না উঠে তাকে হাত দিয়ে অবৈধভাবে ডি বক্সে ফেলে দেন মোহামেদ সিমাকান। পেনাল্টি পায় পিএসজি।

আরও পড়ুন


‘ডু অর ডাই’ ম্যাচে সাকিব-মুস্তাফিজের কার্যকর বোলিংয়ে স্বস্তির জয়

বিশ্বে আবারও করোনায় সংক্রমণ ও মৃত্যু বেড়েছে

সুপার টুয়েলভের আশা বাঁচিয়ে রাখলো টাইগাররা

হজরত মুহাম্মদ (সা.) বিশ্বে শান্তির সুবাতাস বইয়ে দিয়েছিলেন


এমবাপে মাঠে থাকলেও, পেনাল্টি নেন মেসিই। খুঁজে নেন জালও। পেনাল্টি থেকে তার গোলটাও ছিল দেখার মতো। বিখ্যাত পানেনকা শটে পিএসজিকে স্বস্তির গোলটা এনে দেন এই আর্জেন্টাইন মহাতারকা।

ম্যাচের একদম অন্তিম মুহূর্তে আরেকটি পেনাল্টি থেকে ব্যবধান বাড়ানোর সুযোগ পেয়েছিল পিএসজি। মেসি হ্যাটট্রিকের সহজতম সুযোগের মায়া ছেড়ে এমবাপেকে নিতে দেন সেই পেনাল্টি। তবে এই ফরাসি তারকা স্পটকিক থেকে বল ক্রসবারের অনেক ওপর দিয়ে মারেন বাইরে। ফলে ৩-২ গোলের জয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয় স্বাগতিকদের।

এ জয়ে তিন ম্যাচে ৬ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ ‘এ’-এর দুইয়ে আছে ম্যানসিটি। ৪ পয়েন্ট নিয়ে তিনে ব্রুজ। এখন পর্যন্ত কোনো জয় না দেখা লাইপলিগ আছে চারেই। আর তিন খেলায় ৭ পয়েন্ট নিয়ে সবার ওপরে মেসি-এমবাপেদের পিএসজি।

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

মেসিকে ব্যালন ডি’অর দেওয়াকে ‘অন্যায়’ বলছে তারা

অনলাইন ডেস্ক

মেসিকে ব্যালন ডি’অর দেওয়াকে ‘অন্যায়’ বলছে তারা

ফুটবল যাদুকর আর্জেন্টাইন সুপারস্টার লিওনেল মেসি সপ্তমবারের মতো ব্যালন ডি’অর জিতলেন। নিজেকে ফের অন্যন্য উচ্চতায় নিয়ে গেলেন মেসি। কিন্তু তার ব্যালন ডি’অর ‍পুরস্কার দেওয়াটা কোনোভাবেই মেনে নিতে পারছেন না জার্মানরা। লেভানডফস্কি না পেয়ে পুরস্কারটা মেসি পাওয়াতে ক্ষোভে ফুঁসছেন তারা। 

জার্মানির সংবাদমাধ্যম, সাবেক ও বর্তমান খেলোয়াড় সবাই সমালোচনার ঝড় বইয়ে দিচ্ছেন। জার্মানির পত্রিকা বিল্ড ব্যালন ডি’অর নিয়ে তাদের লেখা খবরটির শিরোনাম দিয়েছে এ রকম— ‘এটা কীভাবে সত্যি হয়! এটা রীতিমতো একটা কেলেঙ্কারি।’

২০২০ সালের ব্যালন ডি’অর জয়ের লড়াইয়ে একচ্ছত্রভাবে এগিয়ে ছিলেন লেভানডফস্কি। ২০১৯-২০ মৌসুমে বায়ার্নকে চ্যাম্পিয়নস লিগ, জার্মান কাপ ও জার্মান সুপার কাপ জেতাতে বড় ভূমিকা রাখেন তিনি। 

কিন্তু গত বছর করোনাভাইরাস মহামারির কারণে পুরস্কারটি দেয়নি ফ্রান্স ফুটবল। গত মৌসুমেও লেভা ছিলেন দুর্দান্ত। বায়ার্নকে বুন্দেসলিগা ও জার্মান সুপার কাপ জিতিয়েছেন তিনি। বুন্দেসলিগা জয়ের পথে গড়েছেন অনন্য এক গোলের রেকর্ড। ৪১ গোল করে ভেঙেছেন বুন্দেসলিগায় এক মৌসুমে সর্বোচ্চ গোলের কিংবদন্তি গার্ড মুলারের ৪৯ বছরের রেকর্ড। এখন পর্যন্ত বায়ার্নের হয়ে ২০ ম্যাচ খেলে করেছেন ২৫ গোল।

অন্যদিকে মেসি গত মৌসুমে ক্লাব ফুটবলে তেমন কিছুই জিততে পারেননি। বার্সেলোনার জার্সিতে ভুলে যাওয়ার মতো একটি মৌসুমই কাটিয়েছেন আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড। এ মৌসুমে পিএসজিতে নাম লেখালেও চোট-টোট মিলিয়ে অনেকটা সময়ই ছিলেন মাঠের বাইরে। তবে এ বছর আর্জেন্টিনার হয়ে কাটিয়েছেন শিরোপা-খরা। প্রথমবারের মতো জাতীয় দলের হয়ে জিতেছেন বড় কোনো শিরোপা। মেসি নিজেও মনে করেন, আর্জেন্টিনার হয়ে ২০২১ কোপা আমেরিকা জয়ই তাকে এনে দিয়েছে ক্যারিয়ারের সপ্তম ব্যালন ডি’অর।

কিন্তু এসব যুক্তি মানতে পারছেন না বিশ্বকাপ জয়ী জার্মানির সাবেক অধিনায়ক লোথার ম্যাথাউস। ব্যালন ডি’অর পুরস্কার ঘোষণার পর ১৯৯০ বিশ্বকাপ জয়ী ম্যাথাউস বলেছেন, লিওনেল মেসি এবং মনোনীত বাকি সব খেলোয়াড়ের প্রতি পূর্ণ শ্রদ্ধা রেখেই বলছি, লেভানডফস্কির চেয়ে বড় দাবিদার আর কেউই নয়। 

বর্তমান খেলোয়াড়দের মধ্যে লেভার ব্যালন ডি’অর জিততে না পারা নিয়ে কথা বলেছেন রিয়াল মাদ্রিদের জার্মান মিডফিল্ডার টনি ক্রুস। তিনি বলেন, এমনটা ঘটা উচিত হয়নি। 

আরও পড়ুন:

গণপরিবহনে শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়া কার্যকর

হাফ পাস শুধুমাত্র ঢাকায় কার্যকর হবে বললেন এনায়েত উল্লাহ

কুমিল্লায় কাউন্সিলর হত্যা: ৬ হামলাকারী শনাক্ত


 

রিয়াল মাদ্রিদের সাবেক গোলকিপার ইকার ক্যাসিয়ার বলেন, কোনো সন্দেহ নেই যে- দশকের সেরা ফুটবলার মেসি ও ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। তবে এ বছর তাদের দুজনের চেয়ে অন্যরা এগিয়ে আছে।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

সপ্তম ব্যালন ডি'অর জিতে যা বললেন মেসি

অনলাইন ডেস্ক

সপ্তম ব্যালন ডি'অর জিতে যা বললেন মেসি

লিওনেল মেসি

তিন বছরের অপেক্ষা শেষে ২০১৯ সালে রেকর্ড ষষ্ঠ ব্যালন ডি’অর জিতেছিলেন লিওনেল মেসি। পুরষ্কার হাতে নিয়ে মেসি ভেবেছিলেন এটাই হয়তো তার শেষ ব্যালন ডি'অর হতে যাচ্ছে। কিন্তু দুই বছর পর আবারও আরেকটি পালক যুক্ত হল কিং মেসির ব্যালন ডি'অরের মুকুটে।

এক বছরের বিরতিতে অবশ্য অন্য কেউ মেসির রাজত্বে ভাগ বসায়নি। করোনাভাইরাস অতিমারিতে  ২০২০ সালের ব্যালন ডি’অর আয়োজনই করা হয়নি।

আর্জেন্টিনাকে ২৮ বছর পর প্রথম বড় ট্রফি জয়ে নেতৃত্ব দেওয়ায় এগিয়ে ছিলেন মেসি। ওই সাফল্যই তাকে এনে দিলো সপ্তম ব্যালন ডি’অর। 

মেসি বলেন, ‘আবারো এখানে থাকতে পারা অসাধারণ। দুই বছর আগে আমি ভেবেছিলাম এটাই শেষবার। কোপা আমেরিকা জয় মূল কারণ। এই কোপা আমেরিকা শিরোপা নিয়ে আমার জন্য বছরটা ছিল বিশেষ। মারাকানা স্টেডিয়ামে এটি জেতা ছিল অনেক কিছু এবং আর্জেন্টিনা থেকে আগত লোকদের সঙ্গে এটি উদযাপন করতে পারায় আমি ছিলাম খুব খুশি।’

মেসি আরো বলেন, ‘আমি জানি না এটা আমার জীবনের সেরা বছর ছিল কি না, আমার ক্যারিয়ার লম্বা। কিন্তু অনেক কঠিন সময় আর সমালোচনার পর আর্জেন্টিনার সঙ্গে শিরোপা জেতা ছিল বিশেষ কিছু।’

আরও পড়ুন:

‘সবাইকে সালাম’ লিখে গৃহবধূর আত্মহত্যা


news24bd.tv/ নকিব

পরবর্তী খবর

সপ্তমবারের মতো ডি’অর এর মালিক মেসি

অনলাইন ডেস্ক

সপ্তমবারের মতো ডি’অর এর মালিক মেসি

ব্যালন ডি’অর হাতে মেসি

ফুটবল যাদুকর আর্জেন্টাইন সুপারস্টার লিওনেল মেসি। আরও একবার নিজেকে প্রমাণ করলেন এই বিশ্বতারকা। নিজেকে ফের অন্যন্য উচ্চতায় নিয়ে গেলেন মেসি। সপ্তমবারের মতো ব্যালন ডি’অর জিতলেন তিনি।

মঙ্গলবার (৩০ নভেম্বর) প্যারিসের থিয়েটার ডু চ্যাটেলেটে এক জাঁকজমকপূর্ণ অনুষ্ঠানে নিজের রেকর্ড আরও সমৃদ্ধ করে এ পুরষ্কার হাতে তুলে নেন মেসি। খবর দ্যা গোল ডট কমের।

ফ্রান্স ম্যাগাজিনের জরিপে ২০১২ সালে বিশ্বের সেরা খেলোয়াড় হয়েছেন ৩৪ বছর বয়সী এ তারকা। ফ্রান্স ফুটবল ম্যাগাজিনের দেওয়া গত বছরের সেরা খেলোয়াড়ের এ পুরস্কার জয়ের দৌড়ে এগিয়ে ছিলেন পিএসজির আর্জেন্টাইন এ তারকা। রবার্ট লেওয়ানডস্কি এই পুরস্কার জয়ে ছিলেন মেসির নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী। লড়াইটা শুধু এই দুজনের মধ্যেই দেখেছেন বেশির ভাগ বিশ্লেষক।

শেষ পর্যন্ত ভোটাভুটিতে রবার্ট লেওয়ানডস্কিকে হারিয়ে নিজের সর্বোচ্চসংখ্যক ব্যালন ডি’অর জয়ের রেকর্ডকে আরও এক ধাপ উঁচুতে নিয়ে গেলেন মেসি।

২০২১ সালের গ্রহের সেরা খেলোয়াড় হিসাবে স্বীকৃতি পেয়ে, মেসি এখন চির প্রতিদ্বন্দ্বী ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের পাঁচবারের বিজয়ী রিশ্চিয়ানো রোনালদোর থেকে দুই ধাপের ব্যবধানে এগিয়ে রইলেন।

আরও পড়ুন


আটটি বাসে আগুন দিল উত্তেজিত জনতা

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

ম্যান ইউ কোচ হলেন র‍্যাংনিক

অনলাইন ডেস্ক

ম্যান ইউ কোচ হলেন র‍্যাংনিক

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের অন্তর্বর্তীকালীন কোচ হচ্ছেন রালফ র‍্যাংনিক। কাজের ভিসার শর্ত সাপেক্ষে মৌসুম শেষ না হওয়া পর্যন্ত ম্যানেজার হিসেবে র‍্যাংনিককে নিয়োগ দিয়েছে দলটি।ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগসহ চ্যাম্পিয়ন্স লিগে হতশ্রী পারফরমেন্সের কারণে চাকরি হারিয়েছেন ওলেগানার শোলশায়ার। ওলের জায়গায়ই স্থলাভিষিক্ত হলেন জার্মান এই কোচ।

ইউনাইটেডে যোগ দিয়ে বেশ উচ্ছ্বসিত র‍্যাংনিক বলেন, আমি ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে যোগ দিতে পেরে উচ্ছ্বসিত এবং একটি সফল মৌসুম করার দিকেই মনোনিবেশ করছি।

'দলটি প্রতিভায় পূর্ণ এবং তারুণ্য এবং অভিজ্ঞতার একটি দারুণ ভারসাম্য রয়েছে। আগামী ছয় মাস আমার প্রচেষ্টা থাকবে এই খেলোয়াড়দের ব্যক্তিগত ও দল হিসাবে তাদের সকল সহায়তা করা। এর বাইরে, আমি পরামর্শের ভিত্তিতে ক্লাবের দীর্ঘমেয়াদী লক্ষ্যগুলো পূরণ করতেও উন্মুখ বলেও জানানি তিনি।

তবে ভিসাজনিত জটিলতার কারণে এখনই দলের সঙ্গে যোগ দিতে পারছেন না র‍্যাংনিক। দলের সঙ্গে যোগ দিলেই বর্তমানে অন্তর্বর্তীকালীন কোচ হিসেবে দায়িত্ব পালন করা মাইকেল ক্যারিক কাজ করবেন তার পরামর্শক হিসেবে।

এর আগে রাশিয়ার ক্লাব লোকোমোটিভ মস্কোর স্পোর্টস অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট বিভাগের প্রধানের দায়িত্ব পালন করেছেন র‍্যাংনিক। মাত্র ২৫ বছর বয়সে কোচিং ক্যারিয়ার শুরু করা র‍্যাংনিক কোচ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন স্টুটগার্ট, হফেনহাইম, শালকে ও হানোভারের।

আরও পড়ুন:


ফের মেয়র নির্বাচিত প্রধানমন্ত্রীর ভাতিজা

হেফাজত মহাসচিব নুরুল ইসলাম জিহাদী না ফেরার দেশে

পীরগঞ্জে গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত বেড়ে ৩


জার্মান কোচ ইয়ুর্গেন ক্লপ, টমাস টুখেল, নাগলসম্যানেরা যে গেগেনপ্রেসিং কৌশলের জন্য বিখ্যাত, তার আধুনিক যুগের কাণ্ডারি মানা হয় র‍্যাংনিককে। টমাস টুখেলকেও কোচিং ক্যারিয়ার শুরু হয়েছিল এই জার্মানের মাধ্যমেই।

 news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

কে পাচ্ছেন ফুটবল বিশ্বের সবচেয়ে সম্মানজনক পুরস্কার ডি’অর !

অনলাইন ডেস্ক

কে পাচ্ছেন ফুটবল বিশ্বের সবচেয়ে সম্মানজনক পুরস্কার ডি’অর !

লিওনেল মেসি

আর মাত্র কয়েক ঘণ্টা পরই জানা যাবে কার হাতে উঠছে ফুটবল বিশ্বের সবচেয়ে সম্মানজনক পুরস্কার ফিফা ব্যালন ডি’অর। 

আজ সোমবার (২৯ নভেম্বর) প্যারিসের চ্যাটেলেট থিয়েটার থেকে স্থানীয় সময় ৮টা এবং বাংলাদেশ সময় দিবাগত রাত ২টায় জানা যাবে কে হচ্ছেন বিশ্ব ফুটবলের নতুন সেরা।

গুঞ্জন রয়েছে সপ্তমবারের মতো ফুটবলের সবচেয়ে মর্যাদার এই পুরস্কার জিততে চলেছে লিওনেল মেসি। তবে অনেকেই বলছেন ব্যালন ডি'অর জিতবেন রবার্ট লেওয়ানডোস্কি। এটা নিশ্চিতভাবেই বলা যায় এই দুজনের যে কোনো একজনের হাতেই হয়তো উঠতে যাচ্ছে এবারের ব্যালন ডি'অর।

আরও পড়ুন: 


নির্বাচনে সহিংসতা, বিজিবি সদস্যসহ নিহত ৯

নৌকার প্রার্থীকে হারাল তৃতীয় লিঙ্গের প্রার্থী

মাদারীপুরে ১৪ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেন যারা


ফুটবল বিশ্বে এখন আলোচনার কেন্দ্রে ব্যালন ডি'অর। এক বছর বিরতির পর আবারো ফিরছে ফুটবলের সবচেয়ে সম্মানজনক এই পুরস্কার। আর মাত্র কয়েক ঘণ্টা পরেই ঘোষণা করা হবে গ্রহের সেরা ফুটবলারের নাম।

এ বছরের ব্যালন ডি’অরের জন্য গত ৩০ অক্টোবর ঘোষণা করা হয় ৩০ জনের সংক্ষিপ্ত তালিকা। এরপর চলতি মাসের ২৪ নভেম্বর পর্যন্ত ভোটাভুটি চলে। এদিকে, যথারীতি ব্যালন ডি’অর নিয়ে অনেক গুঞ্জন শোনা গেলেও যারা পুরস্কার দেবে তারা যেন মুখে কুলুপ এঁটে রেখেছেন। সব রোমাঞ্চ জমা রেখেছেন গালা অনুষ্ঠানের জন্য। 

ব্যালন ডি'অরকে অনেকটা নিজেদের ব্যক্তিগত সম্পদ বানিয়ে ফেলেছেন লিওনেল মেসি এবং ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। মেসি সর্বোচ্চ ছয়বার এবং দ্বিতীয় সর্বোচ্চ পাঁচবার পুরস্কারটি জিতেছেন রোনালদো।

অনেকেই বলছেন ২৮ বছর পর দেশকে কোনো শিরোপা এনে দেওয়া লিওনেল মেসির হাতেই উঠছে এবারের ব্যালন ডি’অর। এমনকি এরই মধ্যে তা জানিয়ে দেওয়া হয়েছে মেসিকে। বিষয়টি মেসিও শেয়ার করেছেন ঘনিষ্ঠ বন্ধু ও পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে। আবার কারো বাজি রবার্ট লেওয়ানডোস্কির পক্ষে।

news24bd.tv/ কামরুল 

পরবর্তী খবর