ক্ষীরশাপাতি আমের পর এবার আরও দুইটি পণ্য জিআই সনদ পাচ্ছে

অনলাইন ডেস্ক

ক্ষীরশাপাতি আমের পর এবার আরও দুইটি পণ্য জিআই সনদ পাচ্ছে

ক্ষীরশাপাতি আমের পর খুব শিগগিরই জিওগ্রাফিক্যাল ইনডিকেটর বা জিআই সনদ পেতে যাচ্ছে রসালো ফজলি আম এবং কালো ডোরা কাটা বাগদা চিংড়ি। ফজলি আমের জিআই সনদের আবেদন করেছিল ফল উন্নয়ন গবেষণা কেন্দ্র। আর বাগদা চিংড়ির জন্য আবেদন করে মৎস্য অধিদপ্তর।

ফজলি আম ও বাগদা চিংড়ির জিআই পণ্য হিসেবে স্বীকৃতি দিতে গেজেট প্রকাশ করা হয়ে গেছে। ১৫ দিনের মধ্যে সনদ দেওয়ার কাজ শেষ হবে বলে গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন সরকারের পেটেন্টস, ডিজাইন এবং ট্রেডমার্ক বিভাগের রেজিস্টার মো. আবদুস সাত্তার।

আবহাওয়া, মাটি, পানি ও ভৌগলিক গঠনের ওপরে যেকোনো কৃষি পণ্যের বৈশিষ্ট্য, ঘ্রাণ ও স্বাদ নির্ভর করে এবং নির্দিষ্ট অঞ্চলেই সেটা হয়। এমন পণ্যকেই জিআই সনদ দেওয়ার ক্ষেত্রে বিবেচনা করা হয়।

যেমন এশিয়ার বেশ কিছু দেশে 'ব্ল্যাক টাইগার শ্রিম্প' বা বাগদা চিংড়ি পাওয়া যায়। কিন্তু আমাদের এখানে যেটা হয় সেটার বৈশিষ্ট্য অন্য কোনটার সাথে মিলবে না। অন্য কোথাও চাষ হলেও সেটার স্বাদ ও ঘ্রাণ মিলবে না।

নিয়ম অনুযায়ী স্বীকৃতির জন্য আবেদন আসার পরে এই দুটি কৃষি পণ্যের ভৌগলিক নির্দেশক যাচাই করা হয়েছে, দুটি জার্নাল প্রকাশ করা হয়েছে। এই পণ্যের নির্দেশক নিয়ে এখনো কেউ আপত্তি করেনি। জার্নাল প্রকাশের দুই মাসের মধ্যে এটি নিজেদের বলে কেউ আপত্তি না করলে সনদ দেওয়া হবে বলে জানান তিনি।

আরও পড়ুন


দীপিকাকে না করতে পারিনি: তাহসান

প্রবাল দ্বীপ সেন্ট মার্টিন ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা

বুধবার রাজধানীর যেসব এলাকার মার্কেট বন্ধ থাকবে

প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদের গান ও নাচের ভিডিও ভাইরাল (ভিডিও)


জিআই সনদ পেলে সেই পণ্য দেশটির ব্র্যান্ড হয়ে যায়। পণ্যটি উৎপাদন করার অধিকার এবং আইনি সুরক্ষা পায়। অন্য দেশ আর সেগুলোকে নিজেদের বলে দাবি করতে পারে না। আর এতে করে বিশ্ববাজারে এর চাহিদা ও গ্রহণযোগ্যতা বাড়ে। ফলে দামও ভালো পাওয়া যায়।  

বাংলাদেশের মোট নয়টি পণ্য এ পর্যন্ত জিআই সনদ পেয়েছে। যার মধ্যে রয়েছে ইলিশ মাছ, চাঁপাইনবাবগঞ্জের ক্ষীরশাপাতি আম, দিনাজপুরের কাটারিভোগ ও বাংলাদেশি কালোজিরা, জামদানি, ঢাকাই মসলিন, রাজশাহীর সিল্ক, রংপুরের শতরঞ্জি এবং নেত্রকোনার বিজয়পুরের সাদা মাটি।

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

উদ্যোক্তা তৈরির জন্য সব ধরনের পদক্ষেপ নিচ্ছি: প্রধানমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

উদ্যোক্তা তৈরির জন্য সব ধরনের পদক্ষেপ নিচ্ছি: প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শিক্ষাজীবন শেষ করে চাকরির পেছনে না ছুটে উদ্যোক্তা হতে তরুণ প্রজন্মের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। উদ্যোক্তা তৈরি করার জন্য আওয়ামী লীগ সরকার সব ধরনের পদক্ষেপ নিচ্ছে।

তিনি বলেন, ‘পাস করেই চাকরির পেছনে না ছুটে, নিজেরা উদ্যোক্তা হতে হবে এবং অন্যকে চাকরি দেওয়ার সুযোগ তৈরি করতে হবে।’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ ‘৯ম জাতীয় এসএমই পণ্য মেলা-২০২১’-এর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির ভাষণে এ কথা বলেন। তিনি রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আয়োজিত মূল অনুষ্ঠানে ভিডিও কনফারেন্সের সাহায্যে গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি সংযুক্ত হন।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘তরুণ সমাজকে শিক্ষার সুযোগ করে দিয়েছি। কারিগরি শিক্ষা এবং ভোকেশনাল ট্রেনিংয়েরও সুযোগ করে দিয়েছি। পাশাপাশি কম্পিউটার ট্রেনিংয়ের মাধ্যমে অনলাইনে সব রকম ব্যবসা বাণিজ্য যাতে করতে পারে সে ব্যবস্থাও করে দিয়েছি।’

আরও পড়ুন


চট্টগ্রামেও হাফ ভাড়া নেওয়ার ঘোষণা


প্রধানমন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার যুব সমাজের কল্যাণে স্টার্টআপ প্রোগ্রাম নিচ্ছে এবং এ জন্য বাজেটে আলাদা টাকাও বরাদ্দ আছে। কাজেই উদ্যোক্তা হতে চাইলে, যে কেউ হতে পারে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশে এখন ব্রডব্যান্ড সুবিধা প্রায় ইউনিয়ন পর্যায় পর্যন্ত পৌঁছে যাচ্ছে। বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ উৎক্ষেপণ করা হয়েছে। মোবাইল ফোন সবার হাতে হাতে পৌঁছে গেছে।

ডিজিটাল ডিভাইসের মাধ্যমে যোগাযোগ খুব সহজ হয়ে গেছে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রি বলেন, ‘ক্রয়-বিক্রয়, পণ্যমান—সবকিছু জানার একটা সুযোগ হচ্ছে। বাজার সম্পর্কে জানার সুযোগ হচ্ছে। বাজারের চাহিদা ও পণ্যের মূল্য সম্পর্কে জানার সুযোগ হচ্ছে। এ সুবিধাগুলো কিন্তু এখন চলে এসেছে। যার ফলে আমি মনে করি আমাদের মানুষের আর কষ্ট করার কোনো অর্থ হয় না। একটু স্ব-উদ্যোগে কাজ করলেই কিন্তু নিজেরা উদ্যোক্তা হতে পারেন এবং নিজেরা কাজ করতে পারেন।’

মারাত্মক করোনাভাইরাস আক্রমণের কারণে ১৯ মাস বিরতির পর এসএমই ফাউন্ডেশন এবারের মেলার আয়োজন করেছে। ২০২০ সালের মার্চ মাসে শেষ এসএমই মেলার আয়োজন করেছিল, যখন দেশে করোনভাইরাস সংক্রমণের প্রথম কয়েকটি কেস শনাক্ত হওয়ার পরে দ্রুত গুটিয়ে যায়।

১২ ডিসেম্বর পর্যন্ত প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত  চলমান এ মেলায় প্রথম বারের মতো ১০টি ব্যাংক, আর্থিক প্রতিষ্ঠান এবং ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) অংশ নিচ্ছে। পাশাপাশি সারা দেশ থেকে বাছাই করা ৩০০ এসএমই প্রতিষ্ঠান অংশ নিচ্ছে, যাদের প্রায় ৬০ শতাংশ নারী উদ্যোক্তা।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে বিশেষ অতিথি এবং অনুষ্ঠানে সভাপতি শিল্পমন্ত্রী নুরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ুন জাতীয় এসএমই পুরস্কার ২০২১ বিজয়ী চার উদ্যোক্তার হাতে ক্রেস্ট, সনদ ও চেক তুলে দেন।

বিশেষ অতিথি এবং আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে শিল্প প্রতিমন্ত্রী কামাল আহমেদ মজুমদার, শিল্প সচিব জাকিয়া সুলতানা, এফবিসিসিআই সভাপতি মো. জসিম উদ্দিন এবং এসএমই ফাউন্ডেশনের চেয়ারপারসন ড. মো. মাসুদুর রহমান বক্তৃতা দেন।

মুজিববর্ষ এবং স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদ্‌যাপনকালে দেশে শতভাগ বিদ্যুতায়নের অঙ্গীকার পুণর্ব্যক্ত করে সরকারপ্রধান বলেন, ‘আজকে শতভাগ বিদ্যুৎ যখন দেওয়া হচ্ছে, পাশাপাশি যোগাযোগ ব্যবস্থার ব্যপক উন্নয়ন আমরা করে দিয়েছি। আর, একটা জায়গায় বিদ্যুৎ ও যোগাযোগ ব্যবস্থা যদি থাকে, তাহলে সেখানে পণ্য উৎপাদন ও বাজারজাতকরণে কোনো সমস্যা হয় না।’

আমাদের দেশে কাঁচামালের সহজলভ্যতা রয়েছে, সে বিবেচনাতেও দেশে শিল্প গড়ে উঠতে পারে বলে অভিমত ব্যক্ত করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘এতে করে আমার নিজের দেশে যেমন বাজার সম্প্রসারণ হচ্ছে এবং মানুষের ক্রয় ক্ষমতা বাড়ছে, সেইসঙ্গে বিদেশেও আমরা রপ্তানি করতে পারব, আমাদের রপ্তানি পণ্য বৃদ্ধি পাবে।’ সেজন্য আমাদের পণ্যগুলো যাতে আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন হয় সেদিকে দৃষ্টি দেওয়ার আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী। সূত্র: বাসস।

news24bd.tv/ কামরুল 

পরবর্তী খবর

বঙ্গবন্ধু তৃণমূল থেকে তার সংগ্রাম শুরু করেছিলেন: পুতুল

অনলাইন ডেস্ক

বঙ্গবন্ধু তৃণমূল থেকে তার সংগ্রাম শুরু করেছিলেন: পুতুল

ফাইল ছবি

শেখ হাসিনার কন্যা আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন অটিজম বিশেষজ্ঞ সায়মা ওয়াজেদ পুতুল বলেছেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কত তৃণমূল থেকে তার সংগ্রাম শুরু করেছিলেন আজ অনেকই তা ভুলে গেছেন।

আজ রোববার (৫ ডিসেম্বর) ফরেন সার্ভিস একাডেমিতে ‘বিশ্ব শান্তি সম্মেলন’ উপলক্ষে অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি তিনি এসব কথা বলেন।

সায়মা ওয়াজেদ বলছেন, আমার নানা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান তার সারাজীবন মানুষের শান্তির জন্য সংগ্রাম করেছেন। বঙ্গবন্ধু কত তৃণমূল থেকে তার সংগ্রাম শুরু করেছিলেন আজ অনেকই তা ভুলে যান। তার রাজ‌নৈ‌তিক ক্যারিয়ার যে তৃণমূল থে‌কে শুরু করা সেটাও অনে‌কে ভু‌লে যান।

আরও পড়ুন


চট্টগ্রামেও হাফ ভাড়া নেওয়ার ঘোষণা


তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু সংলাপে বিশ্বাস করতেন এবং সাধারণ মানুষের অধিকারের জন্য দাঁড়িয়ে যেতেন, লড়াই করতেন। তিনি বিশ্বাস করতেন শান্তি তখনই অর্জন হবে যখন সমাজে ভয়হীনতা, সাম্য ও ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠা হবে।

news24bd.tv/ কামরুল 

পরবর্তী খবর

শাহবাগে শিক্ষার্থীদের প্রতীকী লাশের মিছিল

অনলাইন ডেস্ক

শাহবাগে শিক্ষার্থীদের প্রতীকী লাশের মিছিল

শাহবাগে প্রতীকী লাশের মিছিল

সড়কে নিরাপত্তা নিশ্চিত করা ও সারা দেশে গণপরিবহনে অর্ধেক ভাড়ার (হাফ পাস) শর্তহীন প্রজ্ঞাপন জারি করাসহ ৯ দফা দাবিতে রাজধানীর শাহবাগে প্রতীকী লাশের মিছিল করেছে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা।

আজ রোববার দুপুর ১টার দিকে তারা এ মিছিল করেন। মিছিলে রাজধানীর বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা অংশ নেন।

শিক্ষার্থীরা শাহবাগ থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি এলাকা পর্যন্ত মিছিল করেন। পরে তারা রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করে পরবর্তী কর্মসূচি ঘোষণা করেন। 

আরও পড়ুন:


চট্টগ্রামেও হাফ ভাড়া নেওয়ার ঘোষণা

লকডাউন দেয়ার বিষয়ে যা জানালেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী


নিরাপদ সড়ক আন্দোলনের অন্যতম সমন্বয়ক ইনজামুল হক পরবর্তী কর্মসূচির ঘোষণা দিয়ে বলেন, সড়ক ব্যবস্থায় আলোর পথ দেখানোর জন্য আগামীকাল আমরা শহীদ মিনারে মোমবাতি প্রজ্জ্বলন কর্মসূচি পালন করব। পাশাপাশি সেখানে প্রতিবাদী গানের আসর হবে। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আমাদের আন্দোলন চলবে।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

খালেদার বিদেশে চিকিৎসার বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে: আইনমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

খালেদার বিদেশে চিকিৎসার বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে: আইনমন্ত্রী

ফাইল ছবি

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিদেশে উন্নত চিকিৎসার কোনো সুযোগ আইনে আছে কি না তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক।

রোববার (৫ ডিসেম্বর) এক অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন তিনি। 

বিস্তারিত আসছে...

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

লকডাউন দেয়ার বিষয়ে যা জানালেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী

নাজমুল হুদা, সাভার

লকডাউন দেয়ার বিষয়ে যা জানালেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী

বিশ্বে আবারও নতুন করে করোনা নিয়ে উদ্বেগ দেখা দিয়েছে। করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন নিয়ে চিন্তিত সবাই। এরইমধ্যে বিশ্বের অনেক দেশেই এই ভ্যারিয়েন্ট ছড়িয়ে গেছে। বাংলাদেশও আছে সতর্ক অবস্থানে।

তবে ওমিক্রন নিয়ে লকডাউন দেওয়া হবে কি না এ বিষয়ে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। তিনি বলেছেন, ওমিক্রনের কারণে এখনই লকডাউন দেওয়ার পরিকল্পনা নেই। সীমান্ত বন্ধ না হলেও ল্যাব পরীক্ষার উপর জোর দিচ্ছে সরকার।

রোববার (৫ ডিসেম্বর) দুপুরে সাভারে বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব হেলথ ম্যানেজমেন্টের (বিআইএইচএম) নির্মাণাধীন ভবনের কাজের অগ্রগতি পরিদর্শনে গিয়ে এ কথা জানান তিনি।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, বিমানবন্দরের ল্যাবকে আরও বড় ও আধুনিকায়ন করা হয়েছে। বিদেশ থেকে আগতদের কোয়ারিন্টাইন নিশ্চিতে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। এসময় মন্ত্রী ওমিক্রন রোধে ভ্যাকসিন নিতে ও স্বাস্থবিধি মেনে চলতে জনগনকে সচেতন হওয়ার আহবান জানান। এছাড়া বুষ্টার ডোজ দেয়ার পরিকল্পনা চলছে বলেও জানান মন্ত্রী।

জাহিদ মালেক আরও বলেন, ‘৬০ বছরের ওপরে যারা আছেন তাদের বুস্টার ডোজ দেওয়া হবে। এ ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রী অনুমোদন দিয়েছেন। আপনারা জানেন ইতোমধ্যে অনেক দেশেই বুস্টার ডোজ দেওয়া শুরু করেছেন। ভারতসহ পার্শ্ববর্তী কয়েকটি দেশেও বুস্টার ডোজের কার্যক্রম শুরু হয়েছে। আমাদের টিকার কোনো অভাব নেই। আমরা বুস্টার ডোজও দিতে পারব ইনশাআল্লাহ।’

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন, দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ডিজি অধ্যাপক ডাঃ আবুল বাশার মোহাম্মাদ খুরশিদ আলম, স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সিনিয়র সচিব লোকমান হোসেন মিয়া, অতিরিক্ত সচিব মোঃ সাইদুর রহমান, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা। সাভার পৌরসভার মেয়র হাজী আব্দুল গণি, সাভার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাজহারুল ইসলাম, সাভার উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ সায়েমুল হুদা।

উল্লেখ্য, ডাক্তার ও নার্সদের পেশাগত প্রশিক্ষণের মাধ্যমে আরো দক্ষ করে তুলতে সাভারে তৈরি হচ্ছে বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব হেলথ ম্যানেজমেন্ট’ বিআইএইচএম এর ১২ তলা আধুনিক ভবনটি। যার সার্বিক দেখভালে দায়িত্ব রয়েছে ঢাকা জেলা সিভিল সার্জন। এখানে ডাক্তার ও স্বাস্থ্যকর্মীদের আবাসিক ও অনাবাসিক বিশ্বমানের প্রশিক্ষণ ব্যবস্থা হবে।

আরও পড়ুন


চট্টগ্রামেও হাফ ভাড়া নেওয়ার ঘোষণা

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর