পূজামন্ডপে হামলার পেছনে নষ্ট রাজনীতির উসকানি: টরন্টোয় আলোচনায় অভিমত
পূজামন্ডপে হামলার পেছনে নষ্ট রাজনীতির উসকানি: টরন্টোয় আলোচনায় অভিমত

পূজামন্ডপে হামলার পেছনে নষ্ট রাজনীতির উসকানি: টরন্টোয় আলোচনায় অভিমত

Other

বিভিন্ন সময়ে সংঘটিত সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাস এবং হিন্দুদের উপর হামলা নির্যাতনের বিচার না হওয়ার কারনে বাংলাদেশে সাম্প্রদায়িক উন্মাদনা বেড়েছে বলে মন্তব্য করেছেন কানাডার বাংলাদেশি বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ।  

তারা দুর্গাপূজার সময়ে দেশের বিভিন্নস্থানে সংঘটিত ন্যাক্কারজনক হামলার পেছনে নষ্ট রাজনীতির উসকানি রয়েছে বলে মন্তব্য করেন।

কানাডার বাংলা পত্রিকা নতুনদেশ এর প্রধান সম্পাদক শওগাত আলী সাগরের সঞ্চালনায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সম্প্রচারিত ‘শওগাত আলী সাগর লাইভে’র আলোচনায় অংশ নিংয়ে তারা এই কথা বলেন। আলোচনায় অংশ নেন বিশিষ্ট বুদ্ধিজীবি কবি আসাদ চৌধুরী, টরন্টোর ডেনফোর্থ ইসলামিক সেন্টার মসজিদের ইমাম হাফেজ মা্ওলানা ফারুক আহমদ এবং টরন্টো হিন্দু কালচারাল সোসাইটি ও মন্দিরের সাবেক প্রেসিডেন্ট শিবু চৌধুরী।

স্থানীয় সময় বুধবার রাতে ‘বাংলাদেশের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির সংকট কোথায়!’ শীর্ষক এই আলোচনায় বক্তারা হিন্দু মন্দির ও বাড়ীঘরে হামলাকে ফৌজদারি অপরাধ হিসেবে বিবেচনা করে দুর্বৃত্তদের আইনানুগ বিচার নিশ্চিত করার দাবি জানান।  

কবি আসাদ চৌধুরী তাঁর আলোচনায় স্বাধীনতা পূর্বকাল থেকে উপমহাদেশের সাম্প্রদায়িক ঘাত প্রতিঘাত এবং সৌহার্দ্যের অনবদ্য চিত্র তুলে ধরে বলেন. পরষ্পরের প্রতি অবিশ্বাস সন্দেহ মানুষের ক্ষতি করে, তাদের ছোট করে দেয়। আমরা এখন পরষ্পরের প্রতি অবিশ্বাস এবং সন্দেহের মধ্যে বসবাস করি। এটা দুর করতে হবে। সংখ্যায় যারা বেশি তাদেরই এই ক্ষেত্রে এগিয়ে আসতে হবে।   

বাংলাদেশের সাম্প্রদায়িক উসকানির পেছন রাজনীতির ইন্ধন আছে বলে উল্লেখ করে খ্যাতিমান কবি আসাদ চৌধুরী বলেন, ভারত উপমহাদেশের রাজনীতিতে ধর্ম একটা বিরাট ফ্যাক্টর। বাংলাদেশের ঘটনা নিয়ে মমতা একটি কথাও বলেনি। তার কারন পশ্চিমবঙ্গে উল্লেখযোগ সংখ্যক মুসলিম ভোটার রয়েছে। তিনি বলেন, ক্ষমতায় যারা আছে তারা ক্ষমতায় থাকতে চায়, যারা নাই তারা ক্ষমতায় যেতে চায়- হিন্দুদের কী হলো না হলো তাতে তাদের কিছু যায় আসে না। তিনি বলেন, বাংলাদেশে জাতীয় নির্বাচন নিয়ে কথাবার্তা হচ্ছে, ভারতের কোনো কোনো এলাকায় তুমুল রাজনৈতিক সংকট চলছে। সাম্প্রতিক সাম্প্রদায়িক উসকানির আলোচনায় এই বিষয়গুলোকে মাথায় রাখার পরামর্শ দেন তিনি।  

 কুমল্লিার ঘটনার উল্লেখ করে তিনি বলেন, হনুমানের পায়ের কাছে কোরান শরীফ রাখাতে কেবল মুসলমানরাই অপমানিত হয়েছে, হিন্দুরা কী অপমানিত হয়নি? মুসলমানদের ধর্মকে অপমান করার অভিযোগে একজন হিন্দু তরুনকে গ্রেফতার করা হয়েছে কিন্তু যারা উসকানি দিয়ে, উত্তেজিত করেছে তাদের কাউকেই কিন্তু ধরা হয়নি। মুসলমানদের গালাগালি করলে আইন শক্তভাবে প্রয়োগ হবে, দেশে দাঙ্গা বেেঁধে যাবে আর হিন্দুদের গালাগালি করলে কিছুই হবে না- এমন পরিস্থিতি মোটেও কাম্য নয়।  

তিনি হিন্দুদের উপর হামলাকে ফৌজদারি অপরাধ হিসেবে উল্লেখ করে বলেন, বাংলাদেশের নাগরিকের উপর অত্যচার হয়েছে তার বিচার হতে হবে। হিন্দু কী মুসলমান এটা কোনো কথা না, যারা অপরাধ করেছে তাদের বিচারের আ্ওতায় আনতে হবে। বিচার করার ক্ষেত্রে নির্বাচনের দিকে তাকিয়ে থাকলে চলবে না।  

ডেনফোর্থ ইসলামিক সেন্টার মসজিদের ইমাম হাফেজ মাওলানা ফারুক আহমদ হিন্দু- মুসলমানসহ বিভিন্ন ধর্মের নেতৃস্থানীয় ব্যক্তিদের সমন্বয়ে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির স্বপক্ষে প্রচারণার পরামর্শ দিয়ে বলেন, বিভিন্ন ধর্মের মানুষের মধ্যে ’ইন্টারফেইথ হারমোনি’র চর্চা বাড়ানো গেলে সাধারন মানুষের মধ্যে সহনশীলতা বাড়বে।  

ইমাম ফারুক আহমদ বলেন, সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে বায়তুল মোকারমসহ বিভিন্ন মসজিদের ইমাম এবং ইসলামী নেতাদের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে উল্লেখ করে তিনি বলেন, কুমিল্লার ঘটনার পরপরই বায়তুল মোকারমসহ বিভিন্ন মসজিদের ইমাম সাহেবরা পূজামন্ডপের হামলা না করার ফতোযা বা নির্দেশনা দিলে সেটি কার্যকর হতে পারতো।  
টরন্টোর বিভিন্ন মসজিদে আগামী শুক্রবার জুমার খুতবায় বাংলাদেশে ভিন্নধর্মাবলম্বীদের উপর নিপীড়রের বিপক্ষে ইসলামের নির্দেশনা তুলে ধরে বক্তব্য রাখার ব্যাপারে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ইমামদের মধ্যে আলোচনা হচ্ছে বলে তিনি উল্লেখ করেন।  

আরও পড়ুন:

পূজামণ্ডপে কোরআন রাখা কে এই ইকবাল?

আগামী মাসেই ফেসবুকের প্রতিদ্বন্দ্বী নিয়ে আসছেন ট্রাম্প

পূজামণ্ডপে কোরআন শরিফ রেখে গদা নিয়ে যায় ইকবাল

মানবদেহে প্রতিস্থাপিত হল শূকরের কিডনী


টরন্টো হিন্দু কালচারাল মন্দিরের সাবেক সভাপতি শিবু চৌধুরী বিভিন্ন সময়ে হিন্দুদের উপর হামলা নির্যাতনের বিচার না হ্ওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, আমরা বাংলাদেশের নাগরিক। নিজ দেশে আমরা কেন নীপিড়ত হবো। নিজ দেশের আইন কেন আমাদের প্রটেকশন দেবে না।

নতুনদেশ এর প্রধান সম্পাদক শওগাত আলী সাগর তাঁর আলোচনায় বলেন, ধর্মের অবমাননা হয়েছে- এমন গুজব শুনেই কেন মানুষ হিন্দুদের উপর হামলা শুরু করে- তার মনস্তাত্তিক দিক নিয়ে গবেষণা দরকার। ধর্মীয় শিক্ষা পদ্ধতিতে কোনো পরিবর্তন বা সংস্কার প্রয়োজন কী না সে ব্যাপারেও মনোযোগ দেয়ার তাগিদ দেন তিনি।

news24bd.tv/ নকিব

;