বিভিন্ন কর্মসূচীতে ২২ অক্টোবর 'কালো দিবস' হিসেবে পালিত
বিভিন্ন কর্মসূচীতে ২২ অক্টোবর 'কালো দিবস' হিসেবে পালিত

বিভিন্ন কর্মসূচীতে ২২ অক্টোবর 'কালো দিবস' হিসেবে পালিত

অনলাইন ডেস্ক

নিরীহ কাশ্মীরি জনগোষ্ঠীর ওপর পাকিস্তান নেতৃত্বাধীন উপজাতি বাহিনী কাবিলিসের নেতৃত্বে ১৯৪৭ সালের ২২ অক্টোবর কোড ‘অপারেশন গুলমার্গ’ নামক হামলা চালানো হয়েছিল। জম্মু ও কাশ্মীরের নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার জন্য পুরো এশিয়া উপমহাদেশে সহিংসতা ও দ্বিধাদ্বন্দ্ব ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য এই ঘৃণ্য নীলনকশা বাস্তবায়ন করেছিল পাকিস্তান।  

২২ অক্টোবর, ১৯৪৭ সালে ৪০ হাজারের বেশি কাশ্মীরি মুসলমান, শিখ ও হিন্দু বর্বর পাক সেনাদের হাতে নিহত হয়েছিল। ১০ হাজার নারীকে ধর্ষণ করা হয়েছিল এবং দুই হাজার নারীকে জোর করে পাকিস্তানে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল।

news24bd.tv

এ দিবসকে সামনে রেখে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তি এবং এনজিওগুলো চলতি বছরের ২২-২৫ অক্টোবর ঢাকার শাহবাগে একটি চিত্র প্রদর্শনীর আয়োজন করে।  

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের দুর্লভ ছবি ও ২১শে আগস্ট প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার লক্ষ্যে গ্রেনেড হামলার ছবি এবং ৩ নভেম্বর জেলহত্যার ছবি শাহবাগ মোড়ের জাতীয় জাদুঘরের প্রধান ফটকের সামনে  প্রদর্শনীতে রাখা হয়।  

আরও পড়ুন:

জাপানী নারীদের দীর্ঘ যৌবনলাভের গোপন রহস্য

আগামী মাসেই ফেসবুকের প্রতিদ্বন্দ্বী নিয়ে আসছেন ট্রাম্প

পূজামণ্ডপে কোরআন শরিফ রেখে গদা নিয়ে যায় ইকবাল

মানবদেহে প্রতিস্থাপিত হল শূকরের কিডনী


১৯৪৭ সালের ২২শে অক্টোবর কাশ্মীরের পশতুন উপজাতির ওপর পরিচালিত হত্যাকাণ্ডের অভিযানের প্রায় ২৫টি ছবি আলাদা আলাদাভাবে সম্প্রতি দর্শনার্থীদের জন্য প্রদর্শনীতে রাখা হয়েছিল।

এছাড়া ঢাকা রিপোর্টারস ইউনিটির পক্ষ থেকে এই উপলক্ষ্যে বিশেষ সেমিনারের আয়োজন করে। সেমিনারের বিষয় ছিল, 'অপারেশন গুলমার্গ' এবং 'অপারেশন সার্চলাইট': পাকিস্তানের পরিকল্পিত গণহত্যা।

news24bd.tv/ নকিব

;