সারারাত আটকে রেখে প্রেমিক-প্রেমিকার চুল কেটে দিলেন সমাজসেবী, ভিডিও ভাইরাল
সারারাত আটকে রেখে প্রেমিক-প্রেমিকার চুল কেটে দিলেন সমাজসেবী, ভিডিও ভাইরাল

সারারাত আটকে রেখে প্রেমিক-প্রেমিকার চুল কেটে দিলেন সমাজসেবী, ভিডিও ভাইরাল

অনলাইন ডেস্ক

সারারাত আটকে রাখার পর সকালে প্রেমিক-প্রেমিকার চুল কেটে দিয়েছেন বাবলি মুখোপাধ্যায় নামে এক সমাজসেবী। অভিযোগ উঠেছে, সেই সাথে কেড়ে নিয়েছেন মোবাইলও। চুল কেটে দেওয়া ভিডিও নিজের ফেইজবুকে পোস্ট করেন এবংমুহুর্তেই ছড়িয়ে পড়ে নেট দুনিয়ায়।   অভিযোগের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার (২১ অক্টোবর) গভীর রাতে পুলিশ বাবলি মুখোপাধ্যায় নামে ওই মহিলাকে গ্রেফতার করে।

পরে শুক্রবার তাকে আদালতে হাজির করানো হলে সাত দিন জেল হেফাজতে রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। ঘটনাটি ঘটে ভারতের পশ্চিমবঙ্গে কৃষ্ণনগর এলাকায়। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।  

আনন্দবাজার পত্রিকার এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বাবলি মুখোপাধ্যায় এক সময়ে বিজেপি করতেন, এখন ‘সমাজসেবী’ হিসেবে নিজের পরিচয় দেন। তিনি পুলিশের ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়ে ভরা কৃষ্ণনগর বাসস্ট্যান্ডে ভিন্ন ধর্মের প্রণয়ী যুগলের চুল কেটে নিয়েছেন তিনি। কেড়ে নিয়েছেন মোবাইল। এবং নিজেই সেই ভিডিয়ো ফেসবুকে পেজে আপলোড করেছেন।   

পুলিশ জানিয়েছে, বছর কয়েক ধরে তিনি ‘সমাজসেবী’ বলে নিজের পরিচয় দিয়ে দাম্পত্য কলহে সালিশি করে আসছিলেন এবং সেই সব ভিডিয়ো নিজের ফেসবুক পেজ মারফত ছড়িয়ে দিচ্ছিলেন। সালিশির জন্য তিনি মোটা টাকাও নিতেন। কৃষ্ণনগর বাসস্ট্যান্ড এলাকায় অফিসও খুলে বসেছিলেন।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার রাত ১টা নাগাদ অফিস বন্ধ করার সময়ে বাবলির দুই সহযোগী যুবক ওই ছেলেমেয়ে দু’টিকে দেখে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করে। সেই সময়েই গাড়িতে করিমপুর থেকে এসে হাজির হন ছেলেটির মা ও দুই আত্মীয়। দুই সহযোগী সকলকেই বাবলির অফিসে নিয়ে আসে।

আরও পড়ুন


ঘটনা তৃতীয় পক্ষই ঘটিয়েছে, ইকবাল শুধু পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করেছেন, তৃতীয় পক্ষ কারা?

সব ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের একক প্রার্থী, অভিযোগ মানা হয়নি গঠনতন্ত্র

মাদরাসায় ঢুকে ছাত্র-শিক্ষকসহ ৬ জনকে হত্যা

বিল থেকে কিশোরের মরদেহ উদ্ধার, পাওয়া যায়নি পরিচয়


তদন্তে পুলিশ জেনেছে, রাতেই বাবলি মেয়ের মাকে ফোন করে ডেকে পাঠান। বাকিদের অফিসে আটকে রাখেন। বুধবার সকালে মেয়েটির মা এলে দুই পরিবারের লোকজনকে মুখোমুখি বসিয়ে সালিশি শুরু করেন বাবলি। বাড়ির লোকের সামনেই ছেলেটিকে চড়থাপ্পড় কষাতে থাকেন তিনি। বেলা সাড়ে ১০টা নাগাদ তিনি ছেলেমেয়ে দু’টিকে অফিস থেকে বার করে সকলের সামনেই মারধর করতে থাকেন। বাসস্ট্যান্ড হাজির ভিড়ের সামনেই তিনি ছেলেমেয়ে দু’টির চুল কেটে নেন। দুই পরিবারের লোকজন থামতে অনুরোধ করলেও তিনি তা শোনেননি।  

news24bd.tv রিমু  

;