পার্বত্যাঞ্চলে জুম চাষে ভাল ফলন

ফাতেমা জান্নাত মুমু, রাঙামাটি

পার্বত্যাঞ্চলে এবছরও জুম চাষে ভাল ফলন হয়েছে। ফসল কাটার ধুম পড়েছে পাহাড়িদের মাঝে। চাষিদের চোখে মুখে দেখা যাচ্ছে আনন্দ আর উচ্ছ্বাস। 

কৃষি বিভাগ বলছে, গেলো বছরের তুলনায় দ্বিগুণ ফলন ​হয়েছে। 

সবুজ পাহাড়ের বাঁকে বাঁকে থোকায় থোকায় দোল খাচ্ছে সোনালী ধান। সবুজের বুকে সোনালী রঙের খেলা দেখে আনন্দে ভাসছে চাষীরা। গান গেয়ে ধান কাটতে ব্যস্ত পাহাড়ের ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর নারীরা।

ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীদের জীবিকার প্রধান মাধ্যম জুম চাষ। বাংলাদেশে কেবল তিন পার্বত্য জেলা- রাঙামাটি, খাগড়াছড়ি ও বান্দরবানের পাহাড়ে হয় এ পদ্ধতির চাষাবাদ। পার্বত্যাঞ্চলে এবার জুম ফসলের বাম্পার ফলন হয়েছে। ধানের পাশাপাশি উৎপাদন হয়েছে- মারফা, বেগুন, ধানি মরিচ, ঢেঁড়শ, কাকরোল, কুমড়াসহ নানা ফসল।

আরও পড়ুন: কাল খুলে দেয়া হচ্ছে পায়রা সেতু

চলতি বছর শুধু রাঙামাটিতে জুম চাষ হয়েছে ৬ হাজার ৬৫০ হেক্টর জমিতে। যেখানে লক্ষ্যমাত্রাকে ছাড়িয়ে গেছে উৎপাদন। ফলন ভাল হওয়ায় কৃষকরা অর্থনৈতিকভাবে যেমন লাভবান হবে তেমনি খাদ্য সংকটের শঙ্কাও থাকবে না, বলছে কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগ।

পার্বত্যাঞ্চলে প্রতিবছর ১৮ প্রজাতির জুমের ধান চাষ হয়। আর এ জুমের ধান বছরব্যাপী খাদ্য ব্যাংক হিসেবে সংরক্ষণ করে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীরা।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

তবুও কৃষককে সারে গুণতে হচ্ছে দ্বিগুণ দাম

অনলাইন ডেস্ক

মাঠে কাজ করছেন কৃষক

সার সংকটে বিপাকে দেশের কৃষকেরা। কৃষকরা বলছেন, ১১শ টাকার টিএসপি সার তাদের কিনতে হচ্ছে ২২শ টাকা পর্যন্ত। এতে একদিকে যেমন উৎপাদন খরচ বাড়ছে, অন্যদিকে আর্থিক সংকটে ব্যাহত হচ্ছে উৎপাদন। 

সার বিক্রির সাথে সংশ্লিষ্টদের অভিযোগ, চাহিদার তুলনায় সরবরাহ কম থাকাই দাম বৃদ্ধির প্রধান কারণ। তবে কৃষি বিভাগ বলছে, সরবরাহে ঘাটতি কোনো কারণ নেই।

দেশে সারের কোনো সংকট নেই বলা হলেও কৃষককে সেই সার কিনতে হচ্ছে প্রায় দ্বিগুণ দামে। গুদামে পর্যাপ্ত মজুদ, ডিলারদের কাছেও আছে সার। তবুও কৃষককে গুণতে হচ্ছে দ্বিগুণ দাম।

শীতকালীন সবজি, আলু, ভুট্টা ও বোরো আবাদের এ সময়ে চট্টগ্রাম, রাজশাহী, রংপুর, কুড়িগ্রাম, লালমনিরহাট, ময়মনসিংহ, মানিকগঞ্জ, লক্ষ্মীপুরসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের কৃষককে সারের জন্য গুণতে হচ্ছে অতিরিক্ত টাকা।

আরও পড়ুন:


আফ্রিকার ৭ দেশ থেকে এলেই ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিন

দুই হাত হারানো ফাল্গুনীকে বিয়ে করলো এনজিও কর্মী সুব্রত

স্বাধীনতার ৫০ বছরে স্বাস্থ্যখাতে অভাবনীয় সাফল্য

ঢাকার যানজটেই শেষ জিডিপির প্রায় ৮৭ হাজার কোটি টাকা


খুচরা পর্যায়ে সারের দাম বেশি হতে পারে। ডিলার পর্যায়ে সারের অতিরিক্ত দাম নেয়া হচ্ছে না। চাহিদার তুলনায় সরবরাহ কম।

কৃষির উৎপাদনে লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করতে হলে দ্রুত সরকারের হস্তক্ষেপ কামনা করছেন প্রান্তিক কৃষকেরা।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

এবার আলেশা মার্টের কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা

অনলাইন ডেস্ক

এবার আলেশা মার্টের কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা

একের পর এক ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানে ধস। এবার নিজেদের অফিশিয়াল কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা করেছে ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান আলেশা মার্ট। বুধবার (২ ডিসেম্বর) রাত ৩টায় প্রতিষ্ঠানটির ভেরিফাইড ফেসবুক পেজে এক পোস্টে এ ঘোষণা দেওয়া হয়।

আলেশা মার্টের ফেসবুকের ওই পোস্টে জানানো হয়, ‘অনাকাঙ্খিত ও নিরাপত্তাজনিত কারণবশত আলেশা মার্ট-এর সমস্ত অফিসিয়াল কার্যক্রম আজ থেকে পরবর্তী নির্দেশনা না দেওয়া পর্যন্ত বন্ধ থাকবে। গতকাল (১ ডিসেম্বর) আমাদের অফিসে কতিপয় লোক দ্বারা অফিস কর্মকর্তাদের গায়ে হাত তোলা এবং বল প্রয়োগের চেষ্টার কারণে আমরা এমন সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হচ্ছি।’

আলেশা মার্টের প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তি

অবিশ্বাস্য সব অফার দিয়ে আলোচনায় আসে ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান আলেশা মার্ট। আর তাদের অবিশ্বাস্য সব অফারের ফাঁদে পা দিয়ে বিপুল পরিমাণ টাকা বিনিয়োগ করেন গ্রাহকরা। বর্তমানে গ্রাহকরা তাদের কাছ থেকে বিনিয়োগের টাকা কিংবা পণ্য পাচ্ছেন না। গ্রাহকদের দেওয়া চেকও ফেরত আসছে ব্যাংক থেকে। ফলে বাড়ছে বিনিয়োগকারীদের দুশ্চিন্তা।

২০২১ সালের ১ জানুয়ারি কার্যক্রম শুরু করে আলেশা মার্ট। পণ্য দেওয়ার নাম করে তারা সংগ্রহ করেছে গ্রাহকের কোটি কোটি টাকা। পরে অনেক গ্রাহককে পণ্য বুঝিয়ে দেয়নি বলে অভিযোগ ওঠে।

ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে আলেশা মার্টে ক্যাশ অন ডেলিভারি (সিওডি) বা পণ্য হাতে পাওয়ার পর পেমেন্ট পদ্ধতি নেই। ফলে সেখানে পণ্য কিনতে হলে অবশ্যই আগে থেকে অনলাইনে পেমেন্ট দিতে হবে। পেমেন্টের কয়েক মাস পর পণ্যের ব্যাপারে গ্রাহকদের আশ্বাস দেওয়া হয়।

আরও পড়ুন


মজা করে গোপনাঙ্গে লাথি, ঘটনাস্থলেই বন্ধুর মৃত্যু

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

বাংলাদেশে ভ্যাট নিবন্ধন নিল নেটফ্লিক্স

অনলাইন ডেস্ক

বাংলাদেশে ভ্যাট নিবন্ধন নিল নেটফ্লিক্স

যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক ভিডিও স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্ম ও প্রযোজনা সংস্থা নেটফ্লিক্স জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) থেকে ব্যবসায় নিবন্ধন নম্বর (বিআইবিএন) নিয়েছে, যা ভ্যাট নিবন্ধন নামে পরিচিত। এর আগে বিশ্বের অন্যতম টেক জায়ান্ট গুগল ও আমাজন ঢাকা দক্ষিণ ভ্যাট কমিশনারেট থেকে অনাবাসী প্রতিষ্ঠান হিসেবে ব্যবসায় নিবন্ধন নম্বর (বিআইএন) নেয়। ২৩ মে গুগল এবং ২৭ মে আমাজন এই ভ্যাট নিবন্ধন পেয়েছে। 

বুধবার (১ ডিসেম্বর) ঢাকা দক্ষিণ ভ্যাট কমিশনারেট থেকে বাংলাদেশের অনাবাসী প্রতিষ্ঠান হিসেবে নেটফ্লিক্স  বিআইএন গ্রহণ করে।

নিবন্ধনের ক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠানটি সিঙ্গাপুরের ঠিকানা ব্যবহার করেছে এবং নেটফ্লিক্স পিটিই লিমিটেড, সিঙ্গাপুর নামে নিবন্ধন পেয়েছে। এখন থেকে প্রতিষ্ঠানটি নিয়মিত ভ্যাট রিটার্ন দাখিল করে ভ্যাটের টাকা পরিশোধ করবে।

এ বিষয়ে ঢাকা দক্ষিণ ভ্যাট কমিশনারেটের কমিশনার এস এম হুমায়ুন কবির বলেন, অনাবাসী প্রতিষ্ঠান হিসেবে নেটফ্লিক্স এ দেশে ব্যবসা পরিচালনা করছে। এখন তারা পুরোপুরি ভ্যাট আইনের আওতায় এলো এবং আইনি সুরক্ষাও পাবে।

তিনি জানান, প্রতিষ্ঠাটির স্থানীয় পরামর্শক হিসেবে প্রাইস ওয়াটার হাউস কুপারস ভ্যাট নিবন্ধন গ্রহণ করেছে। ডিসেম্বর থেকে নেটফ্লিক্স নিয়মিত ভ্যাট রিটার্ন দাখিল করবে।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

আগাম তরমুজ চাষে ব্যস্ত পটুয়াখালীর কৃষকেরা

অনলাইন ডেস্ক

আগাম তরমুজ চাষে ব্যস্ত সময় পার করছেন উপকূলীয় জেলা পটুয়াখালীর কৃষকরা। আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে ভালো ফলন, ভালো দাম পাওয়ার আশা করছেন তারা। গেলো বছরের চেয়ে এবছর এ জেলায় বেশী জমিতে তরমুজ আবাদ হচ্ছে বলে জানিয়েছে জেলা কৃষি বিভাগ।

দিনে রোদের তাপ, রাতে হালকা শীত, সকালে কুয়াশার ঘন আবরণ। এ বছর ধানের ফলন ভাল হলেও বাজার মন্দা। এজন্য সব কিছু উপেক্ষা করে আগাম তরমুজ চাষে ব্যস্ত সময় পার করছেন উপকূলীয় কৃষক-কৃষাণীরা। ক্ষতি পুষিয়ে উঠতে অনেকে মহাজন ও এনজিও থেকে চরা সুদে ঋণ নিয়ে তরমুজ চাষ করেছেন।

তবে ডিজেলেন দাম বাড়তি থাকায় বিগত বছরের তুলুনায় এবার উৎপাদন খরচ বেশী হচ্ছে। এ কারণে কিছুটা হতাশ কৃষক। 

প্রতি বছর জেলায় সবচেয়ে বেশি তরমুজ উৎপাদন হয় দ্বীপাঞ্চল উপজেলা রাঙ্গাবালীতে। রাঙ্গাবালীর রাঙ্গা তরমুজের সুনাম রয়েছে সারা দেশে। আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে, ফসলের ন্যায্য দামের আশায় কৃষক।


আরও পড়ুন:

বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল স্থাপন নিয়ে কটূক্তি, কাটাখালীর মেয়র আটক

শুরু হলো মহান বিজয়ের মাস

আজ থেকে ঢাকার গণপরিবহনে শিক্ষার্থীদের ভাড়া অর্ধেক কার্যকর


জানুয়ারির শেষে এ অঞ্চলের তরমুজ বাজারজাত করার প্রত্যাশা চাষীদের।

জেলা কৃষি অফিসের তথ্য বলছে, গেলো বছর জেলায় তরমুজ চাষ হয়েছে ১৬ হাজার হেক্টর জমিতে। ৮ হাজার হেক্টরই রাঙ্গাবালী উপজেলায়। 

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

রেমিট্যান্সে ভাটা

অনলাইন ডেস্ক

রেমিট্যান্সে ভাটা

মহামারি করোনাভাইরাসের মধ্যেও রেমিট্যান্স ভালো এলে বর্তমানে তা নিম্নমুখী। এখন ক্রমেই কমছে রেমিট্যান্সের পরিমাণ। গত নভেম্বরে যে প্রবাসী আয় এসেছে, তা গত ১৮ মাসের মধ্যে সর্বনিম্ন। যেটিকে বড় ধাক্কা হিসেবে দেখা হচ্ছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী, গত সেপ্টেম্বরের তুলনায় অক্টোবরে ৪ শতাংশ আয় কমেছে। সেপ্টেম্বর মাসে প্রবাসী আয় এসেছিল ১৭২ কোটি ডলার।

আর ২০২০ সালের সেপ্টেম্বরে আসে ২১৫ কোটি ১০ লাখ ডলার। আর নভেম্বরে তা ভয়াবস আকার ধারণ করে সেটি কমে হয়েছে ১৫৫ কোটি ৩৭ লাখ ডলার।

বুধবার (০১ ডিসেম্বর) বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সদ্য বিদায়ী নভেম্বর মাসে ১.৫৫ বিলিয়ন বা ১৫৫ কোটি ৩৭ লাখ মার্কিন ডলার রেমিট্যান্স দেশে পাঠিয়েছেন প্রবাসীরা, যা দেড় বছর বা ১৮ মাসের মধ্যে এটিই সবচেয়ে নিম্নগামী। গত বছরের (নভেম্বর ২০২০) একই সময়ের চেয়ে ২৫ শতাংশ কম। ২০১৯ সালের নভেম্বরে দেশে রেমিট্যান্স এসেছিল ২০৭ কোটি ৮৭ লাখ ডলার। এর আগে সর্বনিম্ন রেমিট্যান্স এসেছিল ২০২০ সালের মে মাসে। ওই সময় রেমিট্যান্স আসার পরিমাণ ছিল ১৫০ কোটি ডলার।

করোনার পর অবৈধ চ্যানেলগুলোতে (হুন্ডি) অর্থ লেনদেন বেড়ে যাওয়ায় রেমিট্যান্স কমছে বলে জানান খাতসংশ্লিষ্টরা। পাশাপাশি করোনায় চাকরি হারিয়ে প্রবাসীরা জমানো টাকা দেশে আনায় করোনাকালে রেমিট্যান্স বেড়েছিল।

চলতি অর্থবছরের প্রথম পাঁচ মাসে (জুলাই-নভেম্বর) দেশে রেমিট্যান্স আসে ৮৬০ কোটি ৮৮ লাখ ডলার। বাংলাদেশি মুদ্রায় যা ৭৩ হাজার ৮৬৪ কোটি টাকা। এর আগের অর্থবছর অর্থাৎ ২০২০-২১ অর্থবছরের একই সময়ের তুলনায় ২২৮ কোটি ৫২ লাখ বা প্রায় ২১ শতাংশ কম। ২০২০-২১ অর্থবছরে প্রথম পাঁচ মাসে এক হাজার ৮৯ কোটি ৪১ লাখ ডলার বা ৯২ হাজার ৬০০ কোটি টাকা প্রবাসী আয় এসেছিল।

সদ্য বিদায়ী নভেম্বর মাসে রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে রেমিট্যান্স এসেছে ৩০ কোটি ৯৪ লাখ ডলার। বিশেষায়িত একটি ব্যাংকের মাধ্যমে এসেছে ৩ কোটি ডলার রেমিট্যান্স। এছাড়া বেসরকারি ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে এসেছে ১২০ কোটি ৬৫ লাখ ডলার এবং বিদেশি ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে দেশে এসেছে ৭৪ লাখ ডলারের রেমিট্যান্স।

আরও পড়ুন: 


পায়ের রগকাটা মরদেহ পড়ে আছে নদীর পাড়ে


news24bd.tv /তৌহিদ

পরবর্তী খবর