নিজের মেয়েকে হত্যা করতে গুগল সার্চ!

অনলাইন ডেস্ক

নিজের মেয়েকে হত্যা করতে গুগল সার্চ!

যুক্তরাজ্যের পশ্চিম মিডল্যান্ডস অঞ্চলের বার্মিংহামে জামার বেইলি (২১) নামে এক যুবককে ২৫ বছরের বেশি কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। তিন সপ্তাহ বয়সের নিজের কন্যা শিশুকে ওষুধ খাইয়ে হত্যাচেষ্টার অভিযোগে তাকে এই সাজা দেওয়া হয়।

ডেইলি মেইল এবং বিবিসি সূত্রে জানা যায়, গতকাল সোমবার বার্মিংহাম ক্রাউন কোর্ট তাকে কারাগারে পাঠায়। ওষুধ খাওয়ানোর আগে কীভাবে শিশুটিকে হত্যা করবেন সেইজন্য গুগলে ‘হাউ টু পয়জন অ্যা বেবি’ এবং ‘হাউ টু কিল অ্যা নিউবর্ন বেবি’ লিখে সার্চ দেন তিনি।

২০২০ সালের জুন মাসে ঘটা ওই ঘটনার পর ওই শিশুটিকে ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিটে ভর্তি করা হয়। পরে সন্দেহভাজন হিসেবে বেইলিকে আটক করা হয়। হাসপাতালে নেওয়ার পর শিশুটির ইউরিন পরীক্ষায় সোডিয়াম ভ্যালপোরেট শনাক্ত হয় যা এপিলেপ্সি (মৃগীরোগ) ও বাইপোলার ডিসঅর্ডারের জন্য ব্যবহার করা হয়। সোডিয়াম ভ্যালপোরেট একটি ছোট্ট শিশুর প্রাণ নেওয়ার জন্য যথেষ্ট।

তবে ঠিক কি কারণে শিশুটিকে হত্যাচেষ্টা করা হয়েছে সে ব্যাপারে নির্দিষ্ট করে কিছু বলা হয়নি। জানা যায় বেইলি দীর্ঘদিন মানষিক রোগে ভুগছেন। ধারণা করা হচ্ছে তিনি রোগকে ভালোভাবে নিয়ন্ত্রণ করতে পারছেন না। আর এসব বিষয়ের কোনো প্রভাব এই ঘটনায় আছে কি না তা পরিষ্কার না।    

গোয়েন্দারা তদন্তের সময় বেইলির বাসা থেকে খিঁচুনির ওষুধ পেয়েছেন এবং তার বেইলির মুঠোফোনে শিশু হত্যার বিষয়ে গুগল সার্চের বিষয়টি নজরে আসে।

শিশুটি ইনটেনসিভ কেয়ার থেকে সুস্থ হয়ে ফিরেছে। পুলিশ জানায় তার অবস্থার উন্নতি হচ্ছে। যদিও এটা নিশ্চিত না শিশুটির বয়স বাড়লে দীর্ঘমেয়াদী কোনো সমস্যা দেখা দিবে কিনা।

আরও পড়ুন:

মা কালী সেজে জনগণকে তাক লাগালেন রিখিয়া

আরিয়ানের জামিন শুনানি আজ, টাকার বিনিময়ে ছেড়ে দেয়ার প্রস্তাব

পুলিশ আরো জানায়, বেইলির এই কর্মকাণ্ড পূর্বপরিকল্পিত। আমাদের তদন্ত করা খুব কঠিন ছিল। মেডিকেল প্রমাণ ও বিভিন্ন সহযোগী সংস্থার সহায়তার জন্য তদন্ত সম্ভব হয়েছে। এই বিচার শেষ হওয়ায় আমরা খুশি। বেইলিকে প্যারোলে মুক্তির আবেদনের জন্যও সাজার অন্তত দুই তৃতীয়াংশ খাটতে হবে। 

news24bd.tv/এমি-জান্নাত  

পরবর্তী খবর

ভুল পা কাটায় চিকিৎসকের জরিমানা

অনলাইন ডেস্ক

ভুল পা কাটায় চিকিৎসকের জরিমানা

প্রতীকী ছবি

ভুল করে বাম পায়ের পরিবর্তে ডান পা কেটে ফেলায় জরিমানা করা হয়েছে অস্ট্রিয়ার এক চিকিৎসককে। ঘটনার পর আদালতের দারস্থ হয়েছিলেন ওই ব্যক্তি। অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় ওই চিকিৎসককে জরিমানা করেছে দেশটির আদালত। খবর দ্য গার্ডিয়ানের।

বৃহস্পতিবার (২ ডিসেম্বর) এক প্রতিবেদনে বিবিসি জানায়, চলতি বছরের মাঝামাঝিতে বাম পায়ের সমস্যা নিয়ে চিকিৎসকের শরণাপন্ন হয়েছিলেন অস্ট্রিয়ার এক বয়স্ক নাগরিক। তবে অপারেশনের সময় ওই চিকিৎসক ভুল করে বাম পায়ের পরিবর্তে তার ডান পা শরীর থেকে বিচ্ছিন্ন করে ফেলেন। চিকিৎসকের এই ভুল অপারেশনের দুই দিন পর বুঝতে পারেন ভুক্তভোগী রোগী। এরপরই আদালতের দ্বারস্থ হন তিনি।

অস্ট্রিয়ার লিনজ শহরের একটি আদালত বুধবার অভিযুক্ত ওই চিকিৎসককে দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগে ২ হাজার ৭০০ ইউরো বা প্রায় ২ লাখ ৬২ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

আদালতের রায়ের আগেই ভুল চিকিৎসার শিকার হওয়া ওই ব্যক্তি আগেই মারা যাওয়ায় তার স্ত্রী আদালতে উপস্থিত ছিলেন। সেখানে তাকে ৫ হাজার ইউরো ক্ষতিপূরণ দেওয়া হয়।

অপারেশনের দুই দিন পরেই ওই রোগী ব্যান্ডেজ পরিবর্তনের সময় বুঝতে পারেন তার ভুল পা কাটা হয়েছে। এরপরেই ওই ব্যক্তি আদালতে গিয়ে ক্ষতিপূরণ দাবি করেন। ওই ক্লিনিকের পরিচালক অবশ্য এই ঘটনাকে দুর্ভাগ্যজনক বলে স্বীকার করে সংবাদ সম্মেলন করে প্রকাশ্যে ক্ষমা চেয়েছিলেন। 

আরও পড়ুন:

কারাগারে হামলা চালিয়ে বন্দী ছিনিয়ে নিল সন্ত্রাসীরা


news24bd.tv/ নকিব

পরবর্তী খবর

নাইজেরিয়ায় নৌকা ডুবিতে ২৯ জন শিক্ষার্থী নিহত

অনলাইন ডেস্ক

নাইজেরিয়ায় নৌকা ডুবিতে ২৯ জন শিক্ষার্থী নিহত

ছবি: সংগৃহীত

নৌকা উল্টে ডুবে গিয়ে নাইজেরিয়ার দক্ষিণাঞ্চলে কানো রাজ্যে অন্তত ২৯ জন মাদরাসাশিক্ষার্থী নিহত হয়েছে। বুধবার (১ ডিসেম্বর) স্থানীয় কর্মকর্তাদের বরাতে এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

প্রতিবেদনে বলা হয়, শিক্ষার্থীদের অধিকাংশের বয়স ১৮ বছরের নিচে। স্থানীয় সময় মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে ৫টায় নৌকাটি নদীতে ডুবে যায়।

আরও পড়ুন


এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা শুরু আজ

প্রকাশ্যে কাউন্সিলর হত্যা: এবার ‘বন্দুকযুদ্ধে’ প্রধান আসামি নিহত


কানো রাজ্যের ফায়ার সার্ভিসের মুখপাত্র সামিনু ইউসুফ আব্দুল্লাহি বলেন, ২৯টি মরদেহ উদ্ধার করেছি। নৌকাটি অতিরিক্ত যাত্রী বোঝাই ছিল।

এদিকে সাত ছাত্রকে জীবিত উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় সরকারি কর্মকর্তা আমিনু বেল্লো গোগোরি।

news24bd.tv/ কামরুল 

পরবর্তী খবর

কারাগারে হামলা চালিয়ে বন্দী ছিনিয়ে নিল সন্ত্রাসীরা

অনলাইন ডেস্ক

কারাগারে হামলা চালিয়ে বন্দী ছিনিয়ে নিল সন্ত্রাসীরা

ছবি- সংগৃহীত

মেক্সিকোতে কারাগারে হামলা চালিয়ে নয়জন বন্দিকে ছিনতাই করে নিয়ে গেছে দেশটির একদল সশস্ত্র সন্ত্রাসী। স্থানীয় সময় বুধবার দেশটির তুলা শহরে এই ঘটনা ঘটে। খবর দ্য গার্ডিয়ানের।

হামলার সময় সন্ত্রাসীরা দুটি গাড়িবোমা বিস্ফোরণ ঘটায়। একই সঙ্গে কয়েকজন সশস্ত্র সন্ত্রাসী কারাগারের ভেতরে হামলা চালায়।

এসময় সন্ত্রাসীদের গুলিতে কমপক্ষে দুই পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। 

তবে গাড়িবোমা হামলার বিষয়টি এখনো নিশ্চিত করেনি কর্তৃপক্ষ।

আরও পড়ুন:

চীনের প্রভাবকে চ্যালেঞ্জ করতে ৩০০ বিলিয়ন ইউরো বিনিয়োগ করবে ইইউ


news24bd.tv/ নকিব

পরবর্তী খবর

চীনের প্রভাবকে চ্যালেঞ্জ করতে ৩০০ বিলিয়ন ইউরো বিনিয়োগ করবে ইইউ

অনলাইন ডেস্ক

চীনের প্রভাবকে চ্যালেঞ্জ করতে ৩০০ বিলিয়ন ইউরো বিনিয়োগ করবে ইইউ

চীনের নির্মিত অবকাঠামো

চীনের বেল্ট অ্যান্ড রোড কৌশলকে চ্যালেঞ্জ জানাতে ৩০০ বিলিয়ন ইউরো (৩৪০ বিলিয়ন ইউএস ডলার) বৈশ্বিক বিনিয়োগের পরিকল্পনা করেছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন। খবর বিবিসির।

ইউরোপীয় কমিশনের প্রেসিডেন্ট উরসুলা ভন ডার লেইন বলেন, গ্লোবাল গেটওয়ে স্কিম একটি বিশ্বস্ত ব্র্যান্ড হওয়া উচিত।

চীনের বিরুদ্ধে বেশ কিছু দেশে রেল, সড়ক ও বন্দরের অর্থায়নের পর তাদেরকে ঋণের জালে বেঁধে ফেলার অভিযোগ রয়েছে। 

কমিশন প্রধান বলেন, টেকসই প্রকল্পগুলোর পরিকল্পনার জন্য দেশগুলোর 'বিশ্বস্ত অংশীদার' প্রয়োজন। 

এই লক্ষ্যে ইউরোপীয় ইউনিয়ন তাদের সদস্য রাষ্ট্র, আর্থিক প্রতিষ্ঠান এবং বেসরকারী খাত থেকে প্রাপ্ত বিলিয়ন ইউরো থেকে কীভাবে লাভ করতে পারে তা হিসেব করে দেখছে। এটি অর্থ মূলত অনুদানের পরিবর্তে ঋণে রূপ নেবে।

মিসেস ভন ডার লেইন বলেন, ইউরোপীয় ইউনিয়ন দেখাতে চায় একটি ভিন্ন ও গণতান্ত্রিক পদ্ধতির মাধ্যমেও বিশ্বব্যাপী স্বাস্থ্য সুরক্ষা এবং উন্নয়নশীল দেশগুলোর জন্য টেকসই উন্নয়ন করা সম্ভব।

তিনি আরও ব্যাখ্যা করেন, প্রকল্পগুলো অবশ্যই উচ্চ মানের হতে হবে এবং কাজের স্বচ্ছতা থাকতে হবে। একই সঙ্গে জড়িত দেশগুলোর জন্য যেন তা বাস্তব ফলাফল বয়ে নিয়ে আসে সেদিকেও লক্ষ্য রাখতে হবে।

ইউরোপীয় ইউনিয়নের এক কর্মকর্তার বরাত দিয়ে সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানায়, আফ্রিকার দেশগুলো এই প্রকল্পের প্রধান ফোকাস হবে।

অন্যদিকে চীনের এই কৌশল শুধু আফ্রিকা, এশিয়া, ইন্দো-প্যাসিফিক অঞ্চলের পাশাপাশি ইউরোপীয় ইউনিয়ন পর্যন্ত বিস্তৃতি লাভ করেছে। চীনের কসকো কোম্পানি গ্রীসে একটি বড় বিনিয়োগ করেছে। তারা দেশটির পাইরিয়ুস বন্দরের দুই-তৃতীয়াংশের অংশীদার। এছাড়া ক্রোয়েশিয়ায় একটি বড় ব্রীজ নির্মাণ করেছে চায়না রোড অ্যান্ড ব্রিজ কর্পোরেশন।

গত মাসে ইউরোপীয় ইউনিয়নের এক ব্রিফিংয়ে চীনের রাষ্ট্রদূত ঝাং মিং গ্লোবাল বলেন, উন্মুক্ত থাকা সাপেক্ষে চীন ইউরোপীয় ইউনিয়নের গেটওয়ে কৌশলকে স্বাগত জানায়। তবে তিনি অবকাঠামো প্রকল্পগুলোকে ভূ-রাজনৈতিক হাতিয়ারে পরিণত করার বিষয়ে সতর্ক করেন।

উল্লেখ্য, চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং ২০১৩ সালে ‘বেল্ট অ্যান্ড রোড ইনিশিয়েটিভ’ চালু করেন। এর মাধ্যমে বিশ্বের স্বল্প ও মধ্যম আয়ের দেশগুলোতে অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিক প্রভাব বিস্তার করতে থাকে চীন। বিশ্বের ১০০টির বেশি দেশ চীনের বেল্ট অ্যান্ড রোড ইনিশিয়েটিভে সহায়তা করতে চুক্তিবদ্ধ হয়।

আরও পড়ুন:

এবার আলেশা মার্টের কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা


news24bd.tv/ নকিব

পরবর্তী খবর

আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চালুর সিদ্ধান্ত পেছাল ভারত

অনলাইন ডেস্ক

আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চালুর সিদ্ধান্ত পেছাল ভারত

ভারতের আন্তর্জাতিক ফ্লাইট স্বাভাবিক করার সিদ্ধান্ত পেছানো হয়েছে। দ্য ইকোনোমিক টাইমস এর সূত্রে জানা যায়, করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে দীর্ঘসময় বন্ধ থাকার পর আগামী ১৫ই ডিসেম্বর আবার ভারতের আন্তর্জাতিক ফ্লাইট শুরু হওয়ার কথা ছিল। তবে ওমিক্রন আতঙ্কে আপাতত সেটা স্থগিত করা হয়েছে। এ বিষয়ে পরে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে জানানো হয়েছে।

দক্ষিণ আফ্রিকান এ ধরনটির কারণে বাড়তি সতর্কতা নিচ্ছে ভারত। এ ধরনটি কত দ্রুত বিস্তার করতে পারে সেদিকে নজর রাখা হচ্ছে। দেশজুড়ে সবগুলো বিমানবন্দরে বিভিন্ন ধরনের নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। বিশেষ করে ঝুঁকিতে থাকা দেশ থেকে আগতদের জন্য টেস্ট ও কোয়ারেন্টাইনের কড়া নিয়ম চালু করেছে দেশটি। এদিকে দেশটির সিভিল এভিয়েশনের ডিরেক্টর জেনারেল এক বিবৃতিতে এয়ার বাবল চলমান থাকবে বলে ইঙ্গিত দিয়েছেন।

আরও পড়ুন

দক্ষিণ কোরিয়ায় ৬৯ ছাত্রের বিরুদ্ধে কিশোরীকে দলবদ্ধভাবে ধর্ষণের অভিযোগ

কুয়েট শিক্ষকের রহস্যজনক মৃত্যু, তদন্ত চেয়ে শিক্ষার্থীদের অবস্থান

২০ মাসেরও বেশি সময় ধরে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট বন্ধ থাকার পর গত ২৬ নভেম্বর ভারত ১৫ই ডিসেম্বর থেকে আবার ফ্লাইট শুরু করার ঘোষণা দেয়। তবে ওমিক্রন আতঙ্কে আবারও নিষেধাজ্ঞা জারি করল দেশটি।

 news24bd.tv/এমি-জান্নাত   

পরবর্তী খবর