প্রবাসীর স্ত্রীর সঙ্গে ‘আপত্তিকর’ অবস্থায় এএসআই!

প্রবাসীর স্ত্রীর সঙ্গে ‘আপত্তিকর’ অবস্থায় এএসআই!

প্রবাসীর স্ত্রীর সঙ্গে ‘আপত্তিকর’ অবস্থায় এএসআই!

অনলাইন ডেস্ক

পুলিশের এক সহকারী উপ-পরিদর্শককে (এএসআই) আটক করে গাছের সঙ্গে বেঁধে রাখে স্থানীয়রা।   তাদের দাবি, একটি মামলার বাদীর সঙ্গে ‘আপত্তিকর অবস্থায়’ ধরা পড়েন তোফাজ্জল হোসেন নামে পুলিশের ওই কর্মকর্তা। এমন ঘটনা ঘটেছে গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে ।   শুক্রবার (২৯ অক্টোবর) মধ্যরাতে উপজেলার ধর্মপুর (ছড়ারপাতা) গ্রাম থেকে তাকে আটক করা হয়।

পরে তাকে উদ্ধার করে নিয়ে যায় পুলিশ।

তবে ওই নারী বাদী জানান, তাদের মধ্যে ভিন্ন কোনো সখ্যতা নেই, পূর্ব পরিচিত হওয়ায় পুলিশ কর্মকর্তাকে বাসায় দাওয়াত করেছিলেন তিনি।

আরও পড়ুন:


কাঠগড়ায় বিশেষ সময়ে মুশফিকের 'স্কুপ' খেলার প্রবণতা!

পাটুরিয়ায় ফেরি উদ্ধারে হামজার সঙ্গে যোগ হল রুস্তম


এ ঘটনায় এএসআই তোফাজ্জল হোসেনকে প্রত্যাহার (ক্লোজড) করা হয়েছে। শনিবার (৩০ অক্টোবর) তাকে সুন্দরগঞ্জের কঞ্চিবাড়ি পুলিশ তদন্ত কেন্দ্র থেকে প্রত্যাহার করে জেলা পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়।

স্থানীয়রা জানান, রাত ১০টার দিকে এএসআই তোফাজ্জল হোসেন ছড়ারপাতা গ্রামের এক সৌদি প্রবাসীর স্ত্রীর বাড়িতে আসেন। এলাকাবাসীর সন্দেহ হলে তারা গোয়ালঘরে খোঁজ নিলে সেখানে ‘আপত্তিকর’ অবস্থায় ওই নারীর সঙ্গে তাকে দেখেন। বিষয়টি জানাজানি হলে উত্তেজিত জনতা তোফাজ্জলকে আটক করে বাড়ির উঠোনের একটি আম গাছের সঙ্গে রশি দিয়ে বেঁধে রেখে পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশ সেখান থেকে তাকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

সুন্দরগঞ্জ থানার ওসি আবদুল্লাহিল জামান জানান, পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে তোফাজ্জল হোসেনকে কঞ্চিবাড়ি পুলিশ তদন্ত কেন্দ্র থেকে প্রত্যাহার করে গাইবান্ধা পুলিশ লাইনে যুক্ত করা হয়েছে।

news24bd.tv/ কামরুল