সাম্প্রদায়িক হামলা প্রতিরোধে একটাই সমাধান রয়েছে বললেন তথ্য প্রতিমন্ত্রী মুরাদ

অনলাইন ডেস্ক

সাম্প্রদায়িক হামলা প্রতিরোধে একটাই সমাধান রয়েছে বললেন তথ্য প্রতিমন্ত্রী মুরাদ

অতি সম্প্রতি বাংলাদেশে সাম্প্রতিক হামলার ঘটনায় নিন্দা প্রকাশ করে তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান বলেছেন, সাম্প্রদায়িক হামলা আমাদের জন্য খুব লজ্জার একটা বিষয়। ৭১ এ পরাজিত শক্তির বংশধরেরা এখনও সক্রিয়, তাদের ষড়যন্ত্র এখনও চলমান। এই ষড়যন্ত্রের ধারাবাহিকতায় এই হামলা ও অগ্নিসংযোগ পরিচালিত হয়েছে। যা কোন মতেই কাম্য নয়। 

মঙ্গলবার (২ নভেম্বর) যুক্তরাষ্ট্রের স্থানীয় সময় দুপুর ২টায় বাংলাদেশ হাইকমিশন ওয়াশিংটন ডি.সি. কর্তৃক আয়াজিত 'ইমপর্টেন্ট অব পাবলিক ডিপ্লোমেসি' শীর্ষক মতবিনিময় সভায় এ কথা বলেন তিনি।

তথ্য প্রতিমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ একটি অসাম্প্রদায়িক দেশ। সাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ পৃথিবীর বুকে থাকতে পারে না। আমরা মুক্তিযুদ্ধ পরবর্তী প্রজন্ম বাংলাদেশকে সাম্প্রদায়িক বাংলদেশ বলে পরিচিত হতে দিতে পারি না। সাম্প্রদায়িক হামলা প্রতিরোধ করতে হলে একটাই সমাধান রয়েছে আমাদের কাছে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান প্রবর্তিত ১৯৭২ সালের সংবিধান। যে সংবিধানের মূলনীতি ছিল চারটি- জাতীয়তাবাদ, সমাজতন্ত্র, গণতন্ত্র ও ধর্মনিরপেক্ষতা। প্রয়োজনে সাম্প্রদায়িক বিষবাষ্পকে সমূলে উৎপাটন করার জন্য আমরা ‘৭২ এর সংবিধানে ফিরে যাব।

তিনি বলেন, সংবিধানের ৫ম সংশোধনী জারি করে জেনারেল জিয়া রাষ্ট্রীয় মূলনীতি থেকে ‘ধর্মনিরপেক্ষতা ও বাঙালি জাতীয়তাবাদ’ বাতিল করেছিলেন, ধর্মভিত্তিক রাজনৈতিক দল গঠনের উপর নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করেছিলেন, সংবিধানের শুরুতে ‘বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহীম’ যোগ করেন এবং জেনারেল জিয়ার পদাঙ্ক অনুসরণ করে আরেক উর্দিধারী জেনারেল এরশাদ ৮ম সংশোধনীর মাধ্যম ইসলামকে ‘রাষ্ট্রধর্ম’ ঘোষণা করেছিলেন।

মতবিনিময় সভায় প্রতিমন্ত্রী বলেন, জাতির পিতা আমাদের জন্য যা যা বলেছেন তাই আমাদের জন্য আইন। আর তার সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাদের যা যা করতে বলবেন তাই আমাদের জন্য আইন ও অবশ্য পালনীয়।

তিনি বলেন, আমাদের কণ্ঠ দিয়ে বঙ্গবন্ধু’র কথা উচ্চারণ করতে হবে, এটাই আমাদের দায়িত্ব। আমাদের কণ্ঠ যেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী’র কথা ও চিন্তার বহিঃপ্রকাশ হয়। বঙ্গবন্ধু ও তার সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক গৃহীত কোনও সিদ্ধান্ত বা নির্দেশ বিষয়ে আমাদের মনে যেন কোনও প্রশ্ন না থাকে। কারণ, উনি আমাদের চেয়ে সব বিষয়ে বেশি জানেন এবং বেশি ভেবেই সিদ্ধান্ত দেন, নির্দেশনা দেন।

আরও পড়ুন:


আজ জেল হত্যা দিবস

‘নৌকায় ভোট না দিলে মসজিদে নামাজ পড়তে দিবো না’

মিজানুর রহমান আজহারীকে ব্রিটেনে নিষিদ্ধ করতে সংসদে প্রস্তাব

দর্শকদের হুমকিতে দিশেহারা ভারতীয় ক্রিকেটাররা


সভায় উপস্থিত হাইকমিশনের কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্য করে ডা. মুরাদ বলেন, দুর্নীতি বিষয়ে আমাদের সব সময় সজাগ থাকতে হবে। বিশেষ করে মানি লন্ডারিং বিষয়ে। কোনভাবেই মানি লন্ডারিং বা টাকা পাচার হতে দেওয়া যাবে না। মানি লন্ডারিং এর ইতিহাস বলতে গিয়ে তিনি বাংলাদেশের সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া এবং তার দুই পুত্রের কথা উল্লেখ করেন। 

অ্যাম্বাসেডর ড. শহিদুল ইসলামের সভাপতিত্বে মত বিনিময় সভায় পলিটিক্যাল মিনিস্টার বিগ্রেডিয়ার হাবিব ও অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। 

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

রাজশাহী মহানগর আ’লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি কামাল

অনলাইন ডেস্ক

রাজশাহী মহানগর আ’লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি কামাল

রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পেয়েছেন বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মাদ আলী কামাল। রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন দলের প্রেসিডিয়াস সদস্য মনোনীত হওয়ায় তার স্থলে মোহাম্মাদ আলী কামালকে দায়িত্বে আনা হয়েছে।

শনিবার (২৭ নভেম্বর) বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়ার সই করা এক চিঠিতে তাকে এ দায়িত্ব দেওয়া হয়।

চিঠিতে বলা হয়, রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মাদ আলী কামালকে মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। দলের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদ এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

ভারপ্রাপ্ত সভাপতির দায়িত্ব দেওয়ায় দলের সভাপতি শেখ হাসিনা এবং কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের প্রতি আন্তরিক কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন মোহাম্মাদ আলী কামাল।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

আমি আ.লীগের একজন সমর্থক হিসেবে থাকতে চাই :জাহাঙ্গীর

অনলাইন ডেস্ক

আমি আ.লীগের একজন সমর্থক হিসেবে থাকতে চাই :জাহাঙ্গীর

আমি আওয়ামী লীগের একজন সমর্থক হিসেবে থাকতে চাই বলে জানিয়েছেন গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের বহিষ্কৃত সাধারণ সম্পাদক ও বরখাস্ত সিটি মেয়র জাহাঙ্গীর আলম। তিনি দাবি করে বলেন, আমি রাজনৈতিক ষড়যন্ত্রের শিকার।

শুক্রবার রাতে তিনি এসব কথা বলেন।

জাহাঙ্গীর আলম বলেন, আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও আমার অভিভাবক যে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তা আমি মাথা পেতে মেনে নিয়েছি। আমি বিশ্বাস করি বঙ্গবন্ধুকন্যা একদিন আসল সত্যটা জানবেন। তখন তার ভুল ভাঙবে।

তিনি বলেন, আমি জাতির পিতাকে নিয়ে কোনো নেতিবাচক কথা বলিনি। আমার আড়াই-তিন ঘণ্টার কথাকে সুপার এডিট করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। ছোটবেলা থেকেই বাবা-মায়ের মুখে জাতির পিতার কথা শুনে এবং স্কুলজীবন থেকে ছাত্ররাজনীতি- অদ্যাবধি জাতির পিতাই আমার আদর্শ। তাঁর আদর্শ নিয়েই রাজনীতি করে এসেছি। কাজেই তাঁকে কটাক্ষ করা আমার দ্বারা সম্ভব নয়। 

আরও পড়ুন:


দ. আফ্রিকার করোনার নতুন ধরন খুবই ভয়ঙ্কর : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

একই ইউপিতে বাবা-ছেলে ও আপন দুই ভাই চেয়ারম্যান প্রার্থী!

বেগম জিয়ার জন্য আলাদা আইন করার সুযোগ নেই: হানিফ


কিন্তু আমার রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ আমার বিভিন্ন বক্তব্যকে সুপার এডিট করে আমাকে ঘায়েল করেছে। সেই সঙ্গে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তা ছড়িয়ে তারাও শাস্তিযোগ্য অপরাধ করেছে। যারা জাতির পিতার নামে এ মিথ্যাচার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে দিল তাদেরও শাস্তি চাই। 

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

চড় মেরে এরপর জোর করে কলা খাইয়ে দিল আ.লীগ নেতা

অনলাইন ডেস্ক

চড় মেরে এরপর জোর করে কলা খাইয়ে দিল আ.লীগ নেতা

এবার ভাইরাল হলো এক চেয়ারম্যান প্রার্থীর কর্মীকে চড় মারার ভিডিও। আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী সেই প্রার্থীর কর্মীকে চড় মারেন স্থানীয় উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আবুল হোসেন। ভিডিওতে চড় মারার পর ওই কর্মীকে জোর করে কলা খাইয়ে দেওয়ায় দৃশ্যও ধরা পড়ে। এই ভিডিও ভাইরাল হবার পর  নির্বাচনী মাঠে একদিকে যেমন ভীতির সৃষ্টি হয়েছে, অন্যদিকে সাধারণ মানুষের মাঝে হাস্যরসেরও সৃষ্টি হয়েছে। 

বৃহস্পতিবার বিকালে নাটোরের বাগাতিপাড়ায় জামনগর ইউপি নির্বাচনে স্বতন্ত্র (আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী) চেয়ারম্যান প্রার্থীর কর্মীকে চড় মারেন উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আবুল হোসেন।

শনিবার সকালে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সিসিটিভির একটি ফুটেজ ছড়িয়ে পড়ে।

স্থানীয়রা জানান, বৃহস্পতিবার সকালে জামনগর ইউনিয়নে নৌকার প্রার্থী আব্দুল কুদ্দুসের নির্বাচনী প্রচারে যান বাগাতিপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল হোসেনসহ কয়েকজন। এ সময় জামনগর বাজারে আনারস প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করা স্বতন্ত্র প্রার্থী কলেজ শিক্ষক শাহ আলমের প্রচার শেষে বাড়ি ফেরার সময় তার কর্মীকে চড়-থাপ্পড় মারেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল হোসেন। এ ঘটনাটি ধরা পড়ে ওই বাজারের একটি দোকানে বসানো সিসিটিভি ক্যামেরায়।

আরও পড়ুন:


দ. আফ্রিকার করোনার নতুন ধরন খুবই ভয়ঙ্কর : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

একই ইউপিতে বাবা-ছেলে ও আপন দুই ভাই চেয়ারম্যান প্রার্থী!

বেগম জিয়ার জন্য আলাদা আইন করার সুযোগ নেই: হানিফ


 

এদিকে অভিযোগ অস্বীকার করে বাগাতিপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যাপক আবুল হোসেন বলেন, নিজের দলের কর্মী হওয়ায় তাকে একটি কলা খাওয়ানো হয়েছে মাত্র। এর বেশি কিছু না। 

প্রসঙ্গত, রোববার তৃতীয় ধাপের ইউপি নির্বাচনে নাটোরের বাগাতিপাড়ার ৫টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

এখনও পাসপোর্ট হাতে পাননি খালেদা জিয়া

মারুফা রহমান

এখনও হাতে পাসপোর্ট পাননি খালেদা জিয়া। এজন্য বিদেশ যাওয়ার অনুমতির পাশাপশি তার পাসপোর্ট সংক্রান্ত জটিলতা নিরসনে সরকারকে মানবিক সহযোগিতার আহ্বান জানিয়েছেন, বিএনপি নেতারা। দলের নেতারা বলছেন, লন্ডন অথবা আমেরিকায় তাঁর পরবর্তী চিকিৎসা সম্ভব। তবে এত দীর্ঘ পথের ধকল না সইতে পারলে খালেদা জিয়াকে আগে ব্যাংকক অথবা সিঙ্গাপুরে নিয়ে ডায়াগনসিস শুরু করা হবে।

সম্প্রতি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার অবস্থা সংকটাপন্ন জানিয়ে তাঁর চিকিৎসার জন্য বিদেশে যাওয়ার অনুমতি চেয়ে ধারাবাহিক কর্মসূচী পালন করছে তাঁর দল। খালেদা জিয়ার পরিবার, ব্যক্তিগত চিকিৎসক, এবং রাজনৈতিক নানা অঙ্গন থেকেও বলা হচ্ছে যত দ্রুত সম্ভব তাঁকে দেশের বাইরে নিতে হবে। তবে অনুমতি পেলেও এখনও পার্সপোট হাতে পাননি বিএনপি নেত্রী।

অনুমতি পেলে বিএনপি চেয়ারপারসনের শারীরিক অবস্থার ওপর নির্ভর করবে তিনি কোন দেশে যাবেন। লন্ডন আমেরিকার পাশাপাশি তালিকায় থাকছে ব্যাংকক কিংবা সিঙ্গাপুরের হাসপাতাল।

বিদেশে যাওয়ার জন্য রাষ্ট্রপতির কাছে ক্ষমা চাওয়ার বিষয়ে, বিএনপি নেতারা জানান, এমন কিছুর সম্ভাবনা নেই।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

জনগণ এখন আমাদের আ.লীগের দালাল বলে: সংসদে চুন্নু

অনলাইন ডেস্ক

জনগণ এখন আমাদের আ.লীগের দালাল বলে: সংসদে চুন্নু

‌‘সরকারের কথা বলতে গিয়ে এমন অবস্থা হয়েছে মাননীয় স্পিকার, পাবলিক এখন আমাদের আওয়ামী লীগের দালাল বলে’ জানিয়েছেন জাতীয় পার্টির মহাসচিব মুজিবুল হক চুন্নু।

শনিবার জাতীয় সংসদে ‘মহাসড়ক বিল-২০২১’ পাসের আলোচনায় আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের এক বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে তিনি এ কথা বলেন।

জনমত যাচাইয়ের প্রস্তাব দিয়ে মুজিবুল হক চুন্নু বলেন, এই সরকার অনেক কাজ করেছে। কিন্তু ৭-৮ বছর ধরে টঙ্গী-গাজীপুর সড়কে ভয়াবহ অবস্থা। এখানে যাওয়া যায় না। ঘণ্টার পর ঘণ্টা আটকে থাকতে হয়। ইহজগতে এই রাস্তা দিয়ে আর যাওয়া যাবে কিনা, তা তিনি সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রীর কাছে জানতে চান।

আরও পড়ুন:


দ. আফ্রিকার করোনার নতুন ধরন খুবই ভয়ঙ্কর : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

একই ইউপিতে বাবা-ছেলে ও আপন দুই ভাই চেয়ারম্যান প্রার্থী!

বেগম জিয়ার জন্য আলাদা আইন করার সুযোগ নেই: হানিফ


 

সংসদ সদস্যদের বক্তব্যের জবাব দিতে গিয়ে সড়ক পরিবহণমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের শুধু বিরোধিতা না করে সরকারের ভালো কাজের প্রশংসা করারও আহ্বান জানান বিরোধী দলের প্রতি।

জবাবে মুজিবুল হক হক চুন্নু বলেন, আমরা সরকারের ভালো কাজের প্রশংসা করি না, এটা ঠিক নয়। তিনি বলেন, সরকারের কথা বলতে গিয়ে এমন অবস্থা হয়েছে মাননীয় স্পিকার, পাবলিক এখন আমাদের আওয়ামী লীগের দালাল বলে। আর কত বলব, বলেন। আমরা এখন দালালি নামটা মুছতে চাই। তারপরও যদি আপনাদের মন না ভরে, তাহলে তো কিছু করার নেই।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর