পাকিস্তানের জয় উদযাপন করে জেলে গিয়েও চাকরি বাঁচাতে পারেননি ভারতীয় সেই শিক্ষিকা
পাকিস্তানের জয় উদযাপন করে জেলে গিয়েও চাকরি বাঁচাতে পারেননি ভারতীয় সেই শিক্ষিকা

পাকিস্তানের জয় উদযাপন করে জেলে গিয়েও চাকরি বাঁচাতে পারেননি ভারতীয় সেই শিক্ষিকা

অনলাইন ডেস্ক

বিশ্বকাপে ভারতের বিপক্ষে পাকিস্তানের প্রথমবারের মতো জয়ে বাঁধভাঙা উল্লাসে ফেটেছে গোটা পাকিস্তান। ম্যাচে বিরাট কোহলিদের ১০ উইকেটের বড় ব্যবধানে পরাজিত করেছে তারা। সেই জয়োউল্লাসে সামিল হয়ে ভারতীয় এক শিক্ষিকা নাফিসা আতারি চাকরি হারানোর পরও যেতে হয়েছে জেলে। শিক্ষিকা নাফিসা আতারি রাজস্থানের উদয়পুরের নিরজা মোদি বিদ্যালয়ে শিশুদের পড়ান।

  

ভারতীয় এক সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, 'টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচের দু’ দিন পরে রাজস্থানের উদয়পুরের নিরজা মোদী স্কুলের এই শিক্ষিকার জায়গা হয়েছিল হাজতে। অপরাধ, তাঁর হোয়াটসঅ্যাপ স্টেটাস, যেখানে পাকিস্তানের জয়ের উল্লাস লেখা ছিল। '  

উদয়পুরের অম্বা মাতা থানার পুলিশ নাফিসাকে গ্রেফতার করে। অম্বা মাতা থানার পুলিশ আধিকারিক নরপত সিংহ জানান, নাফিসাকে ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৫৩ বি (জাতীয় সংহতি বিরোধী) ধারায় অভিযুক্ত করা হয়েছে। তাঁকে আদালতে তোলা হলে তাঁর জেল হয়।

অন্যদিকে, ভারত-পাকিস্তান ম্যাচের পর দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে বহু মুসলিমকে গ্রেফতার করা হয়েছে।  

গত ২৪ অক্টোবর পাকিস্তানের কাছে বিরাট কোহলীর ভারত ১০ উইকেটে হারার পর নাফিসা তাঁর হোয়াটসঅ্যাপ স্টেটাসে লিখেছিলেন, ‘জিত গ্যায়ে…. উই ওয়ান’ (আমরা জিতে গিয়েছি)। সঙ্গে পাকিস্তানের ক্রিকেটারদের ছবি দেন। এই হোয়াটসঅ্যাপ স্টেটাস তাঁর কোনও এক ছাত্রের বাবার নজরে আসে। তিনি বাকিদের তা পাঠিয়ে দেন। এরপর এটি ভাইরাল হতে সময় লাগেনি। নাফিসার জেল হয়। স্কুলের চাকরিটিও খোয়াতে হয়।

আরও পড়ুন:


টিকটকার অপু ভাইসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র গ্রহণ

মাদরাসা শিক্ষকের হাতুড়িপেটায় আহত ১০ ছাত্র

মিজানুর রহমান আজহারীকে ব্রিটেনে নিষিদ্ধ করতে সংসদে প্রস্তাব


শিক্ষিকা নাফিসা পরে ‘অপরাধ’-এর জন্য ক্ষমা চেয়ে নেন । রাজস্থানের একটি টেলিভিশন চ্যানেলে তিনি বলেন, ‘‘সে দিন একজন আমার স্টেটাস দেখে হোয়াটসঅ্যাপেই জানতে চেয়েছিলেন, আমি পাকিস্তানকে সমর্থন করছি কি না। সঙ্গে কিছু হাসির ইমোজিও ছিল। মনে হয়েছিল হাল্কা মেজাজে মজা করে আমাকে এই প্রশ্ন করা হয়েছে। আমিও হাসতে হাসতেই বলেছিলাম ‘হ্যাঁ’। কিন্তু তার মানে তো এই নয় যে, আমি পাকিস্তানকে সমর্থন করি। আমি ভারতীয়। ভারতকে ভালবাসি। ’’

তবে আপাতত জামিনে মুক্ত নাফিসা বাড়িতে স্বামী এবং সন্তানের সঙ্গে রয়েছেন। আইনি লড়াই চালাচ্ছেন।  

news24bd.tv রিমু  

 

;